Logo
শিরোনাম

আগামী বাজেটে কালো টাকার সুযোগ!

প্রকাশিত:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৪০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আগামী ২০২২-২৩ অর্থবছরেও কালো টাকা সাদা করার সুযোগ অব্যাহত রাখা হতে পারে। বর্তমানে নির্দিষ্ট হারে কর দিয়ে শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ ও জমি-ফ্ল্যাট ক্রয় করে নগদ কালো টাকা সাদা করার সুযোগ আছে। এসব খাতে আগামী ৩০ জুন কালো টাকা সাদা করার সুযোগ শেষ হওয়ার কথা। এনবিআরের কর্মকর্তারা বলছেন, এই সুযোগ আরও এক বছর বাড়ানো হতে পারে।

এ প্রসঙ্গে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সাবেক চেয়ারম্যান ড. মোহাম্মদ আব্দুল মজিদ বলেন, কালো টাকা সাদা করার সুযোগ নয়, বরং অবৈধ আয়ের উৎস বন্ধ হওয়া জরুরি। উৎস বন্ধ না করে বার বার এ সুযোগ দেওয়া হলে সেটা অর্থনীতির জন্য ভালো ফল বয়ে আনবে না; বরং লাভের চেয়ে ক্ষতিই বেশি হবে।

বর্তমানে ফ্ল্যাট ও জমিতে আয়তন ও এলাকাভেদে নির্দিষ্ট পরিমাণ কর দিলে টাকার উৎস সম্পর্কে জানতে চান না কর কর্মকর্তারা। এছাড়া নগদ টাকা বা সঞ্চয়পত্র ও নানা ধরনের আমানতের ওপর ২৫ শতাংশ কর ও করের ওপর ৫ শতাংশ জরিমানা দিয়ে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ আছে। এর বাইরে শেয়ারবাজারেও কালো টাকা সাদা করা যায়।

এনবিআরের তথ্য অনুযায়ী, চলতি অর্থবছরে কালো টাকা সাদা করায় তেমন সাড়া মেলেনি। এনবিআরের সর্বশেষ হিসাবে, গত জুলাই থেকে নভেম্বর পর্যন্ত ৬৯৪ জন কালো টাকা সাদা করেছেন। এর মধ্যে ৫৫৮ জন ফ্ল্যাট ও জমির মালিক কালো টাকায় কেনা সম্পদ দেখিয়েছেন। ১২৩ জন করদাতা তাদের নগদ টাকা কিংবা সঞ্চয়পত্র ও এফডিআরের টাকা সাদা করেছেন। এ ছাড়া কালো টাকা শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করেছেন মাত্র ১৩ জন বিনিয়োগকারী। গত ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেটে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ দেওয়া হয়েছিল ১০ শতাংশ হারে কর দেওয়ার শর্তে। এই টাকা বিনিয়োগে বাধ্যবাধকতা ছিল শেয়ার মার্কেট, ব্যাংক আমানত, সঞ্চয়পত্র, জমি, ফ্লাটসহ নির্ধারিত কিছু খাতে। মাত্র ১০ শতাংশ কর দিয়ে কালো টাকা সাদা করার এই সুযোগ দেওয়া হলেও প্রদর্শিত আয়ে করদাতারা সর্বোচ্চ ২৫ শতাংশ পর্যন্ত কর দিয়ে কালো টাকা সাদা করেছেন।

অবশ্য চলতি ২০২১-২২ অর্থবছরে কালো টাকা সাদা করার ক্ষেত্রে নতুন শর্ত জুড়ে দেওয়া হয়। শর্ত অনুযায়ী, শেয়ার মার্কেট, ব্যাংক ও সঞ্চয়পত্র এবং হাতের নগদ টাকা সাদা করলে ২৫ শতাংশ কর দেওয়ার পাশাপাশি মোট করের ওপর পাঁচ শতাংশ পেনাল্টি দিতে হয়েছে। তবে, শিল্প-কারখানায় বিনিয়োগের ক্ষেত্রে ১০ শতাংশ কর দিয়েই এই সুবিধা নিয়েছেন।

এদিকে, আগামী ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেটে আগামী অর্থবছরের মোট আয়ের তিন লাখ ৭০ হাজার কোটি টাকা লক্ষ্যমাত্রা দেওয়া হচ্ছে এনবিআরকে। এটি জিডিপির প্রায় ৮.৪ শতাংশ। চলতি অর্থবছরে এনবিআরকে ৩ লাখ ৩০ হাজার কোটি টাকার লক্ষ্যমাত্রা দেওয়া আছে। সেই হিসাবে চলতি ২০২১-২২ অর্থবছরের বাজেটের মূল লক্ষ্য থেকে প্রায় ১০ শতাংশ বা ৪০ হাজার কোটি টাকা বেশি। এনবিআরের তথ্য অনুযায়ী, আগামী অর্থবছরে সর্বোচ্চ ১ লাখ ৪০ হাজার কোটি টাকা আদায় করতে হবে ভ্যাট বিভাগকে। এ ছাড়া আয়কর বিভাগকে ১ লাখ ২০ হাজার কোটি টাকা এবং শুল্ক বিভাগকে ১ লাখ ১০ হাজার কোটি টাকা আদায় করতে হবে। এ ছাড়া আগামী বাজেটে মোট আয়ের মধ্যে নন-এনবিআর থেকে প্রাক্কলন করা হয়েছে ১৮ হাজার কোটি টাকা। করবহির্ভূত রাজস্ব ৪৯ হাজার কোটি টাকা ধরা হয়েছে।


আরও খবর



নাটোরে ইউএনওর গাড়িচাপায় সাংবাদিক নিহত

প্রকাশিত:সোমবার ০৯ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৪৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নাটোরের সিংড়ায় নলডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) গাড়িচাপায় সোহেল রানা নামের এক সাংবাদিক নিহত হয়েছেন। সোমবার (৯ মে) সকাল সাড়ে ১০টায় নাটোর-বগুড়া মহাসড়কের নিংগইন তেল পাম্প এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

সোহেল রানা বগুড়া থেকে প্রকাশিত দৈনিক দূরন্ত পত্রিকার সিংড়া প্রতিনিধি ও আগপাড়া শেরকোল বন্দর উচ্চ বিদ্যালয় অ্যান্ড কলেজের সহকারী শিক্ষক ছিলেন। তিনি সিংড়া পৌর এলাকার বালুয়া বাসুয়া মহল্লার মৃত আব্দুল জলিলের ছেলে।

স্থানীয় সূত্র জানায়, নাটোরের সিংড়া গোল-ই আফরোজ সরকারি কলেজের বাংলা বিভাগের প্রভাষক মানসী দত্ত মৌমিতা নলডাঙ্গা ইউএনও সুখময় সরকারের সহধর্মিণী। সকালে ইউএনওর স্ত্রীকে কর্মস্থলে পৌঁছে দিতে সরকারি গাড়ি নিয়ে সিংড়া আসেন চালক। সিংড়া পৌঁছার আগে নিংগইন তেল পাম্প এলাকায় ইউএনওর গাড়ির সঙ্গে একটি মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে পিষ্ট হন আরোহী সাংবাদিক সোহেল রানা।

স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখান থেকে তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। দুপুর ১টার দিকে তিনি মারা যান। পরে ঘটনাস্থলে আসেন নলডাঙ্গার ইউএনও সুখময় সরকার।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী আফজাল হোসেন, সুলায়মান ও শরিফুল ইসলাম জানান, ইউএনওর গাড়ি দ্রুতগতিতে সিংড়ার দিকে আসছিল। নিংগইন পৌঁছালে মোটরসাইকেলে ধাক্কা দিলে ইউএনওর গাড়ির চাকায় পিষ্ট হন সাংবাদিক সোহেল রানা। পরে দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে কলেজে যান ইউএনওর সহধর্মিণী মানসী দত্ত মৌমিতা। পরে হাইওয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা এসে গাড়ি দুটি উদ্ধার করে।

তবে স্ত্রীকে কর্মস্থলে পৌঁছে দেওয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেছেন নলডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুখময় সরকার। তিনি বলেন, নলডাঙ্গা ছোট উপজেলা। সেখানে পেট্রল সংকটের কারণে সিংড়ায় পেট্রল নিতে পাঠিয়েছি।

ঘটনাস্থলে পৌঁছে সাংবাদিক সোহেল রানাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার ব্যবস্থা করেন সিংড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এম এম সামিরুল ইসলাম, সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. আল ইমরান।

ইউএনও এম এম সামিরুল ইসলাম বলেন, আমরা দুর্ঘটনার শিকার ব্যক্তির চিকিৎসার জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছিলাম। তবে তাকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি। তার পরিবারকে সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন তিনি।

সাংবাদিক সোহেল রানা পরিবেশ ও প্রকৃতি আন্দোলনের সহ-সভাপতি, কালের কণ্ঠ শুভ সংঘের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সঙ্গে জড়িত ছিলেন তিনি।


আরও খবর



বড় দরপতন বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দাম

প্রকাশিত:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৫৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

গত সপ্তাহে বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দামে বড় পতন হয়েছে। এ সময়ে বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দাম প্রায় চার শতাংশ কমেছে। ফলে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ৭০ ডলারেরও বেশি কমে বর্তমানে ১৮৫০ ডলারের নিচে নেমে এসেছে। সেই সঙ্গে কমেছে রুপা ও প্লাটিনামের দাম।

বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দাম কমায় এরই মধ্যে দেশের বাজারেও এর দাম কমানো হয়েছে। বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস) গত ১১ মে (বুধবার) থেকে দেশের বাজারে স্বর্ণের নতুন দাম নির্ধারণ করেছে।

নতুন দাম অনুযায়ী, সবচেয়ে ভালো মান বা ২২ ক্যারেট প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) স্বর্ণের দাম ১ হাজার ১৬৬ টাকা কমিয়ে ৭৬ হাজার ৫১৬ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

এছাড়া ২১ ক্যারেটের প্রতি ভরি সোনার দাম ১ হাজার ১৬৬ টাকা কমিয়ে ৭৩ হাজার ১৭ টাকা করা হয়েছে। ১৮ ক্যারেটের প্রতি ভরি সোনার দাম ৯৩৩ টাকা কমিয়ে ৬২ হাজার ৬৩৬ টাকা করা হয়েছে। আর সনাতন পদ্ধতির প্রতি ভরি স্বর্ণের দাম ৮৭৬ টাকা কমিয়ে করা হয়েছে ৫২ হাজার ১৯৬ টাকা।

বাজুস দেশের বাজারে স্বর্ণের দাম কমানোর ঘোষণা দেওয়ার সময় বিশ্ববাজারে প্রতি আউন্স স্বর্ণের দাম ছিল ১ হাজার ৮৬০ ডলারের ওপরে। এরপর বিশ্ববাজারে লেনদেন হওয়া প্রতি কার্যদিবসেই স্বর্ণের দাম কমেছে। এতে গত চার সপ্তাহের মধ্যে বিশ্ববাজারে স্বর্ণের দাম সর্বনিম্ন পর্যায়ে চলে এসেছে।

নিউজ ট্যাগ: স্বর্ণের দাম

আরও খবর



রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক’র জন্মদিন আজ

প্রকাশিত:শনিবার ২১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ১৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য দৌহিত্র, সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন (সিআরআই)-এর ট্রাস্টি তরুণ সৃজনশীল মেধাবী নেতা রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক’র জন্মদিন আজ। বঙ্গবন্ধুর ছোট মেয়ে শেখ রেহানার ছেলে তিনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাঁর খালা। ১৯৮০ সালের আজকের এই দিনে জন্মগ্রহণ করেন রাদওয়ান।

১৯৭৫ সালের ১৫ অগাস্ট বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যার সময় বিদেশে থাকায় বেঁচে যান তার দুই মেয়ে শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা। পরে লন্ডন ও দিল্লিতে নির্বাসনে ছিলেন তাঁরা। লন্ডনে নির্বাসনে থাকার সময় শেখ রেহানার প্রথম সন্তান রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক’র জন্ম হয়। তিন ভাই-বোনের মধ্যে সবার বড় তিনি। ছোট বোন টিউলিপ সিদ্দিক ব্রিটিশ পার্লামেন্টের সদস্য। লন্ডন স্কুল অব ইকোনমিক্স অ্যান্ড পলিটিক্যাল সায়েন্স থেকে গভর্নেন্স অ্যান্ড হিস্ট্রি বিষয়ে স্নাতক রাদওয়ান সিদ্দিক একই প্রতিষ্ঠান থেকে কমপ্যারেটিভ পলিটিক্স বিষয়ে স্নাতকোত্তর করেন।

দেশে আওয়ামী লীগের গবেষণা সেল সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশনের (সিআরআই) এর মাধ্যমে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছেন রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক। তার নির্দেশনায় প্রকাশিত হচ্ছে মুজিব’ নামের একটি শিশুতোষ প্রকাশনা। জীবনীভিত্তিক এই প্রকাশনার মধ্য দিয়ে ছোট ছোট শিশুদের কাছে পরিচিত করে তোলা হচ্ছে জাতির জনক শেখ মুজিবুর রহমানকে।

রাদওয়ান সিদ্দিক’র জন্মবার্ষিকীতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ভাসছে শুভেচ্ছা ও শুভকামনায়।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনী গ্রাফিক্যাল উপস্থাপনার মাধ্যমে নতুন প্রজন্মের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য গ্রাফিক নভেল মুজিব’ প্রকাশের প্রধান কারিগর ও প্রকাশক রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক ববি।  বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী প্রকাশের পর শিশু-কিশোর ও তরুণদের কাছে তার ঘটনাবহুল জীবন নতুন রূপে তুলে ধরার জন্য বইটিকে গ্রাফিক নভেলে রূপ দেওয়ার উদ্যোগ নেন তিনি।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে বিখ্যাত ব্যক্তিদের নিয়ে গ্রাফিক নভেল হলেও বাংলাদেশে এ ধরনের উদ্যোগ এটাই প্রথম। একইসঙ্গে বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর তার দুই মেয়ে কীভাবে জীবনসংগ্রাম করেছেন সেসব ঘটনা নিয়ে ডকুড্রামা হাসিনা: অ্যা ডটার টেইল’ নির্মাণের নেপথ্যে ছিলেন রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিক। এর মাধ্যমে রাজনৈতিক ইতিহাসের ঘটনাবলী সামনে আনার প্রকল্পগুলোর পৃষ্ঠপোষকতা করছেন তিনি।

গ্রাফিক নভেল মুজিব ও ডটারস টেইল দেশে-বিদেশে প্রশংসিত হয়েছে। সেনা নিয়ন্ত্রিত তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সময় দেশে জরুরি অবস্থার মধ্যে ২০০৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে আল জাজিরা টেলিভিশনে সম্প্রচারিত খ্যাতিমান ব্রিটিশ ব্রডকাস্টার ডেভিড ফ্রস্টের বিখ্যাত অনুষ্ঠান ফ্রস্ট ওভার দ্য ওয়ার্ল্ড’-এ সাক্ষাৎকার প্রচারিত হয় রাদওয়ান মুজিব সিদ্দিকের। তখন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা কারাগারে ছিলেন। ডেভিড ফ্রস্টকে দেওয়া রাদওয়ান মুজিবের ওই সাক্ষাৎকার সে সময় আলোড়ন সৃষ্টি করেছিল এবং শেখ হাসিনার মুক্তি ও জরুরি অবস্থা প্রত্যাহারের জন্য আন্তর্জাতিক জনমত সৃষ্টিতে সহায়তা করেছিল।


আরও খবর



হোটেল থেকে ব্যাংকের নিরাপত্তাকর্মীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৯ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৭৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাজধানীর দক্ষিণ কমলাপুর এলাকার শাহ পরান আবাসিক হোটেল থেকে মো. ইব্রাহিম (১৯) নামে এক যুবকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (২৮ এপ্রিল) তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাত ১১টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) মর্গে পাঠায় পুলিশ।

মতিঝিল থানার পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) সৈয়দ আলী বলেন, খবর পেয়ে কমলাপুর বাজার রোড এলাকার শাহ্ পরান হোটেলের ২১৭ নম্বর কক্ষের দরজা ভেঙে ফ্যানের সঙ্গে রশি দিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় মরদেহ উদ্ধার করি। পরে আইনি প্রক্রিয়া শেষে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে পাঠানো হয়েছে।

তিনি বলেন, প্রাথমিকভাবে স্বজনদের কাছে জানতে পেরেছি, তিনি হতাশাগ্রস্ত ছিলেন। গতকাল (বুধবার) তিনি ওই হোটেলে উঠে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। কী কারণে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে এ বিষয়টি জানার চেষ্টা করছি। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

নিহতের মামা বলেন, আমার ভাগিনা ডাচ-বাংলা ব্যাংকের একটি বুথের সিকিউরিটি গার্ডের কাজ করত। কয়েকদিন আগে গ্রামের বাড়িতে গিয়েছিল। সে হতাশাগ্রস্ত ছিল। গ্রামের বাড়ি থেকে এসে হোটেলে উঠে। পরে জানতে পারলাম সে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

তিনি আরও বলেন, তার বাড়ি নোয়াখালীর সেনবাগ থানার কেশরপাড়া গ্রামে। তিনি ওই এলাকার মৃত তাজুল ইসলামের ছেলে।


আরও খবর



করোনা শনাক্ত ২২ জনের, মৃত্যু নেই

প্রকাশিত:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ২৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে কারো মৃত্যু হয়নি। একই সময়ে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছেন ২২ জন। বুধবার (১৮ মে) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য মতে, ২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে করোনা ভাইরাসের প্রথম রোগী শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ করোনায় আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। 

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ২৪১ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৯ লাখ ১৩৮ জন।

২৪ ঘণ্টায় ৪ হাজার ৮৯০টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় ৫ হাজার ১টি নমুনা। পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার শূন্য দশমিক ৪৪ শতাংশ। মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত মোট শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৮৯ শতাংশ।

২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে প্রথম ৩ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ওই বছরের ১৮ মার্চ দেশে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। গেল বছরের ৫ ও ১০ আগস্ট দুদিন সর্বাধিক ২৬৪ জন করে মারা যান।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর