Logo
শিরোনাম

বাগেরহাটে স্বর্ণালংকার চোর চক্রের ৬ সদস্য গ্রেফতার

প্রকাশিত:সোমবার ২৬ ডিসেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২৫ নভেম্বর ২০২৩ | ৮৮০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলা থেকে স্বর্ণালংকার চোর চক্রের ছয় সদস্যকে গ্রেফতার করেছে রাজশাহী ডিবি পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে সাড়ে ৩ ভরি স্বর্ণসহ নগদ প্রায় ৮ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়। সোমবার সকালে বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ ও শরণখোলা উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার ব্যক্তিরা হলেন-শরণখোলা উপজেলার মধ্যে খোন্তাকাটা গ্রামের আ. রহমান হাওলাদারের ছেলে আ. মালেক (৪০), রুহুল আমিন হাওলাদারের ছেলে শহিদুল হাওলাদার (৫০), শাহজাহান হাওলাদারের ছেলে বাবুল হাওলাদার (৫০), রব হাওলাদারের ছেলে ছোট বাবুল (৪৫), মোতালেব হাওলাদার (৪৫) ও খেজুড়বারিয়া গ্রামের সম্বুনাথ কুলুর ছেলে স্বর্ণ ব্যবসায়ী বাবুল কুলু (৪৩)।

রাজশাহী ডিবি পুলিশের অ্যাডিশনাল এসপি মো. মাসুদ আলম জানান, গত ৩০ নভেম্বর গ্রেফতার ব্যক্তিরা পাবনার ইশ্বরদী উপজেলার মল্লিকা জুয়েলার্স থেকে রাতে তালা ভেঙে ৭০ ভরি স্বর্ণ চুরি করে নিয়ে আসে। পরদিন জুয়েলার্সের মালিক বাবু ঈশ্বরদী থানায় একটি মামলা করেন। মামলাটি পরে ডিবি পুলিশ দায়িত্ব পেলে তদন্তে গ্রেফতার ব্যক্তিদের সম্পৃক্ততা পাওয়া যায়।

এরপর অনুসন্ধান চালিয়ে তাদের বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ ও শরণখোলা উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার ব্যক্তিদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী বাবুল কুলুর দোকান থেকে সাড়ে ৩ ভরি স্বর্ণ এবং শহিদুল হাওলাদারের কাছ থেকে ১০ ভরি স্বর্ণ বিক্রির নগদ ৭ লাখ ৯০ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়। তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী খুলনাসহ বিভিন্ন এলাকায় আরো অভিযান চালানো হবে বলে তিনি জানান।

এ ব্যাপারে শরণখোলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইকরাম হোসেন জানান, আসামিদের শরণখোলা থেকে গ্রেফতার করা হলেও মামলা যেহেতু ঈশ্বরদী থানায়, তাই তদন্তের স্বার্থে রাজশাহী ডিবি পুলিশ তাদের সেখানে নিয়ে গেছেন।


আরও খবর