দুর্নীতিবাজ নেতা-কর্মীসহ কর্মকর্তাদের স্থান হচ্ছে জেলখানা : মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম বলেছেন, প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা বিশ্বের সর্বশ্রেষ্ঠ সৎ ও আদর্শবান রাষ্ট্র প্রধান। তিনি সব সময় দেশের ও দেশের মানুষের কলান্যের চিন্তায় নিয়োজিত থাকেন। তিনি ও তার পরিবারের কোন সদস্য নুন্যতম কোন দুর্নীতির সাথে জড়িত নয়। কেননা, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দুর্নীতি পছন্দ করেন না। তাই তার নির্দেশে দুর্নীতিবাজ দলীয় নেতা-কর্মীসহ কর্মকর্তাদের স্থান হচ্ছে জেলখানা। এখন দেশের কেউ দুর্নীতি করে মাফ পাচ্ছেন না। বিএনপি সরকারের আমলে ব্যাপক দুর্নীতি করার অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া ও তার ছেলেরা দণ্ডপ্রাপ্ত হয়েছেন।

রবিবার (২২ নভেম্বর) দুপুরে উপজেলার কলারদোয়ানিয়া ইউনিয়নের মুগারঝোর মাধ্যমিক ও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পৃথক দু’টি চারতলা ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

উপজেলা যুবলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও ওই বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মো. নাজমুল হুদা স্বপনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ওই অনুষ্ঠানে উপস্থিত শিক্ষক ও বিভিন্ন কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্য করে মন্ত্রী অরো বলেন, দুর্নীতি করে কেহই মাফ পাবেন না। তাই সততার সাথে দায়িত্ব পালন করুন। শিক্ষার্থী সহ নিজ নিজ সন্তানদের  আদর্শ শিক্ষা দিন। সন্তান যেন মাদকাসক্ত ও চরিত্রহীন না হয় সে দিকে খেয়াল রাখতে হবে। স্কুল-কলেজের অতীতের নিয়োগ বানিজ্যের ইতিহাস ভুলে যান। আমি শেখ হাসিনার একজন ক্ষুদ্র কর্মী হিসাবে তার আদর্শে উজ্জিবীত হয়ে  দুর্নীতি করি না। কারো দুর্নীতিও সহ্য করবো না। 

এ ছাড়া মন্ত্রী ওই দিন উপজেলার দীর্ঘার লেবুজিলবুনিয়া সড়ক, উত্তর পূর্ব কলারদোয়ানিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পূর্ব কলারদোয়ানিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কলারদোয়ানিয়া বাজার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে একাডেমি ভবন ও সরকারি প্রাথমি বিদ্যালয়ের পৃথক ২টি ভবন, বেলুয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ছয়ঘরিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, কলারদোয়ানিয়া বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি উম্মোচন, মুনিরাবাদ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন ও করেন। একই দিন বিকালে মন্ত্রী লেবুজিল বুনিয়া ইসলামিয়া ফাজিল মাদরাসা মাঠে সুধী সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য প্রদান করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক আবু আলী মোহাম্মাদ সাজ্জাদ হোসেন, জেলা পুলিশ সুপার মো. হায়াতুল ইসলাম খান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ওবায়দুর রহমান, এলজিইডির জেলা নির্বাহী প্রকৌশলী সুশান্ত কুমার রায়, জেলা শিক্ষা প্রকৌশলী প্রতিভা রানী, জেলা পরিষদের সদস্য মো. সুলতান মাহামুদ খান, উপজেলা যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক চঞ্চল কান্তি বিশ্বাস প্রমুখ।

0
0
সর্বমোট
0
শেয়ার

Comments

comments