পল্লবীতে অবিস্ফোরিত আরেকটি বোমা নিষ্ক্রিয়

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

রাজধানীর পল্লবী থানা কম্পাউন্ডের ভেতরে একটি বোমা বিস্ফোরিত হয়ে চার পুলিশ সদস্যসহ পাঁচ জন আহত হওয়ার পর আরেকটি অবিস্ফোরিত বোমা নিষ্ক্রিয় করছে কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের (সিটিটিসি) বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট।

সিটিটিসির স্পেশাল অ্যাকশন গ্রুপের উপ-কমিশনার আব্দুল মান্নান বলেন, ‘আরেকটি আইইডি রয়েছে। আমরা সেটি নিষ্ক্রিয় করার চেষ্টা করছি। আগের আইইডিটি আমাদের বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট আসার আগেই বিস্ফোরিত হয়েছে। আইইডির আদলে তৈরি হাতবোমাগুলো খুবই সাধারণ মানের। সন্ত্রাসীরা এসব কেন, কী উদ্দেশ্যে তৈরি করেছিল তা জানার চেষ্টা চলছে।’

এর আগে বুধবার (২৯ জুলাই) ভোরে পল্লবী থানা কম্পাউন্ডের ভেতরে ওজন মাপার মেশিনের আদলে তৈরি একটি আইইডি বিস্ফোরিত হয়ে চার পুলিশ সদস্যসহ পাঁচ জন আহত হন।

পুলিশ কর্মকর্তাদের দাবি, পল্লবী থানা পুলিশ দু’টি আগ্নেয়াস্ত্রসহ তিন সন্ত্রাসীকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। সন্ত্রাসীদের কাছে ওজন মাপার মেশিনের মতো একটা যন্ত্র ছিল। ওই যন্ত্রটি ডিউটি অফিসারের কক্ষে রাখা হলে তা বিস্ফোরিত হয়।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার (মিডিয়া) ওয়ালিদ হোসেন বলেন, ‘আটক হওয়া সন্ত্রাসীরা ভাড়াটে খুনি। পুলিশের কাছে তথ্য ছিল তারা পল্লবীর স্থানীয় একজন রাজনৈতিক নেতাকে হত্যা করবে। বিষয়টি তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্তের পর বিষয়গুলো পরিষ্কার হবে।’

তবে পুলিশের একাধিক সূত্র জানায়, সাধারণ কোনও অপরাধীর এই ধরনের বোমা তৈরি করার কথা নয়। এসব বোমা জঙ্গি সদস্যরা তৈরি করে থাকে। বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করলে আসল রহস্য বের হয়ে আসবে।

সংশ্লিষ্ট একটি সূত্র জানায়, রাতে থানা কম্পাউন্ডের ভেতরে পরিত্যক্ত অবস্থায় একটি বোমা দেখতে পেয়ে তারা বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিটকে খবর দেন। কিন্তু বোম্ব ডিসপোজাল ইউনিট ঘটনাস্থলে যাবার আগেই বোমাটি বিস্ফোরিত হয়।

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

Comments

comments