Logo
শিরোনাম

আজ থেকে পল্লবী স্টেশনে থামবে মেট্রোরেল

প্রকাশিত:বুধবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ২২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পল্লবী স্টেশনে মেট্রোরেল আজ বুধবার থেকে থামবে। একই সঙ্গে এদিন থেকে মেট্রোরেল চলাচলের সময়সূচিরও কিছুটা পরিবর্তন হবে। একই দিন পল্লবী স্টেশন থেকে সাধারণ যাত্রীরা চলাচল করতে পারবেন। আগামী ২৬ মার্চের মধ্যে পর্যায়ক্রমে অন্যান্য স্টেশনে মেট্রোরেল থামানো হবে বলে জানিয়ে কর্তৃপক্ষ।

ঢাকা ম্যাচ ট্রানজিট কোম্পানি লিমিটেডের (ডিএমটিসিএল) জানিয়েছে, ২৫ জানুয়ারি থেকে সকাল সাড়ে ৮টা-সাড়ে ১২টা পর্যন্ত মেট্রোরেল চলাচল করবে। তবে সকাল ৮টায় মূল গেট খুলে দেওয়া হবে। ২৬ মার্চ থেকে সব স্টেশন চালু করা হবে।

২৮ ডিসেম্বর মেট্রোরেলের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পরদিন ২৯ ডিসেম্বর থেকে বাণিজ্যিকভাবে মেট্রোরেল যাত্রা শুরু করে। উত্তরা উত্তর (দিয়াবাড়ী) থেকে আগারগাঁও পর্যন্ত মেট্রোরেল সরাসরি চলাচল করছে।

২০১২ সালে সরকার মেট্রোরেল প্রকল্প গ্রহণ করে। দেশের প্রথম মেট্রোরেলের নাম এমআরটি লাইন-৬। উত্তরা থেকে কমলাপুর পর্যন্ত এ লাইনের দৈর্ঘ্য ২১ দশমিক ২৬ কিলোমিটার। এর মধ্যে ১৭টি স্টেশন থাকছে। মেট্রোরেল নির্মাণে ৩৩ হাজার ৪৭২ কোটি টাকা ব্যয় হচ্ছে।

নিউজ ট্যাগ: ডিএমটিসিএল

আরও খবর



‘জিরো-কোভিড’ নীতি থেকে সরে আসতে পারে চীন

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৫ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৩ | ৪৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

২০২৩ সালে করোনাভাইরাস মহামারি পুরোপুরি বিদায় নেবে কি না তা বলা কঠিন। এ বছর আরও কয়েক লাখ বা কোটি মানুষ প্রাণঘাতী ভাইরাসটিতে সংক্রমিত হতে পারেন। তবে এতে প্রাণহানির সংখ্যা কমবে উল্লেখযোগ্যভাবে। নতুন বছরে করোনার নতুন কোনও বিপজ্জনক ধরন বিস্তার লাভ না করলে এতে প্রাণহানির সংখ্যা ফ্লুতে মৃত্যুর সংখ্যার অর্ধেকেরও নিচে নেমে আসা উচিত। মহামারির শুরুর দিকের তুলনায় করোনায় মৃত্যুহার এরই মধ্যে ২০০ গুণ কমে গেছে।

এ বছর জিরো-কোভিড নীতি থেকে সরে আসতে পারে চীন। তার ফলে দেশটিতে সংক্রমণ আবারও বেড়ে যাওয়ার ঝুঁকি রয়েছে। সেটি মোকাবিলায় চীনারা নিজেদের তৈরি আরও টিকা বিতরণ করবেন। যুক্তরাষ্ট্র-যুক্তরাজ্যের গবেষকরা করোনার প্রতিটি ধরন নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করবেন। মাঙ্কিপক্স এবং ম্যালেরিয়ার টিকাও যথেষ্ট দৃষ্টি আকর্ষণ করবে। মহামারিতে মৃত্যুহার কমে আসার সম্ভাবনায় জাতিসংঘ আশা করছে, ২০২৩ সালে মানুষের প্রত্যাশিত আয়ুষ্কাল আবারও বাড়বে। ২০২০-২১ সালে এটি ১ দশমিক ৮ বছর কমে গিয়েছিল।

নতুন বছরে অর্থনৈতিক মন্দা এবং ব্যাপক মূল্যস্ফীতির কারণে স্বাস্থ্যসেবা খাতে বাড়তি খরচ জোগাতে হিমশিম খাবে সরকারগুলো। ডলারের হিসাবে ওষুধ বিক্রি ও স্বাস্থ্যসেবা ব্যয় এ বছর প্রায় পাঁচ শতাংশ বাড়তে পারে। কিন্তু মূল্যস্ফীতি হিসাব করলে এর প্রকৃত পরিমাণ বরং কমে যাবে। ভারত থেকে শুরু করে নাইজেরিয়ার মতো দেশগুলো সার্বিক স্বাস্থ্যসেবা ব্যয় বাড়াবে। সুদূরপ্রসারী সংস্কার কার্যক্রম হাতে নেবে ফিনল্যান্ড। গর্ভপাত সম্পর্কিত বিতর্ক ছড়িয়ে পড়বে যুক্তরাষ্ট্র ও তার বাইরে।

ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানিগুলো পেটেন্টের মেয়াদ শেষ হওয়া এবং জেনেরিক প্রতিযোগিতা মোকাবিলায় অধিগ্রহণ প্রক্রিয়া জোরদার করবে। বিশেষ করে, অ্যাবভিয়ের তৈরি বিশ্বের সর্বাধিক বিক্রিত ওষুধ হুমিরা নিয়ে তীব্র লড়াই শুরু হবে। জিই হেলথকেয়ারকে তালিকাভুক্ত করার মাধ্যমে ফার্মাসিউটিক্যাল বাজারে পা রাখবে জেনারেল ইলেকট্রিক। মার্কিন জায়ান্ট ফাইজার সবুজ ভবিষ্যতের পথে একধাপ এগিয়ে যাবে। কোম্পানিটি ২০২৩ সালেই উত্তর আমেরিকায় তার সব কার্যক্রম সৌরশক্তিচালিত করতে পারে।

নজর থাকবে ব্রিটিশ গবেষণা সংস্থা জিনোমিক্স ইংল্যান্ডের দিকেও। বিভিন্ন বিরল রোগের তথ্য সংগ্রহ করতে ২০২৩ সালে প্রায় এক লাখ নবজাতককে পরীক্ষা করবে সরকারি সংস্থাটি। এটি গোটা জিনোম সিকোয়েন্সিংয়ের পথে একটি ছোট পদক্ষেপ। তবে এতে ব্যক্তিগতকৃত (পারসোনালাইজড) ওষুধ তৈরিতে যথেষ্ট উপকার হবে। প্রতি বছর বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন ধরনের বিরল রোগে সম্ভবত ৪০ কোটি মানুষ আক্রান্ত হন। এ ধরনের অসুস্থতার তিন-চতুর্থাংশই জেনেটিক।

নিউজ ট্যাগ: জিরো-কোভিড

আরও খবর



নারীদের সম্পৃক্ত করে উন্নত দেশ গড়তে সরকার কাজ করছে: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ২৩ জানুয়ারী 20২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩ | ৩০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নারী সমাজকে মূলধারায় সম্পৃক্ত করে উন্নত দেশ গড়ার সরকার কাজ করছে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সরকার নারী সমাজকে সঙ্গে নিয়েই বাংলাদেশকে উন্নত দেশের দিকে নিয়ে যাবে।

রোববার (২২ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব উইমেনের (এইউডব্লিউ) কাউন্সিল অব প্যাট্রনস-এর একটি প্রতিনিধি দল সংসদ ভবনে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সাক্ষাৎ করতে গেলে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন বিশ্ববিদ্যালয়টির চ্যান্সেলর চেরি ব্লেয়ার। পরে প্রধানমন্ত্রীর স্পিচ রাইটার মো. নজরুল ইসলাম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০২৬ সালে বাংলাদেশ চূড়ান্তভাবে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হবে। আমরা আরও এগিয়ে যাব। সেটা মাথায় রেখেই আমরা আমাদের সমস্ত উন্নয়ন কর্মসূচি প্রণয়ন করছি। আমরা নারীদের সম্পৃক্ত করে এগিয়ে যাব।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, সবার জন্য খাদ্য, শিক্ষা ও স্বাস্থ্যসেবাসহ দেশের সার্বিক উন্নয়ন নিশ্চিত করাই তার সরকারের প্রধান লক্ষ্য।

এ প্রসঙ্গে তিনি এইউডব্লিউ প্রতিনিধি দলকে এমন শিক্ষাক্রম প্রণয়ন করতে বলেন- যা শিক্ষার্থীদের উদ্যোক্তা এবং ভবিষ্যতের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় দক্ষ মানবসম্পদ হিসেবে গড়ে তুলবে।

তিনি বলেন, শুধু সাধারণ শিক্ষা নয়, এমন শিক্ষা প্রদান করুন যা তাদের দক্ষ করে তুলবে, বেকার তৈরি করবে না।

এই বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য তিনি জমি দান করেছেন বলেও উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী । তিনি বলেন, যে কোনো দেশের উন্নয়নের জন্য নারী শিক্ষা অপরিহার্য। তিনি সংক্ষিপ্তভাবে তার সরকারের গৃহীত বিভিন্ন কর্মসূচি তুলে ধরেন।

বৈঠকে আফগানিস্তানের প্রসঙ্গ এলে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ইসলামের নামে নারীদের শিক্ষা বন্ধ করার কোনো সুযোগ নেই।

তিনি আরও উল্লেখ করেন যে, ইসলাম সর্বদা নারী ও পুরুষের সমান অধিকারের কথা বলে।

এ প্রসঙ্গে রাজনীতিতে যুক্ত হওয়ার  সময় নারী নেতৃত্ব নিয়ে নিজে তীব্র বিরোধিতার সম্মুখীন হয়েছেন বলেও উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী।

আফগানিস্তান প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, বর্তমান আফগান সরকার জোর করে সে দেশের নারী শিক্ষা বন্ধ করে দিচ্ছে।

তিনি বলেন, পুরো বিশ্ব এটি প্রত্যক্ষ করছে, কেউ এর বিরুদ্ধে কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না। দেশ ও জনগণের উন্নয়নে নিজের  জীবন উৎসর্গ করেছেন বলেও উল্লেখ করেন শেখ হাসিনা।

রোহিঙ্গা ইস্যু নিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তার সরকার রোহিঙ্গা শিশুদের তাদের নিজ ভাষায় শিক্ষার ব্যবস্থা করেছে।

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো.তোফাজ্জল হোসেন মিয়া, পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন ও এইউডব্লিউর উপাচার্য ড. রুবানা হক এ সময় উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



ডেসটিনির চেয়ারম্যানকে জামিন দেননি হাইকোর্ট

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১২ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ৩১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ট্রি প্লান্টেশন প্রজেক্টের অর্থ আত্মসাতের মামলায় ডেসটিনির চেয়ারম্যান মোহাম্মদ হোসেনের জামিন চেয়ে আনা আপিল খারিজ করে দিয়েছেন হাইকোর্ট।

বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি খিজির হায়াত সমন্বয়ে গঠিত একটি হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ আজ এ রায় দেন। একইসঙ্গে বিচারিক আদালতে সাক্ষ্যগ্রহণ পর্যায়ে থাকা মামলাটি দ্রুত নিষ্পত্তিরও নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

আদালতে আবেদেনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী এম সারোয়ার হোসেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি এটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক। দুদকের পক্ষে ছিলেন সিনিয়র এডভোকেট খুরশীদ আলম খান।

২০১২ সালের ৩১ জুলাই দুদকের উপ পরিচালক মো. মোজাহার আলী সরদার ও সহকারী পরিচালক মো. তৌফিকুল ইসলাম রাজধানীর কলাবাগান থানায় ডেসিটিনির শীর্ষ কর্মকর্তাসহ অন্যদের নামে ডেসটিনি মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি এবং ডেসটিনি ট্রি প্লান্টেশন প্রজেক্টের অর্থ আত্মসাতের দুটি মামলা করেন।

এর মধ্যে এক মামলায় গত বছরের ১২ মে বিচারিক আদালতে মামলার রায় হয়। তাতে ব্যবস্থাপনা পরিচালক রফিকুল আমীনসহ ৪৬ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদন্ড এবং তাদের ২ হাজার ৩শ কোটি টাকা জরিমানা করেন। ওই মামলায় মোহাম্মদ হোসেনকে ১০ বছরের কারাদন্ড ও অর্থদন্ড ১ কোটি ৫০ লাখ টাকা করা হয়। এ রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করলে হাইকোর্ট আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ করেন এবং জরিমানা স্থগিত করেন।

আর ট্রি প্লান্টেশন প্রজেক্টের অর্থ আত্মসাতের মামলাটি বিচারিক আদালতে সাক্ষ্যগ্রহণ পর্যায়ে রয়েছে। এই মামলায় নিম্ন আদালতে জামিন আবেদন খারিজের পর মোহাম্মদ হোসেন হাইকোর্টে আপিল করেন।


আরও খবর



বিশ্বকাপ ছুঁয়ে বিতর্কে জড়ানো শেফ সল্ট বে আবার আলোচনায়

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৯ ডিসেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৪ জানুয়ারী ২০২৩ | ২৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আর্জেন্টিনা-ফ্রান্স বিশ্বকাপ ফাইনালের পর ট্রফি ধরে বিতর্ক তৈরি করেছিলেন সল্ট বে। ক্ষিপ্ত ফিফা সেই ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে। একটি ফুটবল প্রতিযোগিতায় তাঁকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে ফিফা। এ বার আরও একটি জনপ্রিয় অনুষ্ঠানের আয়োজকরা নিষিদ্ধ ঘোষণা করলেন তুরস্কের খ্যাতনামী শেফকে।

ফিফার নিয়ম অনুযায়ী বিশ্বকাপ ট্রফিতে হাত দিতে পারেন বিশ্বকাপ জয়ী ফুটবলাররা, ফিফার সভাপতি এবং কোনও রাষ্ট্রপ্রধান। তার বাইরে কারও ট্রফি ছোঁয়ার অধিকার নেই। অথচ বিশ্বকাপ ফাইনালের পর আর্জেন্টিনার ফুটবলারদের সঙ্গে ছবি তোলার সময় ট্রফি স্পর্শ করেছিলেন সল্ট বে। সারা বিশ্বের ফুটবলপ্রেমীদের তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছিলেন তিনি। দিন কয়েক আগে ফিফা জানিয়েদিয়েছে, ইউএস ওপেন কাপ সকার প্রতিযোগিতার ফাইনাল দেখতে স্টেডিয়ামে প্রবেশ করতে পারবেন না তুরস্কের খ্যাতনামী শেফ। এ বার ক্যালিফোর্নিয়ার রোলিং লাউড মিউজিক উৎসবের আয়োজকরাও তাঁকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করলেন। ২০১৫ সালে এই সঙ্গীত উৎসব শুরু হয়। একেক বছর একেক দেশে আয়োজিত হয় উৎসব।

বিশ্বকাপ ফাইনালে আর্জেন্টিনা-ফ্রান্স ম্যাচের পর একাধিক ভিডিয়ো পোস্ট করেছেন সল্ট বে। সেই দেখেই বিরক্ত ফুটবল-ভক্তরা। প্রায় প্রতিটি ভিডিয়োতেই তিনি আর্জেন্টিনা দলের ফুটবলারদের থেকে কাড়াকাড়ি করছেন ট্রফি। মেসির দৃষ্টি আকর্ষণের যে চেষ্টা সল্ট বে করেছেন, তা সব থেকে বেশি বিরক্তি উদ্রেক করেছে ফুটবল-ভক্তদের। দুবার লিয়োনেল মেসি তাঁকে এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছেন। সল্ট বে নাছোড়। অগত্যা মেসি বাধ্য হয়েই ৩৯ বছরের শেফের সঙ্গে বিশ্বকাপ হাতে একটি ছবি তোলেন। সেই ছবি পরে সমাজমাধ্যমে পোস্ট করেন সল্ট বে।

তাঁর এই কাণ্ড দেখে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল ইউএস ওপেন কাপ কর্তৃপক্ষ। এটি আমেরিকার সব থেকে পুরনো ফুটবল প্রতিযোগিতা। সেই প্রতিযোগিতার ফাইনাল দেখতে ঢুকতে পারবেন না সল্ট বে।

সল্ট বের আসল নাম নুসরেত গোকসে। মাংসের স্টেক বানানোয় বিশেষজ্ঞ। পৃথিবীর বিভিন্ন শহরে রয়েছে তাঁর স্টেক হাউস। সেখানে খেতে আসেন খ্যাতনামীরা। তাঁর ফলোয়ারের তালিকাতেও রয়েছেন বিখ্যাতরা। ইনস্টাগ্রামে নুসরেতের ফলোয়ারের তালিকায় রয়েছেন লিওনার্দো ডি ক্যাপ্রিও, ডেভিড বেকহ্যাম। তাঁর রেস্তরাঁয় এসে খেয়ে কাঁটা-চামচ চেটেছেন দিয়েগো মারাদোনা থেকে কিলিয়ন এমবাপে। সমাজমাধ্যমে সেই ছবি পোস্ট করেছেন নুসরেত ওরফে সল্ট বে।

নিউজ ট্যাগ: শেফ সল্ট বে

আরও খবর



গুড়ের পায়েস তৈরির রেসিপি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৭ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ৩৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

শীতের দিনে গুড়ের পায়েস খাবেন না তাই কি হয়! তবে অনেকে সঠিক রেসিপি জানা না থাকার কারণে পায়েস রাধতে পারেন না। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই গুড়ের পায়েস তৈরির সময় দুধ মেশালে দুধের ছানা কেটে যায়। কিন্তু সঠিক রেসিপি জানা থাকলে এই সমস্যায় পড়তে হবে না। চলুন জেনে নেওয়া যাক রেসিপি-

তৈরি করতে যা লাগবে: পোলাওয়ের চাল- আধা কাপ, খেজুরের গুড়- ৪০০ গ্রাম, দুধ- ১ লিটার, নারিকেল কোরানো- ১ কাপ, পানি- পরিমাণমতো, তেজপাতা- ২টি, কিশমিশ- ১ টেবিল চামচ, দারুচিনি- ২ টুকরা, বাদাম কুচি- ১ টেবিল চামচ, লবণ- সামান্য।

যেভাবে তৈরি করবেন: চাল ভিজিয়ে রাখুন আধা ঘণ্টার মতো। এরপর ধুয়ে তার সঙ্গে তিন কাপ পানি, তেজপাতা, দারুচিনি ও সামান্য লবণ দিয়ে মৃদু আঁচে ভালো করে সেদ্ধ করে নিন। অন্য একটি পাত্রে দুধ জ্বাল দিয়ে ঘন করে নিন। ঘন হয়ে অর্ধেক হয়ে এলে নামিয়ে নিন। অন্য একটি পাত্রে এক কাপ পানির সঙ্গে গুড় মিশিয়ে জ্বাল দিয়ে ঠান্ডা হতে রেখে দিন। চাল সেদ্ধ হলে তাতে জ্বাল দিয়ে রাখা গুড়, নারিকেল ও দুধ মেশান। অল্প আঁচে কিছুক্ষণ জ্বাল দিন। ঠান্ডা হলে নামিয়ে কিশমিশ ও বাদাম ছড়িয়ে পরিবেশন করুন।

নিউজ ট্যাগ: গুড়ের পায়েস

আরও খবর

আজকের রাশিফল: জেনে নিন কেমন কাটবে দিন ?

শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩

অ্যাকনে যখন মাথার ত্বকে

বুধবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৩