Logo
শিরোনাম

বাইডেন প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণ পদ পেলেন বাংলাদেশি জায়ান

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৫ জানুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৩ মার্চ ২০২১ | ৬৫জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন তার প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণ একটি পদের জন্য বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত জাইন সিদ্দিককের নাম ঘোষণা করেছেন। হোয়াইট হাউসের ডেপুটি চিফ অব স্টাফ অফিসের জ্যেষ্ঠ উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পেতে যাচ্ছেন তিনি।

বুধবার (১৩ জানুয়ারি) বাইডেনের ট্রানজিশন টিমের একাধিক নতুন ঘোষণা অনুসারে জাইন সিদ্দিকের এ দায়িত্ব পাওয়ার বিষয়টি জানানো হয়েছে। তিনি হোয়াইট হাউস প্রশাসনের উচ্চ পদে নামপ্রাপ্ত প্রথম বাংলাদেশি-মার্কিন নাগরিক।

জাইন সিদ্দিকের জন্ম বাংলাদেশে হলেও তার বেড়ে ওঠা যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে। তিনি প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয় ও ইয়েল ল স্কুল থেকে স্নাতক সম্পন্ন করেছেন। বাইডেন-হ্যারিস ট্রানজিশন টিমের অভ্যন্তরীণ ও অর্থনৈতিক দলের চিফ অব স্টাফ পদে বর্তমানে দায়িত্বে আছেন জাইন। নবনির্বাচিত ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসের বিতর্কের জন্য ভাইস প্রেসিডেনসিয়াল প্রস্তুতি দলের সদস্য হিসেবেও গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি।

এছাড়া মার্কিন সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি এলেনা কাগানসহ বেশ কয়েকজন বিচারকের অধীনে লক্লার্ক হিসেবে কাজ করার অভিজ্ঞতা রয়েছেন জাইনের।

জো বাইডেন আগেই ইঙ্গিত দিয়েছিলেন, তার প্রশাসন বৈচিত্র্যময় করে গঠন করবেন। সেজন্যই তিনি তার কার্যালয়ে গুরুত্বপূর্ণ পদে যোগ্য ও মেধাবী বাংলাদেশি জাইন সিদ্দিককে নিয়োগ দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন।

Share

আরও খবর

যুক্তরাজ্যে ফেরার অনুমতি পেলেন না শামীমা

শুক্রবার ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১




যুক্তরাষ্ট্রের পশ্চিমাঞ্চলে তুষারধসে চার স্কিয়ারের মৃত্যু

প্রকাশিত:রবিবার ০৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৩ মার্চ ২০২১ | ৬০জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

যুক্তরাষ্ট্রের পশ্চিমাঞ্চলীয় ইউটা অঙ্গরাজ্যের এক গিরিখাতে তুষারধসে চার স্কিয়ারের মৃত্যু ও অপর চারজন আহত হয়েছে।

আঞ্চলিক এভালেন্সের নথি সংরক্ষণকারী ইউটা এভালেন্স সেন্টার জানায়, ১৯৯২ সালের পরে এটি সর্বোচ্চ মৃত্যুর ঘটনা। সেন্টার এক টুইটে জানায়, উইলসন পিকের কাছে মিল ক্রিক গিরিখাতে আজ তুষারধসে চারজনের মৃত্যুতে মর্মাহত।

স্থানীয় টিভি স্টেশন কেএসটিইউ এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, পুলিশ স্থানীয় সময় সকাল ১১টা ৪০ মিনিটে (১৮৪০ জিএমটি) প্রথম অস্পষ্ট একটি কল পেয়েছিল।

স্টেশন জানায়, অপর চারজন স্কিয়ার তুষারধসে আটকা পড়েছিল, তবে বের হয়ে আসে এবং তাদের উদ্ধার করা হয়েছে।

ইউটা গভর্নর স্পেন্সার কক্স এক টুইটে বলেন, এটি একটি ভয়ংকর ট্রাজেডি, এই ঘটনায় নিহতদের জন্য প্রার্থনা করছি ও পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি।

দুর্ঘটনার আগে শনিবার সতর্ক করা হয়েছিল, জানুয়ারি থেকে এপ্রিল পর্যন্ত ইউটা পর্বতমালা গুরুতর বিপদসংকুল। এক টুইটে বিপজ্জনক তুষারপাতের পরিস্থিতি সম্পর্কে সতর্ক করা হয়।

নিউজ ট্যাগ: তুষারধস
Share

আরও খবর



পদ্মা সেতুর ৯২ ভাগ নির্মাণ কাজ শেষ : সেতুমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৩ মার্চ ২০২১ | ৬০জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মূল পদ্মা সেতুর নির্মাণ কাজ শতকরা ৯২ ভাগ এবং পদ্মা বহুমুখী সেতুর নির্মাণ কাজের সার্বিক অগ্রগতি শতকরা ৮৪ ভাগ শেষ হয়েছে বলে জানিয়েচেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি।

আজ মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে মাওয়া প্রান্তে পদ্মা সেতুর সর্বশেষ অগ্রগতি পরিদর্শন শেষে তিনি সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ২০২২ সালের জুনের মধ্যে সম্পূর্ণ অবকাঠামোর কাজ শেষ করে যানবাহন চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হবে। এ সেতুকে ঘিরে দেশের আগামীদিনের উন্নয়ন আবর্তিত হবে। পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজ হলে বাংলাদেশে যোগাযোগ খাতে এক বৈপ্লবিক পরিবর্তন হবে।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রীর স্বপ্নের কথা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার প্রথম স্বপ্ন সড়ক ও পরিবহনে শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা, দ্বিতীয়ত, বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়তে এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের পথযাত্রায় ভীষণ ২০২১, ৪১ ও ডেল্টা প্ল্যান বাস্তবায়নে উপযুক্ত শক্তি হিসেবে আওয়ামী লীগকে সুশৃঙ্খল রাজনৈতিক সংগঠনে পরিণত করা।

Share

আরও খবর



নির্ভয়ে করোনা ভ্যাকসিন নিন: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৩ মার্চ ২০২১ | ৬৪জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সবাইকে নির্ভয়ে করোনার ভ্যাকসিন নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, দেশের মানুষকে করোনা মহামারি থেকে মুক্ত রাখতে ত্বরিত গতিতে টিকা আনা হয়েছে। সবাই সপরিবারে টিকা নিন। জনগণের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় সরকারের এ প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।

বাংলাদেশ আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর ৪১তম জাতীয় সমাবেশ ২০২১-এর কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে আজ বৃহস্পতিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) তিনি এ আহ্বান জানান। প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে এ অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে সংযুক্ত হন।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর মহাপরিচালক। শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে পদকপ্রাপ্তদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এখন আমরা করোনাভাইরাস মোকাবিলা করছি। আনসার-ভিডিপির প্রত্যেকটা সদস্যকে অনুরোধ করবো প্রতিটি মানুষ যেন এই করোনার টিকা নেয় তার জন্য কাজ করবেন। আমরা ইতোমধ্যে টিকা দেওয়া শুরু করেছি। অনেকে ভয় পায়, সুঁই ফোটাতে ভয় পায় এরকম কিছু কিছু মানুষও আছে। কিন্তু তারা যাতে রোগাক্রান্ত না হয় সেজন্য স্বাস্থ্য সুরক্ষা মেনে চলার পাশাপাশি টিকাটাও যাতে তারা নেয় সময় মতো, সেই ব্যবস্থাটা আমরা করেছি। সে ব্যাপারে আনসার ও ভিডিপি সদস্যদের সহযোগিতাও চাই।

সরকারপ্রধান বলেন, টিকা নিতে নিবন্ধনের জন্য ইতোমধ্যে ডিজিটাল সেন্টার করা হয়েছে। সেই ডিজিটাল সেন্টারে গিয়ে সবাই নিবন্ধন করতে পারবেন। সবাই নিজে এবং পরিবারের সব সদস্যসহ  যেন টিকা নেয় সেদিকে যত্নবান হওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। আনসার সদস্যরা গ্রামের মানুষকে একটু উদ্বুদ্ধ করবেন। এই মহামারি, যেটা আজ সারা বিশ্বব্যাপী দেখা দিয়েছে তার হাত থেকে অন্তত বাংলাদেশের মানুষ যেন মুক্তি পায়। তার জন্য আমাদের প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে। আপনারা টিক নিন। আপনারা সুরক্ষিত থাকুন। টিকা নিয়ে নিজেকে আরও সুরক্ষা দেন। সেই সঙ্গে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আনসার-ভিডিপি সব সময় যেকোনও কাজে মানুষের পাশে দাঁড়ায়। যেমন, অগ্নি সন্ত্রাস। বিএনপি-জামায়াত জোট অগ্নি সন্ত্রাসে জীবন্ত মানুষগুলোকে পুড়িয়ে পুড়িয়ে হত্যা করছিল। রেলের ওপর আগুন ধরানো অথবা রেললাইন সরিয়ে দুর্ঘটনা ঘটিয়ে মানুষ হত্যা করার মতো অমানবিক কাজে বিএনপি-জামায়াত জোট সম্পৃক্ত ছিল। সেসব জায়গায় এবং সারা বাংলাদেশে মানুষের জানমাল রক্ষায় আনসার বাহিনীকে আমরা সম্পৃক্ত করেছিলাম। তারা অত্যন্ত দক্ষতার সঙ্গে সেই সময় অগ্নি সন্ত্রাস মোকাবিলা করেছে।

শেখ হাসিনা বলেন, ২০২০ সাল থেকে ২০২১। ২০২০ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী, ২০২১ আমাদের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী। আমরা মুজিববর্ষ উদযাপন করছি। সঙ্গে সঙ্গে সুবর্ণজয়ন্তীতে পদার্পণ করেছি। মুজিববর্ষের উদ্দীপন, আনসার-ভিডিপি আছে সারাক্ষণ। এই প্রতিপাদ্য নিয়ে আনসার ভিডিপি তারা বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করে যাচ্ছে। আনসার ভিডিপি সদস্যরা বাল্যবিবাহ রোধ করা, মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ দমনে ভূমিকা রেখেছে। আমাদের দেশের যুবসমাজ যেন মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদের সঙ্গে সম্পৃক্ত না হয়, এ ব্যাপারে বিশেষ ভূমিকা আপনারা রেখে যাচ্ছেন এবং আরও রাখা প্রয়োজন। এর জন্য তথ্য প্রামাণ্যচিত্র থেকে শুরু করে বিভিন্ন কাজ আপনাদের করতে হবে। আমাদের ছেলেমেয়েরা বিপথে না যায় সেদিকে বিশেষভাবে দৃষ্টি দেওয়ার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি।

আনসার-ভিডিপির কল্যাণে সরকারের নেওয়া পদক্ষেপ তুলে ধরে তিনি বলেন, আনসার-ভিডিপির সুযোগ-সুবিধা, কল্যাণের দিকটা সব সময় আমাদের নজরে আছে। আনসার-ভিডিপি যে মানুষের সেবায় কাজ করে তার জন্য পদক দেওয়া বা সম্মান দেওয়া সেটা আমরাই প্রথম চালু করি। তারই স্বীকৃতিস্বরূপ সেবা ও সাহসিকতা পদক সেটা আমরা প্রবর্তন করি।

আনসার-ভিডিপির নতুন পোশাকের ডিজাইন তিনি নিজেই পছন্দ করে দিয়েছেন উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রতিটি বাহিনীর নিজস্ব পোশাক আছে। কাজেই আমরা সেই পাকিস্তান আমলের খাকি পোশাক বা আনসার বাহিনীর বিভিন্ন সময়ে যে পরিবর্তন এসেছে সেগুলো বাদ দিয়ে এখন নতুন সেরেমনিয়ালবা  উৎসব পোশাক এবং কমব্যাট পোশাক প্রদান করেছি। অন্যান্য বাহিনীরও কমব্যাট পোশাক আছে। কাজেই আনসার বাহিনী বাদ থাকবে কেন? আর আজকের এই পোশাকের রঙ এবং ডিজাইন আমি নিজেই পছন্দ করে দিয়েছি। আশা করি আপনাদের সবার পছন্দ হয়েছে।

তিনি বলেন, জাতির পিতা আমাদের স্বাধীনতা দিয়ে গেছেন। জাতির পিতার লক্ষ্য ছিল বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষ অন্ন-বস্ত্র-বাসস্থান-চিকিৎসা-শিক্ষা পাবে, উন্নত জীবন পাবে। বাংলাদেশের প্রতিটি ঘর আলোকিত হবে। বাংলাদেশের মানুষ উন্নত নাগরিক সুবিধা পাবে, উন্নত জীবন পাবে, সুন্দরভাবে বাঁচবে। আমরা সেই লক্ষ্যেই কাজ করছি। বাংলাদেশ হবে জাতির পিতার স্বপ্নের উন্নত-সমৃদ্ধ সোনার বাংলাদেশ, সেটাই আমরা করতে চাই।

Share

আরও খবর



আল-জাজিরার প্রতিবেদন নিয়ে কোনো প্রতিক্রিয়া নেই : প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৩ মার্চ ২০২১ | ৬২জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আল-জাজিরার প্রতিবেদন নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, এটা নিয়ে কোনো প্রতিক্রিয়া নেই। কিছু বলারও নেই। একটা চ্যানেল কী করেছে, কী দেখিয়েছে৷ কী বলতে চেয়েছে। এর সত্য-মিথ্যা দেশবাসী যাচাই করবেন। যুদ্ধাপরাধীদের সন্তানদের ইন্ধন থাকতে পারে এসব ঘটনায়। কেননা, তারা তো থেমে থাকবে না। তাছাড়া আওয়ামী লীগ বিরোধিতার বিষয়টি তো রয়েছেই।

শনিবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) বাংলাদেশ উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদায় উত্তরণে জাতিংঘের চূড়ান্ত সুপারিশ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

এসময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ গতকাল স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের জন্য জাতিসংঘের চূড়ান্ত সুপারিশ লাভ করেছে। আমরা উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়ার পূর্ণ যোগ্যতা অর্জন করেছি। সমগ্র জাতির জন্য এটা অত্যন্ত আনন্দের এবং গর্বের। আমাদের এই উত্তরণ এমন এক সময়ে ঘটলো, যখন আমরা সর্ব কালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন করছি। আমরা মহান স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপনের দ্বারপ্রান্তে।

শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশের জন্য এ উত্তরণ এক ঐতিহাসিক ঘটনা। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মাত্র সাড়ে তিন বছরে যুদ্ধবিধ্বস্ত বাংলাদেশকে ধ্বংসস্তূপের মধ্যে থেকে টেনে তুলে স্বল্পোন্নত দেশের কাতারে নিয়ে গিয়েছিলেন। স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তিতে তারই হাতে গড়া বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ দেশকে উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদায় উন্নীত করলো।

সবশেষ সবার প্রতি আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, দলমত নির্বিশেষে জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর এ মাহেন্দ্রক্ষণে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবের স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠার অঙ্গীকার করি।

 

Share

আরও খবর



সু চির রাজনৈতিক কার্যালয় গুঁড়িয়ে দিল সেনাবাহিনী

প্রকাশিত:বুধবার ১০ ফেব্রুয়ারী ২০২১ | হালনাগাদ:বুধবার ০৩ মার্চ ২০২১ | ৮৮জন দেখেছেন
Share
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নেত্রী অং সান সু চির রাজনৈতিক দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্র্যাসির (এনএলদি) ইয়াঙ্গুনের সদরদপ্তরে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করেছে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী।

মঙ্গলবার (৯ ফেব্রুয়ারি) রাতে এ অভিযান চালানো হয় বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা।

এনএলডি তাদের অফিসিয়াল ফেসবুকে পেইজে এক পোস্টে জানায়, রাত সাড়ে ৯টার দিকে সামরিক স্বৈরশাসক এনএলডি সদরদপ্তরে হামলা চালিয়ে তা ধ্বংস করে দিয়েছে।

গত নভেম্বর মাসে মিয়ানমারে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে সু চির ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্র্যাসি (এনএলডি) সংখ্যাগরিষ্ঠতা অর্জন করে। এ নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ এনে চলতি বছরের ১ ফেব্রুয়ারি সামরিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে দেশটির নিয়ন্ত্রণ নেয় সেনাবাহিনী।  দেশটির শাসনভার নেন সেনাপ্রধান মিন অং হলাইং। সেই সঙ্গে সু চি-সহ  তার পরপরই মিয়ানমারে বছরব্যাপী জরুরি অবস্থা জারি করা হয়।

অন্যদিকে, মিয়ানমারের রাষ্ট্রপতি উইন মিন্ত, নেত্রী সু চি এবং এনএলডির জেষ্ঠ্য নেতাদের আটক করে গৃহবন্দি করে সামরিক জান্তা।

Share

আরও খবর