Logo
শিরোনাম

বাগদাদে ঈদ বাজারে আত্মঘাতী হামলা, নিহত ৩৫

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ জুলাই ২০21 | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৬২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ইরাকের রাজধানী বাগদাদে একটি জনাকীর্ণ বাজারে জোড়া আত্মঘাতী বোমা হামলায় অন্তত ৩৫ জন নিহত হয়েছে। এছাড়া আহত হয়েছে আরো অন্তত ৬০ জন। ঈদুল আজহার প্রাক্কালে গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় এই বিস্ফোরণ ঘটে। অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক থাকায় মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে। হতাহতদের মধ্যে নারী ও শিশুও রয়েছে।

বিস্ফোরণের পর আশপাশের এলাকায় ছিন্নভিন্ন অঙ্গপ্রত্যঙ্গ ছড়িয়ে থাকতে দেখা যায়। লোকজন তখন ঈদের কেনাকাটা করছিল। ২০১৮ সালের জানুয়ারির পর বাগদাদে হওয়া সবচেয়ে প্রাণঘাতী আত্মঘাতী হামলা এটি। তিন বছর আগে তায়ারান চত্বরে হওয়া আগের হামলায় ৩৫ জন নিহত হয়েছিল।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ফুটেজে জোড়া বোমা হামলার পর মাটিতে একাধিক মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখা গেছে। বিস্ফোরণের পর পরই ঘটনাস্থলের দিকে একের পর এক অ্যাম্বুলেন্স ছুটে যায় এবং আহতদের বাগদাদের বিভিন্ন হাসপাতালে নিয়ে যায়। এখন পর্যন্ত কোনো গোষ্ঠী এ হামলার দায় স্বীকার করেনি।


আরও খবর



কাবুলের সুরবি জেলার ৭০ গ্রাম দখলে নিয়েছে তালেবান

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২০ জুলাই ২০21 | ৫৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আফগানিস্তানের কাবুল প্রদেশের সুরবি জেলার ৭০টি গ্রাম দখলে নিয়েছে তালেবান। কাবুল প্রদেশের সুরবি জেলার ১৩০ গ্রামের মধ্যে ৭০টি ইতোমধ্যে তালেবান যোদ্ধাদের নিয়ন্ত্রণে চলে গেছে।

কাবুলের গভর্নর মুহাম্মদ ইয়াকুব বলেন, তালেবান মিলিশিয়ারা সুরবি জেলায় পাকিস্তানভিত্তিক লস্কর-ই-তৈয়্যবা এবং অন্যান্য গোষ্ঠীর সহযোগিতায় যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছে।

তালেবানের সদস্যরা সুরবি বাজারে হামলা চালানোর হুমকি দিয়েছে বলে জানিয়েছেন সুরবি জেলার বাসিন্দারা। সুরবি ছাড়াও কাবুল প্রদেশের আরও চারটি জেলা তালেবানের হামলার হুমকির মধ্যে রয়েছে বলে জানান প্রদেশের গভর্নর।

তবে তালেবানকে খুব বেশি অগ্রসর হতে দেবে না নিরাপত্তা বাহিনী এমন আশা গভর্নরের। তিনি বলেন, নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা তালেবানকে খুব বেশি অগ্রসর হতে দেবে না।

সুরবি জেলায় একটি রেস্তোরাঁর মালিক জাহিদুল্লাহ। তিনি বলেন, এখানকার নিরাপত্তা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে।

সুরবি জেলার গভর্নর বলেন, তালেবান জগদলক জেলায় রুবি খনিগুলো দখলের চেষ্টা করছে।  তবে তারা যেন এর দখল নিতে না পারে আমরা সে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি।

আফগানিস্তানের নিরাপত্তা বাহিনী জানায়, কাবুল প্রদেশে ১৪টি জেলা রয়েছে।  এরমধ্যে হুমকির মধ্যে রয়েছে ৫টি জেলা। যুক্তরাষ্ট্র ১১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে সব সেনা প্রত্যাহার করার ঘোষণা বাস্তবায়নের প্রায় শেষ দিকে রয়েছে।


আরও খবর



পানি খেতে গিয়ে দাঁত খেয়ে ফেলে নারীর মৃত্যু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ জুলাই ২০২১ | ৪১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পানি খেতে গিয়ে নকল দাঁত গিলে ফেলেছিলেন এক নারী। এ ঘটনার পরদিন তার মৃত্যু হয়েছে। ভারতের চেন্নাইয়ে এই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছে।

এস রাজলক্ষ্মী নামের সেই নারীর তিনটি দাঁত বাঁধানো ছিল। গত ৪ জুলাই পানি খাওয়ার সময় তারই একটি গিলে ফেলেন তিনি। তারপর থেকেই মাথা ঘুরছিল। বমি ভাবও ছিল ৪৩ বছর বয়সী রাজলক্ষ্মীর।

সেদিনই হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় তাকে। তবে চিকিৎসকরা পরীক্ষা করে তেমন কোনও সমস্যা দেখতে পাননি। তাই হাসপাতাল থেকে বাড়ি চলে যেতে বলা হয় রাজলক্ষ্মীকে।

কিন্তু পরদিন ফের অসুস্থ বোধ করেন তিনি। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে অজ্ঞান হয়ে পড়ে যান রাজলক্ষ্মী। কিছুক্ষণ পরে মৃত্যু হয় তার।

এ ঘটনায় একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা দায়ের করেছে পুলিশ। ময়নাতদন্তের নির্দেশও দেয়া হয়েছে। পুলি‌শ বলছে, তাদের ধারণা দাঁতটি আলগা হয়ে গিয়েছিল। কারণ, সাত বছর আগে তা বাঁধানো হয়েছিল। তাই এই বিপত্তি।


আরও খবর



জিম্বাবুয়েকে উড়িয়ে সিরিজ বাংলাদেশের

প্রকাশিত:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ২৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

অঘোষিত ফাইনাল। যে দল জিতবে, তারা টি-টোয়েন্টি সিরিজের ট্রফি হাতে তুলবে। এমন এক ম্যাচে বাংলাদেশের সামনে ১৯৪ রানের কঠিন এক লক্ষ্য ছুড়ে দিল জিম্বাবুয়ে। টাইগাররা কি পারবে? শেষ ওভারের আগ পর্যন্ত শঙ্কা কাটেনি।

তবে হারারেতে রুদ্ধশ্বাস লড়াইয়ে শেষ হাসি হেসেছে বাংলাদেশই। ১৯৪ রানের লক্ষ্য তাড়া পেরিয়ে গেছে ৫ উইকেট আর ৪ বল হাতে রেখে। তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ জিতে নিয়েছে ২-১ ব্যবধানে।

রান তাড়ায় নেমে প্রথম দুই ওভারে ২০ রান তুলে বাংলাদেশ। সৌম্য সরকার বেশ স্বাচ্ছন্দ্যে খেললেও স্বস্তিতে ছিলেন না নাইম শেখ। ৭ বলে ৩ রান করা এই ওপেনার চাপে পড়ে ব্লেসিং মুজারবানিকে তুলে মারতে যান। মিডঅফে ক্যাচ হন লুক জঙউইর।

এরপর উইকেটে এসে চালিয়ে খেলেছেন সাকিব আল হাসান। অষ্টম ওভারে জঙউইকে টানা দুই বলে ছক্কাও হাঁকিয়েছিলেন। কিন্তু ওই ওভারেই লংঅফে ধরা পড়েন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। ১৩ বলে ১ চার, ২ ছক্কায় সাকিব তখন ২৫ রানে। ভাঙে ৩২ বলে ৫০ রানের জুটি।

তৃতীয় উইকেটে মাহমুদউল্লাহ-সৌম্যর ঝড়ো জুটিতে আসে ৩৫ বলে ৬৬ রান। সৌম্য টি-টোয়েন্টির চাহিদা মেটাতে পারছিলেন না। ৩৬ বলে ছিলেন মাত্র ৩৭ রানে।

কিন্তু তারপরই চেহারা বদলে ফেলেন সৌম্য, ৪০ বলে তুলে নেন ফিফটি। অবশেষে ১৪তম ওভারে এসে জঙউইকে আকাশে ভাসিয়ে মারতে গিয়ে লংঅফে ক্যাচ হন বাঁহাতি এই ওপেনার। ৪৯ বলে তার ৬৮ রানের ইনিংসে ছিল ৯ বাউন্ডারি আর ১ ছক্কার মার।

আফিফ হোসেন শুরুটাই করেছিলেন ছক্কা দিয়ে। তবে ৫ বলে ২ ছক্কায় ১৪ রানের ঝড় তুলে বোল্ড হয়ে যান এই বাঁহাতি। ১৫০ রানে ৪ উইকেট হারায় বাংলাদেশ।

সেখান থেকে ৩ ওভারে ৩৭ রান তুলেন মাহমুদউল্লাহ আর শামীম হোসেন পাটোয়ারী। খেলা তখন অনেকটাই হাতে চলে এসেছে টাইগারদের। ৯ বলে দরকার ৭। এমন সময়ে আউট হয়ে যান মাহমুদউল্লাহ (২৮ বলে ২ চার আর ১ ছক্কায় ৩৪)।

তবে শামীম পাটোয়ারী দলকে জিতিয়েই মাঠ ছেড়েছেন। টানা দ্বিতীয় ম্যাচে দারুণ পারফরম্যান্স দেখিয়েছেন তরুণ এই ব্যাটসম্যান। ১৫ বলে ৬ বাউন্ডারিতে ৩০ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি।

এর আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেটে ১৯৩ রানের বড় সংগ্রহ দাঁড় করায় জিম্বাবুয়ে।

শুরু থেকেই মারমুখী চেহারায় হাজির হন দুই ওপেনার তাদিওয়ানাশে মারুমানি আর ওয়েসলে মাদভেরে, প্রথম তিন ওভারে তোলেন ২৮ রান।

চতুর্থ ওভারে তাসকিন আহমেদের ওপর চড়াও হন মাদভেরে। টানা পাঁচ বলে পাঁচটি চার হাঁকান তিনি। ওভারের শেষ বলটি কোনোমতে বাঁচাতে সক্ষম হন টাইগার পেসার।

পঞ্চম ওভারে সাকিব আল হাসান এসে সেই রানের স্রোত কিছুটা কমান, দেন ৩ রান। পরের ওভারে মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনকে ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন মারুমানি। তবে তার ফল খুব একটা ভালো হয়নি।

ওভারের শেষ বলে দুর্দান্ত এক ডেলিভারিতে জিম্বাবুইয়ান ওপেনারকে (২০ বলে ২৭) বোল্ড করে দেন সাইফউদ্দিন। পাওয়ার প্লে'র ৬ ওভার শেষে জিম্বাবুয়ের রান দাঁড়ায় ১ উইকেটে ৬৩।

মারকুটে ব্যাটিং থামেনি এরপরও। উইকেটে এসে রীতিমত ভয়ংকর চেহারায় হাজির হন রেগিস চাকাভা। একের পর এক বল সীমানার ওপারে আছড়ে ফেলতে থাকেন উইকেটরক্ষক এই ব্যাটসম্যান।

এর মধ্যে নাসুম আহমেদের করা ১১তম ওভারে টানা তিন বলে তিন ছক্কা হাঁকান চাকাভা। তবে পরের ওভারেই সে ঝড় থামিয়েছেন সৌম্য সরকার। সৌম্য থামিয়েছেন বললে অবশ্য পুরোপুরি ঠিক হবে না।

আসলে তো নাইম শেখ আর শামীম হোসেন পাটোয়ারীর যৌথ প্রচেষ্টার ফসল চাকাভার উইকেটটি। এবারও সজোরে হাঁকিয়েছিলেন চাকাভা, ডিপ মিডউইকেটে ক্যাচটি নিয়েও ভারসাম্য রাখতে পারেননি নাইম।

তবে দড়ির বাইরে যাওয়ার আগে দারুণ বুদ্ধিমত্তায় বলটি ওপরে তুলে দেন তিনি, পাশেই দাঁড়ানো শামীম কয়েক পা দৌড়ে গিয়ে ক্যাচটি তালুবন্দী করেন। তাতেই চাকাভাকে সাজঘরে ফেরানো গেছে। ২২ বলে ৬ ছক্কায় ৪৮ রান করেন তিনি।

সৌম্য সেই ওভারেই তুলে নিয়েছেন আরও এক উইকেট। জিম্বাবুইয়ান অধিনায়ক সিকান্দার রাজাকে বোল্ড করেছেন রানের খাতা খোলার আগেই।

এগারতম ওভারে জোড়া উইকেট হারিয়ে রানের গতি কমে যায় জিম্বাবুয়ের। বাংলাদেশি বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে পরের ৪ ওভারে তারা তুলতে পারে মাত্র ২৪ রান।

সেই চাপ থেকেই সাকিবের করা ১৬তম ওভারের প্রথম বলটি রিভার্স সুইপ করেছিলেন মাদভেরে। ৩৬ বলে ৬ বাউন্ডারিতে ৫৪ রানের ইনিংস খেলা এই ব্যাটসম্যানের ক্যাচটি থার্ডম্যানে সহজেই তালুবন্দী করেন শরিফুল। ওই ওভারে আসে মাত্র ৩ রান।

পরের ওভারে শরিফুল দেন ৭। কিন্তু ১৮তম ওভারে আবারও রান বিলিয়ে বসেন সাইফউদ্দিন। তিন চার আর এক ছক্কায় তার ওভার থেকে ১৯ রান তুলে নেয় জিম্বাবুয়ে।

১৯তম ওভারে দারুণ বোলিং করেন শরিফুল। প্রথম বলেই শরিফুল ফেরান মায়ার্সকে (২০ বলে ২৩)। পুল করতে গিয়ে বাতাসে বল ভাসিয়ে দেন এই ব্যাটসম্যান। সবমিলিয়ে ওই ওভারে শরিফুলের খরচ মাত্র ২ রান।

শেষ ওভারে সাইফউদ্দিন আবার ১৪ দিয়ে বসেন। টানা দুই বলে চার আর ছক্কা হাঁকান রায়ান বার্ল। তিনি শেষ পর্যন্ত অপরাজিত থাকেন ১৫ বলে ৩১ রানে।

বল হাতে সবচেয়ে সফল ছিলেন পার্টটাইমার সৌম্য সরকার। ৩ ওভারে ১৯ রান দিয়ে নিয়েছেন ২ উইকেট। শরিফুল ইসলাম ৪ ওভারে ২৭ আর সাকিব সমান ওভারে ২৪ রান দিয়ে নেন একটি করে উইকেট। সাইফউদ্দিন এক উইকেট পেলেও দেন ৫০ রান।


আরও খবর



হরমোনে সমস্যার কারণে শরীরে হতে পারে নানা ধরণের সমস্যা

প্রকাশিত:রবিবার ২৭ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | ৮৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

হরমোন হলো আমাদের শরীরে বিভিন্ন গ্রন্থি। এখান থেকে তৈরি হওয়া কিছু কেমিক্যাল, যেগুলো বিভিন্ন গ্ল্যান্ড থেকে তৈরি হয়ে রক্তের মাধ্যমে শরীরে ছড়িয়ে পড়ে। হরমোনের মাধ্যমে শরীরের সব ধরণের কার্যক্রম, গ্রোথ ডেভেলপমেন্ট হয়। শরীরের সবকিছুর সাথেই হরমোনের সম্পর্ক রয়েছে। হরমোনে সমস্যার কারণে শরীরে হতে পারে নানা ধরণের সমস্যা।

হরমোনের ধরণ, কাজ ও হরমোন রোগের প্রভাবে বন্ধ্যাত্ব নিয়ে বিস্তারিত তথ্য জানিয়েছেন হরমোন, ডায়াবেটিস ও মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. সুলতানা মারুফা শেফিন।

হরমোনের ধরণ ও কাজ:

ঘুম থেকে জেগে ওঠার ক্ষেত্রে একটি হরমোন রয়েছে। ইংরেজিতে যাকে বলা হয় কেমিক্যাল ম্যাসেঞ্জার। এগুলো গ্রন্থি থেকে তৈরি হয়ে একজন আরেকজনকে মেসেজ পাঠায় যে, তোমাকে এই কাজটি করতে হবে। তারপর তাকে সাহায্য করে এবং কাজগুলো করিয়ে নেয়।

হরমোনগুলো আবার অনেকগুলো নিয়ম-শৃঙ্খলায় আবদ্ধ। প্রথম হরমোন তৈরি হয়, ব্রেন থেকে। ব্রেনের হাইপোথেলামাস নামক অংশ আছে। সেখান থেকে হরমোন তৈরি হয়। প্রিটোরিগ্রান্ট অংশে চলে আসে। যা আমরা দুইভাবে ভাগ করি। একটি সামনে, আরেকটি পেছনে পিঠে তৈরি। এটা খুবই ছোট একটা অংশ। যার ওজন ১০ থেকে মাত্র ১২ গ্রাম।

এন্টিনোকট্রিকো সামনের অংশ থেকে ছয়টা হরমোন তৈরি হয়। পেছনের অংশ থেকে দুইটি গুরুত্বপূর্ণ হরমোন তৈরি হয়। পিটুইটার সামনের অংশ থেকে যে হরমোন তৈরি হয়, তারা সরাসরি কাজ করে বা অন্যান্য গ্রন্থিকে বার্তা পাঠায়।

অ্যান্টিনোকট্রিকো হরমোন ট্রাফিক আমাদের কিডনির সাথে সম্পর্কিত। তার উপরে রয়েছে সুপার অ্যানাল গ্রেন্ড।

সুপার অ্যানাল গ্রেন্ডের আবার দুটি অংশ। কটেক্স, আরেকটা হচ্ছে প্রিনোটার। এগুলো আমাদের রক্তের ব্লাড প্রেসার নিয়ন্ত্রণ করে। লবণের ওপর কাজ করে এবং সেক্স হরমোন তৈরি করে।

সেক্স হরমোনের সাথে ছেলে বা মেয়েদের বিষয়টি জড়িত। সেক্স হরমোনের শুরুটা প্রিটোটারি হরমোন থেকে আসে। প্রিটোটারি এইচএফএস এবং এলএস হরমোন। দুটি হরমোনই মেয়েদের ক্ষেত্রে ওভারির উপর কাজ করে। ওভারি থেকে মেয়ে হরমোন ইস্ট্রোজেন প্রস্ট্রেশন তৈরি করে। আর ডিম্বাণু তৈরি করে।

পুরুষদের ক্ষেত্রে অন্ডকোষের ওপর এসে কাজ করে। শুক্রাণু তৈরি করে। অ্যাড্রিনাল গ্রন্থি থেকে কিছু পরিমাণ সেক্স হরমোন তৈরি করে। এই ধরণটির প্রভাবে মেয়েদের শরীরে কিছুটা ছেলেদের হরমোন থাকে। যখন সেটা ভারসম্যহীন হয়ে যায়, তখনই নানারকম উপসর্গ তৈরি হয়।

থাইরয়েড স্টিমুলেটিং হরমোন। এসএইচ হরমোনটা এসে কাজ করে থাইরয়েডের উপর। থাইরয়েড থাকে আমাদের গলার সামনের দিকে। এগুলো প্রত্যেকটি কোষে কাজ করে।

হরমোনজনিত সমস্যায় হতে পারে বন্ধ্যাত্ব:

হরমোন সমস্যায় বন্ধ্যাত্ব গুরুত্বপূর্ণ একটি রোগ। বাবা হওয়ার জন্য টেস্টেস্টেরন এবং শুক্রাণু দুটোই প্রয়োজন।

হাইপোথাইরয়েডিজম মানে হচ্ছে থাইরয়েডের কম কাজ করা। আর হাইপার থাইরয়েডিজম মানে থাইরয়েড গ্ল্যান্ড বেশি কাজ করে। হাইপোথাইরয়েডে সাধারণত টিএসএইচ বেড়ে যায়। হাইপার থাইরয়েডের সাধারণত টিএইচএস হরমোন কমে যায়।

থাইরয়েড হরমোন বন্ধ্যাত্বের ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখতে পারে। মেয়েদের ক্ষেত্রে ডিম্বাণু আর পুরুষদের ক্ষেত্রে শুক্রাণুর ওপর প্রভাব ফেলে। প্রোল্যাকটিন একটা হরমোন। এ হরমোন জেনেটিক কাজ করে। মেয়েদের বাচ্চা হওয়ার পরে ব্রেস্ট থেকে দুধ তৈরি করে।

কোন কারণে যদি এ হরমোন বেড়ে গেলে অবিবাহিত মেয়েদের অথবা যে মেয়েরা গর্ভধারণ করেনি অথবা বৃদ্ধ বয়সেও দুধ নিঃসরণ হতে পারে। এটাকে বলে হাইফা প্রলাক্টিন এনিমা।

প্রলাক্টিন হরমোনের গন্ডগোল। এটাও বন্ধ্যাত্বের সাথে জড়িত। প্রোল্যাকটিন হরমোন বেড়ে গেলে মেয়েদের ঠিকমত ডিম ফোটে না। ছেলেদের ক্ষেত্রে দুধ নিঃসরণ হয়না। তবে তাদের ক্ষেত্রেও বন্ধ্যাত্ব আসতে পারে। আমরা যখন বীর্য পরীক্ষা করি, সেখানে হরমোনের প্রভাবের বিষয়টি ধরা পড়তে পারে।

নিউজ ট্যাগ: হরমোন রোগ

আরও খবর

গাজরের মালাই পাটিসাপ্টা

রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১

মেজবানি মাংস রান্না করবেন যেভাবে

বৃহস্পতিবার ২২ জুলাই ২০২১




কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ, থানায় মামলা

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | ৫৯জন দেখেছেন
Image

নোয়াখালী প্রতিনিধি:

নোয়াখালীর হাতিয়াতে বিয়ের প্রলোভনে এক কিশোরীকে (১৫) ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবকের বিরুদ্ধ মামলা হয়েছে।

অভিযুক্ত মো.জাকের হোসেন সুমন (২০) উপজেলার চরঈশ্বর ২নম্বর ওয়াডের্র জাকের হোসেনের ছেলে।

গতকাল মঙ্গলবার ( ১৩ জুলাই) দুপুরে ওই কিশোরীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। এর আগে গত সোমবার (১২ জুলাই) রাতে ভুক্তভোগী কিশোরীর ভাই বাদী হয়ে হাতিয়া থানায় এ মামলা দায়ের করেছেন।

মামলা ও স্থানীয় সূত্র জানায়, গত (৮জুলাই) রাত সাড়ে ১০টার দিকে সুমন ওই কিশোরীদের ঘরের সামনে যায়। ওই সময় সে কৌশলে ওই কিশোরীকে দিয়ে ঘরের দরজা খুলে। একপর্যায়ে ঘরের ভিতরে গিয়ে বিয়ের প্রলোভনে কিশোরীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে সুমন। অভিযোগে বলা করা হয় এর আগেও সুমন একই প্রলোভনে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করে।

হাতিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি আরও জানান, অভিযুক্ত আসামিকে গ্রেফতারে চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।

নিউজ ট্যাগ: নোয়াখালী ধর্ষণ

আরও খবর