বৃহস্পতিবার , ১৫ই নভেম্বর, ২০১৮ ইং , ১লা অগ্রহায়ণ, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ , ৬ই রবিউল-আউয়াল, ১৪৪০ হিজরী
NEWSPOST24
অর্থের অভাবে চিকিৎসা বন্ধ মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার হুমায়ুন কবিরের অর্থের অভাবে চিকিৎসা বন্ধ মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার হুমায়ুন কবিরের
৭১’এ যার হাতিয়ার গর্জে উঠলে রণাঙ্গনে পাক বাহিনীর বুকে কাঁপন ধরিয়ে দিত তিনি পিরোজপুর সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার কে এম হুমায়ুন কবির (খোকন তালুকদার)।... অর্থের অভাবে চিকিৎসা বন্ধ মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার হুমায়ুন কবিরের

৭১’এ যার হাতিয়ার গর্জে উঠলে রণাঙ্গনে পাক বাহিনীর বুকে কাঁপন ধরিয়ে দিত তিনি পিরোজপুর সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার কে এম হুমায়ুন কবির (খোকন তালুকদার)। ৯নং সেক্টরের এই বীর মুক্তিযোদ্ধার মুক্তিবার্তা নং- ০৬০৫০১০১৬১ এবং গেজেট নং- ১১১।

টানা ৪০ বছর পিরোজপুর সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডারের দায়িত্ব পালন করা এই বীর মুক্তিযোদ্ধা জীবন সায়হ্নে এসে থমকে গিয়েছেন অর্থের কাছে। নেই চিকিৎসা কারানোর জন্য পর্যাপ্ত অর্থ, হাত বাড়িয়েছেন সমাজের বিত্তবান ও স্বহৃদয়বান মানুষের কাছে।

মুক্তিযোদ্ধা হুমায়ুন কবির এর পারিবারিক সূত্রে জানাগেছে, চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী চলতি বছরের ০৩ জানুয়ারি সিএমএইচ এ বাইপাস অপারেশন করানো হয়েছে। এরপর ১৪ জানুয়ারি হাসপাতাল থেকে তাকে ছাড়পত্র দেয়া হয়।

পরে খুব অসুস্থ হলে পড়লে গত ১০ এপ্রিল আবারো ঢাকা সিএমএইচ এ ভর্তি করা হয় এবং চিকিৎসা চলাকালীন অবস্থায় স্টোক ও হৃদরোগে আক্রান্ত হয়। আর্থিক সঙ্গতি না থাকার কারণে ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত চিকিৎসাধীন অবস্থায় ছিলেন পরে পিরোজপুরে নিয়ে যাওয়া হয়।

মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার হুমায়ুন কবির তালুকদার এর ছেলে নাঈম হোসেন জানান, চিকিৎসকদের পরামর্শে উন্নত চিকিৎসার জন্য ভারতের চেন্নাই নিতে হবে। সেখানে প্রায় ৮ থেকে ১০ লাখ টাকা খরচ হবে যা আমাদের পক্ষে সম্ভব নয়।

অর্থের অভাবে তাঁর চিকিৎসা প্রায় বন্ধ হয়ে যাওয়া উপক্রম হয়েছে। এরমধ্যে আত্মীয়-স্বজন ও পরিচিতদের কাছ থেকে ধার ও ঋণ করে ৮ থেকে ১০ লাখ টাকা খরচ করে ফেলেছি। যা ফেরত পাওয়ার জন্য প্রতিনিয়ত তারা চাপ দিয়ে যাচ্ছে।

Comments

comments

Scroll Up

Send this to a friend