Logo
শিরোনাম

আনুষ্ঠানিকভাবে টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় জানালেন মাহমুদউল্লাহ

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ | ৪৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বাংলাদেশের অভিজ্ঞ ক্রিকেটার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়ে দিয়েছেন। দীর্ঘ ১২ বছর সাদা পোশাকে বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করেছেন মাহমুদউল্লাহ।

৩৫ বছর বয়সী মাহমুদউল্লাহর টেস্ট অভিষেক হয় ২০০৯ সালে। তিনি মোট ৫০টি ম্যাচ খেলেছেন। ৩৩.৪৯ গড়ে রান করেছেন ২৯১৪। সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছেন পাঁচটি। হাফসেঞ্চুরি ১৬টি। আর বল হাতে নিয়েছেন ৪৩টি উইকেট। বাংলাদেশকে তিনি ছয়টি ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছেন।

নিজের ৫০তম টেস্ট ম্যাচটি তিনি খেলেন গত জুলাইয়ে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে। তখনি তিনি জানিয়েছিলেন টেস্ট থেকে অবসর নেয়ার কথা। এখন এটি অফিসিয়ালি জানিয়ে দিলেন। হারারে স্পোর্টস ক্লাবে হওয়া ম্যাচটিতে তিনি ১৫০ রানের অপরাজিত ইনিংস। বাংলাদেশ ম্যাচটি জিতেছিল ২২০ রানের বিশাল ব্যবধানে। আর হার না মানা ইনিংস খেলার কারণে ম্যাচসেরা হয়েছিলেন তিনি।

টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় জানালেও এক বিবৃতিতে মাহমুদউল্লাহ বলেছেন ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলা চালিয়ে যাবেন।


আরও খবর



আজ কবি সুফিয়া কামালের ২২তম মৃত্যুবার্ষিকী

প্রকাশিত:শনিবার ২০ নভেম্বর ২০21 | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৫৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বরেণ্য কবি নারী আন্দোলনের অন্যতম পথিকৃৎ সুফিয়া কামালের ২২তম মৃত্যুবার্ষিকী আজ। ১৯৯৯ সালের এই দিনে তিনি ঢাকায় ইন্তেকাল করেন। বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে তার মৃত্যুবার্ষিকী পালন করবে।

মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক বাণী দিয়েছেন। রাষ্ট্রপতি তার বাণীতে বলেন, কবি সুফিয়া কামালের জীবনাদর্শ ও সাহিত্যকর্ম বৈষম্যহীন-অসাম্প্রদায়িক সমাজ বিনির্মাণে তরুণ প্রজন্মকে উদ্বুদ্ধ ও অনুপ্রাণিত করবে। তার স্মৃতির প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে রাষ্ট্রপতি বলেন, কবি সুফিয়া কামাল ছিলেন নারী আন্দোলনের পথিকৃৎ এবং সাম্প্রদায়িকতা ও ধর্মান্ধতার বিরুদ্ধে এক অকুতোভয় যোদ্ধা।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার বাণীতে বলেন, কবি বেগম সুফিয়া কামাল যে আদর্শ ও দৃষ্টান্ত রেখে গেছেন তা যুগে যুগে বাঙালি নারীদের জন্য অনুপ্রেরণার উৎস হয়ে থাকবে। তিনি ছিলেন একদিকে আবহমান বাঙালি নারীর প্রতিকৃতি, মমতাময়ী মা, অন্যদিকে বাংলার প্রতিটি আন্দোলন সংগ্রামে ছিল তার আপসহীন এবং দৃপ্ত পদচারণা। বায়ান্নর ভাষা আন্দোলন, ঊনসত্তরের গণঅভ্যুত্থান, একাত্তরের অসহযোগ আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধ এবং স্বাধীন বাংলাদেশে বিভিন্ন গণতান্ত্রিক সংগ্রামসহ শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক আন্দোলনে তার প্রত্যক্ষ উপস্থিতি তাকে জনগণের জননী সাহসিকা উপাধিতে অভিষিক্ত করেছে।

কবি সুফিয়া কামালের জন্ম ১৯১১ সালের ২০ জুন বরিশালে। সে সময় বাঙালি মুসলমান নারীদের লেখাপড়ার সুযোগ একেবারে সীমিত থাকলেও তিনি নিজ চেষ্টায় লেখাপড়া শেখেন এবং ছোটবেলা থেকেই কবিতাচর্চা করেন।

সুফিয়া কামাল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম মহিলা হোস্টেলকে রোকেয়া হল নামকরণের দাবি জানান। ১৯৬১ সালে পাকিস্তান সরকার রবীন্দ্রসঙ্গীত নিষিদ্ধ করলে এর প্রতিবাদে গঠিত আন্দোলনে কবি যোগ দেন। তিনি শিশু সংগঠন কচিকাঁচার মেলা প্রতিষ্ঠা করেন।

১৯৯৯ সালের ২০ নভেম্বর সুফিয়া কামাল মৃত্যুবরণ করেন। তাকে পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সমাহিত করা হয়। বাংলাদেশের নারীদের মধ্যে তিনিই প্রথম এ সম্মান লাভ করেন। সুফিয়া কামালের লেখা কাব্যগ্রন্থ হচ্ছে-সাঁঝের মায়া, মায়া কাজল, মন ও জীবন, দিওয়ান, আভিযাত্রিক ইত্যাদি। কেয়ার কাঁটা নামে একটি গল্পগ্রন্থ ছাড়াও তিনি ভ্রমণ কাহিনি, স্মৃতিকথা, শিশুতোষ এবং আত্মজীবনীমূলক রচনাও লিখেছেন।


আরও খবর



প্রশ্নফাঁসের চেষ্টা ও গুজব ছড়ালে ব্যবস্থা: শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ১৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৫৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

করোনা মহামারির কারণে প্রায় ৯ মাস বিলম্বে সারাদেশে একযোগে শুরু হয়েছে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। আজ রবিবার (১৪ নভেম্বর) সকালে পরীক্ষার প্রথমদিন রাজধানীর মতিঝিল বয়েজ স্কুল কেন্দ্র পরিদর্শন করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। এসময় তিনি বলেন, প্রশ্নপত্র ফাঁসের সুযোগ নেই। গুজব ছড়ানোর অপচেষ্টা রয়েছে, থাকবে কেউ যেন কান না দেন। যারা গুজব ছড়াবে কিংবা ফাঁসের চেষ্টা চালাবেন তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। প্রশ্নপত্র ফাঁসের চেষ্টা করে আমাদের সন্তান যারা ক্ষতি করার চেষ্টা করতে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শিক্ষামন্ত্রী জানান, সবগুলো শিক্ষা বোর্ড মিলে (১১টি বোর্ড) পরীক্ষার্থী মোট অংশ নিয়েছে ২২ লাখ ৪৩ হাজার ২৫৪ জন। যার মধ্যে ছাত্র ১০ লাখ ৩৬ হাজার ১৮৮ জন এবং ছাত্রী ১২ লাখ ৭ হাজার ৬৬ জন। ছাত্রদের চেয়ে এবার প্রায় ১ লাখ ৭০ হাজারের মতো বেশি ছাত্রী পরীক্ষায় অংশ নিয়েছে । এবার কেন্দ্র ৩ হাজার ৬৭৯টি কেন্দ্রে ৩৯ হাজার ৩৫টি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। 

স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা নেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা নেওয়া হচ্ছে। সমস্যা হচ্ছে বাইরে অভিভাবকরা যেখানে দাঁড়াচ্ছেন, সেখানে অনেক ভিড়। সেখানে হয়তো তারা স্বাস্থ্যবিধি মানছেন না। আমরা আগেও অনুরোধ জানিয়েছিলাম, আবার অনুরোধ জানাবো বাইরে যেখানেই থাকবেন, ভিড় বা জটলা করবেন না।

পরীক্ষা কেন্দ্র পরিদর্শনের সময় শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক, আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব কমিটির সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক নেহাল আহমেদ এবং সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



চীন ও রাশিয়ার প্রেসিডেন্টের সমালোচনায় বাইডেন

প্রকাশিত:বুধবার ০৩ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৬ নভেম্বর ২০২১ | ৬৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

জলবায়ু সম্মেলন কপ-২৬ এ চীন ও রাশিয়ার প্রেসিডেন্টের অংশ না নেওয়ার কঠোর সমালোচনা করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন

মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) রাতে সম্মেলনে দেওয়া এক বক্তব্যে মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, `জলবায়ুর মতো এমন কঠিন ও জটিল একটি বিষয় থেকে চীন নিজেদের দূরে সরিয়ে নিচ্ছে। তাদের পথই অনুসরন করে সম্মেলন থেকে দূরে অবস্থান করছেন রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন।

এদিকে সোমবার (১ নভেম্বর) স্কটল্যান্ডের গ্লাসগোতে শুরু হওয়া ছাব্বিশতম বিশ্ব জলবায়ু সম্মেলনে (কপ-২৬) ১২০টি দেশের সরকার ও রাষ্ট্র প্রধান অংশ নিচ্ছেন। সম্মেলনে অংশ নিতে চীন ও রাশিয়া অবশ্য নিজেদের প্রতিনিধি পাঠিয়েছে। রোববার (১৪ নভেম্বর) এ সম্মেলন শেষ হওয়ার কথা রয়েছে।

চীন বিশ্বে সবচেয়ে বেশি কার্বন নিঃসরণকারী দেশ। তাদের পরেই অবস্থান যুক্তরাষ্ট্রের। ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ), ভারত ও রাশিয়া কার্বণ নিঃসরণকারী দেশগুলোর মধ্যে উপরের দিকেই রয়েছে। সূত্র: বিবিসি।


আরও খবর



মুন্সীগঞ্জে নির্বাচনী সহিংসতায় নিহত ১, গুলিবিদ্ধ ৫

প্রকাশিত:সোমবার ২২ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৫১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মুন্সীগঞ্জ সদরের চরকেওয়ার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সহিংসতায় একজন নিহত ও পাঁচজন গুলিবিদ্ধ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। রোববার (২১ নভেম্বর) রাত ৮টা থেকে ১০টা পর্যন্ত ইউনিয়নের খাসকান্দি ও ছোট মোল্লাকান্দি এলাকায় এসব ঘটনা ঘটে। এ হামলায় গুলিবিদ্ধ হয়েছেন নৌকা প্রতীকের পাঁচ সমর্থক। তাদের মধ্যে তিনজনকে গুরুতর অবস্থায় ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। অন্য দুজন মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

হামলায় ককটেল বিস্ফোরণে সময় আতঙ্কে স্ট্রোক করে আবদুল হক (৪৮) নামের এক ব্যক্তি মারা গেছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। তবে তার স্বজনদের দাবি, মারধর করে হত্যা করা হয় আবদুল হককে। নিহত আবদুল হক স্থানীয় মঞ্জিল হকের ছেলে।

এদিকে নৌকার প্রার্থী আফসারউদ্দিন ভূঁইয়ার সমর্থকদের ওপর স্বতন্ত্র (বিদ্রোহী) প্রার্থী আক্তারুজ্জামান জীবনের সমর্থকদের হামলা, গুলি ও ককটেল বিস্ফোরণের অভিযোগ উঠেছে।

স্থানীয়রা জানায়, নির্বাচনকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত অবস্থা বিরাজ করছিল চরকেওয়ার ইউনিয়নে। রোববার (২১ নভেম্বর) রাতে আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থী আক্তারুজ্জামান জীবনের সমর্থকরা অতর্কিত হামলা চালায় নৌকার প্রার্থী আফসারউদ্দিন ভূঁইয়ার সমর্থকদের ওপর। হামলা চলে ছোট মোল্লাকান্দি ও খাসকান্দি এলাকায়। এ সময় হামলাকারীরা ককটেল বিস্ফোরণ ও গুলিবর্ষণ করে। ভাঙচুর চালায় অর্ধশতাধিক ঘরবাড়িতে। এ সময় হামলায় নৌকার সমর্থক শরীফ, সাইফুল, নাজমুল, বাবু হালদার, মনির ও রমজান গুলিবিদ্ধসহ বেশ কয়েকজন আহত হন।

মুন্সীগঞ্জ সদর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক সোহাগ জানান, নিহত ব্যক্তির শরীরে কোনো গুলি বা আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। ময়নাতদন্তে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে। রাতে পাঁচজন গুলিবিদ্ধ অবস্থায় হাসপাতালে এসেছেন। তাদের মধ্যে তিনজনকে ঢাকায় রেফার্ড করা হয়েছে। অন্য দুজনের চিকিৎসা চলছে।

মুন্সীগঞ্জ জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুমন দেব জানান, কর্তব্যরত চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, তিনি স্ট্রোক করে মারা যান। ময়নাতদন্ত শেষে আসল ঘটনা জানা যাবে। তবে সংঘর্ষের ঘটনায় বেশ কয়েকজন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।


নিউজ ট্যাগ: মুন্সীগঞ্জ

আরও খবর



মিথ্যা মামলা করায় নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে চার্জশিট গ্রহণ

প্রকাশিত:বুধবার ২৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৫১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
মিথ্যা অভিযোগ করায় গত বছরের ২০ ফেব্রুয়ারি নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে পাল্টা মামলা করেন দুদক পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন

সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার (এস কে সিনহা) বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করায় দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) পাল্টা মামলায় সাবেক যোগাযোগমন্ত্রী ব্যারিস্টার নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে চার্জশিট গ্রহণ করেছেন আদালত।

বুধবার ঢাকার সিনিয়ার স্পেশাল জজ আদালতে বিচারক কে এম ইমরুল কায়েশ এ চার্জশিট গ্রহণ করেন। একইসঙ্গে মামলাটি বিশেষ জজ আদালত-৯ এ বদলির আদেশ দেন। চার্জগঠন শুনানির জন্য ১৩ ডিসেম্বর দিন ধার্য করেন।

এদিকে তিনি আত্মসমর্পন করে জামিনের আবেদন করেন। আদালত শুনানি শেষে  ১৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত জামিন মঞ্জুর করেন।

এর আগে ৭ অক্টোবর ব্যারিস্টার নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে চার্জশিট অনুমোদন করে কমিশন। এরপর ঢাকার সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতে এ চার্জশিট দাখিল করেন দুদকের পরিচালক মো. বেনজীর আহম্মেদ।

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে নিজের বিরুদ্ধে নিষ্পত্তি হওয়া একটি মামলার রায় বদলে দেওয়া হয়েছে ও উৎকোচ চাওয়া হয়েছে-এস কে সিনহার বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ করে ২০১৮ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর শাহবাগ থানায় মামলা করেন নাজমুল হুদা।

মামলার অভিযোগে নাজমুল হুদা দাবি করেন, উচ্চ আদালতে ডিসমিস করার পরও প্ররোচিত হয়ে মামলাটির রায় পরিবর্তন করা হয়। মামলাটি ডিসমিস করতে দুকোটি টাকা এবং আরও একটি ব্যাংক গ্যারান্টির অর্ধেক অর্থাৎ এক কোটি ২৫ লাখ টাকা উৎকোচ দাবি করেন সিনহা। তবে দেড় বছরের তদন্তে নাজমুল হুদার এ অভিযোগের কোনো প্রমাণ পায়নি দুদক।

মিথ্যা অভিযোগ করায় গত বছরের ২০ ফেব্রুয়ারি নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে পাল্টা মামলা করেন দুদক পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন। আরেক পরিচালক মো. বেনজীর আহম্মেদকে এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়া হয়।

মামলার বিষয়ে তৎকালীন দুদকের সচিব মুহাম্মদ দিলোয়ার বখত বলেছিলেন, নাজমুল হুদা যে মামলাটি করেছেন, সেটি একেবারেই ভিত্তিহীন। দুদকের অনুসন্ধানেও আমরা সেটা প্রমাণ পেয়েছি

দুদক আইনের ২৮ এর ২ ধারায় বলা হয়েছে, কেউ যদি মিথ্যা তথ্য দিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন আর সেটি যদি তদন্তে বেরিয়ে আসে, তাহলে অভিযোগ দায়েরকারীর বিরুদ্ধে মামলা করা যাবে।


আরও খবর