Logo
শিরোনাম

৪৩তম বিসিএস পরীক্ষার্থীদের জন্য জরুরি নির্দেশনা

প্রকাশিত:বুধবার ১৩ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৯ অক্টোবর ২০২১ | ৮১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

৪৩তম বিসিএস প্রিলিমিনারি পরীক্ষার প্রার্থীদের জন্য জরুরি নির্দেশনা প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন (বিপিএসসি)।

বুধবার (১৩ অক্টোবর) কমিশন থেকে এ সংক্রান্ত জরুরি নির্দেশনা প্রকাশ করা হয়।

এতে বলা হয়, পরীক্ষা-২০২০ এর প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তির শর্তানুযায়ী আগামী ২৯ নভেম্বর অনুষ্ঠেয় প্রিলিমিনারি টেস্টের পরীক্ষা কেন্দ্রে বই-পুস্তক, ঘড়ি, মোবাইল ফোন, ক্যালকুলেটর, সব ধরনের ইলেকট্রনিক ডিভাইস, ব্যাংক বা ক্রেডিট কার্ড সদৃশ কোনো ডিভাইস, গহনা, ব্রেসলেট ও ব্যাগ আনা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ। এসব কোনো জিনিস নিয়ে কোনো প্রার্থী পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারবেন না।

পরীক্ষা কেন্দ্রের গেটে এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট, পুলিশের উপস্থিতিতে প্রবেশপত্র এবং মেটাল ডিটেক্টরের সাহায্যে মোবাইল ফোন, ঘড়ি, ইলেকট্রনিক ডিভাইসসহ নিষিদ্ধ সামগ্রী তল্লাশির মধ্য দিয়ে প্রার্থীদের পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে।

পরীক্ষার দিন উল্লিখিত নিষিদ্ধ সামগ্রী সঙ্গে না আনার জন্য সব প্রার্থীর মোবাইল ফোনে এসএমএস করা হবে। এসএমএস বার্তার নির্দেশনা অনুসরণ করতে হবে।

পরীক্ষার সময় প্রার্থীরা কানের ওপর কোনো আবরণ রাখতে পারবে না বলেও এতে উল্লেখ করা হয়। কানে কোনো ধরনের হিয়ারিং এইড ব্যবহারের প্রয়োজন হলে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শপত্রসহ আগে থেকেই কমিশনের অনুমোদন নিতে হবে।

পরীক্ষার কেন্দ্রে কোনো প্রার্থীর কাছে এসব সামগ্রী পাওয়া গেলে তা বাজেয়াপ্তসহ বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (বয়স, যোগ‌্যতাও

সরাসরি নিয়োগের জন্য পরীক্ষা) বিধিমালা ২০১৪-এর বিধি ভঙ্গের কারণে সংশ্লিষ্ট প্রার্থীর প্রার্থিতা বাতিলসহ ভবিষ্যতে কর্ম কমিশন থেকে নেওয়া সব নিয়োগ পরীক্ষার জন্য উক্ত প্রার্থীকে অযোগ‌্য ঘোষণা করা হবে।

নিউজ ট্যাগ: পিএসসসি বিসিএস

আরও খবর



ওমরাহ যাত্রীদের মানতে হবে যেসব নির্দেশনা

প্রকাশিত:শনিবার ১৬ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১ | ৯৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ওমরাহ হজে যেতে ইচ্ছুক যাত্রীদের জন্য নতুন স্বাস্থ্য সংক্রান্ত নির্দেশনা দিয়েছে সৌদি আরব।

শনিবার (১৬ অক্টোবর) সৌদি আরবের মিনিস্ট্রি অব হজ অ্যান্ড ওমরাহ এবং স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় যৌথভাবে জারি করা এক বিজ্ঞপ্তিতে এই নির্দেশনা দেয়।

একইদিন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সসহ যেসব এয়ারলাইন্স বাংলাদেশ থেকে ওমরাহ যাত্রী বহন করে তাদেরও বিজ্ঞপ্তিটি পাঠানো হয়েছে। নতুন এই নির্দেশনা আগামী ১৭ অক্টোবর থেকে কার্যকর হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, আন্তর্জাতিক ওমরাহ যাত্রীরা বাস এবং প্রাইভেটকারের সম্পূর্ণ সিট ব্যবহার করতে পারবেন। তবে হোটেলের ক্ষেত্রে প্রতি রুমে সর্বোচ্চ ২ জনের অবস্থান বলবৎ থাকবে। আগে যাত্রীরা বাস ও গাড়ির ৫০ শতাংশ সিট ফাঁকা রেখে চলাচল করতেন।

ওমরাহ করতে যাওয়া যাত্রীদের জন্য উন্মুক্ত (খোলা) স্থানে মাস্ক পরা আর বাধ্যতামূলক থাকবে না (কিছু ব্যতিক্রম ছাড়া)। তবে বদ্ধ জায়গায় মাস্ক পরতে হবে।

মক্কার মসজিদ আল-হারাম (কাবা শরিফ এলাকা) এবং মদিনার মসজিদে নববীতে ধারণক্ষমতার সম্পূর্ণ অংশে মুসল্লিরা যেতে পারবেন ও নামাজ আদায় করতে পারবেন। এখানে কর্মরত কর্মী এবং আগত ভিজিটরদের অবশ্যই সার্বক্ষণিক মাস্ক পরতে হবে।

ওমরাহ, নামাজ, জিয়ারতের জন্য আগের মতোই ওমরাহ কোম্পানি থেকে তাসরিয়া বা তাওক্কালনা অ্যাপের মাধ্যমে অ্যাপয়েন্টমেন্ট নিতে হবে। তবে টিকার সম্পূর্ণ ডোজ গ্রহণ ছাড়া কিংবা তাওয়াক্কালনায় এপয়েন্টমেন্ট ছাড়া কেউ এসব জায়গায় যেতে পারবেন না।


আরও খবর



২৩ হাজার ছাড়ালো ডেঙ্গু রোগী

প্রকাশিত:বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৩৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৮৪ জন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। এনিয়ে চলতি বছরে এখন পর্যন্ত মোট ২৩ হাজার ৫৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন।

বুধবার (২৭ অক্টোবর) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোলরুম থেকে পাঠানো ডেঙ্গু বিষয়ক বিবৃতিতে এই তথ্য জানানো হয়।

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন আক্রান্ত ডেঙ্গু রোগীদের মধ্যে ঢাকায় ১৫১ জন এবং ঢাকার বাইরে ভর্তি হয়েছেন ৩৩ জন। বর্তমানে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে মোট ৮৬৪ জন ডেঙ্গুরোগী ভর্তি আছে।

চলতি বছরে এখন পর্যন্ত ২৩ হাজার ৫৪ ডেঙ্গ রোগীর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ২২ হাজার ১০১ জন রোগী। মৃত্যু হয়েছে ৮৯ জনের।


আরও খবর

আরও ১৭৩ ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১

করোনায় মৃত্যু কমেছে, শনাক্ত বেড়েছে

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১




পেছাল ইভ্যালি পরিচালনা কমিটি গঠনে আদেশের দিন

প্রকাশিত:বুধবার ১৩ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১ | ৭৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে ইভ্যালি পরিচালনার জন্য কমিটি গঠনের আদেশের দিন। বাণিজ্য মন্ত্রণালয় প্রস্তাবিত দুই সচিবসহ তিনজনের ব্যাকগ্রাউন্ড পর্যালোচনা করে আদালত আগামী সপ্তাহে আদেশ দেবেন বলে জানিয়েছেন রিটকারী আইনজীবী সৈয়দ মাহসিব হোসাইন। তবে আদেশের জন্য নির্দিষ্ট কোনো দিন তারিখ দেওয়া হয়নি।

আজ বুধবার (১৩ অক্টোবর) বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকারের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ সিদ্ধান্তের কথা জানান।

এর আগে বুধবার সকালে হাইকোর্টের নির্দেশে ইভ্যালি পরিচালনার জন্য দুই সচিবসহ তিনজনের নাম পাঠায় বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। যাদের নাম প্রস্তাব করা হয়েছে তারা হলেন- স্থানীয় সরকার ও পল্লী উন্নয়ন বিভাগের সাবেক সচিব রেজাউল আহসান, ভূমি সংস্কার বোর্ডের সাবেক সচিব ইয়াকুব আলী পাটোয়ারী এবং ভূমি মন্ত্রণালয়ের সাবেক সচিব মাকছুদুর রহমান পাটওয়ারী। এরমধ্যে একজনকে কমিটিতে রাখা হবে। এ তালিকা আদালতে দাখিল করেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের আইনজীবী তাপস কান্তি বল।

এর আগে মঙ্গলবার ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালি পরিচালনার জন্য কমিটি করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত জানান হাইকোর্ট। একজন অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি, একজন সচিব, চার্টার্ড অ্যাকাউনটেন্ট ও একজন আইনজীবীর সমন্বয়ে কমিটি গঠন করার কথা বলা হয়।

শুনানিতে আদালত আইনজীবীদের উদ্দেশ্যে বলেন, কোম্পানির দুজন সদস্য, দুজনই কারাগারে। কীভাবে বোর্ড মিটিং হবে? বোর্ড মিটিং করতে গেলেও তা করা যাচ্ছে না। বোর্ড মিটিং না করতে পারলে টাকা কোথায় কী আছে, সে বিষয়েও জানা যাচ্ছে না। সাবেক বিচারপতি, সচিব ও চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট্যান্টসহ চারজন রাখা যেতে পারে। বেসরকারি কোম্পানিতে চারজনের বেশি সদস্যের দরকার নেই।

উল্লেখ্য, গেল ৩০ সেপ্টেম্বর ইভ্যালির সব নথি তলব করেছিলেন হাইকোর্ট। জয়েন্ট স্টক কোম্পানির রেজিস্ট্রার ১১ অক্টোবর বিচারপতি মুহাম্মদ খুরশীদ আলম সরকারের হাইকোর্ট বেঞ্চে সব নথি দাখিল করেন।

আরও খবর



চাঁদপুরে মা ইলিশ রক্ষায় কঠোর অবস্থানে প্রশাসন

প্রকাশিত:সোমবার ০৪ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৯৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

চাঁদপুর জেলা টাস্কফোর্সের উদ্যোগে মা ইলিশ রক্ষা কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে। সোমবার সকালে চাঁদপুর শহরের তিন নদীর মোহনা বড়স্টেশন মোলহেডে অভয়াশ্রমের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক অঞ্জনা খান মজলিশ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, অভয়াশ্রমের ২২ দিন নদীতে কোনোভাবেই জেলেদের নামতে দেওয়া হবে না। এ বিষয়ে জেলা প্রশাসন ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী কঠোর অবস্থানে থাকবে। যদি কেউ এই নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে, তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। প্রাকৃতিক সম্পদ ইলিশ রক্ষায় শুধু জেলে নয়, সকলকে সচেতন হওয়ার আহ্বান জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, একটি মা ইলিশ রক্ষা করা মানে ১২-১৩ লাখ ইলিশ মাছ রক্ষা করা। তাই এই মুহূর্তে যদি আমরা একটু সচেতন হই এবং মা ইলিশ নিধন না করি তাহলে আগামীতে এর সুফল আমরা পাব। ঝাঁকে ঝাঁকে ইলিশ ঘাটে আসবে। সেক্ষেত্রে ইলিশের দাম অনেক কমে যেতে পারে। আর দাম কমলে আমরা সকলে মিলে-মিশে ইলিশ খেতে পারব।

পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ বলেন, মা ইলিশ রক্ষা কার্যক্রম বাস্তবায়ন করার জন্য কঠোর অবস্থানে রয়েছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। শুধু নদীতে নয় স্থলভাগেও যাতে কেউ মাছ বিক্রি করতে না পারে সেজন্য কঠিন নজরদারি রাখা হবে।

চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র মো. জিল্লুর রহমান জুয়েল বলেন, শুধু জেলে নয়, মা ইলিশ রক্ষা বাস্তবায়ন করতে আমাদের সকলের আরও বেশি সচেতন হতে হবে। সরকার ঘোষিত এই নির্দেশনা যদি আমরা মেনে চলি তাহলে এর সুফল আমরা নিজেরাই ভোগ করব।

এ সময় ইলিশ গবেষক ড. আনিসুর রহমান, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা গোলাম মেহেদী হাসান, নৌ পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. বেলায়েত হোসেন, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সানজিদা শাহনাজ, কোস্টগার্ড স্টেশন কমান্ডার সাব-লেফটেন্যান্ট রুহান মোর্শেদ, চাঁদপুর প্রেসক্লাব সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী, সদর উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা সুদীপ ভট্টাচার্য ও সহকারী কর্মকর্তা মাহবুবুর রশিদ, চাঁদপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র ফরিদা ইলিয়াস, ৭ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শফিকুর রহমান, চাঁদপুর নৌ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুজাহিদুল ইসলাম, কান্ট্রিফিশ মালিক সমিতির সভাপতি শাহ আলম মল্লিক উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



‘বিএনপি নেতাদের মিথ্যাচার গোয়েবলসকেও হার মানায়’

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৬ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৩২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কুমিল্লাসহ বিভিন্ন পূজামণ্ডপে হামলা সরকারের নীলনকশা, সরকার হামলাকারীদের বিচারের উদ্যোগ নেয়নি- বিএনপি নেতাদের এমন অভিযোগের জবাব দিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, এসব অভিযোগ বিএনপি নেতাদের মিথ্যাচার গোয়েবলসকেও হার মানায়। পূজামণ্ডপে হামলার পর থেকে বিএনপি মিথ্যাচার এবং অপপ্রচারের ফানুস উড়িয়েই যাচ্ছেন। এসব অভিযোগ কল্পনাপ্রসূত, যার সঙ্গে বাস্তবতার কোনো সম্পর্ক নেই।

মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) সরকারি বাসভবনে ব্রিফিংয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, কোন সরকার কি চায় দেশের পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করতে? আর তা করে সরকারের কি লাভ? দোষারোপের রাজনীতি যেহেতু বিএনপির আদর্শ সেহেতু সরকারের বিরুদ্ধে কিছু না কিছু বলতেই হবে এ ধরনের কল্পিত ও অন্তঃসারশূন্য অভিযোগ তারই ধারাবাহিকতা।

তিনি আরও বলেন, বিএনপি নেতারা হিন্দু সম্প্রদায়ের জন্য মায়াকান্না করলেও প্রকৃতপক্ষে পূজামণ্ডপে হামলার বিচার তারা চাননি। ভিডিও ফুটেজ অনুযায়ী সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে মামলা হলেও তারা বলছেন বিরোধীদের হেনস্তা করার জন্য মামলা করা হয়েছে। এটা বিএনপির ডাবল স্ট্যান্ডার্ড।

আওয়ামী লীগের এ শীর্ষ নেতা বলেন, ঘটনার পর বিএনপির পক্ষ থেকে কেউ হিন্দু সম্প্রদায়ের পাশে দাঁড়ায়নি অথচ এখন প্রায় দুই সপ্তাহ পর বিএনপির দলীয় টিম বিভিন্ন মন্দির পরিদর্শন করছেন। ঘটনার রেশ কেটে যাওয়ার পর এ লোক দেখানো পরিদর্শন দলীয়ভাবে বিএনপির দায়িত্বহীনতাকেই স্পষ্ট করছে। বিএনপি নেতারা অভিযোগ করেছেন, সরকার নাকি পুরোহিতদের বাধা দিয়েছে বিএনপির সঙ্গে কথা বলতে, এমন সৃজনশীল মিথ্যাচার বিএনপির মুখেই মানায়।


আরও খবর