সিসিটিভি ক্যামেরার আওতায় আসছে আপিল বিভাগে

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

দুর্নীতি মামলায় কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের ওপর শুনানিকে কেন্দ্র করে আইনজীবীদের হট্টগোলের পরিপ্রেক্ষিতে প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন আপিল বিভাগের এক নম্বর আদালত কক্ষে সিসি ক্যামেরা বসাতে যাচ্ছে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন। আগামী ১২ ডিসেম্বরের আগেই এ ক্যামেরা বসানো হবে বলে জানা গেছে।

সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসনের এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও খালেদা জিয়ার আইনজীবী মাহবুব উদ্দিন খোকন। তবে সুপ্রিম কোর্টের মুখপাত্র মোহাম্মদ সাইফুর রহমান এ বিষয়ে কোনো কথা বলতে রাজি হননি।

আপিল বিভাগে সিসি ক্যামেরা বসানোর উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বলেন, ‘ওইদিন ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটেছে। বহিরাগতরা এবং সুপ্রিম কোর্টে তালিকাভুক্ত নন এমন আইনজীবীরা সেদিন কলঙ্কজনক ঘটনা ঘটায়। এ কারণে যদি সিসি ক্যামেরা বসানোর কোনো সিদ্ধান্ত হয়ে থাকে, তবে সেটাকে স্বাগত জানাই। অবশ্যই এটা সঠিক সিদ্ধান্ত।’

খালেদা জিয়ার আইনজীবী বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব ব্যারিস্টার এ এম মাহবুবউদ্দিন খোকন বলেন, ‘সেদিন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেলরা আপিল বিভাগে উপস্থিত ছিলেন। তারাও হইচই করেছেন। এদের অধিকাংশই আপিল বিভাগে তালিকাভুক্ত নন। ওইদিন সরকারি দলের কেউ কেউ কালো কোট পরে আদালতে এসেছিলেন। তাই বহিরাগতদের চিহ্নিত করতে ও অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা এড়াতে সিসি ক্যামেরা বসানোর সিদ্ধান্ত নেয়া হলে তাকে স্বাগত জানাই।’

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

Comments

comments