পর্যটকদের জন্য উন্মুক্ত হচ্ছে বান্দরবানের স্বর্ণ মন্দির

463

বাটিং মারমা,বান্দরবান প্রতিনিধি : বান্দরবানের অন্যতম পর্যটন কেন্দ্র স্বর্ণ মন্দির আগামী ১৬ নভেম্বর বুধবার থেকে ফের পর্যটকদের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হচ্ছে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, রোববার রাতে বান্দরবানের কেন্দ্রীয় রাজগুরু বৌদ্ধ বিহারে কঠিন চীবরদান উৎসব শেষে এক মতবিনিময় সভায় স্বর্ণ মন্দিরের প্রতিষ্ঠাতা উ প ঞ ঞা জোত মহাথেরো (উচহ্লা ভান্তে) এ ঘোষণা দেন।

সভায় উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর, জেলা দায়রা জজ শফিকুর রহমান, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ক্য শৈ হ্লা, জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিক ও পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায়, পৌর মেয়র ইসলাম বেবীসহ অনেকে।

প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে,নিরাপত্তা বিঘিœত হওয়ার কারনে মন্দির কর্তৃপক্ষ দীর্ঘদিন ধরে মন্দিরে পর্যটকদের প্রবেশ নিষিদ্ধ করলেও এবার মন্দিরের নিরাপত্তায় পাঁচটি সিসি ক্যামেরা বসানো হবে। এছাড়াও প্রতিষ্ঠানের পবিত্রতা এবং নিরাপত্তায় পাঁচজন পুলিশ সদস্য এ স্থানে নিয়মিত নিয়োজিত থাকবেন। আগামী ১৬ নভেম্বর পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর, জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিক ও পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় মন্দির পরিদর্শন করে পর্যটকদের জন্য উন্মুক্ত করে দিবেন।

জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বণিক অজকের দর্পণকে বলেন,পর্যটকদের চাহিদা অনুসারে পর্যটন কেন্দ্রটি খুলে দেয়ার জন্য অনুরোধ করা হলে গুরু ভান্তে খুলে দেওয়ার জন্য সম্মতি জ্ঞাপন করেন।

এদিকে সকাল ১০টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত পর্যটকরা যাতে মন্দির দর্শন করতে পারে সেজন্য খোলা রাখা হবে, তবে প্রার্থনার জন্য দুপুরে দুই ঘণ্টা বন্ধ থাকবে এবং এসময় কোন পর্যটক মন্দির পরিদর্শন করতে পারবেনা বলে জানান মন্দির কর্তৃপক্ষ।

প্রসঙ্গত, মন্দিরের পবিত্রতা নষ্ট ও পর্যটকদের হাতে মন্দিরের ভক্তদের নানা ভাবে হয়রানি, মন্দিরের সম্পদ নষ্ট করার ঘটনায় মন্দির কর্তৃপক্ষ চলতি বছরের ২০ ফেব্রয়ারি থেকে পর্যটকদের ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে।

Comments

comments