করোনায় মারা গেলেন আরও ৩৪ জন, আক্রান্ত ১৯৭৩

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৩৪ জন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত মোট ৩ হাজার ৯৪১ জনের মৃত্যু হলো। নমুনা পরীক্ষায় গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছেন এক হাজার ৯৭৩ জন; যা গতকালের তুলনায় ২৭২ জন কম। এ নিয়ে এ পর্যন্ত মোট শনাক্ত হলেন ২ লাখ ৯৪ হাজার ৫৯৮ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৩ হাজার ৫২৪ জন; যা গতকালের তুলনায় ৫৭২ জন বেশি। এ নিয়ে মোট সুস্থ হলেন এক লাখ ৭৯ হাজার ৯১ জন।

রবিবার (২৩ আগস্ট) স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত করোনা বিষয়ক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সর্বশেষ এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ১০ হাজার ৯৫৯টি, নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ১০ হাজার ৮০১টি। এখন পর্যন্ত ১৪ লাখ ৪২ হাজার ৬৫৬টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। নমুনা পরীক্ষার মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত হয়েছেন এক হাজার ৯৭৩ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় শনাক্তের হার ১৮ দশমিক ২৭ শতাংশ। ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৬০ দশমিক ৭৯ শতাংশ এবং শনাক্ত বিবেচনায় মৃত্যুর হার এক দশমিক ৩৪ শতাংশ। মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ২৪ জন পুরুষ জন এবং ১০ জন নারী। এখন পর্যন্ত পুরুষ ৩ হাজার ১০৬ জন এবং নারী মৃত্যুবরণ করেছেন ৮৩৫ জন।

বিভাগ বিশ্লেষণে দেখা যায়, মৃত্যুবরণকারীদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ১৮ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৫ জন, রাজশাহী বিভাগে ৪ জন, বরিশাল বিভাগে একজন, সিলেট বিভাগে ৪ জন এবং রংপুর বিভাগে ২ জন রয়েছেন। ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছেন ৩১ জন এবং ৩ জন বাড়িতে মৃত্যুবরণ করেছেন।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে স্বাস্থ্য অধিদফতর আরও জানায়, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে রাখা হয়েছে ৫৭৩ জনকে। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ২০ হাজার ৬১৯ জন। ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশন থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৫৭৪ জন, এখন পর্যন্ত ছাড়া পেয়েছেন ৪৬ হাজার ১২০ জন। এখন পর্যন্ত আইসোলেশন করা হয়েছে ৬৬ হাজার ৭৩৯ জনকে।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীন থেকে উৎপত্তি হওয়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৩টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে। গত ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারী ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

বাংলাদেশে প্রথম কোভিড-১৯ রোগীশনাক্ত হন ৮ মার্চ এবং এ রোগে আক্রান্ত প্রথম রোগীর মৃত্যু হয় ১৮ মার্চ।

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

Comments

comments