জাতীয় পার্টি থেকে সোহেল রানার পদত্যাগ

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

সোমবার (১২ অক্টোবর) রাতে সোহেল রানা নিজেই গণমাধ্যমকে পদত্যাগের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এর আগে গত শনিবার (১০ অক্টোবর) জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদেরের কাছে ডাকযোগে পাঠানো এক চিঠিতে তিনি তার পদত্যাগের সিদ্ধান্তের কথা জানান।

তিনি বলেন, তৃণমূকলের নেতাকর্মীদের অবমূল্যা য়ন, যাদের ত্যা গ ও শ্রমে এ দল প্রতিষ্ঠিত সেই ত্যা গী নেতাকর্মীদের বঞ্চিত করাসহ নানা অনিয়মের কারণে পদত্যা্গ করেছি। যেই দলে ত্যা গীদের মূল্যারয়ন নেই সেই দলে থাকার প্রশ্নই ওঠে না।

এসব কারণে পার্টির প্রেসিডিয়াম মেম্বার, জাতীয় সাংস্কৃতিক পার্টির কেন্দ্রীয় সভাপতিসহ সব পদ পদবি থেকে পদত্যাগ করেন বলেও জানান সোহেল রানা।

সোহেল রানার পদত্যারগ বিষয়ে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যািন গোলাম মোহাম্মদ কাদের বলেন, চিঠি আমার হাতে আসেনি, বিষয়টা আমি জানিও না। সোহেল রানা দীর্ঘদিন ধরে জাপার রাজনীতিতে নিস্ক্রিয় বলেও জানান তিনি।
এদিকে চিঠি পাঠানো কিংবা সোহেল রানার পদত্যাংগের বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে জানিয়েছেন দলের যুগ্ম দপ্তর সম্পাদক মাহমুদ আলম।

সোহেল রানা বলেন, এসএ পরিবহনে রেজিস্ট্রার্ড করে পাঠানো চিঠি দুদিদনের মধ্যে পৌঁছানোর কথা। পাঠানোর পর থেকে পার্টির চেয়ারম্যালন জিএম কাদেরের কাছ থেকে কোনো ফোন আসেননি বলেও জানান চিত্রনায়ক সোহেল রানা।

মাসুদ পারভেজ ছাত্রজীবন থেকে ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত। ছিলেন ঢাবির ইকবাল হলের নির্বাচিত ভিপি।

তিনি জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যাান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের হাত ধরে ২০০৯ সালে দলটিতে যোগ দেন। তাকে এরশাদের নির্বাচন বিষয়ক উপদেষ্টা ও প্রেসিডিয়াম সদস্য করে।

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

Comments

comments