Logo
শিরোনাম

৭ জানুয়ারি: ইতিহাসের এই দিনে

প্রকাশিত:শনিবার ০৭ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ২৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আজ ৭ জানুয়ারি, ২০২৩, শনিবার। ২৩ পৌষ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ। ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪৪ হিজরি। গ্রেগরিয়ান বর্ষপঞ্জী অনুসারে বছরের ৭ম দিন।

এক নজরে দেখে নিই ইতিহাসের এই দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনদের জন্ম-মৃত্যু দিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনাবলি:

 ১৪৫০ - গালানগো বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠিত হয়।

১৫৫৮ - সিপাহি বিদ্রোহে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগে সম্রাট দ্বিতীয় বাহাদুর শাহর বিচার শুরু।

১৫৫৮ - ব্রিটেনের কাছ থেকে ফ্রান্সের কার্লাইস দখল।

১৬১০ - গ্যালিলিও গ্যালিলি প্রথম তার আবিষ্কৃত চারটি চাঁদকে পর্যবেক্ষণ করেন।

১৭৬১ - ভারতের পানিপথে আফগানের সঙ্গে মারাঠাদেও পরাজয়।

১৭৮২ - আমেরিকার প্রথম কেন্দ্রীয় ব্যাংক ব্যাংক অব নর্থ আমেরিকা চালু।

১৭৮৫ - ফ্রান্সের জন ব্যাল্ন্চার্ড ও আমেরিকার জন জেফার ইংল্যান্ডের ডোভার থেকে ফ্যান্সের ক্যালাস পর্যন্ত গ্যাস বেলুনে উড়ে যান।

১৭৮৯ - মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

১৭৯৭ - বর্তমান ইতালির পতাকা প্রথম ব্যবহার করা হয়।

১৮২৯ - ভারতীয়রা এশিয়াটিক সোসাইটির সভ্য হওয়ার অনুমতি লাভ করে।

১৮৩৮ - স্যামুয়েল মোর্স প্রথমবারের মতো তার ইলেকট্রনিক টেলিগ্রাফের পরীক্ষা চালান।

১৮৬৬ - কলকাতায় প্রথম আদমশুমারি শুরু হয়।

১৯২৪ - আন্তর্জাতিক হকি ফেডারেশন প্রতিষ্ঠা হয়।

১৯২৭ - প্রথম ট্রান্সআটলান্টিক টেলিফোন সার্ভিস প্রতিষ্ঠিত। নিউইয়র্ক থেকে লন্ডন সংযোগের মাধ্যমে এটার কাজ শুরু হয়।

১৯৩০ - ডিজেল ইঞ্জিন চালিত প্রথম অটোমোবাইলের সফল যাত্রা সম্পন্ন হয়।

১৯৩৫ - ভারতীয় জাতীয় বিজ্ঞান একাডেমি পশ্চিমবঙ্গের কলকাতায় প্রতিষ্ঠিত হয়।

১৯৪০ - শীতকালীন যুদ্ধ: ফিনিস নবম ডিভিসন ফিনল্যান্ড আক্রমণকারী সোভিয়েত বাহিনীকে সম্পূর্ণরূপে ধ্বংস করে দেয়।

১৯৪২ - বিশ্বজুড়ে চলাচলকারী প্রথম বাণিজ্যিক উড়োজাহাজ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে প্যান আমেরিকান এয়ারলাইন্স।

১৯৪৫ - তৎকালীন জেনারেল ফিল্ড মার্শাল বার্নাড মন্টেগোমারী সংবাদ সম্মেলনে ব্যাটল অব বুলাগ জয়ের মূল কৃতিত্ব দাবি করেন।

১৯৫২ - আমেরিকান প্রেসিডেন্ট হ্যারি ট্রুমেন হাইড্রোজেন বোমা তৈরির কথা জানান।

১৯৫৯ - আমেরিকা কিউবার ফিদেল কাস্ত্রোর নতুন সরকারকে স্বীকৃতি দেয়।

১৯৬৮ - বৈরুত বিমান বন্দররে ইসরায়েলিকমান্ডো হামলার পর লেবানন সরকারের পদত্যাগ।

১৯৭৮ - দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় আটক হাঙ্গেরির পবিত্র ক্রাউন হিসেবে খ্যাত ক্রাউন অব সেন্ট স্টিফেনের হাঙ্গেরিতে প্রত্যাবর্তন।

১৯৮৪ - ব্রুনাই আসিয়ানের ষষ্ঠ সদস্যপদ গ্রহণ করে।

১৯৮৬ - লিবিয়ার বিরুদ্ধে মার্কিন অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা আরোপিত হয়।

১৯৮৬ - মিসরের সিনাই মরুভূমি এলাকার একটি বন্দীশিবিরে পুলিশ কর্মকর্তা সোলাইমান খাতের নিহত হন।

আরও পড়ুন: জাতিসংঘ মিশনে মালি গেলেন বিমান বাহিনীর ৭০ সদস্য

১৯৮৯ - জাপানি সম্রাট হিরোহিতোর মৃত্যুর পর আকিহিতো জাপানের নতুন সম্রাট নির্বাচিত হন।

১৯৮৯ - আকিহিতো, জাপানি সম্রাট হিরোহিতোর মৃত্যুর পর জাপানের নতুন সম্রাট নির্বাচিত হন।

১৯৯৩ - বসনিয়া যুদ্ধ: বসনিয়ার সেনাবাহিনী ক্রাভিকের স্রেব্রেনিচা গ্রামে আৎসিক অভিযান পরিচালনা করে।

১৯৯৫ - ফিলিপাইনের ম্যানিলায় একটি অ্যাপার্টমেন্ট কমপ্লেক্সে রাসায়নিক দ্রব্য থেকে সৃষ্ট আগুনের সূত্র ধরে বড় ধরনের সন্ত্রাসী হামলা প্রজেক্ট বোজিনকা এর পরিকল্পনা ফাঁস।

১৯৯৮ - ১৫০ বছরের নির্যাতন-নিপীড়নের জন্যে দেশের আদিবাসীদের কাছে কানাডা সরকারেরর ক্ষমা প্রার্থনা।

১৯৯৯ - ১৩০ বছরের মধ্যে প্রথম মার্কিন সিনেটে প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটনের বিরুদ্ধে ইমপিচ বিচার শুরু।

২০১১ - বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তে কুড়িগ্রামের অনন্তপুর-দিনহাটা সীমান্তের খিতাবেরকুঠি এলাকায় ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের সদস্যরা ফেলানী খাতুন নামের এক কিশোরীকে গুলি করে হত্যা করে।

জন্ম:

১৮০০ - মিলার্ড ফিলমোর, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ত্রয়োদশ রাষ্ট্রপতি।

১৮৫৭ - জর্জ আব্রাহাম গিয়ারসন, প্রাচ্যতত্ত্ববিদ ও ভাষাতাত্ত্বিক।

১৮৭৩ - শার্ল পিয়ের পেগি, ফরাসি কবি ও সমাজতন্ত্রী।

১৯০০ - বিমানবিহারী মজুমদার, ভাগবতরত্ন, বাঙালি সাহিত্যিক ও গবেষক।

১৯২৯ - টেরি মুর, মার্কিন চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন অভিনেত্রী।

১৯৪৮ - কেন্নি লগ্গিনস, আমেরিকান রক গায়ক।

১৯৪৮ - ইচিরু মিজুকি, জাপানি কণ্ঠ অভিনেতা।

১৯৬৪ - নিকোলাস কেজ, মার্কিন অভিনেতা।

১৯৬৭ - ইরফান খান, ভারতীয় অভিনেতা।

১৯৭১ - জেরেমি রেনার, মার্কিন অভিনেতা ও গায়ক।

১৯৭৯ - বিপাসা বসু, ভারতীয় অভিনেত্রী।

১৯৮২ - রুথ নেগা, ইথিওপীয়-আইরিশ অভিনেত্রী।

১৯৯১ - এদেন আজার, বেলজিয়ামের ফুটবল খেলোয়াড়।

মৃত্যু:

১৪১৬ - দরবেশ নূর কুতুবুল আলম।

১৯৪৩ - নিকোলা টেসলা, বিখ্যাত সার্বীয় - মার্কিন আবিষ্কারক, পদার্থবিজ্ঞানী, প্রকৌশলী।

১৯৫১ - নিরূপমা দেবী, নারী ঔপন্যাসিক।

১৯৭২ - প্রাবন্ধিক ও গবেষক যোগেশচন্দ্র বাগল পরলোকগমন করেন।

১৯৮৬ - মিসরের সিনাই মরুভূমি এলাকার একটি বন্দিশিবিরে পুলিশ কর্মকর্তা সোলাইমান খাত।

১৯৮৯ - হিরোহিতো, জাপান সম্রাট।

১৯৯৮ - রিচার্ড হ্যামিং, মার্কিন গণিতবিদ ও কম্পিউটার বিজ্ঞানী।

২০১৬ - মুফতি মুহাম্মদ সাইদ, জম্মু কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী।

ছুটি ও অন্যান্য:

গণহত্যা দিবস- কম্বোডিয়া।

নিউজ ট্যাগ: ইতিহাসে এই দিনে

আরও খবর

১৮ জানুয়ারি: ইতিহাসের এই দিনে

বুধবার ১৮ জানুয়ারী ২০২৩

১৭ জানুয়ারি: আজকের এই দিনে

মঙ্গলবার ১৭ জানুয়ারী ২০২৩




পাহাড় থেকে ৪ কৃষককে অপহরণের অভিযোগ

প্রকাশিত:রবিবার ০৮ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৪ জানুয়ারী ২০২৩ | ৩৫জন দেখেছেন

Image

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় পাহাড় থেকে চারজন কৃষক অপহরণের শিকার হয়েছেন। রোববার (৮ জানুয়ারি) বিকেলে হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রাশেদ মাহমুদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে একই দিন ভোরে হ্নীলার লেচুয়া প্রাং পাহাড়ের পাদদেশ থেকে তাদের ধরে নিয়ে যাওয়া হয় বলে অপহৃতদের স্বজনরা জানিয়েছেন।

অপহৃত ব্যক্তিরা হলেন, লেচুয়া প্রাং এলাকার আব্দুস সালাম, মুহিবুল্লাহ, আব্দুল হাকিম ও আব্দুর রহমান। তারা সবাই কৃষিকাজ করেন।

অপহৃত আব্দু সালামের বড় ভাই মুন্সি রফিক জানান, পাহাড়ের পাদদেশে তাদের খেত জমি আছে। যেখানে প্রায় প্রতিদিন পাহাড় থেকে হাতি নেমে ফসলের খেত নষ্ট করে ফেলে। তাই হাতি থেকে খেতের বাগান রক্ষায় শনিবার (৭ জানুয়ারি) রাতে পাহাড়ে যান চারজন। তবে প্রতিদিনের মতো ভোরে ফিরে আসার কথা থাকলেও রোববার সকাল ১০টা পর্যন্ত চারজনের কেউ বাড়ি ফেরেননি। তিনি পূর্ব অভিজ্ঞতা থেকে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন, তার ভাইসহ চারজনকে অপহরণ করেছে ডাকাতরা

হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রাশেদ মাহমুদ জানান, রোববার সকালে খবর পেয়ে পুলিশের সঙ্গে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। ইতোমধ্যে উদ্ধার অভিযান শুরু হয়েছে।

টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল হালিম বলেন, অপহরণের বিষয়ে অবগত হওয়ার পর থেকে গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হচ্ছে। পুলিশ পাহাড়ে উদ্ধার অভিযান পরিচালনা করছে।


আরও খবর



অস্ত্রের গবেষণাগারে পরিণত হয়েছে ইউক্রেন যুদ্ধ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৭ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৪ জানুয়ারী ২০২৩ | ২৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ইউক্রেনে ২০২২ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি শুরু হয় রাশিয়ার আগ্রাসন। এরপর থেকেই সামরিক সহায়তা হিসেবে দেশটিতে শত শত কোটি ডলারের অস্ত্র, গোলাবারুদ পাঠিয়েছে পশ্চিমা দেশগুলো। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন এখন বলছে, এক বছরে ইউক্রেনের যুদ্ধের ময়দান পরিণত হয়েছে অস্ত্রের গবেষণাগারে। কিছু কিছু ক্ষেত্রে মার্কিন সমরাস্ত্রের সঙ্গে নিজস্ব উদ্ভাবনী কৌশলও প্রয়োগ করছে ইউক্রেনের বাহিনী। সেগুলো মুগ্ধ করছে পশ্চিমা কর্তাব্যক্তিদের।

যেমন- অভিনব এক সফটওয়্যার তৈরি করেছে ইউক্রেন। সে সফটওয়্যারটি আশপাশে বিদ্যমান কম্পিউটার, ট্যাবলেট এবং স্মার্টফোনকে লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত করে। রিয়েলটাইমে খুঁজে দেয় শত্রুপক্ষকে। এখন গোটা ইউক্রেনের সামরিক বাহিনী এর সুফল ভোগ করছে। মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে তারা খুঁজে বের করছে শত্রুদের। মার্কিন কর্মকর্তারাও বলছেন, সফটওয়্যারটিকে কাজে লাগিয়ে রুশ লক্ষ্যে সুনিপুণভাবে আঘাত হানতে পারছে ইউক্রেনের সেনারা।  শুধু এই সফটওয়্যার নয়। আরও অনেক কিছু নিজেদের প্রয়োজন মাফিক তৈরি করে নিয়েছে ইউক্রেনের সেনারা। এ রকম সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে- ছোট প্লাস্টিক ড্রোন। যা মাথার ওপর শব্দ করে উড়ে বেড়ায় এবং রাশিয়ার ওপর গ্রেনেড ফেলে আসে। 

এ ছাড়াও ভারী যন্ত্রাংশ মেরামতে সেনারা যুদ্ধক্ষেত্রে বসেই বাড়তি যন্ত্রাংশ তৈরি করে নিচ্ছে থ্রিডি প্রিন্টারের সহায়তায়। তারা সাধারণ পিকআপ ট্রাককে পরিণত করেছে ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ বাহনে। এমনকি মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্র কীভাবে পুরোনো সোভিয়েত যুদ্ধবিমান মিগ-২৯ এর সঙ্গে জুড়ে নেওয়া যায়, সে উপায়ও বের করেছেন ইউক্রেনীয় প্রকৌশলীরা। এরই বদৌলতে যুদ্ধের ৯ মাস পরেও আকাশে দাপটের সঙ্গে যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছে ইউক্রেনের বাহিনী। জলেও থেমে নেই ইউক্রেন।

সেখানেও নিজস্ব জাহাজ-ধংসকারী অস্ত্র নেপচুন তৈরি করে নিয়েছে দেশটির বাহিনী। এই অস্ত্রগুলো রাশিয়ার রণতরিতে প্রায় দুইশ মাইল দূর থেকে আঘাত হানতে পারে। ইউক্রেনের এই অভিনব প্রচেষ্টা মার্কিন কর্মকর্তাদের আকৃষ্ট করেছে। তারা কিয়েভের এ সক্ষমতাকে দেখছেন যুদ্ধক্ষেত্রের ম্যাকগাইভার সমাধান হিসেবে। এগুলো একদিক থেকে ইউক্রেনকে যুদ্ধক্ষেত্রে সহায়তা করছে। আরেক দিক থেকে পশ্চিমা অস্ত্রসম্ভারের যে ফাঁকফোকর আছে, তা ঘুচিয়ে দিচ্ছে।

মার্কিন কর্মকর্তা এবং বিশ্লেষকরা এখন বলছেন, ইউক্রেন যুদ্ধক্ষেত্রের গবেষণাগারে পরিণত হয়েছে। যেখানে সস্তা এবং কার্যকরী সমাধানের নমুনা দেখা যাচ্ছে হরহামেশাই। সেন্টার ফর স্ট্র্যাটেজিক অ্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল স্টাডিজের আন্তর্জাতিক সুরক্ষা কর্মসূচির পরিচালক সেথ জোনস বলছেন, তাদের উদ্ভাবন অবিশ্বাস্যভাবে আকর্ষণীয়।  

আরও একটি দিক থেকে পুরো বিষয়টি মনোযোগ কাড়ছে বিশেষজ্ঞদের। তা হলো- ইউক্রেনের বদৌলতেই প্রথমবারের মতো অনেক অস্ত্র হাতেনাতে ব্যবহার হতে দেখা যাচ্ছে। অনেক ত্রুটি-বিচ্যুতিও ধরা পড়ছে। পশ্চিমা গোয়েন্দা বাহিনীর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট এক সূত্র এ প্রসঙ্গে বলেন, এটি বাস্তব বিশ্বের যুদ্ধপরীক্ষা।  ইউক্রেন যুদ্ধের বরাতে নিজেদের বিভিন্ন অস্ত্র ও ব্যবস্থা সম্পর্কে প্রচুর তথ্য-উপাত্ত পাচ্ছে মার্কিন সামরিক বাহিনী। এসব তথ্য-উপাত্তের ভিত্তিতে অনেক কিছুই নতুন আলোতে দেখছে তারা। যেমন- ইউক্রেনকে সুইচব্লেড ৩০০ ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র দিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। যার মূল কাজ- শত্রুর রাডার ব্যবস্থায় আঘাত হানা। কিন্তু পরে দেখা গেল, যতটা ভাবা হয়েছিল, ততটা কার্যকরী নয় এটি।

অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি এম১৪২ রকেট লঞ্চার বা হিমারস ইউক্রেনের সফলতায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে। এসব অস্ত্র ব্যাপকভাবে ব্যবহারে কী পরিমাণ সারাইয়ের প্রয়োজন পড়ে, সে সম্পর্কে পোক্ত একটি ধারণা পেয়েছেন মার্কিন কর্তাব্যক্তিরা। যুক্তরাষ্ট্রের এক প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা বলছেন, ইউক্রেন নিজেদের স্বল্পসংখ্যক হিমারস ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবহার করে যেভাবে রুশ সেনাদের ওপর ধ্বংসলীলা চালিয়েছে, তা নিয়ে সামরিক নেতারা বছরের পর বছর গবেষণা করবেন।

ঠিক একইভাবে এম৭৭৭ হাওয়িটজারের কার্যকারিতা সম্পর্কেও ভালো ধারণা পেয়েছেন প্রতিরক্ষা কর্মকর্তারা। স্বল্প সময়ের মধ্যে বেশি গোলা ছুড়ে ফেললে নিজের রাইফেলিং ক্ষমতা হারিয়ে ফেলে অস্ত্রটি।  ইউক্রেন যুদ্ধকে কাজে লাগিয়েছেন মার্কিন প্রতিরক্ষা ঠিকাদাররাও। তারা এ সুযোগে নিজেদের অস্ত্র নিয়ে গবেষণা করছেন। পাশাপাশি চলছে সেগুলোর প্রচারণাও। অস্ত্র নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বিএই সিস্টেমস বলছে, রাশিয়ার সেনাদের সফলভাবে কামিকাজে ড্রোনের ব্যবহার তাদেরকে নতুন ঘরানার সাজোয়াঁ যান তৈরির ব্যাপারে উদ্বুদ্ধ করেছে। যা সেনাদেরকে মাথার ওপরের এ ধরনের আক্রমণ থেকে বাঁচাতে পারবে।


আরও খবর



অভিনেত্রীকে সড়কে গুলি করে হত্যা

প্রকাশিত:বুধবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ৪১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ভারতের ঝাড়খণ্ডের অভিনেত্রী ইশা আলিয়াকে বুধবার ভোরে পশ্চিমবঙ্গের হাওড়ায় জাতীয় সড়কে ছিনতাইকারীরা গুলি করে হত্যা করেছে বলে অভিযোগ। 

ঘটনাটি ঘটে যখন তিনি তাঁর স্বামী প্রকাশ কুমার এবং তিন বছরের মেয়ের সঙ্গে রাঁচি থেকে কলকাতায় যাচ্ছিলেন।   প্রকাশ কুমার নিজেও একজন চলচ্চিত্র পরিচালক।

কলকাতার এক পুলিশ কর্মকর্তা বলছেন, পরিবারটি তাদের নিজস্ব গাড়িতে কলকাতার দিকে যাচ্ছিল।

তারা সকাল ৬টার দিকে একটি নির্জন জায়গায় গাড়ি থামায়। সেখানে কুমার প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে গাড়ি থেকে নামেন। তখন তিন ছিনতাইকারী তাদের ওপর হামলা চালায়। আলিয়া প্রতিরোধ করার চেষ্টা করলে, তাকে পয়েন্ট ব্ল্যাঙ্ক রেঞ্জ থেকে গুলি করা হয়।

কুমারের দায়ের করা অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। পরে দিনের বেলা অনুসন্ধানকারী কুমারকে জিজ্ঞাসাবাদ করে এবং ঘটনাটি পুনর্গঠনের জন্য তাকে অপরাধস্থলে নিয়ে যায়। পুলিশের পক্ষ থেকে অপরাধস্থলের কাছাকাছি অবস্থিত একটি কারখানা থেকে সিসিটিভি ফুটেজও সংগ্রহ করছে।

প্রকাশ কুমার বলেন,তিনি ঝাড়খণ্ডের একজন জনপ্রিয় অভিনেত্রী ছিলেন। যদিও তার আসল নাম রিয়া কুমারী, তবে পর্দার নাম ইশা আলিয়া।

কুমার বলেন, আমার স্ত্রী আমাদের মেয়ের সঙ্গে গাড়িতে বসে ছিলেন। দুর্বৃত্তরা আমার মানিব্যাগ ছিনতাইয়ের চেষ্টা করলে আমার স্ত্রী নীচে নেমে প্রতিরোধের চেষ্টা করেন। তারপরই ওরা তাকে গুলি করেছে।

স্থানীয়দের মতে, এলাকাটি জনশূন্য হওয়ায় কুমার সাহায্য চাইতে প্রায় দুই কিলোমিটার গাড়ি চালিয়ে যান। নির্যাতিতাকে দ্রুত উলুবেড়িয়া হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে সেখানে আলিয়াকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

নিউজ ট্যাগ: গুলি করে হত্যা

আরও খবর

আপাতত দেশে আসছে না 'পাঠান'

বুধবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৩




গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির পূর্বাভাস, বাড়বে রাতের তাপমাত্রা

প্রকাশিত:শনিবার ১৪ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ১১৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দেশের আট বিভাগেই দু-একটি স্থানে হালকা বা গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। একই সঙ্গে বাড়তে পারে রাতের তাপমাত্রাও। কুয়াশার দাপটও বাড়তে পারে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের বেশিরভাগ অঞ্চলে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা বা রাতের তাপমাত্রা বেড়েছে। তাপমাত্রা বেড়ে যাওয়ায় অনেক অঞ্চল থেকে শৈত্যপ্রবাহ দূর হয়েছে। আগামীকাল রোববার শৈত্যপ্রবাহ আরও কমে যেতে পারে।

আজ সকালে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৬ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায়, যা চলতি শীত মৌসুমে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে কম সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। শুক্রবার ঢাকায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১১ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শনিবার তা বেড়ে হয়েছে ১৪ দশমিক ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

শুক্রবার ফরিদপুর, মাদারীপুর, মানিকগঞ্জ, মৌলভীবাজার, কুমিল্লা, ফেনী, চুয়াডাঙ্গা, যশোর, কুষ্টিয়া, বরিশাল ও ভোলা এবং রাজশাহী এবং রংপুর বিভাগের ১৬ জেলাসহ ২৭ জেলার ওপর দিয়ে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছিল।

আবহাওয়াবিদ মো. হাফিজুর রহমান সকালে জানান, নঁওগা ও মৌলভীবাজার এবং রংপুর বিভাগের ৮ জেলাসহ মোট ১০ জেলার ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা কিছু কিছু এলাকা থেকে প্রশমিত হতে পারে।

আজ সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাস তুলে ধরে হাফিজুর রহমান বলেন, আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। তবে খুলনা, রাজশাহী, রংপুর, ঢাকা, ময়মনসিংহ, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দু-একটি স্থানে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের নদী অববাহিকা ও তৎসংলগ্ন এলাকায় মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা এবং দেশের অন্যত্র হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে এবং এটি কোথাও কোথাও দুপুর পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে। এ সময়ে সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে এবং কমতে পারে দিনের তাপমাত্রা।


আরও খবর

কড়াইয়ের গরম তেলে পড়ে শিশুর মৃত্যু

শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩




রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযান, গ্রেপ্তার ৪১

প্রকাশিত:বুধবার ১১ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩ | ৩১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযানে ৪১ জনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। বুধবার (১১ জানুয়ারি) সকালে ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগ থেকে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

ডিএমপি জানায়, নিয়মিত মাদকবিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে মঙ্গলবার ভোর ৬টা থেকে বুধবার ভোর ৬টা পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

এ সময় গ্রেপ্তারকৃতদের কাছ থেকে ২২ হাজার ৭২৪ পিস ইয়াবা, ১১১ গ্রাম হেরোইন, ১৭৩ বোতল ফেন্সিডিল ও ৭ কেজি ৯৭০ গ্রাম গাঁজা জব্দ করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৩২টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।


আরও খবর

শুক্রবার রাজধানীর যেসব মার্কেট বন্ধ

শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩

রাজধানীতে ছাদ থেকে পড়ে শিশুর মৃত্যু

বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩