রাজধানীতে ৯ তলা থেকে লাফ দিয়ে পড়ে সাবেক এমপিপুত্রের মৃত্যু

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

রাজধানীর কলাবাগান এলাকায় একটি ভবন থেকে লাফ দিয়ে আসিফ ইকবাল খান নামে এক ব্যারিস্টারের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। শ্বশুর বাড়ির পক্ষ থেকে আত্মহত্যার দাবি করা হলেও আসিফের পরিবারের অভিযোগ তাকে হত্যা করা হয়েছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।

শুক্রবার ভোরে কলাবাগান থানাধীন কাঁঠালবাগান ফ্রি স্কুল স্ট্রিটের ১৬৩ নম্বর বাসায় এ ঘটনা ঘটে।

আসিফ সিরাজগঞ্জ কামারখন্দ বাগবাড়ী এলাকার অ্যাডভোকেট শহিদুল ইসলাম খানের ছেলে। শহিদুল ইসলাম ১৯৮৬-৯০ মেয়াদে সিরাজগঞ্জ-৫ (বেলকুচি কামারখন্দ) আসনের এমপি ছিলেন। আসিফ ব্যারিস্টারি করার পর সুপ্রিম কোর্টে প্র্যাকটিস করছিলেন।

মৃত্যুর বিষয়ে জানতে নিহত আইনজীবীর শ্যালক নিশাদ বলেন, আসিফ ইকবাল মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন। শুক্রবার ভোররাতে তিনি বারান্দা থেকে আত্মহত্যা করেছেন।

আসিফের শ্বশুরবাড়ি সূত্রে জানা যায়, চার বছর আগে আসিফ বিয়ে করেন। এরপর থেকে তিনি কাঁঠালবাগানে শ্বশুর বাড়িতে থাকতেন। পারিবারিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে স্ত্রীর সঙ্গে তার মাঝেমধ্যে ঝগড়া হতো। গতরাতে আবারও স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হয়। একপর্যায়ে আসিফ নয় তলার বারান্দা থেকে রেলিংয়ের ওপর দিয়ে লাফিয়ে নিচে পড়ে যান। তাকে উদ্ধার ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে গেলে চিকিৎসক আসিফকে মৃত ঘোষণা করেন।

আসিফের বাবা শহিদুল ইসলাম জানান, আসিফ সু্প্রিমকোর্টের ব্যারিস্টার এবং মতিঝিলে দেশ ট্রেডিং করপোরেশনের লিগ্যাল অ্যাডভাইজারও ছিলেন। শ্বশুরবাড়ির লোকই ভোরে খবর দেয় আসিফের অবস্থা ভালো না। তাকে ঢাকা মেডিকেলে নেওয়া হয়েছে। পরে হাসপাতালে এসে আসিফে মৃতদেহ দেখতে পাই। আমাদের সন্দেহ আসিফকে মেরে ফেলা হয়েছে।

আইনজীবী আত্মহত্যার বিষয়ে জানতে কলাবাগান থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পরিতোষ চন্দ্র ঢাকাটাইমসকে বলেন, পারিবারিক দ্বন্দ্বের কারণে ভোররাতে ঘরের বারান্দা থেকে লাফ দিয়ে আসিফ আত্মহত্যা করেছেন বলে তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে জানতে পেরেছেন। পরে লাশ উদ্ধার করে ঢামেকের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

Comments

comments