Logo
শিরোনাম

৬ অক্টোবর: ইতিহাসের এই দিনে

প্রকাশিত:বুধবার ০৬ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৯ অক্টোবর ২০২১ | ৫৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
এক নজরে দেখে নিন ইতিহাসের এ দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যুদিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়

৬ অক্টোবর ২০২১, বুধবার। ২০ আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ। গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জী অনুসারে বছরের ২৭৯তম (অধিবর্ষে ২৮০তম) দিন। বছর শেষ হতে আরো ৮৬ দিন বাকি রয়েছে। এক নজরে দেখে নিন ইতিহাসের এ দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যুদিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনাবলি

১৭০২ - ফোর্ট উইলিয়াম দুর্গে প্রথম ব্রিটিশ পতাকা উত্তোলন হয়।

১৭৬৯ - ক্যাপটেন কুক নিউজিল্যান্ডে পদার্পণ করেন।

১৮৬০ - ভারতীয় দন্ডবিধি আইনে পরিণত হয়। তবে এর কার্যকারিতা শুরু হয় ১ জানুয়ারি ১৮৬২ সালে।

১৯০৮ - বসনিয়া ও হারজেগোভেনিয়া ভূখণ্ডকে অস্ট্রিয়া নিজ অধিকারভুক্ত করে।

১৯১৮ - তুর্কী সাম্রাজ্যের অধীন বৈরুতে ফ্রান্সের দখল কায়েম।

১৯২৮ - চিয়াং কাইশেক চীনের রাষ্ট্রপতি হন।

১৯৭২ - মেক্সিকোর সিয়াটলের কাছে ট্রেন লাইনচ্যুত হয়ে ২০৮ জন নিহত হন।

১৯৭৩ - বাংলাদেশকে স্বাধীন দেশ হিসেবে স্বীকৃতি দেয় ক্যামেরুন।

১৯৭৬ - থাইরেন্ডে সামরিক অভ্যূত্থান অনুষ্ঠিত হয়।

১৯৯৫ - বসনিয়ায় ৬০ দিনের যুদ্ধবিরতি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

 

জন্ম

৮৭৭ - চার্লস টাক, রোমান সম্রাট।

১৬৬০ - পল স্কারণ, ফরাসি কবি ও লেখক।

১৮২০ - জেনি লিন্ড, সুইডিশ সরু ও অভিনেত্রী।

১৮৩১ - রিচার্ড ডেডেকিন্ট, জার্মান গণিতবিদ।

১৮৮৭ - লে করবুসিয়, সুইস স্থপতি ও নগর পরিকল্পনাবিদ।

১৮৯২ - লর্ড আলফ্রেড টেনিসন, ব্রিটিশ কবি।

১৮৯৩ - মেঘনাদ সাহা, বাঙালি জ্যোতির্পদার্থবিজ্ঞানী।

১৯০৩ - আর্নেস্ট টমাস সিন্টন ওয়াল্টন, নোবেল পুরস্কার বিজয়ী আইরিশ পদার্থবিদ ও অধ্যাপক।

১৯০৬ - জ্যানেট গেনর, মার্কিন অভিনেত্রী ও চিত্রশিল্পী।

১৯০৮ - ক্যারল লমবার্ড, মার্কিন চলচ্চিত্র অভিনেত্রী।

১৯০৮ - মোহাম্মদ মোদাব্বের, বাংলাদেশী সাংবাদিক, শিশুসাহিত্যিক ও বিশিষ্ট সমাজসেবক।

১৯১২ - অগাস্ট মারি ফ্রাঙ্কইস বেরনাইয়েরট, নোবেল পুরস্কার বিজয়ী বেলজিয়ান রাজনীতিবিদ ও ১৪ তম প্রধানমন্ত্রী।

১৯৩০ - রিচি বেনো, অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার।

১৯৩১ - নিকলাই চের্নিখ, রুশ বংশোদ্ভূত সোভিয়েত জ্যোতির্বিজ্ঞানী।

১৯৩১ - রিকার্ডো গিয়াকনি, ইতালীয় বংশোদ্ভূত আমেরিকান জ্যোতিঃপদার্থবিজ্ঞানী ও জ্যোতির্বিদ।

১৯৩৩ - ভারতীয় বাঙালি কবি অলোকরঞ্জন দাশগুপ্ত।

১৯৩৪ - আবুল মাল আবদুল মুহিত, বাংলাদেশী অর্থনীতিবিদ, কূটনীতিবিদ ও ভাষাসৈনিক।

১৯৪৬ -জন ক্রেইগ ভেন্টার, মার্কিন জীববিজ্ঞানী।

১৯৪৬ - টনি গ্রেগ, ইংরেজ ক্রিকেটার ও ক্রিকেট ধারাভাষ্যকার।

১৯৬৬ - শিরীন শারমিন চৌধুরী, বাংলাদেশি রাজনীতিবিদ, বাংলাদেশের প্রথম নারী ও সর্বকনিষ্ঠ স্পিকার।

১৯৬৬ - নিয়াল কুইন, তিনি সাবেক আইরিশ ফুটবলার ও ম্যানেজার।

১৯৮৬ - অলিভিয়া থিরল্বয়, তিনি আমেরিকান অভিনেত্রী।

১৯৮৯ - শফিউল ইসলাম সুহাস, তিনি বাংলাদেশী ক্রিকেটার।

 

মৃত্যু

১৯৫১ - অট্টো ফ্রিটজ মেয়ারহফ, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী জার্মান বংশোদ্ভূত আমেরিকান চিকিৎসক ও বায়োকেমিস্ট।

১৯৬২ - টড ব্রাউনিং, তিনি ছিলেন আমেরিকান অভিনেতা, পরিচালক ও চিত্রনাট্যকার।

১৯৮১ - মুহাম্মদ আনোয়ার আল সাদাত, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী মিশরীয় রাজনীতিবিদ ও ৩য় প্রেসিডেন্ট।

১৯৯২ - বিল ও’রিলি, বিখ্যাত অস্ট্রেলীয় ক্রিকেটার।

১৯৯৯ - আমালিয়া রডরিগুয়েজ, তিনি ছিলেন পর্তুগিজ গায়িকা ও অভিনেত্রী।

২০০০ - রিচার্ড ফার্নসওয়ার্থ, মার্কিন অভিনেতা ও স্টান্ট।

২০১২ - আন্তোনিও থিসনেরস, একজন পেরুদেশীয় কবি।

২০২০ - সর্বকালের সেরা গিটারিস্ট এডি ভ্যান হ্যালেন।


আরও খবর

২৬ অক্টোবর: ইতিহাসের এই দিনে

মঙ্গলবার ২৬ অক্টোবর ২০২১

২৫ অক্টোবর: ইতিহাসের এই দিনে

সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১




রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যা : ১৬৪ ধারায় ইলিয়াসের জবানবন্দি

প্রকাশিত:রবিবার ১০ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১ | ৮০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রোহিঙ্গা নেতা মাস্টার মুহিবুল্লাহকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার পাঁচজনের মধ্যে ইলিয়াস নামে একজন ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

আজ রবিবার (১০ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০টায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কক্সবাজার কোর্ট পুলিশের দায়িত্বপ্রাপ্ত এক কর্মকর্তা।

তিনি জানান, শনিবার তিন দিনের রিমান্ড শেষে মোহাম্মদ ইলিয়াসকে আদালতে আনা হয়। পরে তিনি কক্সবাজার চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজেস্ট্রেট আদালতের বিচারক মো. হেলাল উদ্দিনের কাছে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন।

এর আগে রবিবার (৩ অক্টোবর) দুপুরে উখিয়ার কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে-৫ এ অভিযান চালিয়ে ইলিয়াসকে আটক করে এপিবিএন।

উল্লেখ্য, বুধবার (২৯ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে নিজ সংগঠনের কার্যালয়ে অবস্থানকালে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত হন রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) রাতে উখিয়া থানায় ৩০২/৩৪ ধারায় একটি মামলা করেন তার ছোট ভাই হাবিব উল্লাহ।

শুক্রবার (০১ অক্টোবর) দুপুরে উখিয়ার কুতুপালং ক্যাম্প-৬ থেকে মুহিবুল্লাহ হত্যায় জড়িত সন্দেহে মোহম্মদ সেলিমকে (৩৩) ১৪ আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ানের (এপিবিএন) সদস্যরা গ্রেফতার করে উখিয়া থানায় হস্তান্তর করে। শনিবার ভোরে কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে মুহিবুল্লাহ হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে জিয়াউর রহমান ও আব্দুস সালামকে গ্রেফতার করে ১৪ এপিবিএন। ওই দিন বিকেলে উখিয়া থানা পুলিশ শওকত উল্লাহ (২৩) নামে আরেকজনকে কুতুপালং ক্যাম্প থেকে গ্রেফতার করে। এ পর্যন্ত মুহিব্বুল্লাহ হত্যার ঘটনায় এপিবিএন চারজন এবং উখিয়া থানা পুলিশ একজনকে গ্রেফতার করেছে।


আরও খবর



পশ্চিমবঙ্গে স্কুল-কলেজ খুলছে, দিনক্ষণ জানালেন মমতা

প্রকাশিত:সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৪৪জন দেখেছেন

Image

অবশেষে পশ্চিমবঙ্গে স্কুল-কলেজ খোলার চূড়ান্ত দিনক্ষণ ঘোষণা হয়েছে। আগামী ১৫ নভেম্বর (সোমবার) থেকে রাজ্যটিতে খুলে যাচ্ছে স্কুল এবং কলেজ। সোমবার এমনটাই জানালেন পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে কী নিয়ম মেনে চলতে হবে, সে বিষয়ে বিস্তারিতভাবে কিছু জানানো হয়নি। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

সোমবার উত্তরবঙ্গে জলপাইগুড়ি ও আলিপুরদুয়ার জেলার প্রশাসনিক বৈঠকে লক্ষ্মীর ভাণ্ডার এবং দুয়ারে সরকারের বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে তথ্য দিচ্ছিলেন মুখ্যসচিব হরিকৃষ্ণ দ্বিবেদী।

তারইমধ্যে মুখ্যসচিবকে থামিয়ে মমতা বলেন, কালীপুজো হচ্ছে চার তারিখ (চার নভেম্বর)। ১০ ও ১১ তারিখ হচ্ছে ছটপুজো। ১৩ তারিখ হচ্ছে জগদ্ধাত্রী পুজো। তোমায় যা করতে হবে ১৫ তারিখ (১৫ নভেম্বর) থেকে করতে হবে। স্কুল, কলেজ খোলার বিষয়টি ১৫ তারিখ (১৫ নভেম্বর) থেকে করে দাও। তার আগে স্কুল-কলেজগুলি পরিষ্কার করতে হবে। সেগুলো মাথায় রাখ।

করোনা মহামারির কারণে গত বছরের মার্চ থেকে ভারতের রাজ্যটির স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ হয়ে যায়। পরবর্তীকালে বিভিন্ন রাজ্যে স্কুল, কলেজ খুলে গেলেও সেই পথে হাঁটেনি পশ্চিমবঙ্গ সরকার। তা নিয়ে একটি মহল থেকে সমালোচনাও হচ্ছিল।

তারইমধ্যে চলতি বছরের আগস্টে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন, করোনা ভাইরাসের তৃতীয় ঢেউ ভয়ংকর না হলে পূজার ছুটির পর রাজ্যে স্কুল খুলে যাবে। তিনি বলেছিলেন, রাজ্যে আপাতত করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে। সংক্রমণ এক শতাংশে নেমে এসেছে। তবে আজ ঠিক থাকলেও আগামিকাল কী হবে, তা নিয়ে এভাবে বলা সম্ভব নয়। সব ঠিকঠাক থাকলে ভাইফোঁটার পরই রাজ্যে স্কুল খোলা হবে।

তিনি আরও বলেছিলেন, দুর্গাপুজোর পর স্যানিটাইজেশন করে স্কুল খুলবে। এখন করোনা পরিস্থিতি অনেকটা নিয়ন্ত্রণে। তৃতীয় ঢেউ না এলে স্কুল খোলা হবে।

মমতার সেই ঘোষণার পর স্কুল খোলার জন্য প্রস্তুতি শুরু করে দেয় রাজ্যের স্কুল শিক্ষা দপ্তর। দেড় বছরের বেশি বন্ধ থাকায় অনেক স্কুলের ভবনই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কোথাও স্কুলের ভবনে ফাটল ধরেছে। কোথাও আবার অগাছা গজিয়েছে, যা পড়ুয়া এবং শিক্ষকদের পক্ষে ঝুঁকিপূর্ণ হতে পারে বলে ধারণা স্কুল শিক্ষা দপ্তরের।

সেজন্য সেইসব ভবন মেরামত করতে মোট কত টাকা লাগবে, তা নির্ধারণ করতে জেলাশাসকদের চিঠি পাঠানো হয়েছিল। ১৫ সেপ্টেম্বরের মধ্যে বিস্তারিত হিসাব পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছিল রাজ্য। নবান্ন সূত্রের খবর, জেলাভিত্তিক রিপোর্ট হাতে পেয়ে স্কুল ভবন সারাইয়ের জন্য ১০৯ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে।



আরও খবর



রওশন এরশাদ জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে: জিএম কাদের

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৩৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ বার্ধক্যজনিত নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে জীবন-মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে রয়েছেন বলে জানিয়েছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের। তিনি ঢাকার স‌ম্মি‌লিত সা‌ম‌রিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

বৃহস্প‌তিবার দুপু‌রে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয়ে বেগম রওশন এরশাদের রোগমুক্তি কামনায় দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে জিএম কাদের এই তথ্য জানান। তিনি রওশন এরশাদের জন্য দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছেন। বেগম রওশন এরশা‌দের রোগমু‌ক্তি ও সুস্থতা কামনায় দোয়া মাহফিলে জাতীয় পার্টির মহাস‌চিব মু‌জিবুল হক চুন্নুসহ শীর্ষ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

দলীয় সূত্রে জানা যায়, রওশন এরশাদের ফুসফুসে জটিলতা দেখা দেয় গত ১৪ আগস্ট। ধীরে ধীরে অক্সিজেন লেভেলও কমতে শুরু করে। পরে তাকে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এক পর্যায়ে তাকে আইসিইউতে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হয়। কিছুটা উন্নতি হলে তাকে কেবিনে নেওয়া হয়।

হাসপাতালে থাকাকালেই গত ২০ অক্টোবর আবার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাকে দ্বিতীয় দফায় আইসিইউতে নেওয়া হয়। এর আগে গত ২৩ মে টানা ২৪ দিন হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে বাসায় ফেরেন সাবেক এই ফার্স্ট লেডি।

জাতীয় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা প্রয়াত হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের স্ত্রী রওশন এরশাদ ময়মনসিংহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য। তিনি সংসদে গত দুই মেয়াদে বিরোধী দলীয় নেতার দায়িত্ব পালন করে আসছেন। তিনি জাতীয় পার্টির প্রধান পৃষ্ঠপোষক (চিফ প্যাট্রন)।

নিউজ ট্যাগ: রওশন এরশাদ

আরও খবর



সাম্প্রদায়িক উসকানি দাতাদের জবাব দিতেই হবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৯ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১ | ৬৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, যারা সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা সৃষ্টির চেষ্টা করছেন, উসকানি দিচ্ছেন, তাদের খুব শিগগিরই গ্রেফতার করা হবে। তাদের জবাব দিতেই হবে। তিনি বলেন কুমিল্লার মূল অভিযুক্ত পালিয়ে বেড়াচ্ছে। তাকেও শিগগির গ্রেফতার করা হবে।

মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) র‍্যাবের প্রযুক্তিগত আধুনিকায়ন শীর্ষক কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। র‍্যাবের সব ব্যাটালিয়ন ও ক্যাম্প পর্যায়ে তথ্য প্রযুক্তির সর্বোত্তম ও সার্বিক ব্যবহার বিস্তৃত করার লক্ষ্যে মঙ্গলবার দুপুরে র‍্যাব সদর দফতরে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, কুমিল্লার পূজা মণ্ডপে যে ঘটনা ঘটিয়েছে, তাকে আমরা শনাক্ত করেছি। সে বার বার তার অবস্থান পরিবর্তন করছে। খুব অল্প সময়ের মধ্যে তাকে আমরা ধরে ফেলতে পারব। কুমিল্লায় কেন সে এই ঘটনা ঘটিয়েছে তা আমরা জানতে পারব।

মন্ত্রী বলেন, আজ পর্যন্ত কোনো পূজা মণ্ডপে কোনো কিছু ঘটেনি। কিন্তু এবার দেখছি অপ্রীতিকর কিছু ঘটনা ঘটে গেছে। কুমিল্লার ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঁদপুরে কিছু উগ্র মানুষ হিন্দু সম্প্রদায়ের একটি উপাসনালয়ে ভাঙচুরের চেষ্টা করেছে। সেখানে পরিস্থিতি মোকাবিলায় পুলিশকে হিমশিম খেতে হয়েছে। সেখানে ৪ জন মারা গেছেন। আজ আরেকজন মেডিকেলে মারা গেছেন।

মন্ত্রী বলেন, কেন এই হত্যাকাণ্ড, কেন এই মৃত্যু; কার উদ্দেশ্য সফল হওয়ার জন্য এই মৃত্যু? আমরা দেখলাম পরিতোষ নামে এক অল্প বয়সী ছেলে ফেইসবুকে আপত্তিকর স্ট্যাটাস দিয়েছে। সেটা কেন্দ্র করে সহিংসতা। আমাদের পুলিশ বাহিনী তার বাড়ি ঘর রক্ষায় সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছে। তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। কিন্তু ইতোমধ্যে তার পাশের গ্রামে অগ্নি সংযোগ লুটপাট ভাঙচুর হয়েছে। আমরা এর নিন্দা জানাই।

মন্ত্রী বলেন অতীতেও ফেইসবুকে মিথ্যে প্রচারের মাধ্যমে রামু, নাসিরনগর ও ভোলায় অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের অপচেষ্টা করা হয়েছে।

তিনি বলেন, গত ১৬ মে রাজধানীর পল্লবীতে একটি হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। দুই যুবক একজনকে চাপাতি দিয়ে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যা করছে। সেই ঘটনা দেখে সবার হৃদয় কেঁপে উঠেছে। সেই ঘটনার ভিডিও ফুটেজ ক্লিপ আকারে প্রচার করে একটি মহল নোয়াখালীর যতন সাহাকে একইভাবে হত্যা করা হয়েছে মর্মে অপপ্রচার করছে। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক, ন্যক্কারজনক ও অমানবিকও বটে।

মন্ত্রী বলেন, যারা এই ধরনের অপপ্রচার চালিয়ে ফায়দা নেওয়ার চেষ্টা করছেন, তাদের হুঁশিয়ার করে দিচ্ছি। তাদের অবশ্যই খুঁজে বের করা হবে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাদের খুঁজে বের করে উপযুক্ত শাস্তির ব্যবস্থা করবে। জবাব দিতে হবে তাদের, কেন তারা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি ও শান্তি বিনষ্ট করছে।

তিনি অনুরোধ জানিয়ে বলেন, যখনই এসব ঘটনা আপনারা (গণমাধ্যম কর্মী) ফেসবুকে দেখেন, তার সত্যতা যাচাই করবেন। উত্তেজনা সংবরণ করবেন। শুধু শুধু উস্কানিতে অন্যায় কাণ্ড ঘটিয়ে বসবেন না। ইতোমধ্যে রংপুরে এমন কাণ্ড ঘটিয়েছেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তথ্য প্রযুক্তির সর্বোত্তম ও সার্বিক ব্যবহারের মাধ্যমে অপরাধীদের শনাক্ত করতে র‌্যাব আরও এক ধাপ এগিয়ে গেল। আমি প্রত্যাশা করব, সুযোগ-সুবিধা ব্যবহারে র‌্যাব আরও কার্যকরী ভূমিকা পালন করবে। র‌্যাবের দাফতরিক কাজ, প্রাইভেট কাজ, গুরুত্বপূর্ণ নথি, তথ্য সংরক্ষণে সক্ষমতা আরও বৃদ্ধি পাবে।

র‍্যাব মহাপরিচালক (ডিজি) অতিরিক্ত আইজিপি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মোস্তফা কামাল উদ্দীন, বাংলাদেশ পুলিশের অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক (প্রশাসন) ড. মো. মইনুর রহমান চৌধুরী, এনটিএমসির পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জিয়াউল আহসান, অতিরিক্ত মহাপরিচালক (এডিজি অপারেশনস) কর্নেল একে আজাদ।


আরও খবর



সিলেট মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়কে ‘বঙ্গমাতা’র নামে নামকরণের সিদ্ধান্ত

প্রকাশিত:সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ২৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নব প্রতিষ্ঠিত সিলেট মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় নামে নামকরণের প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়েছে। আজ সোমবার (২৫ অক্টোবর) বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় সিন্ডিকেট সভায় নতুন নামকরণের এ প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়। সিলেট মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মোর্শেদ আহমেদ চৌধুরী সভায় সভাপতিত্ব করেন।

সভার শুরুতেই বর্তমান সিলেট মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সহধর্মিণী বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় সিলেট নামকরণের প্রস্তাব করেন উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মোর্শেদ আহমেদ চৌধুরী। সভায় সর্বসম্মতিক্রমে নতুন নামকরণের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়। সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাস নির্মাণের জন্য প্রস্তাবিত উন্নয়ন পরিকল্পনার বিষয়সহ অন্যান্য বিষয় নিয়েও আলোচনা হয়।

সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্যগণের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এমপি, সংসদ সদস্য গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ, জাতীয় অধ্যাপক ডা. শাহলা খাতুন, বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সদস্য প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি অধ্যাপক ডা. ছয়েফ উদ্দিন আহমেদ, বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন (বিএমএ) সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম, সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার খলিলুর রহমান, আর. টি. এম. ইন্টারন্যাশনালের প্রতিষ্ঠাতা ড. আহমদ আল-কবির, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. শাখাওয়াত হোসেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার ও পরিচালক (অর্থ) নইমুল হক চৌধুরী।

সিলেটবাসীর দীর্ঘদিনের দাবির প্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা ও নির্দেশনায় ২০১৮ সালের ১ অক্টোবর সিলেট মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় আইন অনুমোদন হয়। একই বছরের ২০ নভেম্বর উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন অধ্যাপক ডা. মোর্শেদ আহমেদ চৌধুরী।

বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুযায়ী, ৭টি মেডিক্যাল কলেজ, ১টি ডেন্টাল কলেজ ও ৯টি নার্সিং কলেজকে অধিভুক্ত করে দুটি ব্যাচের শিক্ষার্থীদের ভর্তি ও রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করে একাডেমিক কার্যক্রম চলমান রয়েছে। এর অংশ হিসেবে চলতি মাসের ২৪ তারিখ থেকে শুরু হয়েছে এমবিবিএস কোর্সের প্রথম পরীক্ষা।

এর আগে বিএসসি ইন নার্সিং এবং পোস্ট বেসিক বিএসসি নার্সিং পরীক্ষা সফলভাবে সম্পন্ন করে ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাস নির্মাণের লক্ষ্যে সিলেট নগরীর উপকণ্ঠে দক্ষিণ সুরমায় ৮০ একর ভূমি অধিগ্রহণের প্রাথমিক কাজ ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। এছাড়া অন্যান্য কাজও দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে।



আরও খবর

বেগমগঞ্জে আ’লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১