Logo
শিরোনাম

২৬ অক্টোবর: ইতিহাসের এই দিনে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ১০৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
ব্রিটেন থেকে ভারত ও পাকিস্তানের স্বাধীনতা অর্জনের সময় কৌশলগত গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চল জম্মু ও কাশ্মীরের রাজা এই অঞ্চলকে ভারতের অংশ বলে ঘোষণা করেন

২৬ অক্টোবর গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জী অনুসারে বছরের ২৯৯তম (অধিবর্ষে ৩০০তম) দিন। বছর শেষ হতে আরো ৬৬ দিন বাকি রয়েছে। জেনে নিন ইতিহাসের আজকের এই দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য গুরুত্বপূর্ণ ঘটনাবলি, জাতীয় দিবস সমূহ এবং এই দিনে কোন কোন বিশিষ্টজন জন্মগ্রহণ ও মৃত্যুবরণ করেছেন।

 

ঘটনাবলি

    ১৮১৪ -  ভারতের গভর্নর জেনারেল নেপালী গুর্খাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেন।

    ১৮৬৩ -  ইংলিশ ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন গঠিত হয়। ব্রিটেনের ফুটবল সমিতি লণ্ডনে প্রতিষ্ঠিত হয় এবং ফুটবল খেলার প্রথম নিয়মাবলী প্রণয়ন করা হয়, তাতে আধুনিক ফুটবলের জন্ম ঘোষিত হয়। পরে এই দিনকেই আধুনিক ফুটবলের জন্মদিবস হিসেবে নির্ধারণ করা হয়।

    ১৮৬৩ -  জেনেভায় সংগঠিত হয় বিশ্ব রেড ক্রস।

    ১৮৯৬ -  আবিসিনিয়া ও ইতালি শান্তি চুক্তি করে।

    ১৯০০ -  নিউ ইয়ার্ক সাবওয়ের প্রথমভাগ খুলে দেওয়া হয়।

    ১৯১২ -  টেমসের নিচে উলউইচ টানেল খুলে দেওয়া হয়।

    ১৯২১ -  সলোমন পোর্টর হুড লাইবেরিয়ার মন্ত্রী হন।

    ১৯২১ -  শিকাগো থিয়েটার খুলে দেওয়া হয় ।

    ১৯২২ -  চাপের মুখে ইতালির মন্ত্রিসভা পদত্যাগ করে।

    ১৯৩৪ - মহাত্মা গান্ধীর উদ্যোগে গ্রামীণ শিল্প সমিতি প্রতিষ্ঠিত হয়।

    ১৯৩৬ - মাও সেতুংয়ের নেতৃত্বে চীনে লংমার্চ শুরু।

    ১৯৪১ -  আমেরিকায় সঞ্চয়পত্র বিক্রি শুরু হয়।

    ১৯৪৭ -  ইরাক ব্রিটিশ সেনাদের দখল থেকে মুক্ত হয়।

    ১৯৪৭ -  ব্রিটেন থেকে ভারত ও পাকিস্তানের স্বাধীনতা অর্জনের সময় কৌশলগত গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চল জম্মু ও কাশ্মীরের রাজা এই অঞ্চলকে ভারতের অংশ বলে ঘোষণা করেন। এ অঞ্চলের অধিকাংশ জনগণ মুসলমান হওয়ায় জম্মু ও কাশ্মীর পাকিস্তানের অন্তর্ভুক্ত হবার কথা ছিল। কিন্তু জম্মু ও কাশ্মীরের তৎকালীন অমুসলিম রাজা জনগণের ইচ্ছার বিরুদ্ধে এই অঞ্চলকে ভারতের অংশে পরিণত করার সিদ্ধান্ত নেন। এই ঘোষণার পর পাকিস্তান কাশ্মীরের কিছু অংশ দখল করে। এরপর থেকে ভারত ও পাকিস্তান কাশ্মীরের মালিকানা নিয়ে তিনবার যুদ্ধ করেছে এবং এ নিয়ে এখনও বিরোধ চলছে।

    ১৯৪৯ -  প্রেসিডেন্ট হ্যারি ট্রম্যান ন্যূনতম মজুরি ৪০ সেন্ট থেকে বাড়িয়ে ৭৫ সেন্ট করেন।

    ১৯৫০ - মাদার টেরিজা ভারতের কলকাতা শহরে মিশনারিজ অব চ্যারিটি নামে একটি সেবা প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করেন।

    ১৯৫২ -  পূর্ব পাকিস্তান ছাত্র ইউনিয়ন গঠিত হয়।

    ১৯৫৫ -  অস্ট্রিয়ার স্বাধীনতা লাভ করে।

    ১৯৫৫ -  ভিলেজ ভয়েসের প্রথম সংস্করণ প্রকাশিত হয়।

    ১৯৫৫ -  মার্কিন সরকারসহ পশ্চিমা সরকারগুলোর ষড়যন্ত্রে দক্ষিণ ভিয়েতনাম গঠন করা হয়।

    ১৯৫৬ - আন্তর্জাতিক পারমাণবিক শক্তি সংস্থা গঠিত হয়।

    ১৯৫৯ -  পাকিস্তান সরকার মৌলিক গণতন্ত্র অধ্যাদেশ জারি করে।

    ১৯৬২ - ভারত-চীন যুদ্ধের সময় সারা ভারতে প্রথম জরুরি অবস্থা জারি করা হয়।

    ১৯৭১ - চীন জাতিসংঘের সদস্যপদ লাভ করে।

    ১৯৮৮ -  ব্রিটেনের বুকার প্রাইজ’ পান অস্ট্রেলীয় কথা শিল্পী পিটার কেরি।

    ১৯৯৪ -  জর্দানের বাদশাহ হোসেন মার্কিন সরকারের মধ্যস্থতায় ইহুদিবাদী ইসরাইলের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী আইজাক রবিনের সাথে আপোস চুক্তি স্বাক্ষর করেন।

 

জন্ম

    ১৫৬৪ - জন্মগ্রহণ করেছিলেন হান্স লিও হাসলের, তিনি ছিলেন জার্মান অর্গানবাদক ও সুরকার।

    ১৬৭৩ - সালে এই দিনে জন্ম গ্রহণ করেছিলেন ডিমি্ট্রি কান্টেমির, তিনি ছিলেন মল্দাভিয়ান ভূগোলবিদ, ইতিহাসবিদ ও দার্শনিক।

    ১৭৫৭ -  অস্ট্রিয়ান দার্শনিক কার্ল লিওনহার্ড রেইনহোল্ড।

    ১৭৫৯ - জন্মগ্রহণ করেছিলেন জর্জ দান্টন, তিনি ছিলেন ফরাসি আইনজীবী, রাজনীতিবিদ, বিচার ও মন্ত্রী।

    ১৮৭৩ - আবুল কাশেম ফজলুল হক, অবিভক্ত বাংলার প্রধানমন্ত্রী, পূর্ব বাংলার মুখ্যমন্ত্রী, পূর্ব পাকিস্তানের গভর্নর।

    ১৮৭৯ -  রুশ বিপ্লবী নেতা লিও ট্রটস্কি।

    ১৮৮০ - আন্দ্রে বেলি, রুশ দেশের একজন প্রখ্যাত সাহিত্যিক।

    ১৮৮১ - বীরেন্দ্রনাথ শাসমল, জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ও রাজনৈতিক নেতা।

    ১৮৮৮ - মোহিতলাল মজুমদার, বিংশ শতাব্দীর বিখ্যাত বাঙালি ও সাহিত্য সমালোচক।

    ১৮৯০ - ভারতীয় সাংবাদিক ও রাজনীতিবিদ গণেশ শংকর ভর।

    ১৯১৬ - ফ্রাসোয়া মিটেরান্ড, তিনি ছিলেন ফরাসি আইনজীবী, রাজনীতিবিদ ও ২১ তম রাষ্ট্রপতি।

    ১৯১৯ - ইরানের শাহ মুহাম্মদ রেজা পাহলভী।

    ১৯২৭ - শ্রীস্বপন কুমার, শ্রীভৃগু, ডাক্তার এস এন পাণ্ডে নামে পরিচিত গোয়েন্দা কাহিনীকার,জ্যোতিষী ও ডাক্তার সমরেন্দ্র নাথ পাণ্ডে।

    ১৯৪৭ - যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক ফার্স্ট লেডি হিলারি রডহাম ক্লিন্টন।

    ১৯৫২ - অ্যান্ড্রু মোশন, তিনি ইংরেজ কবি ও লেখক।

    ১৯৬৫ - আরুন ক্বক, হংকং গায়ক, ড্যান্সার ও অভিনেতা।

    ১৯৭২ - রিয়াজ, বাংলাদেশের একজন জনপ্রিয় চলচ্চিত্র অভিনেতা।

    ১৯৭৪ - ভারতীয় অভিনেত্রী, প্রযোজক এবং সাবেক মডেল রবিনা ট্যান্ডন।

    ১৯৮২ - নিকোলা অ্যাডামস, তিনি ইংরেজ মুষ্টিযোদ্ধা।

    ১৯৮৫ - ভারতীয় অভিনেত্রী অসিন।

    ১৯৯২ - দক্ষিণ ভারতীয় চলচ্চিত্র অভিনেত্রী আমালা পল।

    ১৯৯৪ - জন্মগ্রহণ করেছিলেন আলিএ ডে-বেরয়, তিনি আমেরিকান অভিনেত্রী।

 

মৃত্যু

    ০৮৯৯ - আলফ্রেড গ্রেট, তিনি ছিলেন ইংরেজ রাজা।

    ১২৩৫ -  হাঙ্গেরির রাজা অ্যান্ড্রেস দ্বিতীয় আরপাড।

    ১২৯৩ -  ইরানের বিশিষ্ট আলেম, ফক্বীহ ও শিক্ষক আয়াতুল্লাহ সাইয়েদ আবদুল মোহাম্মাদ মুসাভী ইন্তেকাল করেন।

    ১৭৬৪ - উইলিয়াম হগারথ, তিনি ছিলেন ইংরেজ চিত্রশিল্পী ও খোদকার।

    ১৮৮০ - এন্ডরেই বেল্য, তিনি ছিলেন রাশিয়ান লেখক, কবি ও সমালোচক।

    ১৯০৯ - ইটো হিরবুমি, তিনি ছিলেন জাপানি রাজনীতিবিদ, জাপান ১ম প্রধানমন্ত্রী।

    ১৯১৭ - বাংলা চলচ্চিত্রের প্রাণপুরুষ হীরালাল সেন।

    ১৯৪৬ - কিথ হোপউড, তিনি ছিলেন ইংরেজ গায়ক, গীতিকার, গিটারিস্ট ও প্রযোজক।

    ১৯৫৭ - গেরট্য কোরি, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী চেক বংশোদ্ভূত আমেরিকান প্রাণরসায়নী।

    ১৯৫৯ - জার্মান ফুটবলার আন্দ্রিয়াস হিনযে।

    ১৯৭৭ - জ্যোতিরিন্দ্র মৈত্র, বিংশ শতাব্দীর অন্যতম প্রধান আধুনিক বাঙালি কবি, লেখক ও গায়ক।

    ১৯৭৯ - দক্ষিণ কোরিয়ার সাবেক রাষ্ট্রপতি পার্ক চুং হি আততায়ীর হাতে নিহত।

    ১৯৮৯- ১৯৮৭ সালে নোবেলজয়ী আমেরিকান রসায়নবিদ চার্লস জন পেডারসেন।

    ১৯৯৫ - ফিলিস্তিন ইসলামী জিহাদ দলের মহাসচিব ডঃ ফাতহি শাক্বাকি।

    ২০০৭- আর্থার কর্ণবার্গ, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার আমেরিকান প্রাণরসায়নী।

    ২০১৩- আমেরিকান গায়ক, গীতিকার এবং প্রযোজক আল জনসন।


আরও খবর

১৬ নভেম্বর: ইতিহাসের এই দিনে

মঙ্গলবার ১৬ নভেম্বর ২০২১

১০ নভেম্বর: ইতিহাসের এই দিনে

বুধবার ১০ নভেম্বর ২০২১




টাকা দিয়ে ম্যাচ কিনেছে ভারত : পাক অভিনেত্রী

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৭২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আফগানিস্তানের বিপক্ষে বিশাল জয়েও স্বস্তিতে নেই ভারত। একদিকে তাদের টিকে থাকা এখনও কঠিন। এ পরিস্থিতিতে শুক্রবার স্কটল্যান্ডের মুখোমুখি হবে ভারত।

এই ম্যাচ বিরাট কোহলিদের বিশাল বড় ব্যবধানে জিততে হবে। প্রতিটা ম্যাচই এখন কোহলিদের জন্য ডু ওর ডাই ম্যাচ।

অন্যদিকে আফগানদেরবিপক্ষে জয়টা প্রশ্নবিদ্ধ পাকিস্তান সমর্থকদের কাছে। তাদের দাবি, ভারত-আফগানিস্তান ম্যাচ পাতানো ছিল। যদিও এমন দাবির পক্ষে কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি এখনও।

তবে পাক সমর্থকরা বলছেন, স্কটল্যান্ডকে গুঁড়িয়ে দিয়ে পাকিস্তানের বিপক্ষে দারুণ লড়াই করে হেরেছে আফগানিস্তান। এর পর নামিবিয়াকে উড়িয়ে দিয়েছে মোহাম্মদ নবিরা। কিন্তু এর পর ভারতের মুখোমুখি হতেই গোটা দলটি যেন খেলাই ভুলে গেল। উল্টো চিত্র ছিল ভারতীয় দলে। শুরু থেকে ছন্নছাড়া। পাকিস্তান ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে গোহারা হারের পর বিরাট কোহলিরা যেন ফর্ম ফিরে পেলেন আফগানদের সামনে পেয়েই। পাড়ার ক্রিকেটারদের মতো পিটিয়ে ছাতু বানালেন।

কিছু কিছু পাক সোশ্যাল মিডিয়া হ্যান্ডেলে দাবি করা হচ্ছে, আফগান বোর্ডের সঙ্গে ম্যাচ ফিক্সিং করেছে বিসিসিআই। ক্রিকেটের মতো ভদ্রলোকের খেলাকে নষ্ট করছে ভারতীয় বোর্ড।

এ তালিকায় নাম লিখিয়েছেন পাকিস্তানি অভিনেত্রী সেহার শিনওয়ারিও। তিনি টুইট করেছেন, বিসিসিআই দারুণ একটা ম্যাচ কিনে নিয়েছে। 


আরও খবর



ঝিনাইদহে ইউপি নির্বাচনে তৃতীয় লিঙ্গের চেয়ারম্যান প্রার্থী ঋতু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ | ৬১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার ৬নং ত্রিলোচনপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আনারস প্রতীক নিয়ে এবার নির্বাচন করছেন তৃতীয় লিঙ্গের নজরুল ইসলাম ঋতু। তার পক্ষে প্রতিদিন শত শত মানুষ মিছিল করছে, ভোট চাচ্ছেন।

ওই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আরও নির্বাচন করছেন নৌকা প্রতীক নিয়ে নজরুল ইসলাম ছানা ও হাতপাখা প্রতীক নিয়ে মাহবুবুর রহমান। আগামী ২৮ নভেম্বর উপজেলার ১১ ইউনিয়নের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ভোটের আগে পাড়া মহল্লা, হাট বাজারে এবং চায়ের দোকানে আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে রয়েছেন প্রার্থী নজরুল ইসলাম ঋতু।

ঋতু উপজেলার ত্রিলোচনপুর ইউনিয়নের দাদপুর গ্রামের মৃত আব্দুল কাদেরের সন্তান। তার আরো তিন ভাই ও তিন বোন রয়েছে। তিন ভাই ঢাকাতে থাকেন ও বোনেদের বিয়ে হয়ে গেছে।

জন্মের পর তৃতীয় লিঙ্গ প্রকাশ পাওয়ার পর ৫ বছর বয়সে তাকে গ্রাম ছেড়ে ঢাকাতে চলে যেতে হয়। সামান্য লেখাপড়া করলেও সামাজিক নানা প্রতিবন্ধকতায় প্রাথমিকের গণ্ডি আর পেরোনো হয়নি। ছোটবেলা থেকেই ঢাকার ডেমরা থানায় তার দলের গুরুমায়ের কাছেই বেড়ে ওঠা। এখন তার বয়স ৪৩ বছর। গুরুমায়ের পরের দ্বায়িত্বটা তিনি দেখ ভাল করেন।

ঢাকাতে থাকলেও পরিবারের টানে প্রায়ই বাড়িতে আসেন। তার কষ্টার্জিত জমানো অর্থ দিয়ে বিগত প্রায় ১৫ বছর ধরে জন্মস্থান দাদপুর গ্রামসহ ইউনিয়নবাসীর উন্নয়নে আর্থিক সহযোগিতা করছেন। এ পর্যন্ত তার এলাকায় দুইটি মসজিদ করেছেন। এছাড়া বিভিন্ন মন্দিরের উন্নয়নে দান করেছেন অর্থ। এলাকার কেউ অসুস্থ বা কন্যাদায়গ্রস্ত হয়ে তার কাছে গিয়ে কখনও খালি হাতে ফিরতে হয়নি। কয়েক বছর আগে গ্রামের বাড়ি দাদপুরে তার বাবার জমিতেই বানিয়েছেন একটি পাকা বাড়ি।

নির্বাচন প্রসঙ্গে নজরুল ইসলাম ঋতু বলেন, সত্যি কথা বলতে নির্বাচন কী তা বুঝিনি। এলাকার মানুষ আমাকে ভালোবেসে দাঁড় করিয়েছে। আমার পরিবারের সবাই আওয়ামী লীগ করে। আমার বাবা মারা যাওয়ার সময় বলেছিলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দেশের জন্য অনেক কিছু করেছেন, দেশ স্বাধীন করেছেন। তাই যতদিন তোরা বেঁচে থাকবি আওয়ামী লীগের বাইরে যাবি না, নৌকায় ভোট দিবি। এরপর কেটে গেছে অনেক বছর। প্রয়াত বাবার কথায় নৌকায় ভোট দিলেও কখনো সক্রিয়ভাবে রাজনীতি করা হয়নি। ভোটে জয়ী হলে জীবনের বাকিটা সময় নিজ গ্রামসহ ইউনিয়নবাসীর সেবা করে যাব।

কথা প্রসঙ্গে নজরুল ইসলাম ঋতু আরও বলেন, আর দশজন স্বাভাবিক নারী পুরুষের মতো না হলেও আমার কোনো দুঃখ নেই। আল্লাহ আমাকে সুস্থভাবে পৃথিবীতে বাঁচিয়ে রেখেছেন এতেই আমি সন্তুষ্ট। সবথেকে বেশি কষ্ট পাই যখন শুনি আমার এলাকার কেউ অর্থের অভাবে চিকিৎসা করাতে পারছে না অথবা মেয়ে বিয়ে দিতে পারছে না। এমন সংবাদ পেলেই আমার সাধ্যমতো চেষ্টা করি তাদের পাশে দাঁড়াতে।

এর আগে  পিংকি খাতুন নামে এক হিজড়া গত উপজেলা নির্বাচনে পার্শ্ববর্তী উপজেলা কোটচাঁদপুরে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। দেশের মধ্যে তৃতীয় লিঙ্গের প্রথম জনপ্রতিনিধি হিসেবে স্বীকৃতি পান তিনি।

নিউজ ট্যাগ: ইউপি চেয়ারম্যান

আরও খবর



মাকে দরজার বাইরে রেখে মেয়েকে ধর্ষণ করেছিলেন ম্যারাডোনা!

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৩ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৬৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কয়েক দিন পরই আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি ডিয়েগো ম্যারাডোনার প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী। শ্রদ্ধা-তর্পণে মুখরিত হবে ফুটবল-বিশ্ব। ম্যারাডোনা-আখ্যান ধ্বনিত হবে চারদিকে। কিন্তু এর আগেই বেসুরো বাঁশির মতো ম্যারাডোনার বিরুদ্ধে হাজির হয়েছে গুরুতর এক অভিযোগ। ম্যারাডোনার এককালের অপ্রাপ্তবয়স্ক বান্ধবী মাভিস আলভারেজ ধর্ষণের অভিযোগ এনেছেন প্রয়াত এই কিংবদন্তির নামে।

শুধু ধর্ষণের অভিযোগ এনেছেন বলাটা ভুল হবে; অপহরণ, নারী পাচার, ধর্ষণ, ইচ্ছার বিরুদ্ধে কৃত্রিম স্তন প্রতিস্থাপন, শারীরিক নির্যাতন, জোর করে নেশা করানোআর্জেন্টাইন সংবাদমাধ্যম ইনফোবেকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মাভিস যেন অভিযোগের ডালি নিয়ে বসেছিলেন!

মানব পাচারের মামলায় আর্জেন্টিনার বিচার বিভাগের সামনে সাক্ষ্য দিতে ২০ বছর পর যুক্তরাষ্ট্রের মায়ামি থেকে আর্জেন্টিনায় এসেছেন ৩৭ বছর বয়সী এই কিউবান নারী। এখানে এসেই ইনফোবেকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বোমা ফাটিয়েছেন। এর আগে আর্জেন্টিনায় একবারই এসেছিলেন, সেই ২০০১ সালে, ম্যারাডোনার সঙ্গেই। তখন অপ্রাপ্তবয়স্ক ছিলেন।

মাভিসের দাবি, কিউবা থেকে তখন একপ্রকার অপহরণ করেই ম্যারাডোনা নিয়ে এসেছিলেন তাঁকে। প্রথমে বাক্সে ভরে সবার অগোচরে মাভিসকে আর্জেন্টিনায় আনতে চাইলেও বন্ধু ফিদেল কাস্ত্রোর সহযোগিতা ও বিশেষ অনুমতিতে বুয়েনস এইরেসে মাভিসকে নিয়ে যান ম্যারাডোনা।

দুজনের সম্পর্কের শুরুটা কিউবার রাজধানী হাভানাতেই। মাভিস সেখানকারই মেয়ে। ২০০১ সালে হাভানার এক হোটেলে মাভিসকে ধর্ষণ করেন ম্যারাডোনা। তখন মাভিসকে নিতে তাঁর মা হোটেলে এসেছিলেন। ম্যারাডোনা মেয়ের সঙ্গে মায়ের দেখা করতে দেননি। এরপর কী হয়েছিল?

শুনুন মাভিসের মুখেই, ম্যারাডোনা আমার মুখ চেপে রেখেছিলেন, যাতে আমি চিৎকার না করতে পারি। আমি তাই কিছু বলতে পারিনি। এরপর আমাকে ধর্ষণ করেন তিনি। সেদিন মা আমার সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন। তিনি জানতেন, আমরা ওই হোটেলের কোন কক্ষে ছিলাম। কিন্তু ডিয়েগো কক্ষের দরজা খোলেননি। আমার মা কেঁদে কেঁদে দরজায় কড়া নেড়েই যাচ্ছিলেন। তাও ডিয়েগো রাজি হননি। পরে ক্লান্ত হয়ে আমার মা চলে যান। কারণ, ম্যারাডোনা দরজা খুলছিলেনই না।

এত দিন পর মাভিস কেন এ অভিযোগ এনেছেন? এত দিন মুখ খোলেননি কেন? প্রশ্নের উত্তরে উঠে এসেছে মাভিসের মেয়ের কথা, দেখুন, ফিদেল কাস্ত্রোও মারা গেছেন, ডিয়েগো ম্যারাডোনাও মারা গেছেন। আমার মেয়ের বয়স এখন ১৫ বছর। মনে হয়েছে, আমার মেয়ের বয়স এখন ঠিক তেমন, যে বয়সে আমার সঙ্গে ওসব হয়েছিল।

কিউবা থেকে মাভিসকে আর্জেন্টিনার বুয়েনস এইরেসে এনেও বন্দী করে রেখেছিলেন ম্যারাডোনা, আমি হোটেল থেকে বেরোতে পারতাম না, আমাকে আটকে রাখা হয়েছিল। আমাকে অপহরণ করে নিয়ে আসা হয়েছিল। আমি কিছুই জানতাম না শহরটার ব্যাপারে। সব সময় একজন বা দুজন আমাকে দেখে দেখে রাখত। ডিয়েগোর নিরাপত্তার জন্য নিয়োজিত ছিল তারা। আমি হোটেল থেকে বেরোতে চাইলে তারা আমাকে বলত, আমি যেন তাদের চাকরি করাটা কঠিন করে না তুলি।

২০০১ সালের অক্টোবরে বুয়েনস এইরেসে বোকা জুনিয়র্সের মাঠ লা বোম্বানেরায় ম্যারাডোনার আর্জেন্টিনা একাদশের বিপক্ষে মাঠে নেমেছিল বিশ্ব একাদশ। সে ম্যাচের জন্যই মাভিসকে নিয়ে আর্জেন্টিনায় এসেছিলেন ম্যারাডোনা। পরিকল্পনা ছিল, ম্যাচ শেষে আবারও কিউবায় ফেরত যাবেন তিনি। কিন্তু পরে সে পরিকল্পনায় পরিবর্তন আসে, আরও বেশ কিছুদিন আর্জেন্টিনায় থেকে যান তাঁরা। কিন্তু কেন?

উত্তর জানলে চমকে যেতে হবে, ম্যারাডোনা কৃত্রিমভাবে আমার স্তন প্রতিস্থাপন (ব্রেস্ট ইমপ্লান্ট) করাতে চেয়েছিলেন। আমি তখন নাবালিকা, তখন এ কাজ করতে হলে অভিভাবকের সম্মতির দরকার হয়। কিন্তু ম্যারাডোনা ওসবের ধার ধারেননি। যে কারণে আর্জেন্টিনায় বেশি দিন থাকতে হয় আমাদের। ম্যারাডোনা ছোট স্তন পছন্দ করতেন না। তাঁর বিশেষ আগ্রহেই এ কাজ করতে হয়। কিন্তু আমার শরীরে পর্যাপ্ত চামড়া না থাকার কারণে ম্যারাডোনার প্রত্যাশা অনুযায়ী স্তনের আকার দেওয়া সম্ভব হয়নি।

পান থেকে চুন খসলেই মাভিসকে শারীরিকভাবে নির্যাতন করতেন ম্যারাডোনা, তিনি অনেকবার আমার গায়ে হাত তুলেছিলেন। একদিন ক্লদিয়া (ম্যারাডোনার প্রথম স্ত্রী) ফোন করলেন তাঁর নম্বরে। ম্যারাডোনা তখন আমার পাশে ঘুমাচ্ছিলেন। ক্লদিয়া বললেন, ডিয়েগোকে দাও। আমি ফোনটা ডিয়েগোর হাতে দিলাম। আমি ফোন কেন ধরলাম, তা নিয়ে আমাকে মারা শুরু করলেন ম্যারাডোনা। চড়থাপ্পড় মারতে মারতে বললেন, আমি যেন জীবনেও আর তাঁর ফোন না ধরি। ওদিন মনে হচ্ছিল, ম্যারাডোনা আমাকে মেরেই ফেলবেন। মোদ্দা কথা এটাই, তিনি অনেকবার আমার গায়ে হাত তুলেছেন।


আরও খবর



বাড়তে পারে গ্যাস-বিদ্যুতের দাম

প্রকাশিত:শুক্রবার ১২ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৮৫৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আসন্ন শীত মৌসুমে গ্যাসের চাহিদা বাড়ছে। তবে কমছে গ্যাস উৎপাদন। আন্তর্জাতিক বাজারে এলএনজির (তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস) দাম বৃদ্ধির কারণে আমদানি কমেছে। এ অবস্থায় শীতে কমপক্ষে ৪০ শতাংশ বাড়তি চাহিদা মেটানোর মতো বিকল্প ব্যবস্থা নেই। ফলে আসন্ন শীত মৌসুমে তীব্র গ্যাস সংকটের আশঙ্কা রয়েছে।

সংশ্লিষ্টরা বলেছেন, বাড়তি গ্যাসের জোগান দিতে আমদানি করা এলএনজি এখন একমাত্র ভরসা। কিন্তু সেই এলএনজির দামও আন্তর্জাতিক বাজারে ৫ গুণ বেড়েছে। চলতি অর্থবছরের বাজেটে দেশের জ্বালানি খাতের জন্য ভর্তুকি বাবদ বরাদ্দ রয়েছে এক হাজার কোটি টাকা।

অথচ গত ৭ মাসেই আন্তর্জাতিক বাজার থেকে এলএনজি কিনতে গিয়ে প্রায় ১০ হাজার কোটি টাকা ক্ষতির মুখে পড়েছে সরকার। এরই মধ্যে তেলের দাম বাড়ানো হয়েছে। বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, আন্তর্জাতিক বাজারে তেল ও গ্যাসের দামের বর্তমান পরিস্থিতি বজায় থাকলে ক্ষতির মাত্রা কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে তা বলা কঠিন।

এমন পরিস্থিতিতে দেশের বাজারে গ্যাসের দাম বাড়তে পারে। আর গ্যাসের দাম বাড়লে বিদ্যুতের দামও বাড়বে। সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য জানা গেছে।

শীতের শুরুতে দেশের বিদ্যুৎ কেন্দ্র, সার ও শিল্পকারখানায় গ্যাসের চাহিদা ক্রমশ বাড়ছে। কিন্তু সে অনুযায়ী সরবরাহ বাড়ানো যাচ্ছে না। এতে সক্ষমতা থাকলেও পুরোপুরি উৎপাদনে যেতে পারছে না গ্যাসভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলো।

কোনো কোনোটি দিনের পর দিন বন্ধই রাখতে হচ্ছে। এছাড়া গ্যাস বিতরণ কোম্পানিগুলোতে নতুন সংযোগ ও লোড বৃদ্ধির আবেদনের স্তূপ পড়েছে। সরবরাহ না থাকায় এর কোনো সুরাহা হচ্ছে না।

পেট্রোবাংলার হিসাব অনুযায়ী বৃহস্পতিবার দেশের গ্যাস ক্ষেত্রগুলো থেকে ৩ হাজার ৪২ ঘনফুট এমএমসিএফডি গ্যাস উৎপাদিত হয়েছে। কিন্তু বিতরণ করা হয়েছে ২৯১৩ ঘনফুট এমএমসিএফডি।

এরমধ্যে বিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলোতে সরবরাহ করা হয়েছে ১০৯১ ঘনফুট। যা মোট গ্যাস বিতরণের ৩৭ শতাংশ। যদিও পাওয়ার প্ল্যান্টগুলোর দিনে চাহিদা ছিল ২২৫২ ঘনফুট গ্যাস। এছাড়া সার কোম্পানিগুলোর দিনে চাহিদা ছিল ৩১৬ ঘনফুট গ্যাস।

বিতরণ করা হয়েছে ১২৮ ঘনফুট। মোট বিতরণের ৪ শতাংশ সরবরাহ করা হয়েছে। শিল্পকারখানাসহ অন্যান্য সব খাতে বিতরণ করা হয়েছে ১৬৯৫ ঘনফুট গ্যাস। যা মোটা বিতরণের ৫৮ শতাংশ।

সম্প্রতি বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ গণমাধ্যমকে বলেছেন, সারা দুনিয়াতে তেল, গ্যাস, কয়লার দাম বেড়ে গেছে। অনেক দেশ টাকা দিয়েও এসব পণ্য কিনতে পারছে না।

বহু দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদন সংকটে পড়েছে, তীব্র লোডশেডিংয়ে পড়েছে অনেক ধনী দেশও। কিন্তু এখন পর্যন্ত বাংলাদেশে সংকট হয়নি। আগামীতেও আমাদের তেল ও আমদানি করা এলএনজিতে সংকট হবে না।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ও জ্বালানি বিশেষজ্ঞ বদরুল ইমাম বলেন, কয়েক বছর পরপর ছোট একটি-দুটি গ্যাসক্ষেত্র আবিষ্কার তেমন কোনো গুরুত্ব বহন করে না।

অনুসন্ধানে বাড়তি জোর না দেওয়াই সরকারের সবচেয়ে বড় ভুল। তিনি বলেন, কম সম্ভাবনা নিয়েও অনেক দেশ এর চেয়ে বেশি অনুসন্ধান চালায়।

 

 

নিউজ ট্যাগ: গ্যাস-বিদ্যু

আরও খবর

বিশ্ববাজারে কমেছে স্বর্ণের দাম

শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১




ঢাকায় বাকপ্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণচেষ্টা

প্রকাশিত:রবিবার ৩১ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৬ নভেম্বর ২০২১ | ৫৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাজধানীর ভাটারায় বাকপ্রতিবন্ধী এক কিশোরীকে (১৩) ধর্ষণচেষ্টা করা হয়েছে। এ ঘটনায় একজনকে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার দিনগত রাতে শেওড়া রেলগেট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

ভাটারা থানার এএসআই পারভেজ জানান, ওই প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করা হয়েছে। এ ঘটনায় একজনকে আটক করা হয়েছে। এ বিষয়ে মামলা প্রক্রিয়াধীন বলেও জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।


আরও খবর