Logo
শিরোনাম

আফ্রিকায় গিয়ে দু’মাসের মাথায় খুন হলেন রহিম

প্রকাশিত:রবিবার ৩০ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৭৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দেশে ছুটি কাটিয়ে আফ্রিকায় ফিরে যান আব্দুর রহিম (৩৫)। ফেরার দুই মাসের মাথায় দক্ষিণ আফ্রিকার ইস্টার্ন কেপ প্রভিন্সের স্ট্রেকস্প্রিট শহরের উজালা এলাকায় ডাকাতের গুলিতে নিহত হন এই প্রবাসী। এসময় তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে লুটপাট চালানো হয়। শনিবার দিবাগত রাতে রহিমের নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে এ হামলা ঘটনা ঘটে।

নিহত আবদুর রহিম নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়নের মধ্য কালিকাপুর গ্রামের সেকান্দার মুন্সি বাড়ির আলী আহম্মদের ছেলে। পাঁচ ভাইয়ের মধ্যে রহিম সবার ছোট।

রোববার সকালে নিহতের বড় ভাই মোহাম্মদ সেলিম মিয়া বলেন, জীবিকার সন্ধানে গত ১০ বছর আগে দক্ষিণ আফ্রিকায় পাড়ি জমান আবদুর রহিম। আফ্রিকার উজালা এলাকায় একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান চালু করেন তিনি। পরে সে দেশে বিয়ে করে স্ত্রী ও এক ছেলে সন্তান নিয়ে বসবাস করে আসছিলেন।

তিনি আরও বলেন, ছুটিতে আসার পর গত আগস্টে পুনরায় আফ্রিকায় ফিরে যান রহিম। শনিবার রাতে নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে কাজ করছিলেন তিনি। এসময় দোকানের ওপরের টিন কেটে কয়েকজন সন্ত্রাসী তার দোকানে প্রবেশ করে। দোকানে প্রবেশের পর সন্ত্রাসীরা তাকে লক্ষ্য করে কয়েক রাউন্ড গুলি ছুঁড়লে গুলিবিদ্ধ হয়ে দোকানের ভেতরে মারা যায় সে। সন্ত্রাসীরা নগদ অর্থ ও মূল্যবান মালামাল লুট করে নিয়ে যায়।

এদিকে রোববার সকালে নিহতের গ্রামের বাড়ি বেগমগঞ্জে তার মৃত্যুর খবর পৌঁছলে এক হৃদয়বিধারক পরিবেশের সৃষ্টি হয়। কান্নায় ভেঙে পড়েন তার পরিবারের লোকজন ও আত্মীয়-স্বজনরা। নিহত রহিমের মৃতদেহ দেশে আনার বিষয়ে সরকারের সহযোগিতা কামনা করেছেন নিহতের পরিবারের লোকজন।


আরও খবর



দূষিত বাতাসের শহরের তালিকায় ঢাকা তৃতীয়

প্রকাশিত:সোমবার ১৪ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০২ ডিসেম্বর 2০২2 | ৫৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বিশ্বের সবচেয়ে দূষিত বাতাসের শহরের তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে ঢাকা। সোমবার (১৪ নভেম্বর) সকাল ১১টায় ঢাকার এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স (একিউআই) স্কোর রেকর্ড করা হয়েছে ১৭৯, যা বাতাসের মান অস্বাস্থ্যকর বলে নির্দেশ করছে। প্রতিবেদনটি প্রকাশ করেছে সুইজারল্যান্ডভিত্তিক প্রতিষ্ঠান আইকিউএয়ার। 

এতে বলা হয়, ২১৩ একিউআই স্কোর নিয়ে প্রথম অবস্থানে ভারতের নয়াদিল্লি; আর ১৮৭ স্কোর নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ভারতের কলকাতা শহর।

একিউআই স্কোর ১০০ থেকে ২০০ পর্যন্ত অস্বাস্থ্যকর হিসেবে বিবেচিত হয় বিশেষ করে সংবেদনশীল গোষ্ঠীর জন্য। এই অঞ্চলের বাতাসে থাকা সব ধরনের কঠিন এবং তরল কণার সমষ্টি, যার বেশিরভাগই বিপজ্জনক। মানব স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকারক বিভিন্ন ধরনের রোগ যেমন প্রাণঘাতী ক্যান্সার এবং হৃদযন্ত্রের সমস্যা তৈরি করে।

একইভাবে একিউআই স্কোর ২০১ থেকে ৩০০ হলে স্বাস্থ্য সতর্কতাসহ তা জরুরি অবস্থা হিসেবে বিবেচিত হয়। এ অবস্থায় শিশু, প্রবীণ এবং অসুস্থ রোগীদের বাড়ির ভেতরে এবং অন্যদের বাড়ির বাইরের কার্যক্রম সীমাবদ্ধ রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়ে থাকে।


আরও খবর



৪৯ যাত্রী নিয়ে লেক ভিক্টোরিয়ায় বিমান বিধ্বস্ত

প্রকাশিত:রবিবার ০৬ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৬৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

তানজানিয়ার প্রেসিশন এয়ারলাইনের একটি বাণিজ্যিক বিমান লেক ভিক্টোরিয়ায় বিধ্বস্ত হয়েছে। বিমানটিতে ৪৯ জন যাত্রী ছিল বলে রিপাবলিকের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। দেশটির স্থানীয় সময় আজ রোববার এই বিমান বিধ্বস্তের ঘটনা ঘটেছে।

সিএনএন বলছে, বর্তমানে উদ্ধার অভিযান চলছে। দেশটির পুলিশ এখন পর্যন্ত কোন হতাহতের খবর জানায়নি। রিপোর্টে প্রকাশিত বিভিন্ন ছবিতে লেকের মধ্যে বিমানের বেশিরভাগ অংশ ডুবে যেতে দেখা গেছে।

প্রেসিশন এয়ারলাইনের এক মুখপাত্র, বিমানটি বুকোবা বিমানবন্দরের কাছে আফ্রিকার সর্ববৃহৎ লেকে বিধ্বস্তের তথ্য নিশ্চিত করেছেন। বিমানটি এই বিমানবন্দরে অবতরণের চেষ্টাকালে বিধ্বস্তের ঘটনা ঘটেছে বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। দেশটির ব্রডকাস্টিং কর্পোরেশন বলছে, বাজে আবহাওয়ার কারণে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে। 


আরও খবর



‘পাকিস্তান বিশ্বকাপ জিতলে প্রধানমন্ত্রী হবেন বাবর’

প্রকাশিত:শুক্রবার ১১ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০২ ডিসেম্বর 2০২2 | ৬৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের বিপক্ষে পরাজয়ে মিশন শুরু হয় পাকিস্তানের। নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হেরে সেমিফাইনালের আগেই বিদায়ের শঙ্কায় পড়ে যায় বাবর আজমের নেতৃত্বাধীন দলটি।

সেই কঠিন অবস্থা থেকে নেদারল্যান্ডস, দক্ষিণ আফ্রিকাকে পর পর দুই ম্যাচে হারায় পাকিস্তান। গ্রুপপর্বে তাদের শেষ ম্যাচে প্রতিপক্ষ ছিল বাংলাদেশ। সেদিন সকালে ম্যাচ ছিল দক্ষিণ আফ্রিকা-নেদারল্যান্ডসের। ধরেই নেওয়া হয়েছিল সেই ম্যাচে তুলনামূলক দুর্বল প্রতিপক্ষ নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে জিতে ভারতের সঙ্গে সেমিফাইনালে যাবেন প্রোটিয়ারা।

কিন্তু দুর্ভাগ্য দক্ষিণ আফ্রিকার জন্য। তারা নেদারল্যান্ডসের মতো তুলনামূলক দুর্বল প্রতিপক্ষের বিপক্ষে হেরে সেমিফাইনালের রেস থেকে ছিটকে যায়।

প্রোটিয়ারা নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে হেরে যাওয়ায় বাংলাদেশ-পাকিস্তানের জন্য সমীকরণ সহজ হয়ে যায়। এই ম্যাচে যারা জিতবে তাদের সেমিফাইনাল নিশ্চিত। এমন সমীকরণের ম্যাচে বিদায়ের শঙ্কা উড়িয়ে সেমিতে চলে যায় পাকিস্তান। আর সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে ফাইনালে চলে যান বাবর আজমরা।

পাকিস্তানের এমন চোখ ধাঁধানো পারফরম্যান্স দেখে রীতিমতো মুগ্ধ ভারতের কিংবদন্তি ক্রিকেটার সুনিল গাভাস্কার। তিনি বলেছেন, পাকিস্তান যদি এবার বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন হয়, তা হলে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হবেন বাবর আজম। তিনি ২০৪৮ সালে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হবেন।

এবারের বিশ্বকাপের মতো ১৯৯২ সালেও একই পরিস্থিতি হয়েছিল পাকিস্তানের। সেবারও বিদায়ের শঙ্কা উড়িয়ে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়ন হয় ইমরান খানের নেতৃত্বাধীন দলটি। সেই বিশ্বকাপের পরই রাতারাতি হিরো হয়ে যান ইমরান খান। এর পর ক্রিকেট ছেড়ে রাজনীতিতে অংশ নিয়ে ২৬ বছর পর পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হন তিনি। সেই হিসেবে আগমাী ২০৪৮ সালে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বাবরকে দেখছেন গাভাস্কার।


আরও খবর

রোনালদোকে টপকে গেলেন মেসি

রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২




সাগরে লঘুচাপ সৃষ্টি, গভীর নিম্নচাপের আভাস

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৭ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২ | ৩৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দক্ষিণপূর্ব ও আন্দামান সাগরে একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তর। এটি ঘনীভূত হয়ে সুস্পষ্ট লঘুচাপ, নিম্নচাপ বা গভীর নিম্নচাপের রূপ নিতে পারে বলেও জানা যায়। বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) বাংলাদেশ আবহাওয়া অফিসের আবহাওয়াবিদ মো. শাহীনুল ইসলাম এ তথ্য জানান।

শাহীনুল ইসলাম বলেন, দক্ষিণপূর্ব ও আন্দামান সাগরে একটি লঘুচাপ সৃষ্টি হয়েছে। এটি আরও ঘনীভূত হয়ে নিম্নচাপ থেকে গভীর নিম্নচাপে রূপ নিতে পারে। তবে ঘূর্ণিঝড়ের রূপ নেবে কিনা সেটি এখনই বলা যাচ্ছে না। কারণ, মাত্র লঘুচাপ হয়েছে, এরপর অনেকগুলো ধাপ পার হয়ে লঘুচাপ ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হয়। সুতরাং ঘূর্ণিঝড়ের বিষয়ে এখনই কিছু বলা যাবে না।

তিনি আরও বলেন, আগামী ২৪ ঘণ্টা অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারা দেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। এছাড়া, সারা দেশে রাত ও দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।


আরও খবর



স্বামীর যে কাজ ঘৃণা করেন স্ত্রীরা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৮ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৭৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দাম্পত্য জীবন সুখের হয় স্বামী-স্ত্রীর ভালো বোঝাপোড়ার মাধ্যমে। কথায় আছে, সংসার সুখের হয় রমণীর গুণে। তবে শুধু রমণীর গুণ থাকলেই হবে না, সংসারে পুরুষের অবদানও অনেক। একজন দায়িত্বশীল ও যত্নবান স্বামীর প্রত্যাশা করেন সব স্ত্রীরাই। তবে বিয়ের পর পুরুষের অনেক আচরণ ও কাজকর্ম দেখে উদ্বিগ্ন হয়ে ওঠেন নারীরা। এক সময় মনে মনে জীবনসঙ্গীকে ঘৃণা করাও শুরু করেন স্ত্রী। জেনে নিন তেমনই কয়েকটি কাজ সম্পর্কে, যা স্ত্রীরা ঘৃণা করেন-

খারাপ আচরণ ও বকা দেওয়া: অনেক পুরুষ আছেন, যারা রাগ হলে ক্ষিপ্ত হয়ে নানা ধরনের কটূ কথা স্ত্রীকে শোনান। নারীরা স্বামীর এ ধরনের আচরণ একেবারেই সহ্য করতে পারেন না। মুখে অনেক নারী এ বিষয় নিয়ে তেমন কথা না বললেও মনে মনে তারা ব্যাথিত হন। স্বামী যদি নিয়মিত স্ত্রীকে খারাপ কথা শোনান, তার থেকে এক সময় দূরে সরেও যেতে পারেন স্ত্রী।

সময় না দেওয়া: সব স্ত্রীই চান তার স্বামী তাকে যেন সময় দেন। স্বামীর কাছ থেকে কিছুটা ব্যাক্তিগত সময় আশা করেন নারী। যদিও কর্মব্যস্ততার খাতিরে অনেকেই পরিবারকে সময় দিতে পারেন না। তবে দাম্পত্য সম্পর্ক ভালো রাখতে স্ত্রীকে সময় দেওয়া উচিত সব স্বামীরই। যদিও তা অনেক পুরুষই বুঝতে চেষ্টা করেন না। এতেই ঘটে বিপত্তি। এ বিষয় নিয়ে অনেক দম্পতির মধ্যেই দেখা দেয় দন্দ্ব। যা এক সময় গড়ায় বিবাহ বিচ্ছেদ পর্যন্ত।

নেশাগ্রস্ত পুরুষ: নেশাগ্রস্ত পুরুষকে বেশিরভাগ নারীই ঘৃণা করেন। এ ধরনের পুরুষরা সংসারের প্রতি দায়িত্বশীল হন না, যা অশান্তির কারণ হতে পারে। আবার নেশাগ্রস্ত পুরুষরা নানাভাবে স্ত্রীর উপর নির্যাতন করেন, এমন ঘটনা প্রায়ই দেখা যায়। এ কারণে নারীরা নেশাগ্রস্ত পুরুষ একবারেই পছন্দ করেন না।

স্ত্রীকে ছোট করা: কিছু কিছু পুরুষ আছেন যারা সব সময় স্ত্রীর ভুল খুঁজে বেড়ান। যে কোনো পরিস্থিতিতেই এ ধরনের পুরুষরা স্ত্রীকে ছোট করতে ছাড়ে না। যদিও এই অভ্যাস দাম্পত্যে ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে। নারীরা এ ধরনের পুরুষকে ঘৃণা করেন। আপনার মধ্যেও যদি এ অভ্যাস থাকে তাহলে এখেনই সতর্ক হন।

স্ত্রীর কাছে টাকা ধার চাওয়া: স্ত্রীর কাছে টাকা ধার চাওয়ার অভ্যাস অনেক পুরুষের মধ্যেই আছে। যদি টাকা সঠিক সময়ে ফেরত দেন তাহলে ঠিক আছে, তবে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে যদি টাকা ফেরত না দেন তাহলে কিন্তু স্ত্রীর কাছে আপনি লোভী ও মিথ্যাবাদী হিসেবে বিবেচিত হবেন। এমন পুরুষকে কোনো নারীই পছন্দ করেন না। এবার থেকে স্ত্রীর কাছে টাকা ধার চাওয়ার আগে এই বিষয় মাথায় রাখুন।

নিউজ ট্যাগ: দাম্পত্য জীবন

আরও খবর

আপনার আজকের দিন- ৩০ নভেম্বর, ২০২২

বুধবার ৩০ নভেম্বর ২০২২

আজকের রাশিফল!

মঙ্গলবার ২৯ নভেম্বর ২০২২