Logo
শিরোনাম

আজ থেকে ৪ দিন টিকা কার্যক্রম বন্ধ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ জুলাই ২০21 | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৮৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ঈদুল আজহার ছুটিতে করোনাভাইরাসের টিকাদান বন্ধ থাকবে। একই সঙ্গে ছুটির পর দিন শুক্রবার হওয়ার কারণে সেদিনও বন্ধ থাকবে টিকা দেওয়া। অর্থাৎ মোট চারদিন বন্ধ থাকছে টিকাদান।

মঙ্গলবার এ তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মুখপাত্র ও লাইন ডিরেক্টর অধ্যাপক ডা. রোবেদ আমিন। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এ মুখপাত্র বলেন, দেশে টিকা দেওয়া শুরুর পর থেকেই সরকারি ছুটির দিনগুলোতে কার্যক্রম বন্ধ ছিল। তাই ঈদের তিন দিন টিকা দেওয়া বন্ধ থাকবে।

তিনি আরও বলেন, ছুটি শেষ হওয়ার পরদিন শুক্রবার হওয়ার কারণে সেদিনও বন্ধ থাকবে টিকাদান। এরপর ২৪ জুলাই থেকে আবারও টিকা দেওয়ার কার্যক্রম শুরু হবে।২০১৯ সালের ডিসেম্বরে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী দেশে শনাক্ত হয় ২০২০ সালের ৮ মার্চ। এরপর ১৮ মার্চ প্রথম মৃত্যু হয় দেশে।

সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে দেশে ২০২১ সালের জানুয়ারিতে টিকা দেওয়া শুরু হয়। এ পর্যন্ত দেশে করোনাভাইরাসের টিকা দেওয়া হয়েছে এক কোটি ১৪ লাখ ৯০ হাজার ৭৩৯ ডোজ।


আরও খবর



সাতক্ষীরা মেডিকেলের ২৬ চিকিৎসককে একযোগে বদলি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৬ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | ৭৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
সাতক্ষীরার সিভিল সার্জন ডা. হুসাইন সাফায়াত ২৬ চিকিৎসকের বদলির খবর নিশ্চিত করে বলেন, সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ১৬ জনকে ও ১০ জনকে যশোরে পদায়ন করা হয়েছে

সাতক্ষীরা সরকারি মেডিকেল কলেজের ২৬ চিকিৎসককে একযোগে বদলি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ১০ জনকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে ও ১৬ জনকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে পদায়ন করা হয়েছে। আগামী ৭ জুলাইয়ের মধ্যে পদায়নকৃতদের নতুন কর্মস্থলে যোগদান করতে বলা হয়েছে। অন্যথায় পর দিন ৮ জুলাই পূর্বাহ্নে বর্তমান কর্মস্থল হতে তাদের তাৎক্ষণিক অবমুক্ত হিসেবে গণ্য করা হবে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব জাকিয়া পারভীন সোমবার এ সরকারি নির্দেশে স্বাক্ষর করেছেন।

এতে বলা হয়, বর্ণিত চিকিৎসকগণ করোনা ইউনিটে দায়িত্ব পালন করবেন। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত এই  আদেশ বলবৎ থাকবে।

যশোরে জেনারেল হাসপাতালে বদলিকৃতরা হলেন সাতক্ষীরা সরকারি মেডিকেল কলেজের ডা. মো. শরিফুজ্জামান, ডা. মো. আল মামুন হোসেন, ডা. প্রবীর কুমার দাশ, ডা. মো. মনিরুজ্জামান, ডা. মো. মোজাম্মেল হক, ডা. মো. শরিফুল ইসলাম, ডা. মো. সাইফুল ইসলাম, ডা.হোসনে আরা হোসেন, ডা. মো. সাইফুল্লাহ ও ডা. জিএম ফারুকুজ্জামান।

অপরদিকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে বদলিকৃতরা হলেন  ডা. শেখ আবু সাঈদ, ডা. ফারহানা হোসেন, ডা. খসরুবা  পারভীন, ডা. সুতপা চ্যাটার্জি, ডা. মো. শামসুর রহমান, ডা. মো. ইনামুল হাফিজ, ডা. মো. জাহিদুল ইসলাম, ডা. মো. ফখরুল  আলম, ডা. নাসরিন সুলতানা, ডা. মো. নাছির উদ্দিন গাজী, ডা. শেখ নাজমুস সাকিব, ডা. ফাহমিদা জামান, ডা. মেহনাজ নাজরীন, ডা. উপমা গুহ রায়, ডা. মো. আনিসুর রহমান ও ডা. শরিফা জামান।

সাতক্ষীরার সিভিল সার্জন ডা. হুসাইন সাফায়াত ২৬ চিকিৎসকের বদলির খবর নিশ্চিত করে বলেন, সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ১৬ জনকে ও ১০ জনকে যশোরে পদায়ন করা হয়েছে।

তিনি জানান, পদায়নকৃতরা সবাই ছিলেন সাতক্ষীরা সরকারি মেডিকেল কলেজের চিকিৎসক। তবে এ সংক্রান্ত চিঠি এখনও তিনি হাতে পাননি। চিঠি হাতে পাওয়ার পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


আরও খবর



কুষ্টিয়ায় করোনায় ও উপসর্গে আরও ১০ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | ৬১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কুষ্টিয়ায় করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় আরও ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে সাত জন করোনা পজিটিভ ছিলেন। অপর তিন জন করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন। হাসপাতালের পরিসংখ্যান কর্মকর্তা মো. মেজবাউল আলম আজ শুক্রবার সকালে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

মেজবাউল আলম জানান, হাসপাতালটিতে বর্তমানে ২৮০ জন রোগী ভর্তি রয়েছে। এর মধ্যে ২১৯ জন করোনা পজিটিভ এবং ৬১ জনের মধ্যে করোনার উপসর্গ রয়েছে।

এদিকে, পিসিআর ল্যাব ও জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ৭৩৫ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ২০৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ২৭ দশমিক ৬২ শতাংশ।


আরও খবর

কুষ্টিয়ায় আরও ২০ জনের মৃত্যু

রবিবার ১৮ জুলাই ২০২১




রাজশাহী মেডিকেলে একদিনে করোনায় ২০ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ জুলাই ২০21 | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৫০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা ইউনিটে  ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার সকাল ৮টা থেকে মঙ্গলবার সকাল ৮টার মধ্যে তারা মারা যান।

হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী জানান, নতুন করে মারা যাওয়া ২০ জনের মধ্যে চারজন করোনা পজিটিভ ছিলেন। আর ১৬ জন মারা গেছেন করোনার উপসর্গ নিয়ে।

মৃত ২০ জনের মধ্যে রাজশাহীর আটজন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের দুই, নাটোরের পাঁচ, নওগাঁর দুই, পাবনার তিনজন রোগী ছিলেন। হাসপাতালটিতে এ মাসের ২০ দিনে ৩৪৯ জনের মৃত্যু হলো।

হাসপাতাল পরিচালক শামীম ইয়াজদানী আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৬০ জন। মঙ্গলবার সকাল ৮টা পর্যন্ত এ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি ছিলেন ৪৮০ জন। হাসপাতালে মোট করোনা ডেডিকেটেড শয্যার সংখ্যা এখন ৪৫৪টি।


আরও খবর



ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৯৭৯ জনের

প্রকাশিত:সোমবার ২৮ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৮৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ভারতের করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ৯৭৯ জনের।  দীর্ঘদিন পর দেশটিতে করোনায় মৃত্যু হাজারের নিচে নামল।

সোমবার ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানায় দেশটির প্রভাবশালী গণমাধ্যম হিন্দুস্তান টাইমস।

খবরে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে ৪৬ হাজার ১৪৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে দেশটিতে করোনায় মোট মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ৯৬ হাজার ৭৩০ জনের।

আর মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ৩ কোটি ২৭ লাখ ৯ হাজার ৩৩১ জনে। এর আগে রোববার দেশটিতে করোনায় মৃত্যু হয়েছিল ১২৫৮ জনের, আক্রান্ত হয়েছিলেন ৫০ হাজার ৪০ জন।

সোমবার পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৩৯ লাখ ৩৮ হাজার ৮৬২ জনের।  করোনাক্রান্ত হয়েছেন ১৮ কোটির বেশি মানুষ।


আরও খবর



ফোন করে বিরক্ত করলে গুনতে হবে এক লাখ টাকা জরিমানা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৮৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বারবার ফোন করে কাউকে বিরক্ত করলে অভিযুক্তকে সর্বোচ্চ এক লাখ টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে ছয় মাসের কারাদণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে।এজন্য বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইন, ২০০১ এর সংশ্লিষ্ট ধারাটি মোবাইল কোর্ট আইন, ২০০৯-এর তফসিলে যুক্ত করা হয়েছে।

গত ২৯ জুন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ থেকে এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।

জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দীনের স্বাক্ষর করা প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, মোবাইল কোর্ট আইন, ২০০৯ এর তফসিলে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইন, ২০০১-এর ধারা ৭০ (১) সংযোজিত হবে।

টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইনের ৭০ (১) ধারায় বলা হয়েছে, কোনো ব্যক্তি যুক্তিসঙ্গত কারণ ব্যতীত যদি অন্য কোনো ব্যক্তির নিকট এইরূপে বারবার টেলিফোন করেন যে, উহা উক্ত অন্য ব্যক্তির জন্য বিরক্তিকর হয় বা অসুবিধার সৃষ্টি করে, তাহা হইলে এইরূপে টেলিফোন করা একটি অপরাধ হইবে এবং উহার জন্য দোষী ব্যক্তি অনধিক এক লক্ষ টাকা অর্থদণ্ডে এবং উহা অনাদায়ে অনধিক ৬ মাস কারাদণ্ডে দণ্ডনীয় হইবেন।


আরও খবর