বন্যায় ৫ হাজার ৯৭৩ কোটি টাকার ক্ষতি

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

এবার চার দফায় ৪৬ দিনের বন্যায় সারাদেশে পাঁচ হাজার ৯৭২ কোটি ৭৪ লাখ ৬২ হাজার ৭৬ কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছে সরকার।

মঙ্গলবার (২৫ আগস্ট) সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে চলতি বছরের বন্যায় ক্ষয়ক্ষতির হিসাব তুলে ধরেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান। এসময় মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোহসীন উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ক্ষয়ক্ষতির চিত্র অনুযায়ী মন্ত্রণালয়গুলো পুনর্বাসন পরিকল্পনা নেবে। দেশের ৩৩ জেলা বন্যাকবলিত হয়েছে, সবমিলিয়ে ৪০ জেলা বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

এবারের বন্যায় ঘরবাড়ি, আশ্রয়কেন্দ্র, গবাদিপশু, শস্যক্ষেত ও বীজতলা, মৎস্য খামার, স্কুল-কলেজ-মাদ্রাসা, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান, বিদ্যুৎ লাইন, মোবাইল ফোন লাইন, টেলিফোন টাওয়ার, ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান, সড়ক, ব্রিজ-কালভার্ট, নদী, হাওর, নৌকা-ট্রলার, বাঁধ, জাল, বনাঞ্চল, নার্সারি, কৃষি, নলকূপ, ল্যাট্রিন, জলাধার, হাসপাতাল-ক্লিনিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে জানান ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী।

ক্ষতিগ্রস্ত ৩৩টি জেলা হলো- লালমনিরহাট, কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, নীলফামারী, রংপুর, সুনামগঞ্জ, সিরাজগঞ্জ, বগুড়া, জামালপুর, সিলেট, টাঙ্গাইল, রাজবাড়ী, মাদারীপুর, মানিকগঞ্জ, ফরিদপুর, নেত্রকোণা, নওগাঁ, শরীয়তপুর, ঢাকা, মুন্সিগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ, ব্রাক্ষণবাড়িয়ায়, চাঁদপুর, নোয়াখালী, লক্ষ্মীপুর, নাটোর, হবিগঞ্জ, ময়মনসিংহ, রাজশাহী, মৌলভীবাজার, গাজীপুর, গোপালগঞ্জ ও পাবনা।

এক প্রশ্নের জবাবে এনামুর রহমান বলেন, এবারের বন্যা ৪৬ দিন স্থায়ী ছিল। ১৯৯৮ সালে দেশের ৫০ শতাংশ এলাকা প্লাবিত হয়েছিলো, আর এবার প্লাবিত হয়েছে ৩০ শতাংশ এলাকা।

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

Comments

comments