Logo
শিরোনাম

আগামীকাল দেশের যেসব এলাকায় বৃষ্টির সম্ভাবনা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ জুলাই ২০21 | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৬৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আগামীকাল বুধবার (২১ জুলাই) পবিত্র ঈদুল আজহা। এ ঈদে ঢাকা বিভাগে ভারি বৃষ্টিপাত না হলেও কয়েকটি বিভাগে ভারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা আছে। আবহাওয়া অধিদপ্তর থেকে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

এ বিষয়ে আবহাওয়াবিদ হাফিজুর রহমান বলেন, ঈদের দিন একটানা বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই, বৃষ্টি হলেও কিছুক্ষণের মধ্যে তা শেষ হয়ে যাবে। তবে ঈদের দিন ঢাকা বিভাগ, খুলনা বিভাগ ও বরিশাল বিভাগে বৃষ্টির সম্ভাবনা খুবই কম। সামান্য আকারে বৃষ্টিপাত হতে পারে। তবে চট্টগ্রাম, রংপুর, সিলেট, ময়মনসিংহ ও রাজশাহী বিভাগে ভারি বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

হাফিজুর রহমান বলেন, এ ছাড়া আগামী ২৪ ঘণ্টায় দেশের আট বিভাগের বিভিন্ন স্থানে অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রাজশাহী, রংপুর, ময়মনসিংহ, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং ঢাকা, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেই সঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারি থেকে ভারি বর্ষণ হতে পারে।

পূর্বাভাসে আরও বলা হয়, মৌসুমী বায়ুর অক্ষের বাড়তি অংশ পাঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তর প্রদেশ, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ ও বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চল হয়ে আসাম পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে। এর একটি বাড়তি অংশ উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে দুর্বল থেকে মাঝারি অবস্থায় বিরাজ করছে।



আরও খবর



টিকা নেয়ার পর আক্রান্তদের ৫ উপসর্গ

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ১০৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

টিকা নেয়ার পরও করোনায় আক্রান্তদের শরীরে পাঁচটি প্রধান উপসর্গ দেখা দিচ্ছে। উপসর্গ নিয়ে নিয়মিত গবেষণা করা কোভিড সিম্পটম স্ট্যাডি এ উপসর্গ শনাক্ত করেছে।

অ্যাপ ব্যবহারকারীদের দেয়া তথ্য বিশ্লেষণ করে এসব উপসর্গ শনাক্তের কথা জানিয়েছে জিও কভিড

সাম্প্রতিক সপ্তাহে এসব উপসর্গ দেখা দিয়েছে সবচেয়ে বেশি।

অ্যাপ ব্যবহারকারী টিকা গ্রহণকারী ও না নেয়া উভয় ধরনের মানুষের তথ্য বিশ্লেষণ করা হয়েছে। সেখানে অনেকের উপসর্গ একই হলেও কিছু ক্ষেত্রে পার্থক্য পাওয়া গেছে।

তবে এসব উপসর্গ থাকলেও তারা বড় জটিলতায় পড়েনি এবং দ্রুত সুস্থ হয়েছেন। টিকা গ্রহণকারীদের মধ্যে বেশি দেখা দেয়া উপসর্গগুলো হলো, মাথাব্যথা, সর্দি, হাঁচি ও গলাব্যথা। এছাড়া অন্যান উপর্গগুলো হচ্ছে, ঘ্রাণে কমতি হওয়া, শ্বাসকষ্ট ও জ্বর।

তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, যারা দুই ডোজ টিকা নিয়েছে, তাদের ক্ষেত্রে হাঁচি বেশে দেখা গেছে। ফলে টিকা নেয়ার পর অধিক পরিমাণে হাঁচি হলে তাদের করোনা টেস্ট করানোর পরামর্শ দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।


আরও খবর



বরিশালে একদিনে সর্বোচ্চ ৪৩৬ শনাক্ত

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ জুলাই ২০২১ | ৮৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বরিশাল বিভাগে প্রতিনিয়ত বাড়ছে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা, ভাঙছে একের পর এক পেছনের রেকর্ড। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ শুরুর পর বরিশাল বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় একদিনে সর্বোচ্চ করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে, যা এ যাবতকালেরও সর্বোচ্চ।

আর এই সময়ে করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে ১৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় বরিশাল বিভাগে নতুন করে ৪৩৬ জন করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছেন। 

এর আগের দিন ২৪ ঘণ্টায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৩৪৩। আর সর্বশেষ আক্রান্তের সংখ্যা নিয়ে বিভাগে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৯হাজার ৭৩ জন।

এছাড়া একই সময়ে বরিশাল শের ই বাংলা মেডিক্যাল কলেজ (শেবাচিম) হাসাপাতালের করোনার আইসোলেশন ওয়ার্ডে উপসর্গ নিয়ে ১১ জনের এবং আক্রান্ত হয়ে ১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে গেল ২৪ ঘণ্টায় বরিশাল, পিরোজপুর ও ঝালকাঠি জেলায় ২ জন করে মোট ৬ জন করোনা রোগীর মৃত্যু শনাক্ত হয়েছে। যা নিয়ে বরিশাল বিভাগে করোনায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৩২১ জনে দাঁড়িয়েছে বলে জানিয়েছেন বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. বাসুদেব কুমার দাস জানান, মোট আক্রান্ত ১৯ হাজার ৭৩ জনের মধ্যে এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৫ হাজার ২৬৫ জন। 

আক্রান্ত সংখ্যায় বরিশাল জেলায় নতুন সর্বোচ্চ শনাক্ত ১৫৭ জন নিয়ে মোট ৮ হাজার ৩৫২ জন,পটুয়াখালী জেলায় নতুন ৪৩ জন নিয়ে মোট ২৫৮৩ জন, ভোলা জেলায় নতুন ১৬ জনসহ মোট ২১০৩ জন, পিরোজপুর জেলায় নতুন ৮৩ জন নিয়ে মোট ২৪৯৯ জন, বরগুনা জেলায় নতুন ৩৭ জন নিয়ে মোট আক্রান্ত ১৫২৯ জন এবং ঝালকাঠি জেলায় নতুন ১০০ জন শনাক্ত নিয়ে মোট সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২০০৭ জন।


আরও খবর

এক মাছের দাম সাড়ে ৪ লাখ টাকা!

শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১




রাজধানীতে নতুন উদ্বেগ ডেঙ্গু

প্রকাশিত:শনিবার ১৭ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৬০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে দেশের হাসপাতালে নতুন রোগী ভর্তি হয়েছেন ৮১ জন। এদের মধ্যে ৮০ জন ঢাকার এবং ১ জন ঢাকার বাইরের

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ৮১ জন ডেঙ্গু রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তাদের মধ্যে ৮০ জনই রাজধানীর বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। যা চলতি বছর ঢাকায় একদিনে সর্বোচ্চ ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী শনাক্তে রেকর্ড।

আজ শনিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের স্বাস্থ্য তথ্য ইউনিটের (এমআইএস) সহকারী পরিচালক ও হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন অ্যান্ড কন্ট্রোল রুমের দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ডা. কামরুল কিবরিয়া এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে দেশের হাসপাতালে নতুন রোগী ভর্তি হয়েছেন ৮১ জন। এদের মধ্যে ৮০ জন ঢাকার এবং ১ জন ঢাকার বাইরের।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়েছে, বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে সর্বমোট ৩৩৬ জন রোগী ভর্তি রয়েছেন। এর মধ্যে ঢাকার ৪১টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে বর্তমানে সর্বমোট ৩৩১ জন এবং অন্যান্য বিভাগে বর্তমানে ৫ জন রোগী ভর্তি রয়েছেন।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের জুলাই মাসে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ সংখ্যাক ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ বছরের আর কোনো মাসে এত ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী পাওয়া যায়নি। শুধু জুলাই মাসেই এখন পর্যন্ত প্রাপ্ত ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা ৭৬৭ জন। এদের মধ্যে ৯৯ শতাংশই ঢাকার বাসিন্দা।

নিউজ ট্যাগ: ডেঙ্গু আক্রান্ত

আরও খবর



২৪ ঘণ্টায় কমেছে মৃত্যু ও শনাক্ত

প্রকাশিত:শনিবার ১০ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৮১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও ১৮৫ জন মানুষ। তাদের নিয়ে করোনাতে আক্রান্ত হয়ে সরকারি হিসাবে মোট মারা গেলেন ১৬ হাজার ১৮৯ জন। এ ছাড়া গত একদিনে এই মহামারিতে নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন আট হাজার ৭৭২ জন।

২৪ ঘণ্টার শনাক্ত হওয়া রোগীর সংখ্যা গতকালের (৯ জুলাই, ১১ হাজার ৩২৪ জন) চেয়ে কম। শনাক্ত হওয়া রোগীর পাশাপাশি গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষাও হয়েছে কম। গতকাল ৩৬ হাজার ৫৮৬টি পরীক্ষা হলেও গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ২৭ হাজার ৮৮৪টি।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাতে রোগী শনাক্তের হার ৩১ দশমিক ৪৬ শতাংশ। নতুন শনাক্ত হওয়া আট হাজার ৭৭২ জনকে নিয়ে দেশে সরকারি হিসাবে করোনাতে মোট শনাক্ত হলেন ১০ লাখ নয় হাজার ৩১৫ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন পাঁচ হাজার ৭৫৫ জন আর এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন আট লাখ ৬৮ হাজার ১৩৯ জন।


আরও খবর



টিকা গ্রহণের বয়সসীমা ১৮

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৩ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৬৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দেশে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনতে টিকা গ্রহণের বয়সসীমা আরো কমালো সরকার। সর্বশেষ সিদ্ধান্ত অনুযায়ী যাদের বয়স ১৮, তারাও কোভিড-১৯ টিকা নিতে পারবেন। খুব শিগগিরই এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করা হবে। আগের সিদ্ধান্ত অনুসারে টিকা গ্রহণের বয়স ছিল ৩৫ বছর।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মুহাম্মাদ খুরশীদ আলম। তিনি জানিয়েছেন, প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে টিকা গ্রহণের সর্বনিম্ন বয়সসীমা ১৮ বছর করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এ বিষয়ে নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দ্রুত সময়ের মধ্যেই এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন হবে।

রাজধানীর মুগদা জেনারেল হাসপাতাল পরিদর্শন শেষে আজ শুক্রবার দুপুরে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক। অধ্যাপক খুরশীদ আলম বলেন, আজ (শুক্রবার) সকালে এ বিষয়ে নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের সঙ্গে আলোচনা করে আমরা দ্রুত সময়ের মধ্যেই এই সিদ্ধান্তের বাস্তবায়ন শুরু করব।

প্রসঙ্গত, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর গত ১৯ জুলাই করোনার টিকা নেওয়ার বয়স ৩০ বছর নির্ধারণ করে। তার আগে গত ৫ জুলাই বয়সসীমা নির্ধারণ করা হয় ৩৫ বছর। বাংলাদেশে যখন টিকার জন্য নিবন্ধন শুরু হয় তখন ৫৫ বছর বয়সীদের টিকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু নিবন্ধনের ক্ষেত্রে তেমনটা সাড়া না পাওয়ায় বয়সসীমা কমানোর সিদ্ধান্ত হয়। সেই অনুযায়ী আরো বেশি সংখ্যক মানুষকে করোনার টিকা কর্মসূচির আওতায় আনতে বয়সসীমা কমিয়ে ৫৫ থেকে ৪৪ বছর করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

পরবর্তীতে টিকা গ্রহণের বয়সসীমা ফের কমিয়ে ৪০ বছর করা হয়। এর পর তৃতীয় দফায় গত ৫ জুলাই টিকা গ্রহীতাদের বয়স কমিয়ে ৩৫ বছর করা হয়। আর গত ১৯ জুলাই চতুর্থ দফায় তা কমিয়ে ৩০ বছর করার ঘোষণা দেওয়া হয়। সর্বশেষ টিকা গ্রহণের বয়সসীমা ১৮ করার সিদ্ধান্ত হলো।


আরও খবর