Logo
শিরোনাম

৫ জনের গণধর্ষণের শিকার অভিনয়শিল্পী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৪ মার্চ ২০২১ | ৯৯জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মডেলিংয়ের কথা বলে গাজীপুর মহানগরীর কাশিমপুরের হাতিমারা এলাকায় এক অভিনয় শিল্পীকে ডেকে নিয়ে রাতভর পালাক্রমে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে ৫ জনের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় গাজীপুর মেট্রোপলিটন কাশিমপুর থানায় ওই তরুণী বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার পরে অভিযুক্ত জাহাঙ্গীর আলম ও তার সহযোগী সুমন মিয়া, রাসেল তালুকদার, জহির উদ্দিন ও শাহাবুলকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বুধবার দুপুরে গাজীপুরের আদালত গ্রেপ্তারকৃতদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

কাশিমপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহবুবে খোদা জানান, গেলো ৩১ জানুয়ারি রাতে স্থানীয় জাহাঙ্গীর আলম ও তার সহযোগীরা ইউটিউব চ্যানেলে মডেলিংয়ের কথা বলে কাশিমপুর থানার সারদাগঞ্জ এলাকায় ডেকে নেন ওই অভিনয়শিল্পীকে।

পরে একটি ঘরে আটকে রেখে তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন অভিযুক্তরা। গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ওই নারী কাশিমপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করলে রাতেই পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

নিউজ ট্যাগ: মডেলিং গণধর্ষণ
Share

আরও খবর



হল মালিকদের কম সুদে ঋণ দিচ্ছে বাংলাদেশ ব্যাংক

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০১ মার্চ ২০২১ | ৫৭জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সিনেমা হল মালিকদের স্বল্প সুদে দীর্ঘমেয়াদে ঋণ দেয়া হবে। সিনেমা হল সংস্কার, আধুনিকায়ন ও নতুন হল নির্মাণের জন্য এক হাজার কোটি টাকার বিশেষ পুনঃঅর্থায়ন স্কিম গঠন করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

রোববার পুনঃঅর্থায়ন তহবিলের সুদের হার নির্ধারণ করে নীতিমালা জারি করে বাংলাদেশ ব্যাংক। মেট্রোপলিটন এলাকার হল মালিকরা ৫ শতাংশ সুদে ঋণ পাবেন। আর মেট্রোপলিটন এলাকার বাইরের হল মালিকরা সাড়ে ৪ শতাংশ সুদে ঋণ পাবেন।

এর আগে গত ২৬ জানুয়ারি এই তহবিলের অনুমোদন দেয় বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদ।

নীতিমালা অনুযায়ী, বাংলাদেশ ব্যাংক বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে ১ দশমিক ৫ শতাংশ সুদে এই ঋণ দেবে। ব্যাংকগুলো আবার গ্রাহক পর্যায়ে সর্বোচ্চ ৫ শতাংশ সুদে এই ঋণ বিতরণ করতে পারবে। একটি সিনেমা হলের বিপরীতে সর্বোচ্চ ৫ কোটি টাকা ঋণ বিতরণ করতে পারবে ব্যাংকগুলো।

প্রথম বছর এই ঋণের কোনো কিস্তি দিতে হবে না হল মালিকদের। ঋণ পরিশোধের জন্য সর্বোচ্চ সময় পাওয়া যাবে ৮ বছর।

যেসব হল মালিক এই ঋণ পাবেন

সিনেমা হল মালিকদের সুবিধার্থে বিভিন্ন মেয়াদে ঋণ বা বিনিয়োগ সুবিধা দেয়া হবে। বর্তমান সিনেমা হল সংস্কার, আধুনিকায়ন, যন্ত্রাংশ কেনা ও নতুন সিনেমা হল নির্মাণের জন্য তফসিলি ব্যাংকের অর্থায়নের বিপরীতে বাংলাদেশ ব্যাংক পুনঃঅর্থায়ন সুবিধা দেবে। বিভিন্ন শপিং কমপ্লেক্সে যেসব সিনেমা হল আছে, সেগুলো নতুনভাবে নির্মাণ করার ক্ষেত্রেও এ স্কিম সুবিধা প্রযোজ্য হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের নিজস্ব তহবিল থেকে দেয়া হবে এ টাকা। প্রথম ধাপে ৫০০ কোটি টাকা বিতরণ করা হবে। টাকা ব্যয়ের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর দ্বিতীয় ধাপে আরো ৫০০ কোটি টাকা দেয়া হবে। প্রত্যেক গ্রাহককে প্রতিটি সিনেমা হলের জন্য ঋণ বা বিনিয়োগ সুবিধার নিশ্চয়তা অর্থায়নকারী ব্যাংক নির্ধারণ করবে। কিন্তু কোনো সিনেমা হলই ৫ কোটি টাকার বেশি পাবে না।

ঋণ নিতে যা করতে হবে

এ স্কিম থেকে যারা ঋণ নিতে চান, তাদের ২০২২ সালের ৩১ মার্চের মধ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের কাছে আবেদন করতে হবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের ডিপার্টমেন্ট অব অফ-সাইট সুপারভিশন এ স্কিম পরিচালনা করবে।

নিউজ ট্যাগ: বাংলাদেশ ব্যাংক
Share

আরও খবর



সোফা কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে দুই ভাই সহ মদিনায় ৬ বাংলাদেশির মৃত্যু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৩ মার্চ ২০২১ | ৮৬জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সৌদি আরবের মদিনায় একটি সোফা কারখানায় অগ্নিকাণ্ডে ছয় বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। স্থানীয় সময় বুধবার দিবাগত রাতে এ অগ্নিকাণ্ড ঘটে। সৌদিতে বাংলাদেশ দূতাবাসের লিগ্যাল অ্যাসিস্ট্যান্ট মোহাম্মদ মহসীন হোসেন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নিহত ছয়জনের মধ্যে মিজান ও আরাফাত নামের দুই ভাই রয়েছেন। তাঁরা চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার দক্ষিণ সুখছড়ী চাম্বিরপাড়া এলাকার সুলতান আহমদের ছেলে বলে জানা গেছে। বাকিরা অতিমাত্রায় দগ্ধ হওয়ায় এখন পর্যন্ত তাঁদের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

এদিকে, কীভাবে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে, তা এখনো জানাতে পারেনি স্থানীয় পুলিশ। নিহত ব্যক্তিদের মরদেহ শনাক্তে সার্বক্ষণিক কাজ চলছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ দূতাবাস।

নিউজ ট্যাগ: মদিনা মুনাওয়ারা
Share

আরও খবর



পিলখানা হত্যাকাণ্ড: নিহত সেনা কর্মকর্তাদের সমাধিতে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৩ মার্চ ২০২১ | ৫৮জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাজধানীর পিলখানায় তৎকালীন বিডিআর সদরদপ্তরে সংঘটিত নৃশংস হত্যাকাণ্ডের এক যুগ পূর্ণ হলো আজ বৃহস্পতিবার। এরই মধ্যে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিনিধিরা রাজধানীর বনানীর সামরিক কবরস্থানে আজ বৃহস্পতিবার সকাল ৯টার দিকে নিহত সেনা কর্মকর্তাদের সমাধিতে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন। রাষ্ট্রপতির পক্ষে তাঁর সামরিক সচিব মেজর জেনারেল এস এম সালাহ উদ্দিন ইসলাম এবং প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে তাঁর সামরিক সচিব মেজর জেনারেল নকিব আহমদ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

এ ছাড়া স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, তিন বাহিনীর প্রধান, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীন জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব, বিজিবির মহাপরিচালক এবং নিহত কর্মকর্তাদের স্বজনরাও শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। দিনটি উপলক্ষে বাংলাদেশ বর্ডার গার্ড (বিজিবি) কোরআন খানি, দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করেছে।

২০০৯ সালে বিডিআর (বর্তমানে বিজিবি) সপ্তাহ চলাকালে ২৫ ফেব্রুয়ারি সশস্ত্র বিদ্রোহ করেন বাহিনীর কয়েকশ সদস্য। তাদের হাতে পিলখানা সদরদপ্তরে নিহত হন ৫৭ জন সেনা কর্মকর্তাসহ ৭৪ জন। পরে সরকারের সঙ্গে বিদ্রোহীদের আলোচনা শেষে পরদিন ২৬ ফেব্রুয়ারি অস্ত্র, গুলি ও গ্রেনেড জমাদানের মধ্য দিয়ে বিদ্রোহের সমাপ্তি হয়। ঘটনার জেটপাট ও বিদ্রোহের এ ঘটনায় মোট ৫৮টি মামলা দায়ের করা হয়। হত্যার এক মামলায় দেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ ১৫২ জনকে মৃত্যুদণ্ড, ৪২৩ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেওয়া হয়। এর মধ্যে বিএনপির প্রয়াত নেরে আধাসামরিক বাহিনী বাংলাদেশ রাইফেলসের (বিডিআর) নাম বদলে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) রাখা হয়।

নাসিরুদ্দিন আহমেদ পিন্টু ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা তোরাব আলীসহ ১৬১ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়। অন্যদিকে বিদ্রোহের জন্য দায়ের করা ৫৭ মামলায় বিডিআরের মোট পাঁচ হাজার ৯২৬ জন সদস্যের বিভিন্ন মেয়াদে (চার মাস থেকে সাত বছর) কারাদণ্ড দেওয়া হয়। ২০২০ সালের ৮ জানুয়ারি বহুল আলোচিত পিলখানা হত্যা মামলায় হাইকোর্টের দেওয়া রায়ের পূর্ণাঙ্গ অনুলিপি প্রকাশিত হয়। রায় প্রদানকারী তিন বিচারপতির স্বাক্ষরের পর ২৯ হাজার ৫৯ পৃষ্ঠার এ রায়টি প্রকাশ করা হয়। রায়ের দৈর্ঘ্য এবং মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামির সংখ্যার দিক থেকে এটিই বাংলাদেশের ইতিহাসে সর্ববৃহৎ রায়।

Share

আরও খবর



নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে সম্পন্ন করা হবে : সিইসি

প্রকাশিত:সোমবার ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ০১ মার্চ ২০২১ | ৭৩জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা বলেছেন, কেশবপুর পৌরসভা নির্বাচন অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষভাবে সম্পন্ন করা হবে। নির্বাচনের পরিবেশ অত্যন্ত ভালো। কোন ঝুঁকি নেই। ইভিএমে ভোট প্রদানে ভোটারদের কোনো অসুবিধা হবে না। বিকেল ৫টা পর্যন্ত ভোটারদের ভোট প্রদান সম্পপন্ন না হলে লাইনে যারা থাকবেন তারা ভোট অধিকার প্রয়োগ করতে পারবেন।

যশোরের কেশবপুর পৌরসভা নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পপন্ন করার লক্ষে সোমবার দুপুরে উপজেলা পরিষদের মিলনায়তনে ভোট গ্রহণ কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় সভা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা এসব কথা বলেন।

যশোর জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খানের সভাপতিত্বে ভোট গ্রহণ কর্মকর্তাদের সাথে মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) এর প্রকল্প পরিচালক ব্রিগ্রেডিয়ার আবুল কাশেম, যশোরের পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ারদার, বিভাগীয় নির্বাচন কর্মকর্তা ইউনুচ আলী, যশোর জেলা নির্বাচন অফিসার হুমায়ূন কবির ও কেশবপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার এম এম আরাফাত হোসেন।

উপজেলা নির্বাচন অফিসার বজলুর রশিদ জানান, আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি কেশবপুর পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। কেশবপুর পৌরসভার ভোটার সংখ্যা ২০ হাজার সাতশ ২৫ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার দশ হাজার একশ ৮৫ জন ও নারী ভোটার দশ হাজার পাঁচশ ৪০ জন। পঞ্চম ধাপের এ নির্বাচনে ইভিএমের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ সম্পপন্ন করা হবে।

Share

আরও খবর



দেশে করোনাভাইরাসে আরও ১১ প্রাণহানি

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৩ মার্চ ২০২১ | ৪৮জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মহামারি করোনাভাইরাসে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন আরও ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এই সময়ে প্রাণঘাতী ভাইরাসটিতে নতুন আক্রান্ত হয়েছেন আরও ৪৭০ জন।

শুক্রবার বিকালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এক বিজ্ঞপ্তিতে দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ পরিস্থিতির সর্বশেষ এ তথ্য জানিয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন ১১ জনকে নিয়ে এ পর্যন্ত করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন মোট ৮ হাজার ৩৯৫ জন। এই সময়ে নতুন ৪৭০ জনকে নিয়ে দেশে এ পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন মোট ৫ লাখ ৪৫ হাজার ৪২৪ জন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় বাসা ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরও ৭৪৩ জন রোগী সুস্থ হয়েছেন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত মোট ৪ লাখ ৯৫ হাজার ৪৯৮ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়ে উঠলেন।

দেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল গত ৮ মার্চ। এর ১০ দিনের মাথায় ১৮ মার্চ প্রথম মৃত্যুর খবর আসে।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনে করোনাভাইরাসের উপদ্রব শুরু হয়। এটি বর্তমানে বিশ্বের ২১৩ দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে। ১১ মার্চ করোনাকে বৈশ্বিক মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

Share

আরও খবর