Logo
শিরোনাম

আত্মসমর্পণের পর ডিআইজি প্রিজনস পার্থ গোপাল বণিক কারাগারে

প্রকাশিত:রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৮৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাজধানীর নর্থ রোডের (ভূতেরগলি) ফ্ল্যাট থেকে ৮০ লাখ টাকা উদ্ধারের দুর্নীতির মামলায় সিলেটের সাময়িক বরখাস্ত কারা উপমহাপরিদর্শক পার্থ গোপাল বণিকের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। রবিবার ঢাকার চার নম্বর দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে তিনি আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন। বিচারক জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এর আগে ২ সেপ্টেম্বর এ মামলায় পার্থ গোপাল বণিককে বিচারিক আদালতের দেওয়া জামিন বাতিল করে রায় দেন হাইকোর্ট। সেই সঙ্গে তাকে ২০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেওয়া হয় রায়ে। এছাড়া ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ থেকে মামলাটি দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-৪ পাঠিয়ে আগামী বছরের ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে মামলাটি নিষ্পত্তি করতে বলা হয়।

গত ১৭ জুন ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ এর বিচারক ইকবাল হোসেনের ভার্চুয়াল আদালত পার্থ গোপাল বণিককে জামিন দিয়েছিলেন। এরপর পার্থ গোপাল কারামুক্ত হন। পরে ওই জামিনের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করে দুদক। গত ২৮ জুন সেই আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ করেন হাইকোর্ট। সেই সঙ্গে বিচারিক আদালতে জামিনের পর বেসরকারি একটি টেলিভিশনে প্রচারিত এই সংক্রান্ত প্রতিবেদনের অনুলিপিসহ সিডি হাইকোর্টে দাখিলের নির্দেশ দেওয়া হয়।

পাশাপাশি ১ বছর ও ৬ মাসের মধ্যে পার্থ গোপাল বণিকের মামলা নিষ্পত্তি করতে হাইকোর্টের দুটি আদেশের বিষয়ে এক সপ্তাহের মধ্যে ব্যাখ্যা দিতে বিশেষ জজ আদালতকে নির্দেশ দেন হাইকোর্ট।

আদেশ অনুযায়ী ওই টেলিভিশন কর্তৃপক্ষ তাদের প্রতিবেদনের অনুলিপিসহ সিডি জমা দেয়। পাশাপাশি বিশেষ জজ আদালতও ব্যাখ্যা দেয়। ব্যাখ্যায় ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ এর বিচারক ইকবাল হোসেন ক্ষমা চান। এরপর শুনানি শেষে গত ২৬ আগস্ট রায়ের জন্য রাখেন হাইকোর্ট।  ২০২০ সালের ২৪ আগস্ট মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের উপপরিচালক মো. সালাহউদ্দিন ডিআইজি প্রিজনস পার্থের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।  

গত বছরের ৪ নভেম্বর তার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়ে বিচার শুরুর আদেশ দেয় আদালত। এরপর ১৫ ডিসেম্বর এ মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়। ২০১৯ সালের ২৮ জুলাই বিকালে রাজধানীর ধানমণ্ডির ভূতেরগলিতে পার্থ গোপাল বণিকের বাসায় অভিযান চালিয়ে ৮০ লাখ টাকা জব্দ করে দুদক।



আরও খবর



১৬৫ রানের লক্ষ্য ছুড়ে দিলো নেদারল্যান্ডস

প্রকাশিত:বুধবার ২০ অক্টোবর ২০21 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৫৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দুই দলের জন্যই বাঁচা-মরার লড়াই। আবুধাবির শেখ আবু জায়েদ স্টেডিয়ামে বিশ্বকাপের মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ৪ উইকেটে ১৬৪ রানের সংগ্রহ দাঁড় করিয়েছে নেদারল্যান্ডস। অর্থাৎ জিততে হলে নামিবিয়ার করতে হবে ১৬৫ রান।

টস হেরে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা খারাপ হয়নি ডাচদের। স্টিফেন মাইবার্গ আর ম্যাক্স ও'দাউদ ৩৪ বলে দলকে এনে দেন ৪২ রান।

পাওয়ার প্লের শেষ ওভারে এসে ফেরেন মাইবার্গ (১৬ বলে ১৭)। এরপর সুবিধা করতে পারেননি ফন ডার মারউইও (৪ বলে ৬)। ১৩ রানের মধ্যে ২ উইকেট হারিয়ে কিছুটা চাপে পড়ে নেদারল্যান্ডস।

তবে ও'দাউদ আর কলিন অ্যাকারম্যান এরপর দেখেশুনে খেলা শুরু করেন। ৪২ বলে ফিফটি পূরণ করেন ও'দাউদ। তৃতীয় উইকেট জুটিতে তারা তোলেন ৬৭ বলে ৮২ রান।

১৮তম ওভারে এসে জুটিটি ভাঙে অ্যাকারম্যান সাজঘরের পথ ধরলে। ৩২ বলে তার উইলো থেকে আসে ৩৫ রান। তবে ওপেনিংয়ে নামা ও'দাউদ একদম শেষ ওভার পর্যন্ত খেলেছেন।

ইনিংসের ৩ বাকি থাকতে অবশেষে আউট হন ও'দাউদ, পড়েন রানআউটের কবলে। ডাচ ওপেনার ৫৬ বলে ৬ বাউন্ডারি আর ১ ছক্কায় করেন ৭০ রান। তার ইনিংসটিই মূলত লড়াকু পুঁজি এনে দিয়েছে নেদারল্যান্ডসকে। ১১ বলে ২১ রানে অপরাজিত থাকেন স্কট অ্যাডওয়ার্ডস।

নামিবিয়ার বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে সফল ছিলেন জ্যান ফ্রাইলিংক। ৩৬ রান দিয়ে ২টি উইকেট শিকার করেন তিনি।


আরও খবর

টি-টোয়েন্টি র‌্যাংকিংয়ে পেছাল বাংলাদেশ

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১

কোম্যানকে বরখাস্ত করলো বার্সেলোনা

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১




নিষেধাজ্ঞা শেষে মধ্যরাত থেকে ইলিশ ধরা শুরু

প্রকাশিত:সোমবার ২৫ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ২৩৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুমে গত ৪ অক্টোবর থেকে ২৫ অক্টোবর মধ্যরাত পর্যন্ত সারাদেশে ইলিশ মাছ আহরণ, পরিবহন, মজুত, বাজারজাতকরণ, ক্রয়-বিক্রয় ও বিনিময় নিষিদ্ধ করা হয়েছিল

ইলিশ ধরায় ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা শেষ হবে আজ সোমবার (২৫ অক্টোবর) মধ্যরাতে। রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে পুনরায় ইলিশ ধরা শুরু করবেন জেলেরা।

ইলিশ সম্পদ সংরক্ষণে প্রটেকশন অ্যান্ড কনজারভেশন অব ফিশ অ্যাক্ট, ১৯৫০’ এর অধীন প্রণীত প্রটেকশন অ্যান্ড কনজারভেশন অব ফিশ রুলস, ১৯৮৫’ অনুযায়ী চলতি বছর ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুমে ৪ থেকে ২৫ অক্টোবর মধ্যরাত পর্যন্ত মোট ২২ দিন সারাদেশে ইলিশ মাছ আহরণ, পরিবহন, মজুত, বাজারজাতকরণ, ক্রয়-বিক্রয় ও বিনিময় নিষিদ্ধ করে গত ২৬ সেপ্টেম্বর প্রজ্ঞাপন জারি করে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. ইফতেখার হোসেন বলেন, ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুমে গত ৪ অক্টোবর থেকে ২৫ অক্টোবর মধ্যরাত পর্যন্ত সারাদেশে ইলিশ মাছ আহরণ, পরিবহন, মজুত, বাজারজাতকরণ, ক্রয়-বিক্রয় ও বিনিময় নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। আজ মধ্যরাতে সেই নিষেধাজ্ঞা শেষ হচ্ছে। এরপর ইলিশ ধরায় কোনো বাধা থাকবে না।

চলতি বছর ইলিশের প্রধান প্রজনন মৌসুমে ইলিশ আহরণ নিষিদ্ধকালে জেলেদের জন্য ১১ হাজার ১১৮ দশমিক ৮৮ মেট্রিক টন ভিজিএফ চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়।

২০২১-২২ অর্থবছরে সরকারের মানবিক খাদ্য সহায়তা কর্মসূচির আওতায় ৩৭ জেলার ১৫১টি উপজেলায় মা ইলিশ আহরণে বিরত থাকা ৫ লাখ ৫৫ হাজার ৯৪৪টি জেলে পরিবারের জন্য এ বরাদ্দ দেওয়া হয়। গত বছরের চেয়ে বেশি ২৭ হাজার ৬০২টি জেলে পরিবারকে এবার বরাদ্দের আওতায় আনা হয়েছে। এর আওতায় প্রতিটি জেলে পরিবার ২০ কেজি করে চাল দেওয়া হয়েছে। ২২ দিনের নিষেধাজ্ঞা শুরুর আগেই এ বছর ভিজিএফের চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়।

নিউজ ট্যাগ: ইলিশ

আরও খবর



ফেসবুকের ১৫০ কোটি গ্রাহকের তথ্য বিক্রির অভিযোগ!

প্রকাশিত:বুধবার ০৬ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ২৭ অক্টোবর ২০২১ | ২৩৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বিশ্বজুড়ে বেশ জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক। অভিযোগ উঠেছে জনপ্রিয় এই মাধ্যমটির ১৫০ কোটি গ্রাহকের তথ্য বিক্রি হয়ে গেছে। গ্রাহকদের এসব তথ্য কিনেছে একটি হ্যাকার ফোরাম। মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) রোমানিয়াভিত্তিক সাইবার নিরাপত্তা গবেষণা প্রতিষ্ঠান প্রাইভেসি অ্যাফেয়ার্স এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করেছে।

তবে এই তথ্য বিক্রির সঙ্গে সোমবার (৪ অক্টোবর) ফেসবুক বিপর্যয়ের কোনো সম্পর্ক নেই। এ ঘটনা ঘটেছে সেপ্টেম্বরের শেষ সপ্তাহে। তবে ফেসবুকের সমস্যার সময় ব্যবহারকারীদের ডাটা চুরির কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি বলে জানান ফেসবুকের একজন মুখপাত্র।

তিনি বলেন, ব্যাকবোন রাউটারের কনফিগারেশনে পরিবর্তন আনার সময় কারিগরি ত্রুটির কারণে গত সোমবার রাতে বন্ধ হয়ে যায় ফেসবুক, ম্যাসেঞ্জার, হোয়াটসঅ্যাপ ও ইনস্টাগ্রামের সেবা। ত্রুটি কাটিয়ে প্রায় ছয় ঘণ্টা চেষ্টার পর সেবা চালু করতে সক্ষম হন প্রকৌশলীরা।

এদিকে প্রাইভেসি অ্যাফেয়ার্স তাদের প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানিয়েছে, ওয়েব স্ক্র্যাপারসনামের একটি ওয়েবসাইট থেকে তথ্য চুরিতে নিয়োজিত একটি গ্রুপের মাধ্যমে তারা জানতে পেরেছে, ফেসবুকের প্রায় ১৫০ কোটি গ্রাহকের তথ্য একটি হ্যাকার ফোরামের কাছে বিক্রি করা হয়েছে। ওয়েব স্ক্র্যাপাররা কিছু প্রমাণ সংযুক্ত করে সেপ্টেম্বরের শেষ সপ্তাহে এই তথ্য বিক্রি করেছে। ক্রেতা হ্যাকার ফোরাম প্রতি এক মিলিয়ন বা ১০ লাখ ব্যবহারকারীর তথ্যের জন্য পাঁচ হাজার ডলার মূল্য পরিশোধ করেছে। এতে ফেসবুকের দেড়শ কোটি ব্যবহারকারীর তথ্য কিনতে তাদের গুণতে হয়েছে ৭ লাখ ৫০ হাজার ডলার বা প্রায় ৬৫ কোটি টাকা।

ওয়েব স্ক্র্যাপারস ও হ্যাকারদের ই-মেইল বার্তার কিছু স্ক্রিনশটও প্রকাশ করা হয়েছে প্রাইভেসি অ্যাফেয়ার্সের ওই প্রতিবেদনে। তবে বিপুল পরিমাণ এই তথ্য কোন হ্যাকার গ্রুপ কিনে নিয়েছে, সেটা প্রকাশ করেনি প্রাইভেসি অ্যাফেয়ার্স।

সূত্রে জানা গেছে, ফেসবুক, ম্যাসেঞ্জার, ইনস্টাগ্রাম ও হোয়াটসঅ্যাপের মধ্যে একটি কমন সুইচ প্ল্যাটফর্ম তৈরির জন্য রাউটারে নতুন কনফিগারেশনটি চলছিল। মূলত ফেসবুক ও এর অন্তর্ভুক্ত মাধ্যমগুলোর মাঝে সহজে ডাটা আদান-প্রদান করার জন্যই এই প্রক্রিয়াটি চলছিল।


আরও খবর



‘একদিনে চাকরির পরীক্ষা এড়াতে সার্কুলার আসছে’

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৭ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৯০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মহামারি করোনার কারণে দীর্ঘ দিন নানা প্রতিষ্ঠানে নিয়োগ বন্ধ থাকার পর, শুক্রবার (৮ অক্টোবর) সকাল-বিকেল সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের ১৪টি চাকরির পরীক্ষা পড়েছে। অতীতেও একই দিনে একাধিক চাকরির পরীক্ষা হয়েছে। 

ফলে চাকরি প্রত্যাশীদের অনেকেই টাকা খরচ করে আবেদন করা পরীক্ষায় অংশ নিতে পারেনি। চাকরি প্রত্যাশীদের এই সমস্যা সমাধানে উদ্যোগ নেওয়ার কথা জানিয়েছেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন। তিনি বলেছেন, এ বিষয়ে আমরা একটি সার্কুলার দেব।

করোনা ভাইরাসের কারণে প্রায় দেড় বছর বন্ধ ছিল বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে নিয়োগ পরীক্ষা। বর্তমানে পরিস্থিতি প্রায় স্বাভাবিক হয়ে আসায় নিয়োগ পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা করেছে সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলো।

রেওয়াজ অনুযায়ী, সাপ্তাহিক ছুটির দিন শুক্রবার ও শনিবার চাকরির পরীক্ষাগুলো বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নেওয়া হয়। কারণ অধিকাংশ ক্ষেত্রে এই দুই দিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোয় ক্লাস-পরীক্ষা হয় না।

কিন্তু অতীতের মতো বেশিরভাগ পরীক্ষা শুক্রবার হওয়ায় প্রার্থীরা সমস্যায় পড়ে থাকেন। শুক্রবার (৮ অক্টোবর) একই দিনে অন্তত ১৪টি সরকারি প্রতিষ্ঠানের চাকরির পরীক্ষা পড়েছে। যার কেন্দ্রগুলো ঢাকায়।

এদিন, তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি, বাংলাদেশ কাউন্সিল অব সায়েন্টিফিক অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিসার্চ (বিসিএসআইআর), সিভিল অ্যাভিয়েশন অথরিটি অব বাংলাদেশ (সিএএবি), বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ড, ন্যাশনাল সিকিউরিটি ইন্টেলিজেন্স, বাংলাদেশ গ্যাস ফিল্ডস কোম্পানি লিমিটেড (বিজিএফসিএল), সাধারণ বীমা করপোরেশন, বিসিএস নন-ক্যাডার, জালালাবাদ গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেম লিমিটেড, বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশন (বিএডিসি), ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট, পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশ লিমিটেড, বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড ও পদ্মা অয়েল কোম্পানি লিমিটেডে বিভিন্ন পদে জনবল নিয়োগের পরীক্ষা রয়েছে।

একদিনই একাধিক পরীক্ষা পড়ায় বড় ধরনের সমস্যায় পড়েছেন চাকরিপ্রার্থীরা। কিছু ক্ষেত্রে একই সময়েও পড়েছে কিছু পরীক্ষা। তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির সহকারী ব্যবস্থাপক (জেনারেল) পদের নিয়োগ পরীক্ষা শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে ১১পর্যন্ত। একই সময়ে অনুষ্ঠিত হবে বাংলাদেশ পল্লী বিদ্যুতায়ন বোর্ডের সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) পদের নিয়োগ পরীক্ষা।

চাকরিপ্রার্থী জানান, অধিকাংশই একাধিক পদের জন্য আবেদন করেন। কিন্তু একই সময়ে পরীক্ষা পড়ায় সব পরীক্ষায় অংশ নিতে পারেন না। অথচ প্রতিটি পদে চাকরির জন্য আবেদন করতে ৩০০ থেকে এক হাজার টাকা পর্যন্ত খরচ হয়। আর অনেকেরই টিউশনির কষ্টের টাকায় আবেদন করে পরীক্ষা দিতে না পারা আরও কষ্টের।

বিষয়টি নিয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন বৃহস্পতিবার বলেন, মহামারির কারণে অনেকদিন চাকরির পরীক্ষা হয়নি। সে কারণে একসঙ্গে পরীক্ষাগুলো হচ্ছে। তবে চাকরিপ্রার্থীদের কথা বিবেচনা করে ভবিষ্যতে যাতে এরকম একসঙ্গে পরীক্ষাগুলো না পড়ে এবং সমন্বয় করে তারিখ ঘোষণা করা হয় সেজন্য আমরা একটি সার্কুলার দেব।

অন্যদিকে, সরকারি কর্ম কমিশনের (পিএসসি) চেয়ারম্যান মো. সোহরাব হোসাইন জানিয়েছেন, শুক্রবার (৮ অক্টোবর) একাধিক পরীক্ষা থাকায় আমরা নন-ক্যাডারের পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন করেছি। 

পিএসসির চেয়ারম্যান বলেন, আপাতত যতদিন চাকরির পরীক্ষা বেশি থাকবে, ততদিন শুক্রবার-শনিবার নিয়োগ পরীক্ষা না নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে পিএসসি। একদিনে একাধিক নিয়োগ পরীক্ষার তারিখ থাকায় চাকরিপ্রার্থীরা ক্ষতিগ্রস্ত হবেন বলে মনে করেন পিএসসির চেয়ারম্যান। 

অন্যান্য পরীক্ষার ব্যাপারে তিনি বলেন, আমাদের সমন্বয়ের জায়গা নেই। এটা যদি থাকত, তাহলে অন্তত সরকারি চাকরির পরীক্ষাগুলোর তারিখ কেন্দ্রীয়ভাবে ঠিক করা যেত।   


আরও খবর



শেয়ারবাজারে সূচকের পতন অব্যাহত

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৯ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৩২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবস মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) সূচকের বড় পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে। এ নিয়ে ধরাবাহিকভাবে সাত কার্যদিবস উভয় শেয়ারবাজারে সূচকে পতন ঘটেছে। এই সাত কার্যদিবসে ৩৪৭ পয়েন্ট সূচক কমেছে।

এদিন ডিএসই ও সিএসইতে টাকার পরিমাণে লেনদেন বাড়লেও অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ারের দর কমেছে। ডিএসই ও সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

মঙ্গলবার ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৭৬.৬৬ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে সাত হাজার ২০.৬১ পয়েন্টে। ডিএসইর অপর সূচকগুলোর মধ্যে শরিয়াহ সূচক ২০.২৫ পয়েন্ট এবং ডিএসই-৩০ সূচক ২২.৫০ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে যথাক্রমে এক হাজার ৫০৪.৯২ পয়েন্টে এবং দুই হাজার ৬৫৬.০৫ পয়েন্টে।

দিন শেষে ডিএসইতে এক হাজার ৬৯২ কোটি ৮৫ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে, যা আগের দিন থেকে ২৮৯ কোটি ২ লাখ টাকা বেশি।

ডিএসইতে এদিন ৩৭৬টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে শেয়ার দর বেড়েছে ৮৭টির বা ২৩.১৪ শতাংশের, শেয়ার দর কমেছে ২৫৪টির বা ৬৭.৭৫ শতাংশের এবং ৩৫টির বা ৯.৩১ শতাংশের শেয়ার ও ইউনিট দর অপরিবর্তিত রয়েছে।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১৯৫.৭৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ২০ হাজার ৫১১.৯৫ পয়েন্টে। সিএসইতে এদিন ২৯৮টি প্রতিষ্ঠান লেনদেনে অংশ নিয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ৭২টির দর বেড়েছে, কমেছে ২০৪টির আর ২২টির দর অপরিবর্তিত রয়েছে। সিএসইতে ৪৮ কোটি ৭৮ লাখ টাকার শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়েছে।




আরও খবর