Logo
শিরোনাম

৯ হাজার হেক্টর জমিতে চাষ হচ্ছে সবজি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৮ মার্চ ২০২৩ | ৭১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নওগাঁ জেলায় চলতি মওসুমে মোট ৯ হাজার হেক্টর জমিতে শীতকালীন শাকসব্জির চাষ হয়েছে। এসবের মধ্যে রয়েছে শিম, লাউ, পটল, বেগুন, ফুলকপি, পাতা কপি, পালং শাক, মুলা, বরবটি, করলা, লালশাকসহ, চিচিঙ্গা,ওলকপি ইত্যাদি।

নওগাঁর কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপপরিচালক আবু হোসেন জানিয়েছেন উপজেলা ভিত্তিক শীতকালীন শাকসব্জি চাষের পরিমান হচ্ছে সদর উপজেলায় ৯৯০ হেক্টর, রানীনগর উপজেলায় ২৩০ হেক্টর, আত্রাই উপজেলায় ৩৮০ হেক্টর, বদলগাছি উপজেলায় ১২৩০ হেক্টর, মহাদেবপুর উপজেলায়, ১২৬০ হেক্টর, পত্নীতলা উপজেলায় ৯৫০ হেক্টর, ধামইরহাট উপজেলায় ১৩২০ হেক্টর, সাপাহার উপজেলায় ৪৬৫ হেক্টর, পোরশা উপজেলায় ৩৯০ হেক্টর, মান্দা উপজেলায় ১০৮৫ হেক্টর এবং নিয়ামতপুর উপজেলায় ৭০০ হেক্টর।

কৃষি অফিস সূত্রে জানানো হয়েছে উল্লিখিত পরিমাণ জমি থেকে ১ লক্ষ ৮০ হাজার মেট্রিক টন শাকসব্জি উৎপাদিত হবে। এদিকে চলতি বছর খরিপ-১ মওসুমে ৬ হাজার ৭শ হেক্টর জমি থেকে ১ লক্ষ ২৩ হাজার ৬১৫ মেট্রিক টন শাকসবজি উৎপাদিত হয়েছে। সেই হিসেবে এ বছর জেলায় মোট শাকসব্জি উৎপাদনের পরিমাণ ৩ লক্ষ ৩ হাজার ৬শ ১৫ মেট্রিক টন। জেলার মোট ২৮ লক্ষ ১১ হাজার ১০ জনের জন্য জনপ্রতি প্রতিদিন ২শ গ্রাম হিসেবে মোট চাহিদা ২ লক্ষ ৩ হাজার ১শ  ৮৬ মেট্রিক টন।


আরও খবর



আমরা আর হাওয়া ভবন, জঙ্গিবাদ দেখতে চাই না : শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ১১ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৭ মার্চ ২০২৩ | ৬৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, আমরা একদিনে ৫০০ বোমা দেখতে চাই না। আমরা আর কোনও হাওয়া ভবন, জঙ্গিবাদ দেখতে চাই না। আমরা দেখতে চাই একদিনে ১০০ সেতুর উদ্বোধন। আজ শনিবার (১১ মার্চ) বিকেলে ময়মনসিংহ জেলা সার্কিট হাউজ মাঠে আওয়ামী লীগের ময়মনসিংহের বিভাগীয় জনসভায় শিক্ষামন্ত্রী এসব কথা বলেন।

ডা. দীপু মনি এসময় আরও বলেন, আপনারা নৌকায় ভোট দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ভোট দিয়ে দেশের সেবা করার সুযোগ করে দিয়েছেন- এ জন্য আপনাদের কাছে কৃতজ্ঞ। আগামী নির্বাচনেও নৌকায় ভোট দিয়ে দেশের চলমান উন্নয়ন অব্যাহত রাখার আহ্বান জানাচ্ছি।

সাড়ে চার বছর পর প্রধানমন্ত্রী ময়মনসিংহ গিয়ে আজ ৭৩টি নবনির্মিত প্রকল্পের দ্বার উন্মোচন করবেন। ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির এই নগরীকে পূর্ণতা দিতে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করবেন আরও ৩০টি প্রকল্পের। প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে ৩২ উপজেলার সুপেয় পানি ও পয়ঃনিষ্কাশন লাইন। কমপক্ষে ২১টি স্কুল-কলেজে নির্মাণ করা হয়েছে নতুন একাডেমিক ভবন।

আর এসব নিয়ে উচ্ছ্বাস রয়েছে ময়মনসিংহের প্রান্তিক মানুষের মধ্যেও। তারা বলেন, প্রধানমন্ত্রী আসবেন অনেক উপহার নিয়ে। আগেও দিয়েছেন, এবারও দেবেন। সবার মুখে হাসি ফোটাবেন তিনি। ময়মনসিংহবাসীরও এবার কিছু দেওয়ার পালা। প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানাতে ময়মনসিংহ প্রস্তুত।

সরকার প্রধানের আগমন উপলক্ষে পুরো ময়মনসিংহ ঝকঝকে-তকতকে করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর জনসভাস্থল ময়মনসিংহের সার্কিট হাউস মাঠের সব কাজ শেষ হয়েছে। ওই এলাকা ঘিরে গড়ে তোলা হয়েছে কয়েকস্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা।

শুধু সমাবেশস্থলেই নয়, গোটা ময়মনসিংহ নগরীতে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। পোশাকধারী আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাশাপাশি সাদা পোশাকে কাজ করছেন বিপুল নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য।

ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের মেয়র ইকরামুল হক টিটু বলেন, মঞ্চের কাজ শেষ হয়েছে। যারা আসবেন তাদের যেন কোনো অসুবিধা না হয়, সেদিকে খেয়াল রাখা হচ্ছে। সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। আশা করছি, এই সমাবেশ সুন্দর ও সার্থক হবে।

সার্কিট হাউস মাঠের জনসভায় ১২ লাখের বেশি জনসমাগম ঘটবে বলে আশা করছেন নেতারা। ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এহতেশামুল আলম বলেন, আশা করছি এই মাঠে তিল ধারণের ঠাঁই থাকবে না। মাঠ ভর্তি হয়ে ময়মনসিংহ শহরের রাস্তাঘাটও পূর্ণ হয়ে যাবে। এটি হবে স্মরণকালের বৃহত্তম জনসভা। এর জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি আমরা সম্পন্ন করেছি।


আরও খবর



রাজনীতির কাকদের নিয়ে বিএনপি সৃষ্টি : তথ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ১৫ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৮ মার্চ ২০২৩ | ৪৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আওয়ামী লীগ যোগ্য ব্যক্তিদের নমিনেশন দেয় মন্তব্য করে তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেছেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ৩০০ আসনের বিপরীতে ৯০০ নমিনেশন দিয়েছিল বিএনপি। নমিনেশন বিক্রির কার্যক্রম তারাই করে। দলছুট নেতা ও রাজনীতির কাকদের নিয়েই বিএনপি সৃষ্টি হয়েছে। বুধবার (১৫ মার্চ) সচিবালয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে বঙ্গবন্ধুর জীবনভিত্তিক দুটি গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, আওয়ামী লীগ ও সরকারের অধিনে নির্বাচন হবে না। নির্বাচন হবে নির্বাচন কমিশনের অধীনে। তাই এ সরকারের অধীনে বিএনপি নির্বাচনে আসবে না এমন কথা অবান্তর।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকার ইস্যুতে বিএনপির সঙ্গে সংলাপের প্রশ্নই আসে না। সংলাপের বিষয়ে বিএনপিকে ডাকাই হয়নি। আগ বাড়িয়ে কেন তারা বলছে সংলাপে বসবে না?


আরও খবর



বিএনপির মানববন্ধন আজ

প্রকাশিত:শনিবার ১১ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৭ মার্চ ২০২৩ | ৪১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

যুগপৎ আন্দোলনের অংশ হিসেবে ঢাকাসহ সারা দেশের মহানগর ও জেলা পর্যায়ে আজ মানববন্ধন করবে বিএনপি ও তার মিত্ররা। বিদ্যুৎ, চাল, ডাল, তেল, কৃষি উপকরণ ও শিক্ষা উপকরণসহ নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে এবং বর্তমান সংসদ বিলুপ্ত করে নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন ও খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তিসহ ১০ দফা দাবি আদায়ের উদ্দেশে এ মানববন্ধন করবে বিএনপিসহ অন্যান্য দলগুলো।

জানা গেছে, বিএনপির যুগপৎ আন্দোলন সঙ্গীদের মধ্যে গণতন্ত্র মঞ্চ বেলা ১১টায় বিজয়নগর পানির ট্যাংকের উল্টো দিকে ফার্স হোটেলের সামনে, ১২ দলীয় জোট বেলা ১১টায় বিজয়নগর পানির ট্যাংক সংলগ্ন এলাকায়, জাতীয়তাবাদী সমমনা জোট বেলা ১১টায় পুরানা পল্টনে আল রাজী কমপ্লেক্সের সামনে, গণফোরাম বেলা ১১টায় মতিঝিল অফিস সামনে নটরডেম কলেজ উল্টো দিকে থেকে, গণতান্ত্রিক বাম ঐক্য জোট বেলা ১১টায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে এবং এলডিপি দুপুর ৩টায় কাওরান বাজার এফডিসি সংলগ্ন অফিস সামনেসহ রাজধানীর আরও তিনটি স্থানে মানববন্ধন করবে।


আরও খবর



রাজনৈতিক সমঝোতার উদ্যোগ নেবে না ইসি: হাবিবুল আউয়াল

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ মার্চ ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৭ মার্চ ২০২৩ | ৫৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেছেন, নির্বাচন কমিশনের দরজা সব সময় খোলা, কেউ এলে সহযোগিতা করা হবে। ভোটে অংশ নিতে উদাত্ত আহ্বান থাকবে। তিনি বলেন, রাজনৈতিক সমঝোতার কোনও উদ্যোগ নেবে না ইসি। সংকট নিরসন করতে হবে দলগুলোকে নিজেদের মধ্যে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে।’ রবিবার (১২ মার্চ) বিকালে আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে অস্ট্রেলিয়ান হাই কমিশনারের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন সিইসি।

প্রতিনিধি দলের সঙ্গে আলোচনার প্রসঙ্গ টেনে সিইসি জানান, ওনারা (হাই কমিশনের প্রতিনিধি দল) আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন, আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচন শান্তিপূর্ণ ও অংশগ্রহণমূলক হবে, ফ্রুটফুল হবে। আমরা প্রিপারেশনের কথা জানিয়েছি। আমরা ফুললি প্রিপেয়ার্ড। আমরাও চাচ্ছি অংশগ্রহণমূলক হোক, কনটেস্টেড হোক।

রাজনৈতিক সমঝোতায় ইসির উদ্যোগের বিষয়টিও জানতে চান প্রতিনিধিরা।

এ বিষয়ে সিইসি বলেন, আমাদের দায়িত্বের মধ্যে ওনারা জানতে চেয়েছে আমরা রাজনৈতিক দলের সমঝোতার সৃষ্টি করতে পারি কিনা। আমরা বলেছি, সেটা আমাদের দায়িত্বের পরিধিভুক্ত নয়। আমরা মিডিয়ার মাধ্যমে কন্সট্যান্টলি বলে যাচ্ছি নির্বাচনটা অংশগ্রহণমূলক, প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক হওয়া প্রয়োজন।

তাহলে এটার গ্রহণযোগ্যতা অনেক বেশি হবে এবং লেজিটেমেসিটা বাড়বে উল্লেখ করে কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, সে লক্ষ্যে আমরা আগেও যেভাবে সব দলকে আহ্বান করেছি, এখনও করে যাচ্ছি। গণমাধ্যমের মাধ্যমে আমাদের সে ইচ্ছেটা জানাচ্ছি। আমরা যথাসাধ্য চেষ্টা করবো নির্বাচনটা যেন অবাধ, সুষ্ঠু হয়। আমরা আবেদন করবো, আস্থা রাখুন। দেখুন, নির্বাচনটা কেমন হয়।

তিনি জানান, সব দল যদি অংশগ্রহণ করে, তাহলে নির্বাচনের ফলাফল অনেক ভালো, জনগণের কাছে অনেক বেশি গ্রহণযোগ্যতা পাবে।

এক প্রশ্নের উত্তরে সিইসি বলেন, অংশগ্রহণের বিষয়ে আমরা উদ্যোগ নেবো না। এটা পলিটিক্যাল ইস্যু। পলিটিক্যাল পার্টিগুলোর মধ্যে সে লক্ষ্যে কোনও সংকট যদি থেকে থাকে, তারা নিজেরা আলাপ-আলোচনা করে নিরসন করবে। আমরা মাঝখানে কোনও ব্রোকারেজ করবো না, করতে পারবো না।

দলগুলোর জন্যে ইসির দরজা খোলা বলে উল্লেখ করেন সিইসি। তিনি বলেন, এভাবে ওপেনলি আহ্বান জানিয়ে যাবো। আমাদের দরজা খোলা আছে, কোনও পার্টি যদি এসে অংশ গ্রহণ করতে চায়, আমাদের সহযোগিতা নিতে চায়, আমরা সব সময় প্রস্তুত আছি, আমাদের তরফ থেকে যে ধরনের সহযোগিতা দরকার করে যাবো।


আরও খবর



দেশে ভোটার সংখ্যা বেড়েছে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০২ মার্চ 2০২3 | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৮ মার্চ ২০২৩ | ১৪৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

হালনাগাদের তথ্য চেয়ে চূড়ান্ত হিসেবে ভোটার সংখ্যা বেড়েছে। এর আগে দেশের মোট ভোটার সংখ্যা হয়েছিল ১১ কোটি ৯০ লাখ ৬১ হাজার ১৫৮ জন। তবে চূড়ান্ত ভোটার তালিকায় এ সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১ কোটি ৯১ লাখ ৫১ হাজার ৪৪০ জনে। বৃহস্পতিবার জাতীয় ভোটার দিবসে নির্বাচন কমিশন এ তথ্য জানায়।

ইসি জানায়, মোট ভোটারের মধ্যে পুরুষের সংখ্যা ৬ কোটি ৪ লাখ ৪৫ হাজার ৭২৪ জন, মহিলা ভোটার ৫ কোটি ৮৭ লাখ ৪ হাজার ৮৭৯ জন এবং হিজড়া ভোটার ৮৩৭ জন। সব মিলিয়ে আজকে পর্যন্ত দেশের মোট ভোটার সংখ্যা ১১ কোটি ৯১ লাখ ৫১ হাজার ৪৪০ জন।

ইসির চূড়ান্ত হিসাবে ভোটার সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে ৫৮ লাখ ৬৪ হাজার ৪৩০ জন। ভোটার বৃদ্ধির হার দাঁড়িয়েছে ৫.১৮ শতাংশ। এর আগে হালনাগাদ শেষে সারাদেশে প্রকাশিত খসড়া তালিকা অনুযায়ী দেশে ভোটার সংখ্যা ছিল ১১ কোটি ৩২ লাখ ৮৭ হাজার ১০ জন।

ইসি জানায়, চূড়ান্ত হিসাবে মৃত ভোটার কর্তন হয়েছে ২২ লাখ ৯ হাজার ১২৯ জন। কর্তনকৃত ভোটারের মধ্যে পুরুষ ভোটারের সংখ্যা ১৩ লাখ ৭৮ হাজার ৮৭২ জন, মহিলা ভোটারের সংখ্যা ৮ লাখ ৩০ হাজার ২৫৭ জন। মৃত ভোটার কর্তনের পর দেশে বর্তমানে মোট ভোটার সংখ্যা ১১ কোটি ৯১ লাখ ৫১ হাজার ৪৪০ জন।

গত বছরের ২০ মে থেকে ২০ নভেম্বর পর্যন্ত চার ধাপে তথ্য সংগ্রহ ও নিবন্ধনের কাজ সম্পন্ন করে ইসি। হালনাগাদের খসড়া তালিকা পূর্ব ঘোষিত সময় (১৫ জানুয়ারি) অনুযায়ী প্রকাশ করা হয়। এটি বিভিন্ন জনবহুল স্থানে প্রকাশ্যে টাঙিয়ে দেওয়া হয়েছে। যেন কারও কোনো ভুল থাকলে আবেদন সংশোধনের সুযোগ পান। এ ক্ষেত্রে দাবি, আপত্তি বা সংশোধনের আবেদনের শেষ সময় ৩১ জানুয়ারি পর্যন্ত দেওয়া হয়েছিল। অর্থাৎ দাবি, আপত্তি বা সংশোধনের জন্য ভোটাররা সময় পেয়েছিলেন ১৬ দিন। সংশোধনকারী কর্তৃপক্ষ সেই আবেদন নিষ্পত্তি করে ৭ ফেব্রুয়ারির মধ্যে। আবেদন নিষ্পত্তির পর হালনাগাদকৃত চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হলো আজ বৃহস্পতিবার ২ মার্চ।

২০০৭-০৮ সালে ছবিযুক্ত ভোটার তালিকা প্রণয়নের পর এ পর্যন্ত ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রম সম্পন্ন করা হয়েছে পাঁচবার। ২০০৯-১০ সাল, ২০১২-১৩ সাল, ২০১৫-১৬ সাল, ২০১৭-১৮ ও ২০১৯-২০ সালে বাড়ি বাড়ি গিয়ে হালনাগাদ কার্যক্রম পরিচালনা করেছে ইসি।


আরও খবর