শিরোনাম

২০২১ সালে ধর্ষণের শিকার ৮৫২ শিশু, নিহত ৫৯৬

প্রকাশিত:শুক্রবার ৩১ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৬৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

২০২১ সালে শারীরিক নির্যাতনে মৃত্যু, ধর্ষণের পরে হত্যা, ধর্ষণচেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে হত্যা, অপহরণ ও নিখোঁজের পর হত্যাসহ বিভিন্ন কারণে অন্তত ৫৯৬ শিশু নিহত হয়েছে। এছাড়া ধর্ষণের শিকার হয়েছে ৭৭৪ শিশু এবং বলাৎকারের শিকার ৭৮ ছেলে শিশু।

শুক্রবার (৩১ ডিসেম্বর) এই তথ্য জানায় আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক)। 

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি ২০২১: আইন ও সালিশ কেন্দ্রের পর্যালোচনা শীর্ষক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানানো হয়।

আইন ও সালিশ কেন্দ্রের প্রতিবেদনে বলা হয়,  শিশু অধিকারের ক্ষেত্রেও ২০২১ সালের চিত্র ছিল হতাশজনক। হত্যা, নির্যাতন, ধর্ষণ, বলাৎকার, অনলাইনে যৌন হয়রানিসহ শিশুর প্রতি নানা সহিংসতার ঘটনা অব্যাহত থেকেছে বছরজুড়ে।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, 'আসক তথ্য সংরক্ষণ ইউনিটের হিসাব মতে, ২০২১ সালে শারীরিক নির্যাতনের কারণে মৃত্যু, ধর্ষণের পরে হত্যা, ধর্ষণ চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে হত্যা, অপহরণ ও নিখোঁজের পর হত্যাসহ বিভিন্ন কারণে নিহত হয় মোট ৫৯৬ শিশু। 

উল্লেখ্য, ২০২০ সালে নিহত শিশুর সংখ্যা ছিল ৫৮৯। এছাড়া ২০২১ সালে বিভিন্নভাবে নির্যাতনের শিকার হয় ১৪২৬ শিশু। এর মধ্যে ধর্ষণের শিকার হয় ৭৭৪ শিশু ধর্ষণ চেষ্টা ও যৌন হয়রানীর শিকার হয় ১৮৫ শিশু এবং বলাৎকারের শিকার হয়েছে ৭৮ ছেলে শিশু।

গৃহকর্মী নির্যাতন ও অ্যাসিড নিক্ষেপ

আসকের প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০২১ সালে ৪৫ নারী গৃহকর্মী নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। এর মধ্যে শারীরিক নির্যাতনের পরবর্তী সময়ে মারা যান ৩ নারী। অন্যদিকে এ বছরে অ্যাসিড নিক্ষেপের শিকার হয়েছেন ২৩ নারী।

সংবাদ সম্মেলনে ২০২১ সালে বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে মূল প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন আসকের জ্যেষ্ঠ সমন্বয়কারী আবু আহমেদ ফয়জুল কবির ও সহকারী সমন্বয়কারী অনির্বাণ সাহা।

সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন আসক নির্বাহী কমিটির মহাসচিব মো. নূর খান। অন্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আসকের নির্বাহী পরিচালক গোলাম মনোয়ার কামাল ও পরিচালক নীনা গোস্বামী।


আরও খবর



সালমনের সঙ্গে কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়ছেন ক্যাট

প্রকাশিত:রবিবার ১৯ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৮০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মহা ধুমধামে বিয়ে সেরেছেন। বউয়ের হাতের হালুয়াও চেখেছেন। সংক্ষিপ্ত অবসর কাটিয়ে ইতিমধ্যেই কাজে ফিরে গিয়েছেন ভিকি কৌশল। এ বার পালা নতুন কনে ক্যাটরিনা কইফের। খুব শীঘ্রই তিনি ফিরবেন লাইট-ক্যামেরা-অ্যাকশন-এর চেনা রুটিনে।

বলিউড সূত্রে খবর, এর মধ্যেই ছবির শ্যুটের জন্য দিল্লি উড়ে যাবেন ক্যাটরিনা। টাইগার ৩-এর কাজ শুরু করবেন প্রাক্তন প্রেমিক সলমন খানের সঙ্গে। স্টুডিয়োর ভিতরে নয়, রাজধানীর পথে নেমে শ্যুট করবেন তাঁরা। টানা ১৫ দিন ধরে চলবে কাজ। রাস্তাঘাটে বেশ কিছু দৃশ্য শ্যুটের পরিকল্পনা থাকায় দুই তারকার জন্য কড়া নিরাপত্তার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। ছবির জন্য আপাতত কড়া ডায়েট মেনে চলছেন সলমন এবং ক্যাটরিনা।

ভিকি-ক্যাটরিনার বিয়েতে বলিউডের বহু তারকা উপস্থিত থাকলেও দেখা যায়নি সলমনকে। বলিউড সূত্রে খবর, ক্যাটরিনার বিয়ের সময় একটি অনুষ্ঠানের জন্য রিয়াধে উড়ে গিয়েছিলেন ভাইজান। তবে তার আগেই নাকি টাইগার ৩-র কিছুটা কাজ সেরে ফেলেছিলেন সলমন। ক্যাটরিনার বিয়ে-পর্ব মিটেছে। এ বার টাইগার আর জোয়া (ছবিতে ক্যাটরিনার চরিত্রের নাম)-কে নিয়েই ফের চলবে ক্যামেরা।


আরও খবর



মুম্বাইয়ের ব্যাংকে দুর্ধর্ষ ডাকাতি, নিহত ১

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ৩০ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৭১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ভারতের বাণিজ্যিক রাজধানী মুম্বাইয়ে আবারও ব্যাংকে ডাকাত দল হানা দিয়েছে। বুধবার (২৯ ডিসেম্বর) স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার দহিসার শাখায় ঘটেছে দুর্ধর্ষ এ ঘটনা। এসময় ব্যাংকের এক কর্মীকে গুলি করে হত্যা করে ডাকাতরা। খবর এনডিটিভির। কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, নিহত ব্যক্তি ব্যাংকের চুক্তিভিত্তিক কর্মী ছিলেন। মাত্র দুইজন ডাকাত পুরো ঘটনা ঘটিয়েছে। ডাকাতি করে তারা পালিয়েও গেছে।

সিসি ক্যামেরায় ধরা পড়েছে ব্যাংক ডাকাতির এই দৃশ্য। এতে দেখা যায়, ব্যাংকের ভেতরে মাস্ক পরা দুই ডাকাত ঘুরছে। এদের একজন সম্ভাব্য ব্যাংককর্মীদের দিকে বন্দুক তাক করে রেখেছে এবং দ্বিতীয়জন ডেস্কের কাছে গিয়ে অর্থ তুলে নিচ্ছে। পুলিশ জানিয়েছে, খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছান। ডাকাতির ভিডিও ফুটেজ পরীক্ষা করা হচ্ছে।

চলতি বছর মুম্বাইয়ে আরও একটি দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা খবরের শিরোনাম হয়েছিল। বছরের শুরুর দিকে মিরা নগর এলাকায় চার ডাকাত মাত্র পাঁচ মিনিটের মধ্যে একটি স্বর্ণের দোকানে লুটপাট করে পালিয়ে যায়।

২০১৭ সালে শহরটিতে আরও একটি চাঞ্চল্যকর ডাকাতির ঘটনা ঘটেছিল। সেসময় একদল ডাকাত ২৫ ফুট লম্বা সুড়ঙ্গ খুঁড়ে ব্যাংক অব বারোদার লকার থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ লুটে নিয়েছিল।

নিউজ ট্যাগ: ব্যাংক ডাকাতি

আরও খবর

আবুধাবিতে ড্রোন হামলায় তিনজন নিহত

সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২




২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে আরও ২৯ জন হাসপাতালে ভর্তি

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সারাদেশে ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে আরও ২৯ জন ঢাকাসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তবে এ সময়ে নতুন করে ডেঙ্গুতে কারও মৃত্যু হয়নি। আক্রান্তদের মধ্যে ২৫ জনই ঢাকার বাইরের বাসিন্দা।

সোমবার (৩ জানুয়ারি) সারাদেশের পরিস্থিতি নিয়ে স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের নিয়মিত ডেঙ্গুবিষয়ক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, হাসপাতালে ভর্তি হওয়াদের অধিকাংশই ঢাকার বাইরের জেলার বাসিন্দা। এর মধ্যে চারজন রাজধানীর বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে এবং ২৫ জন ঢাকার বাইরের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

এ নিয়ে বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে সর্বমোট ভর্তি থাকা ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬২ জনে। ঢাকার ৪৬টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৩০ জন এবং অন্যান্য বিভাগের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৩২ জন।

চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে ৩ জানুয়ারি পর্যন্ত হাসপাতালে সর্বমোট রোগী ভর্তি হয়েছেন ৪৪ জন। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন ১৮ জন। তবে, এই বছরের এখন পর্যন্ত ডেঙ্গুতে কারও মৃত্যু হয়নি।


আরও খবর

দেশে মোট ৫৫ জনের দেহে ওমিক্রন শনাক্ত

সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২




তৈমূর আলম খন্দকারের বাসায় গেলেন আইভী

প্রকাশিত:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ১৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনে পরাজিত মেয়র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকারের বাসায় গেছেন বিজয়ী প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী।

সোমবার বিকাল ৫টার দিকে শহরের মাসদাইর এলাকায় দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে তৈমূরের বাসভবনে যান আইভী। এসময় পাশাপাশি বসে কথা বলেন তারা।

এর আগে বাবারা তো মেয়েকে জিতিয়ে দেয় বলে মন্তব্য করেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের পর পর তিন বারের নির্বাচিত মেয়র ডা. সেলিনা হায়াত আইভী।

রোববার নির্বাচনে প্রাথমিক ফলাফলে বিজয়ের পর স্বতন্ত্র প্রার্থী অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকারের উদ্দেশে তিনি এ মন্তব্য করেন।

আপনার কাকার উদ্দেশে কিছু বলবেন; তিনি তো অনেক ভোট পেয়েছেন- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের পর পর তিন বারের নির্বাচিত মেয়র ডা. সেলিনা হায়াত আইভী বলেন, হ্যাঁ কাকা অনেক ভোট পেয়েছেন। কাকাকে অভিনন্দন জানাচ্ছি। তাকে বলতে চাচ্ছি- তার মেয়েই জিতেছেন। মেয়ে তো জিতবে। বাবারা তো সব সময় মেয়েদেরই জিতিয়ে দেয়।

তিনি আরও বলেন, তিনি যেহেতু আমার চাচা, তিনিও নিশ্চয় খুশি হয়েছেন- চুনকার মেয়ে জিতেছে; উনারই মেয়ে জিতেছে। আমি তাকে নিয়েই কাজ করবো। তার যে পরিকল্পনা আছে; আশা করি তিনি আমাকে সহযোগিতা করবেন।


আরও খবর



আপেলের চালানে এসেছে ১ কোটি ৩৭ লাখ টাকার সিগারেট

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ জানুয়ারী ২০২২ | ৭৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে আপেলের চালানে এসেছে  ২২ লাখ ১৯ হাজার শলাকা সিগারেট। চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস কর্তৃপক্ষ চালানটি জব্দ করেছে। এসব সিগারেটের আমদানি মূল্য প্রায় ১ কোটি ৩৭ লাখ টাকা। এই চালানে ৫ কোটি ৩০ লাখ টাকা রাজস্ব ফাঁকির চেষ্টা হয়েছিল বলে দাবি করেছেন কাস্টম কর্মকর্তারা।

বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের ডেপুটি কমিশনার মোহাম্মদ সালাহউদ্দিন রিজভী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বুধবার সিগারেটের জাল ব্যান্ড রোল আমদানির মাধ্যমে শত কোটি টাকা রাজস্ব ফাঁকির একটি অপচেষ্টা রুখে দেন কাস্টম কর্মকর্তারা। এর একদিন পর সিগারেটের চালানটি জব্দ করা হলো।

কাস্টম সূত্র জানায়, চট্টগ্রামের কোতোয়ালি থানাধীন স্টেশন রোডের মারহাবা ফ্রেস ফ্রুটস প্রতিষ্ঠানের নামে আরব আমিরাত থেকে আপেল ঘোষণা দিয়ে  এক কনটেইনার পণ্য আমদানি করা হয়।   চালানটি খালাসের লক্ষ্যে গত ২০ ডিসেম্বর কাস্টম হাউসে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের অ্যাসাইকুডা ওয়ার্ল্ড সিস্টেমে বিল অব এন্ট্রি দাখিল করে চট্টগ্রামের পূর্ব মাদারবাড়ীর ১৪৩ ডিটি রোডের সিঅ্যান্ডএফ এজেন্ট জিমি এন্টারপ্রাইজ।

চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস কর্মকর্তারা চালানটিতে অসত্য ঘোষণায় পণ্য আমদানির বিষয়ে প্রাথমিক ধারণা পায়। গত ২২ ডিসেম্বর কাস্টম হাউসের অডিট, ইনভেস্টিগেশন অ্যান্ড রিসার্চ (এআইআর) শাখা জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের অ্যাসাইকুডা ওয়ার্ল্ড সিস্টেমে এ চালানের খালাস কার্যক্রম স্থগিত করে। এরপর কায়িক পরীক্ষায় কনটেইনারটিতে ১ হাজার ১২০টি ফ্রেস আপেলের কার্টনের মধ্যে ৭৫৪টি কার্টনে আপেলের নিচে ইনার কার্টনে লুকানো বিভিন্ন ব্রান্ডের সিগারেট পাওয়া যায়।

এর মধ্যে ৬ লাখ ৯১ হাজার ৪৮০ শলাকা মন্ড ব্রান্ডের, ১৪ লাখ ৮ হাজার ৭২০ শলাকা ইজি ব্রান্ডের এবং ১ লাখ ১৮ হাজার ৮০০ শলাকা ওরিস ব্রান্ডের সিগারেট পাওয়া যায়।

ডেপুটি কমিশনার মোহাম্মদ সালাউদ্দিন রিজভী জানান, এসব সিগারেটের আনুমানিক আমদানি মূল্য ১ কোটি ৩৭ লাখ টাকা। এ চালানে শর্তসাপেক্ষে আমদানিযোগ্য ও উচ্চ শুল্কের পণ্য সিগারেট আমদানি করে আনুমানিক ৫ কোটি ৩০ লাখ টাকার সরকারি রাজস্ব ফাঁকির অপচেষ্টা হয়েছিল। এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।


আরও খবর