শিরোনাম

২ এপ্রিল শুরু হতে পারে রোজা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৯৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আগামী বছর (২০২২) রোজা শুরুর সম্ভাব্য তারিখ জানিয়েছে মিশরের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ন্যাশনাল রিসার্চ ইনস্টিটিউট অব অ্যাস্ট্রোনমি অ্যান্ড জিওফিজিক্স।

বুধবার (২২ ডিসেম্বর) সংস্থাটির বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) জাতীয় দৈনিক গালফ নিউজ।

মিশরের জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা গালফ নিউজকে জানিয়েছে, আগামী বছরের ১ এপ্রিল আরবি শাবান মাসের ২৯ তারিখ পড়েছে। সেই হিসেবে ওইদিন রাতেই আকাশে পবিত্র রমজানের চাঁদ দেখা দেওয়ার সম্ভাবনা বেশি; আর ওই দিন যদি চাঁদ দেখা যায়, সেক্ষেত্রে ২ এপ্রিল থেকে শুরু হচ্ছে রোজা।

উল্লেখ্য, বিশ্বজুড়ে দিন, মাস ও বছর গণনার দুটি পদ্ধতি রয়েছে- সৌর পদ্ধতি ও চান্দ্র পদ্ধতি। সূর্যের গতিপ্রকৃতি বিশ্লেষণ করে তৈরি পঞ্জিকাকে বলা হয় সৌর পঞ্জিকা এবং চাঁদের গতিবিধি হিসেব করে তৈরি পঞ্জিকাকে বলা হয় চান্দ্র পঞ্জিকা। বিশ্বের অধিকাংশ দেশ সৌর পঞ্জিকা অনুসরণ করলেও মধ্যপ্রাচ্যের আরবি ভাষাভাষী দেশগুলো চান্দ্র পঞ্জিকা মেনে চলে।

আরবি পঞ্জিকার নবম মাস হলো রমজান, যাকে ইসলাম ধর্মাবলম্বীদের জন্য সবচেয়ে পবিত্র মাস হিসেবে বিবেচনা করা হয়। এই মাসের শেষেই আসে মুসলিমদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব ঈদুল ফিতর।

নিউজ ট্যাগ: রোজা

আরও খবর

আজ শুভ বড়দিন

শনিবার ২৫ ডিসেম্বর ২০২১




দিনাজপুরে জেঁকে বসেছে শীত, তাপমাত্রা ১১.২

প্রকাশিত:শনিবার ১৮ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৮০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দিনাজপুরের হিলিতে জেঁকে বসেছে শীত। সেই সঙ্গে কুয়াশা ও হিমেল বাতাস শীতের মাত্রা বাড়িয়ে দিয়েছে। কাজে বের হতে না পেরে বিপাকে পড়েছেন নিম্ন আয়ের মানুষ। ঠান্ডাজনিত রোগে আক্রান্ত হচ্ছে অনেকে।

শনিবার (১৮ ডিসেম্বর) সকালের দিকে ঘন কুয়াশা ঝরছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে রোদের দেখা মেলায় শীতের মাত্রা কিছুটা কমছে। তবে বিকেলের পর থেকে আবারও শীত অনুভূত হচ্ছে।

আব্দুল করিম নামে এক বৃদ্ধ জানিয়েছেন, কয়েকদিন ধরে বেশ ঠান্ডা পড়ছে। এতে আমাদের মতো বয়স্ক মানুষের চলাফেরায় সমস্যা হচ্ছে।

দিনাজপুর আবহাওয়া অধিদপ্তরের ইনচার্জ তোফাজ্জল হোসেন জানান, শনিবার (১৮ ডিসেম্বর) দিনাজপুর অঞ্চলে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। বাতাসের আদ্রতা ৯০ শতাংশ, বাতাসের গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ৩-৪ কিলোমিটার। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ঘণ্টায় ১০ থেকে ১৪ কিলোমিটার পর্যন্ত উন্নতি হতে পারে। সেই সঙ্গে আগামী কয়েক দিনে তাপমাত্রা আরও কমতে পারে।


আরও খবর



তেঁতুলিয়ায় দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৫২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পঞ্চগড়ে শীতের তীব্রতায় কাবু জনজীবন। ঘন কুয়াশার চাদরে ঢেকে গেছে পুরো পঞ্চগড় জেলা। সেই সঙ্গে ঠান্ডা বাতাসে জনজীবনে দুর্বিষহ নেমে এসেছে। পৌষের ঠান্ডা হাওয়া বয়ে যাওয়ায় দূর্ভোগে নিম্ন আয়ের শ্রমিকরা।

বুধবার (৫ জানুয়ারি) সকাল ৬টায় ৮ দশমিক ৮ ডিগ্রি সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করেছে তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিস। গতকাল তাপমাত্রা ছিল ৯ দশমিক ২ ডিগ্রি। দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ২০ দশমিক ৫ ডিগ্রি ।

জানা গেছে, সন্ধ্যা থেকে সকাল ১০টা পর্যন্ত শীত নিবারণের জন্য আগুন পোহাতে হচ্ছে নিম্ন আয়ের মানুষদের। কুয়াশার সঙ্গে ঠান্ডা বাতাস শীতের তীব্রতা বাড়িয়ে দেয়। দিনের বেলা সূর্য উঠলেই ধীরে ধীরে কুয়াশা কেটে যায় তবে ঠান্ডার প্রকোপ বেড়ে যায়। প্রতিদিন দুপুরে ঝলমলে কুয়াশা-মিশ্রিত রোদ উঠলেও উত্তাপ ছড়ায় না। এতে শীতের পোশাক ছাড়া ঘর থেকে বের হতে পারছে না মানুষ।


আরও খবর



ইভ্যালিকে নিয়ে যে আদেশ দিলো হাইকোর্ট

প্রকাশিত:রবিবার ১৬ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৩০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বহুল আলোচিত ই-কমার্স কোম্পানি ইভ্যালির ব্যবস্থাপনায় হাইকোর্ট যে পর্ষদ গঠন করেছিলেন, সে পর্ষদকে ২ কোটি ৩৫ লাখ ১৬ হাজার টাকা উত্তোলন করে কোম্পানির স্বার্থে ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছেন হাইকোর্ট।

রবিবার (১৬ জানুয়ারি) গত বছরের (২২ সেপ্টেম্বর) দেওয়া এ সংক্রান্ত আদেশ পরিবর্তন করে এ আদেশ দেন বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকারের একক হাইকোর্ট বেঞ্চ।

আদেশে ইভ্যালির ২২টি গাড়ি বিক্রি অথবা ভাড়া দিয়ে যে টাকা আয় হবে তাও কোম্পানির স্বার্থে ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া ধানমন্ডিতে ইভ্যালির কার্যাকলয়ের নিরাপত্তা নিশ্চিতে এবং পাওনাদারদের বিশৃঙ্খলা এড়াতে প্রয়োজনীয় সংখ্যক পুলিশ মোতায়েন করতে পুলিশের মহাপরিদর্শককে (আইজি) নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

সেই সঙ্গে ইভ্যালির সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী মো. রাসেল এবং চেয়ারম্যান শামীমা নাসরিন গ্রাহকদের টাকা কোথায় কী বাবদ খরচ করেছেন, সে বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক এবং জাতীয় রাজস্ব বোর্ডকে (এনবিআর) প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

আদালতে রিট আবেদনকারীর পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী সৈয়দ মাহসিব হোসেন। পরিচালনা পর্ষদের আবেদনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মোর্শেদ আহেমেদ খান।

আইনজীবী সৈয়দ মাহসিব হোসেন গণমাধ্যমকে বলেন, ইভ্যালির সম্পদ বিক্রি ও হস্তান্তরে নিষেধাজ্ঞা দিয়ে গত বছর ২২ সেপ্টেম্বর আদালত আদেশ দিয়েছিলেন। ইভ্যালির স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তিতে নিষেধাজ্ঞা থাকার কারণে পরিচালনা পর্ষদ কোম্পানিটি আর চালাতে পারছিলেন না। কারণ কর্মচারীদের বেতন দিতে হচ্ছে, অফিসের ভাড়া দিতে হচ্ছে। যে কারণে নিষেধাজ্ঞার ওই আদেশটি পরিবর্তন চেয়ে আবেদনে করা হয়েছিল পরিচালনা পর্ষদের পক্ষ থেকে। শুনানি শেষে আদালত ২২ সেপ্টেম্বরের আদেশটি পরিবর্তন করে নির্দেশনাসহ আদেশ দিয়েছেন।’

ইভ্যালির অবসায়ন চেয়ে এক গ্রাহকের আবেদনে গত বছর ২২ সেপ্টেম্বর ইভ্যালির সম্পদ বিক্রি ও হস্তান্তরে নিষেধাজ্ঞা দেন হাইকোর্ট।

আদেশে বলা হয়, বিক্রি, হস্তান্তর বা অন্য কোনো উপায়ে ইভ্যালির সম্পদে কেউ হাত দিতে পারবে না। সম্পদ হস্তান্তরে নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি ইভ্যালিকে কেন অবসায়ন করা হবে না, সেই কারণ দর্শাতেও বলা হয়।

ওই মাসের ৩০ সেপ্টেম্বর পরবর্তী আদেশের তারিখ রেখে ওই সময়ের মধ্যে ইভ্যালি লিমিটেড, যৌথমূলধনী কোম্পানি ও ফার্মসমূহের পরিদপ্তরের রেজিস্ট্রার, বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ), জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, নগদ, বিকাশ, বাংলাদেশ প্রতিযোগিতা কমিশন, ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ই-ক্যাব), বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অফ সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস), বাংলাদেশ ব্যাংক ও বাণিজ্য সচিবকে জবাব দিতে বলা হয়।

পরে ৩০ সেপ্টেম্বর রিট আবেদনকারী পক্ষ ফের পরিচালনা পর্ষদ গঠনের আরজি জানালে ইভ্যালির যাবতীয় নথি তলব করেন হাইকোর্ট।

সে অনুযায়ী রেজিস্ট্রার ফর জয়েন্ট স্টক কোম্পানিজ অ্যান্ড ফার্মস নথি দাখিলকরলে আদালত গত বছর ১৮ অক্টোবর হাইকোর্ট ইভ্যালির ব্যবসা ও ব্যবস্থাপনা নিয়ন্ত্রণে নিতে পাঁচ সদস্যের একটি পরিচালনা পর্ষদ গঠন করে দেন। এ পর্ষদের চেয়ারম্যান করা হয় আপিল বিভাগের সাবেক বিচারপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মানিককে।

পর্ষদে সদস্য হিসেবে রাখা হয়েছে, স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের সাবেক সচিব মো. রেজাউল আহসান, চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্ট ফখরুদ্দিন আহম্মেদ, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী খান মোহাম্মদ শামীম আজিজ। এ পর্ষদে রেলপথ মন্ত্রণালয়ের সাবেক অতিরিক্ত সচিব মাহবুব কবীর মিলন আছেন ইভ্যালির ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে।

এ পর্ষদের আবেদনেই স্থগিতাদেশ পরিবর্তন করে আদেশ দিলেন উচ্চ আদালত।

নিউজ ট্যাগ: ইভ্যালি

আরও খবর



দায়িত্বে অবহেলা, ঝালকাঠির সিভিল সার্জন ওএসডি

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৬৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সুগন্ধা নদীতে ঢাকা-বরগুনা রুটের অভিযান-১০ লঞ্চে অগ্নিকাণ্ডে শতাধিক যাত্রী হতাহতের সময় য়িত্বে অবহেলার অভিযোগে ঝালকাঠির সিভিল সার্জন ডা. রতন কুমার ঢালীকে ওএসডি (অফিসার অন স্পেশাল ডিউটি) করা হয়েছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে বিশেষ সূত্রে এ তথ্য নিশ্চিত হওয়া গেছে।

তিনি ঢাকায় যোগদানের জন্য মঙ্গলবার (৪ জানুয়ারি) ঝালকাঠি ত্যাগ করবেন বলে জানিয়েছেন জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের জুনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা কর্মকর্তা গৌতম কুমার দাস।

তবে ডা. রতন কুমার ঢালীকে ওএসডির কারণ এড়িয়ে যান তিনি। এছাড়া ঘটনার দিন সিভিল সার্জন কোথায় ছিলেন সে প্রশ্নের জবাবও দেননি গৌতম কুমার দাস। জানান, ৫ জানুয়ারি রতন কুমার ঢালী স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে যোগ দেবেন।

এদিকে স্বাস্থ্য বিভাগের একটি সূত্র জানিয়েছেন, লঞ্চ দুর্ঘটনার পর বরিশাল বিভাগীয় কমিশনার সাইফুল হাসান বাদল ঝালকাঠির সিভিল সার্জন ডা. রতন কুমার ঢালীকে তলব করে পাননি। 

উল্লেখ্য, গত ২৪ ডিসেম্বর রাত সারে ৩টা থেকে পরদিন সকাল ৭টা পর্যন্ত লঞ্চে দগ্ধ ৭০ জন যাত্রীকে ঝালকাঠি সদর হাসপাতালে নেওয়া হয়। তবে, ঝালকাঠিতে বার্ন ইউনিট না থাকায় সদর হাসপাতালে ১৫ জন রেখে বাকি সব রোগীকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ (শেবাচিম) হাসপাতালে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

লঞ্চে অগ্নিকাণ্ডের সময় সিভিল সার্জন ডা. রতন কুমার ঢালী ঝালকাঠিতে ছিলেন না। স্ত্রীর কর্মস্থল পিরোজপুরে অবস্থান করছিলেন বলে তখন জানিয়েছিলেন ঝালকাঠি সিভিল সার্জন কার্যালয়ের ইপিআই সুপারিনটেনডেন্ট জিকে মতিয়র রহমান সিকদার। পিরোজপুরে অবস্থানের সময় তিনি ছুটি নেননি বলেও জানান তার কার্যালয়ের একটি সূত্র।

অপরদিকে সিভিল সার্জন ডা. রতন কুমার ঢালীকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে ওএসডির আদেশের স্মারক নম্বর চাইলে তা দিতে অপারগতা প্রকাশ করেন জিকে মতিয়র রহমান।

নিউজ ট্যাগ: এমভি অভিযান-১০

আরও খবর



টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে প্রধান বিচারপতির শ্রদ্ধা

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৭ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৬১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী।

শুক্রবার (৭ জানুয়ারি) সকাল পৌনে ১০টায় সমাধিসৌধ বেদিতে ফুল দিয়ে তিনি শ্রদ্ধা জানান।

এ সময় প্রধান বিচারপতি ফাতেহা পাঠ এবং বঙ্গবন্ধুসহ ১৫ আগস্টে নিহতদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া ও বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেন।

সুপ্রিমকোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. আলী আকবার, গোপালগঞ্জের জেলা ও দায়রা জজ অমিত কুমার দে, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক এবং জেলা ও দায়রা জজ আলমাছ হোসেন মৃধা, গোপালগঞ্জের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোহম্মাদ সাহাদাৎ হোসেন ভূঁইয়া, অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আব্বাস উদ্দিন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. ইলিয়াসুর রহমান, পুলিশ সুপার আয়েশা সিদ্দিকা, টুঙ্গিপাড়ার উপজেলা নির্বাহী (ইউএনও) কর্মকর্তা একেএম হেদায়েতুল ইসলাম, টুঙ্গিপাড়া পৌরসভার মেয়র তোজ্জাম্মেল হক টুটুল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. বাবুল শেখ, সহসভাপতি ইলিয়াস হোসেনসহ জজশিপ-ম্যাজিস্ট্রেসির কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

পরে প্রধান বিচারপতি সমাধিসৌধের ভেতরে যান এবং বঙ্গবন্ধু ও তার মা-বাবার কবর পরিদর্শন ও জিয়ারত করেন। এর পর তিনি বঙ্গবন্ধু ভবনে যান এবং সেখানে রক্ষিত পরিদর্শন বইয়ে মন্তব্য লিখে সেখানে স্বাক্ষর করেন।


আরও খবর