Logo
শিরোনাম

আজকের রাশিফল ১৮ জানুয়ারি ২০২৩

প্রকাশিত:বুধবার ১৮ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ২৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আজকের রাশিফল এর ওপর চোখ রেখে শুরু করুন আপনার দিন। রাশিফল হল জ্যোতিষ শাস্ত্রের একটি অন্যতম অঙ্গ। বহু মানুষ রাশিফলের দিকে নজর রেখেই পদক্ষেপ নেন জীবনে। কারণ, রাশিফলই আপনাকে জানিয়ে দিতে পারে গোটা দিনের এক সামগ্রিক ছবি। পাশাপাশি, জীবনে চলার প্রতিটি পদক্ষেপে আপনার ভাগ্যের চাকা কোন দিকে ঘুরছে সে সম্পর্কেও আঁচ পেতে পারেন আপনি। এছাড়াও, সতর্ক হওয়া যায় আসন্ন বিপদ থেকেও। তাই, জেনে নিন কেমন যাবে আপনার দিনটি:

মেষ রাশি: কোথাও ভ্রমণের পরিকল্পনা থাকলে আজ অবশ্যই অর্থ নিরাপদ জায়গায় সংরক্ষণ করুন। নাহলে সেগুলি চুরি হতে পারে। আজ আপনি আপনার পরিবারের সদস্যদের সাথে আপনার সমস্যাগুলিকে ভাগ করে নিতে পারেন। বিবাহিত জীবনে কোনো সমস্যার সম্মুখীন হবেন। আজ আপনি কোনো দীর্ঘস্থায়ী অসুস্থতা থেকে পরিত্রাণ পেতে পারেন। কর্মক্ষেত্রে দুর্দান্ত দিন কাটবে।

বৃষ রাশি: আপনি আজ কোনো ধর্মীয় কাজে মনোনিবেশ করতে পারেন। যা আপনাকে মানসিক শান্তি এনে দেবে। কোথাও বিনিয়োগ করার আগে অবশ্যই সতর্ক হন। কোনো পারিবারিক জমায়েতে আজ আপনি মধ্যমণি হয়ে উঠবেন। প্রেমের জীবন দুর্দান্ত হবে। অবসর সময়ে আজকে আপনি কোনো খেলাধূলা করতে পারেন বা জিম যেতে পারেন। বিবাহিত জীবন সুখের হবে।

মিথুন রাশি: কোনো আকর্ষণীয় ম্যাগাজিন বা বই পড়ে আজ আপনি অবসর সময়টি কাটাতে পারেন। সামগ্রিকভাবে আজ স্বাস্থ্য সুন্দর থাকবে। পূর্বে আপনার কাছ থেকে ঋণ নিয়েছিলেন এমন কোনো ব্যক্তি আজ সেই অর্থ আপনাকে ফেরত দিতে পারেন। আপনার মধ্যে আজ ভরপুর আত্মবিশ্বাস বজায় থাকবে। তাই, এই দিনটিকে কাজে লাগান। অর্ধাঙ্গিনীর সাথে আজ সংযত আচরণ করুন।

কর্কট রাশি: পূর্বে আপনার কাছ থেকে ঋণ নিয়েছিলেন এমন কোনো ব্যক্তি আজ সেই অর্থ আপনাকে ফেরত দিতে পারেন। অর্থনৈতিক দিকটি আজ শক্তিশালী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আজ আপনি দীর্ঘ সময় ধরে সম্মুখীন হওয়া কোনো উত্তেজনা এবং চাপ থেকে পরিত্রাণ পেতে পারেন। প্রেমের জীবনে আজ কিছু সমস্যা হতে পারে। বিবাহিত জীবন নিঃসন্দেহে সুখের হবে।

সিংহ রাশি: অর্থ সম্পর্কিত কোনো সমস্যার আজই সমাধান হতে পারে। পাশাপাশি, আপনি আর্থিক সুবিধাও অর্জন করতে পারেন। এক পরিতৃপ্ত জীবনের জন্য আপনার মানসিক কাঠিন্যকে অবশ্যই বৃদ্ধি করুন। ভালোবাসার মানুষটির সাথে ডেটে যাওয়ার পরিকল্পনা থাকলেও তা স্থগিত হতে পারে। আজ আপনি অত্যন্ত ব্যস্ত থাকতে পারেন। প্রতিটি কাজে আজ মাথা ঠাণ্ডা রাখুন।

কন্যা রাশি: কোনো ধর্মীয় স্থানে আজ আপনি গিয়ে কিছুটা সময় কাটাতে পারেন। এর ফলে আপনার মন শান্ত হয়ে যাবে। আপনি আজ শরীরচর্চার মাধ্যমে আপনার ওজন নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন। কোনো পুরোনো বন্ধু আজ আপনার কাছে আর্থিক সাহায্য চাইতে পারেন। কর্মক্ষেত্রের কোনো সমস্যা আপনাকে পীড়িত করবে। জীবনসঙ্গীর সাথে দুর্দান্ত সময় কাটবে।

তুলা রাশি: রোমান্টিক প্রভাবগুলি আপনার মধ্যে আজকের দিনে প্রবলভাবে বজায় থাকবে। আপনি যদি বিদেশের কোনো জমিতে বিনিয়োগ করে থাকেন সেক্ষেত্রে আজ সেটি একটি ভালো দামে বিক্রি করা যেতে পারে। যা আপনাকে লাভ অর্জনে সহায়তা করবে। আপনার স্ত্রীর স্বাস্থ্য আজ উদ্বেগের কারণ হতে পারে। আপনার রসিক মনোভাব কোনো সামাজিক অনুষ্ঠানে আপনাকে জনপ্রিয় করে তুলবে।

বৃশ্চিক রাশি: আপনি আজ খুব সহজেই সবাইকে আকৃষ্ট করতে পারবেন। পাশাপাশি, আপনার ইতিবাচক মনোভাব আপনার চারপাশের মানুষদেরকে মুগ্ধ করবে। আজ হল সেইদিন যেদিন আপনি কঠোর পরিশ্রম ও ধৈর্যের মাধ্যমে আপনার লক্ষ্যে পৌঁছতে পারবেন। কোথাও বিনিয়োগের মাধ্যমে আজ আপনি বিপুল লাভবান হবেন। অর্ধাঙ্গিনীর সাথে ভালো সময় কাটবে।

ধনু রাশি: কোনো বন্ধুর সাথে আজ কিছু ভালো সময় কাটবে। কোনো নতুন অর্থনৈতিক পরিকল্পনা আজ চূড়ান্ত হবে এবং আপনি লাভবানও হবেন। আজ এমন একটি দিন যেখানে ভালো এবং মন্দ উভয় ঘটনাই ঘটবে। যা আপনাকে পরিশ্রান্ত এবং বিভ্রান্ত করে ছাড়বে। পরিবারের সদস্যদের সাথে ভালোবাসার মূহুর্তগুলি কাটান। আজকে আপনি কিছুটা অবসর সময় পাবেন।

মকর রাশি: খুচরো এবং পাইকারি বিক্রেতাদের জন্য আজকের দিনটি নিঃসন্দেহে ভালো। পাশাপাশি, সামাজিক তথা ধর্মীয় অনুষ্ঠানের জন্য এটি শ্রেষ্ঠ দিন। মানসিক অসুস্থতা তৈরি হওয়ার আগে আপনি আপনার মন থেকে আজ সমস্ত নেতিবাচক চিন্তাকে ধ্বংস করে ফেলুন। কোনো সামাজিক কাজের মাধ্যমে যুক্ত থেকে আজ আপনি মানসিক শান্তি পাবেন। আজ আপনি আপনার ভালোবাসার মানুষটির কাছ থেকে একটি চমৎকার বিষ্ময় পেতে পারেন।

কুম্ভ রাশি: পরিবারের সদস্যদের সহযোগিতায় আজ আপনি সহজেই আপনার লক্ষ্যে পৌঁছতে পারবেন। মদ্যপান এবং সিগারেটের জন্য অর্থব্যয় করা থেকে বিরত থাকুন। কারণ, এটি শুধু আপনার স্বাস্থ্যকেই ক্ষতিগ্রস্থ করবে না পাশাপাশি, আপনার আর্থিক পরিস্থিতিকে আরও খারাপ করে দেবে। আপনার স্বাস্থ্য আজ সুন্দর থাকবে। বাণিজ্যিক উদ্দেশ্যে গৃহীত কোনো আকষ্মিক সফর আজ ইতিবাচক ফল প্রদান করবে।

মীন রাশি: আজকে করা বিনিয়োগ আপনার সমৃদ্ধি এবং আর্থিক নিরাপত্তাকে আরও বাড়িয়ে তুলবে। সন্তানের কোনো পুরস্কার গ্রহণের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ পেয়ে আজ আপনি খুশি হবেন। পাশাপাশি, সে আপনার প্রত্যাশামাফিক ফল করে আপনার স্বপ্নকেও পূরণ করবে। সীমাহীন সৃজনশীলতা এবং উদ্যম আপনাকে একটি লাভজনক দিনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। প্রেমের জীবনে অবিশ্বাস্য মোড় আসবে।

নিউজ ট্যাগ: রাশিফল

আরও খবর

আজকের রাশিফল: জেনে নিন কেমন কাটবে দিন ?

শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩

অ্যাকনে যখন মাথার ত্বকে

বুধবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৩




মিয়ানমার সীমান্তে গোলাগুলি-আগুন, নিহত ১

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৯ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩ | ৩১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বান্দরবানের তমব্রু সীমান্তের কোনারপাড়ার শূন্যরেখায় মিয়ানমারের দুই সশস্ত্র গ্রুপের মধ্যে দফায় দফায় গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এঘটনায় উখিয়ার এমএসএফ হাসপাতাল থেকে এক রোহিঙ্গার লাশ উদ্ধার করা হয়। ১২ বছরের এক শিশুসহ আরও দুইজন গুলিবিদ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

এছাড়াও বিকেলে জিরো পয়েন্টের অসংখ্য বাড়িঘরে আগুন দেয়া হয়। এতে শতশত বসত ঘর ভস্মীভূত হয় বলে শঙ্কা করা হচ্ছে।

বুধবার (১৮ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় নাইক্ষ্যংছড়ির ইউএনও রোমেন শর্মা এ কথা জানান।

উখিয়া থানার ওসি মোহাম্মদ আলী জানান, হামিদুল্লাহ (২৭) ও মহিবুল্লাহ (২৫) নামের গুলিবিদ্ধ দুই ব্যক্তিকে উখিয়ার এমএসএফ হাসপাতালে আনা হলে চিকিৎসক হামিদুল্লাহকে মৃত ঘোষণা করেন। মহিবুল্লাহকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। নিহত রোহিঙ্গার লাশ কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। বাকি দুইজন চিকিৎসাধীন।

তিনি বলেন, হতাহত রোহিঙ্গাদের বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি থেকে আনা হয়েছে। সেখানে কি হয়েছে বিস্তারিত জানার চেষ্টা চলছে।

রোহিঙ্গা নেতা দিল মোহাম্মদ বলেন, মিয়ানমারের আরাকান রোহিঙ্গা স্যালভেশন আর্মি (আরসা) ও রোহিঙ্গা সলিডারিটি অর্গানাইজেশনের (আরএসও) দুটি সশস্ত্র গোষ্ঠীর মধ্যে সকাল থেকে গুলি বিনিময় শুরু হয়। তারা কোনারপাড়া শূন্যরেখা রোহিঙ্গা ক্যাম্পসংলগ্ন এলাকায় সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে শূন্যরেখার রোহিঙ্গা ক্যাম্পেও ছড়িয়ে পড়ে।

তিনি আরও বলেন, দুই গ্রুপের সংঘর্ষের এক পর্যায়ে বিকেল চারটার দিকে শিবিরে আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়। তবে কারা আগুন দিয়েছে এখনো সঠিক বলতে পারছি না। এ ঘটনায় সাধারণ রোহিঙ্গাও মারা যেতে পারে জানিয়ে দিল মোহাম্মদ বলেন, কতজন হতাহত হয়েছে তা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।

ঘুমধুম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এ কে জাহাঙ্গীর আজিজ জানান, সকালে নোম্যান্সল্যান্ড এলাকায় গোলাগুলির শব্দ শুনতে পান স্থানীয়রা। কারা গোলাগুলি করেছে সেটি এখনো নিশ্চিত নয়।


আরও খবর



জেলা প্রশাসক সম্মেলন উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৪ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ৩৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

তিন দিনব্যাপী জেলা প্রশাসক (ডিসি) সম্মেলন উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) সকাল ১০টায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের শাপলা হলে এ সম্মেলনের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।

উদ্বোধনের পর প্রথম দিন বেলা সোয়া ১১টায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের করবী হলে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে মুক্ত আলোচনা হবে ডিসিদের। এরপর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে দুপুর আড়াইটা থেকে বিকেল পৌনে পাঁচটা পর্যন্ত ১৪টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের সঙ্গে ডিসিদের তিনটি কার্য-অধিবেশন অনুষ্ঠিত হবে। এদিন সন্ধ্যা ৬টায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে নৈশভোজ করবেন জেলা প্রশাসকরা।

সরকারের নীতি-নির্ধারক ও জেলা প্রশাসকদের মধ্যে সামনা-সামনি মতবিনিময় এবং প্রয়োজনীয় দিক-নির্দেশনা দেওয়ার জন্য প্রতি বছর ডিসি সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

এবারের সম্মেলনে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগ সম্পর্কে আলোচনার জন্য ২৪৫টি প্রস্তাব দিয়েছেন ডিসিরা। এর মধ্যে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নয়ন, স্বাস্থ্য, ভূমি ব্যবস্থাপনা ও শিক্ষার মতো কিছু বিষয় বেশি গুরুত্ব পাবে।

সম্মেলনে ৫৬টি মন্ত্রণালয় ও বিভাগের অংশগ্রহণে ২৬টি অধিবেশন হবে। এর মধ্যে বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও বিভাগের সঙ্গে কার্য অধিবেশন ২০টি।


আরও খবর



৫ আসনের উপনির্বাচনে থাকছে না সিসি ক্যামেরা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৭ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩ | ৩০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বিএনপির সংসদ সদস্যদের পদত্যাগের কারণে শূন্য হওয়া পাঁচটি সংসদীয় আসনে আগামী ১ ফেব্রুয়ারি উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। তবে বাজেট না থাকায় উপনির্বাচনে এবার সিসি ক্যামেরা থাকছে না বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার বেগম রাশেদা সুলতানা।

বগুড়া জেলা পরিষদের অডিটোরিয়ামে মঙ্গলবার দুই আসনের দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রিসাইডিং কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় এ কথা বলেন তিনি। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি বগুড়ার দুটিসহ দেশের পাঁচটি আসনে উপনির্বাচন হবে।

রাশেদা সুলতানা বলেন, 'পর্যাপ্ত বাজেট না থাকায় পাঁচ আসনের উপনির্বাচনে নিরাপত্তার কাজে সিসি ক্যামেরা থাকছে না। আর সিসি ক্যামেরার কোনো বাধ্যবাধকতা নেই। যদি পরবর্তী কোনো নির্বাচনে সরকার আমাদের বাজেট দেয়, তখন সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হবে। কিন্তু এই উপনির্বাচনগুলোয় সিসি ক্যামেরা থাকবে না।'

ইভিএম প্রসঙ্গে নির্বাচন কমিশনার বলেন, 'আমাদের আগে ৮০টি আসন কাভার করার মতো ইভিএম মেশিন ছিল। কিছু ইভিএম নষ্ট হয়েছে। কিন্তু এখনও ৬০ থেকে ৭০ আসনের নির্বাচন কাভার করার মতো মেশিন আছে।'

এই মতবিনিময়ের পর জেলা প্রশাসনের সভাকক্ষে দুই আসনের প্রার্থীদের সঙ্গেও মতবিনিময় করেন ইসি রাশেদা সুলতানা।

বগুড়া-৬ আসনের নৌকার প্রার্থী রাগেবুল আহসান রিপু বলেন, 'নির্বাচন কমিশনারের সঙ্গে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলাপ হয়েছে। আমরা নিশ্চয়তা দিয়েছি নিয়ম মেনেই ভোটের প্রচার-প্রচারণা চালাবো।'

ট্রাক প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল মান্নান আকন্দ বলেন, 'সার্বিকভাবে নির্বাচনের পরিবেশ সুন্দর আছে। আশা করছি ভোটগ্রহণও সুষ্ঠু হবে।' 


আরও খবর



হাসপাতালে ৫০ শতাংশ মৃত্যু কমবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী

প্রকাশিত:সোমবার ১৬ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৪ জানুয়ারী ২০২৩ | ১৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ওয়ানস্টপ ইমার্জেন্সি অ্যান্ড ক্যাজুয়ালিটি সার্ভিস (ওসেক) এর মাধ্যমে দেশের হাসপাতালগুলোতে রোগী মৃত্যুর হার ৫০ শতাংশ কমে আসবে বলে আশা করছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক। সোমবার (১৬ জানুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ওয়ান স্টপ ইমার্জেন্সি সেবা কেন্দ্র উদ্বোধন শেষে তিনি এ কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, হাসপাতালে রোগীদের সেবার মান নিশ্চিত করতে ওয়ান স্টপ ইমার্জেন্সি সার্ভিস খুবই জরুরি। এরই মধ্যে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এই সেবা চালু করা হয়েছে। দেশের সব বড় হাসপাতালে এটি চালু করার পরিকল্পনা রয়েছে। পর্যায়ক্রমে প্রতিটি জেলা হাসপাতালেও এই সেবা চালু করা হবে।

তিনি বলেন, ওসেক চালু হলে হাসপাতালগুলোতে ৫০ শতাংশ মৃত্যু কমে আসবে। ইমার্জেন্সিতেই অর্ধেক রোগী সুস্থ হয়ে ওঠবে। এর ফলে ইনডোরে রোগীর চাপ কমবে। একইসঙ্গে বেশি মানুষ সেবা পাবে। স্বাস্থ্য সেবা মানুষের অধিকার। এজন্য সবাইকে কাজ করতে হবে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সচিব আনোয়ার হোসেন হাওলাদার, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আহমেদুল কবীর ও ঢাকা মেডিকেল কলেজের পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল নাজমুল হক প্রমুখ।


আরও খবর

৮ ডেঙ্গুরোগী হাসপাতালে ভর্তি

বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩




ক্রেতা-দর্শনার্থীদের চাপ নেই বাণিজ্যমেলায়

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১০ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৩ | ৪০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

চলছে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলার ২৭তম আসর। গত ১ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ মেলার উদ্বোধন করেন। মেলার শুরুতে অনেক স্টল অপ্রস্তুত থাকলেও এখন পুরোদমে সব স্টল চালু রয়েছে। তবে ক্রেতা-দর্শনার্থীদের তেমন ভিড় দেখা যায়নি। এতে ব্যবসায়ীদের মধ্যে এক প্রকার হতাশা কাজ করছে। তবে তাদের প্রত্যাশা সাত-আটদিন পর জমে উঠবে বাণিজ্যমেলা। সরেজমিনে গিয়ে এমন চিত্র দেখা যায়।

আহসানুল হাবিব নামে জেবিসিও টেলিভিশন ব্র্যান্ডের কর্মকর্তা বলেন, মেলা উপলক্ষে আমাদের প্রত্যেকটি পণ্যে ২০ শতাংশ ডিসকাউন্ট দিচ্ছি। তবে এ অফারের পর গত শুক্রবার ছাড়া বাকি দিনগুলোতে ক্রেতাদের তেমন সাড়া পাইনি। আশা করি, কিছুদিন পর বেচাকেনা বাড়বে। জেসিকা ফেব্রিক্সের কর্ণধার জেসিকা আক্তার জানান, তারা এবার বাহারি ডিজাইনের কোট, ব্লেজার নিয়ে মেলায় হাজির হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত তারা আশানুরূপ পণ্য বিক্রি করতে পারেনি।

কাশ্মীরি শালের দোকানের মালিক জাফর আহমেদ বলেন, গতবারের তুলনায় এবার বেশি রঙের শাল ও চাদর এনেছি। কিন্তু ক্রেতাদের তেমন চাপ নেই। কিছু ক্রেতা তাদের পছন্দমতো শাল, চাদর কিনে নিয়ে যাচ্ছেন।

এবার মেলায় বাংলাদেশ ছাড়াও ভারত, হংকং, তুরস্ক, ইন্দোনেশিয়া, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া, পাকিস্তান, থাইল্যান্ড, নেপালসহ ১২টি দেশের ব্যবসায়ীরা তাদের পণ্য নিয়ে হাজির হয়েছেন। মেলায় ১৭টি বিদেশি প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে। মেলায় দেশ-বিদেশের মোট ৩৩১টি স্টল, প্যাভিলিয়ন ও মিনি প্যাভিলিয়ন রয়েছে।

প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত চলবে বাণিজ্যমেলা। তবে সাপ্তাহিক বন্ধের দিন রাত ১০টা পর্যন্ত চলবে। এবার মেলার প্রবেশমূল্য প্রাপ্ত বয়স্কদের জন্য ৪০ টাকা এবং অপ্রাপ্ত বয়স্কদের জন্য ২০ টাকা। অনলাইনে ৫০ শতাংশ ডিসকাউন্টে মেলার টিকিট কেনা যাবে।


আরও খবর