Logo
শিরোনাম

বাংলার মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠা করাই আমার লক্ষ্য: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৪ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৩০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, রক্ত আর হত্যা ছাড়া বিএনপি আর কিছু দিতে পারেনি। তারা শুধু পারে মানুষের রক্ত চুষে খেতে। বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) যশোর জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক জনসভায় তিনি এ কথা বলেন। দুপুর ২টা ৩৮ মিনিটে যশোর শামস-উল হুদা স্টেডিয়ামে জনসভা মঞ্চে আসেন প্রধানমন্ত্রী। মঞ্চে উঠে তিনি হাত নেড়ে নেতাকর্মীদের শুভেচ্ছা জানান। এ সময় উচ্ছ্বসিত নেতাকর্মীরা নানা স্লোগান দেন। 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিচার পাওয়ার অধিকার আমার ছিল না। বাবা-মা ভাই-বোন সবাইকে হারিয়েছি। তারপরও এই বাংলায় ফিরে এসেছি। বাংলার মানুষের অধিকার প্রতিষ্ঠা করাই ছিল আমার লক্ষ্য। মানুষের মুখের গ্রাস কেড়ে নিয়ে বিএনপি নিজেদের উন্নয়ন করেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, তারা (বিএনপি) কিছুই দিতে পারে না, শুধু পারে মানুষের রক্ত চুষে খেতে। এটাই হচ্ছে বাস্তবতা।

রিজার্ভ নিয়ে সমালোচকদের জবাব দিয়ে আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, অনেকে এখন রিজার্ভ নিয়ে বিভিন্ন সমালোচনা করছে। অথচ আমাদের সরকার রিজার্ভ রেকর্ড পরিমাণ বাড়িয়েছে। আর কোনো সরকার রিজার্ভ বাড়াতে পারেনি। পর্যাপ্ত রিজার্ভ হাতে রেখেই সব কাজ করছি আমরা। রিজার্ভের কোনো সমস্যা নেই, আমাদের সব ব্যাংকে পর্যাপ্ত টাকা আছে। সামনের দিনেও কোনো সমস্যা হবে না।

তিনি বলেন, রিজার্ভ নিয়ে বিভিন্ন ধরনের সমালোচনা শুনছি। অনেকে প্রশ্ন করেন, রিজার্ভ গেল কোথায়? আমরা তো রিজার্ভ অপচয় করিনি। মানুষের কল্যাণে কাজে লাগিয়েছি। জ্বালানি তেল কিনতে হয়েছে, খাদ্যশস্য কিনেছি। বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছি। করোনার টিকা ও চিকিৎসাসেবা নিশ্চিত করেছি। এসব কাজে রিজার্ভ থেকে খরচ করতে হয়েছে আমাদের। কারণ আমরা সবসময় মানুষের কথা চিন্তা করে উন্নয়ন কর্মকাণ্ড চালাচ্ছি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা যশোরে আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস, মেডিকেল কলেজ, মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সসহ বিভিন্ন অবকাঠামো নির্মাণ করে দিয়েছি। কোনো মানুষ ভূমিহীন থাকবে না, ঠিকানাহীন থাকবে না উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি যখন ১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় আসি, তখন থেকে সিদ্ধান্ত নিই একটি মানুষও ভূমিহীন থাকবে না। এবার আমরা ক্ষমতায় এসে ভূমিহীনদের ঘর তৈরি করে দিয়েছি। তাই ৩৫ লাখ মানুষকে ঘর নির্মাণ করে দিয়েছি। ঘর পেয়ে মানুষের জীবন পাল্টে গেছে। জাতির পিতার আকাঙ্ক্ষা পূরণ করেছি।

তিনি বলেন, কারও জমি যেন অনাবাদি না থাকে। প্রত্যকটা জমি আবাদ করতে হবে। যাতে করে আমাদের খাদ্য ঘাড়তি না হয়। কারও কাছে হাত পাততে না হয়। কারো কাছে চেয়ে চলতে না হয়। যার কাছে যা আছে তা দিয়ে কিছু উৎপাদন করেন। একটা মরিচ গাছ লাগান, একটা লাউ গাছ লাগান, সিম গাছ লাগান। এখানে মা-বোনেরা আছেন। তাদের কাছে এটাই আহ্বান আমার। আপনারা নৌকা মার্কা ভোট দিয়ে আমাদের সেবা করার সুযোগ দিয়েছেন। আগামীতে নৌকা মার্কা ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে আপনাদের সেবা করার সুযোগ দেবেন কি না ওয়াদা চাই। আপনারা হাত তুলে ওয়াদা করেন। 

এসময় মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতি মন্ডলির সদস্য ড. আবদুর রাজ্জাক, জাহাঙ্গীর কবির নানক, আবদুর রহমান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, আ ফ ম বাহাউদ্দীন নাছিম, সংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, মির্জা আজম, এসএম কামাল হোসেন, সম্পাদক মন্ডলী সদস্য ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, সামছুন্নাহার চাপা, কার্যনির্বাহী সদস্য ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, আনোয়ার হোসেন, সাহাবুদ্দিন ফরাজী, ইকবাল হোসেন অপু, আনিসুর রহমান, মেরিনা জাহান কবিতা ও পারভিন জামান কল্পনা।

যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলনের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদারের পরিচালনায় জনসভায় বক্তব্য রাখেন বাগেরহাট-১ (চিতলমারী, মোল্লাহাট, ফকিরহাট) আসনের সংসদ সদস্য শেখ হেলাল উদ্দিনসহ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতারা।


আরও খবর



হিট-ফ্লপের বাইরের তারকা শাহরুখ

প্রকাশিত:রবিবার ০৬ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৬৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

তিন বছর হলো পাঠানের কোনো খোঁজ নেই-এভাবেই শুরু হয় শাহরুখ খানের নতুন সিনেমা পাঠানের টিজার। পাঠান তিন বছর ধরে নিখোঁজ, তবে শাহরুখকে থিয়েটারে পাওয়া যাচ্ছে না প্রায় পাঁচ বছর। ২০১৮ সালে মুক্তি পাওয়া জিরোর পর ২০২৩ সালের জানুয়ারিতে আসছে পাঠান। মাঝখানে দীর্ঘ বিরতি। একাধিক সিনেমায় ক্যামিও করেছেন, হয়েছেন প্রশংসিত কিন্তু পুরনো শাহরুখ তো সেখানে নেই। লাভার বয় হোক বা ডন-কিং খানকে বলিউডে পাওয়া যাচ্ছে না। তবে শাহরুখ তো শাহরুখ। রীতিমতো একটা ব্র্যান্ড। তাই জওয়ান বা পাঠানের পোস্টার, টিজার এমনকি লুক আসতে না আসতে শুরু হয় তোলপাড়। সে ধারাবাহিকতায়ই ৫৭তম জন্মদিনে মুক্তি পেল পাঠানের টিজার। পাইপলাইনে আছে জওয়ান ও ডাঙ্কি।

‘‌শাহরুখের ক্যারিয়ার শেষ-এমন একটা কথা কয়েক বছর ধরে মিডিয়ায় খুব প্রচারিত। কেননা ১২ বছরে তার কোনো সিনেমা শাহরুখের ক্যালিবার অনুসারে না হয়েছে ‌ভালো সিনেমা, না ‌ব্যবসাসফল। পুরো ভারত যখন দক্ষিণী সিনেমার প্রশংসা করে মুখে ফেনা তুলে বলিউডের সৎকার করে ফেলছে, সে সময় শাহরুখের আসন্ন দুটো সিনেমা নিয়ে সেই দর্শকরাও আগ্রহী। এটা শাহরুখের স্টারডম নয়, তার প্রতি দর্শকের আশাবাদ। কেননা ৩০ বছরের ক্যারিয়ারে শাহরুখ খান বলিউড ও ভারতীয় সিনেমাকে যা দিয়েছেন, এমনকি বহির্বিশ্বে ভারতীয় সিনেমাকে যেভাবে প্রমোট করেছেন, তা বলিউড বা ভারতের অন্য কোনো সিনেমা স্টারের পক্ষে সম্ভব হয়নি। ভক্তদের কাছে তার আবেদন তো অন্য মাত্রার।

১২ বছর শাহরুখের কোনো ভালো সিনেমা আসেনি বলাটা ভুল। ডন টু সে হিসেবে খারাপ সিনেমা নয়। ব্যবসাও তুলনামূলক কম করেনি। রইসের প্রতি দর্শকের এক ধরনের আগ্রহ ছিল। সিনেমা হিসেবে ডিয়ার জিন্দেগি সময়োপযোগী। এর মধ্যেই শাহরুখ করেছিলেন ফ্যানের মতো নিরীক্ষাধর্মী সিনেমা, যা ওটিটি যুগের আগে এবং ওটিটি যুগেও পড়তি ক্যারিয়ার বাদে কোনো স্টার ধরার সাহস করতেন না। প্রশংসা পেলেও অবশ্য বক্স অফিসে সিনেমাটি খুব ভালো করেনি। জাব হ্যারি মেট সেজাল বা দিলওয়ালের মতো সিনেমা শাহরুখ কেন করলেন, তা অবশ্য অনেকেরই প্রশ্ন। বিগত দিনগুলোয় তার স্ক্রিপ্ট বাছাই ভুল ছিল বলে এক বাক্যে মন্তব্য করে থাকেন সবাই।

কিন্তু শাহরুখ নতুন কী করবেন? করার হয়তো অনেক কিছুই ছিল। কিন্তু শাহরুখ খান মূলত সময় থেকে এগিয়ে। অনেক কিছু তিনি আগেই করে ফেলেছেন। ২০১১ সালে তার করা রা. ওয়ান বক্স অফিস বা দর্শকের কাছে পাত্তা পায়নি। ২০২২ সালে এসে বিগ বাজেট সিনেমা আদিপুরুষের ভিএফএক্স দেখে দর্শকরা বলছেন রা. ওয়ান থেকে তাদের শেখা উচিত ছিল। বলিউডে যখন দক্ষিণী সিনেমার রিমেক চলছে, শাহরুখ তখন দক্ষিণ ভারতের যুক্ত গল্পে নির্মিত চেন্নাই এক্সপ্রেসে অভিনয় করেছিলেন। ফ্যানের মতো সিনেমা করেছেন তিনি। একজন সুপারস্টারের জন্য এ রকম আউট অব দ্য বক্স সিনেমায় (ফ্যানডম নিয়ে নির্মিত) অভিনয় করাতে ‌রিস্ক থাকে। কিন্তু রিস্ক কবে নেননি শাহরুখ? নব্বইয়ের দশকে শাহরুখ যখন লাভার বয় হিসেবে স্বীকৃত, সে সময় তিনি ডর, আনজামের মতো সিনেমায় খল চরিত্রে অভিনয় করেছেন। সুপারস্টার হয়েছেন বহু আগে, তার পরও ক্যামিওতে তাকে দেখা গিয়েছে বারবার।

সিনেমাকে বর্তমানে ব্যবসার মানদণ্ডে মাপা হয়। কোনো কোনো ক্ষেত্রে গল্প বা স্ক্রিপ্টের আলোচনা আনেন অনেকে কিন্তু আদতে হলিউড বা বলিউডে আয়টাই মূল। সেদিক থেকে হিসাব করলে বহু ব্যবসাসফল সিনেমা আছে শাহরুখের। কিন্তু তার চেয়ে বেশি যা আছে, তা হলো অভিনয়গুণ। অবশ্য বলিউডে নিজের শতভাগ গুণ তিনি দেখাতে পেরেছেন এমন নয়, কিন্তু যা দিয়েছেন, তাও কম নয়। বেশ কয়েকটা প্রজন্মকে রোম্যান্স শিখিয়েছেন শাহরুখ। অ্যাকশনেও কম যাননি। ভেবেছেন ভিন্ন ধারায়। এমনকি তৈরি করেছেন অভিনেতা, পরিচালক। মন্দিরা বেদী থেকে দীপিকা পাড়ুকোন, আনুশকা শর্মা; আজকের জিশান আইয়ুব, জয়দীপ আহেলওয়াতরা শাহরুখের কথা বলেন এবং তারাই বলেন, আরো বহুদিন শাহরুখ খান বাদশার মতোই রাজত্ব করবেন। তিনি ফ্লপ কিংবা হিটের বাইরের এক তারকা।

নিউজ ট্যাগ: শাহরুখ খান

আরও খবর



টাকার মান কমা ভালো: পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৮ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২ | ৫৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রপ্তানি বাড়াতে ডলারের বিপরীতে টাকার মান কমা ভালো বলে মন্তব্য করেছেন পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম। আজ মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভা শেষে সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা তুলে ধরেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান ও প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম। তখন এ মন্তব্য করেন পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী।

সংবাদ সম্মেলনে পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী ড. শামসুল আলম বলেন, ডলারের সরবরাহ বাড়াতে টাকার মান কমাতে হবে। আমরা চাচ্ছি দেশে আরও ডলার সরবরাহ হোক। এক্সপোর্ট (রপ্তানি) ও প্রবাসী আয় বৃদ্ধির জন্য টাকার মান কমা ভালো। টাকার মান ও এক্সচেঞ্জ রেট সমন্বয় করতে হবে। ডলারের সরবরাহ বাড়াতে হলে টাকার মান কমাতে হবে।

দেশে রেমিট্যান্স সরবরাহ কমেনি দাবি করে  প্রতিমন্ত্রী বলেন, জুলাই-অক্টোবরে সর্বশেষ ৭ দশমিক ১৯৮ বিলিয়ন ডলার রেমিট্যান্স এসেছে। জুলাই থেকে অক্টোবরে বেশি পেয়েছি। রেমিট্যান্স কমছে কথাটা সত্য না। এক্সপোর্ট ১৬ দশমিক ৮৫ বিলিয়ন হয়েছে। গত মাসের থেকে এটা বেড়েছে। আমরা বিপদে নেই। উচ্চ মূল্যস্ফীতি সারা দুনিয়া ফেস করছে, আমরাও করছি।

দেশের রিজার্ভ নিয়ে আইএমএফের তথ্যে দ্বিমত পোষণ করেন ড. শামসুল আলম। তিনি বলেন, আইএমএফ একমত না হলে কিছু আসে যায় না। প্রথাগতভাবে সরকার রিজার্ভ রক্ষা করছে। সরকার কোথাও কিছু লুকায়নি। 

নিউজ ট্যাগ: ড. শামসুল আলম

আরও খবর

আরেক দফা বাড়ল এলপিজির দাম

রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২




নিউজিল্যান্ডকে বিদায় করে ফাইনালে পাকিস্তান

প্রকাশিত:বুধবার ০৯ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৭২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সেমিফাইনালের মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে ৭ উইকেটে হারিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে পাকিস্তান।আগামীকাল বৃহস্পতিবার ইংল্যান্ডের মুখোমুখি হবে ভারত। সেই ম্যাচে যারা জিতবে তারা পাকিস্তানের সঙ্গে রোববার মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ফাইনালে মুখোমুখি হবে।

আজ বুধবার সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে সেমিফাইনালের মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে টস জিতে চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়তে পারেনি নিউজিল্যান্ড। ৪ উইকেট হারিয়ে কিউইরা করে ১৫২ রান। দলের হয়ে ৩৫ বলে সর্বোচ্চ ৫৩ রান করেন ড্যারেল মিচেল। এছাড়া ৪২ বলে ৪৬ রান করেন অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন।

১৫৩ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে উড়ন্ত সূচনা করে পাকিস্তান। মোহাম্মদ রিজওয়ানকে সঙ্গে নিয়ে ১২.৪ ওভারে ১০৫ রানের জুটি গড়েন অধিনায়ক বাবর আজম। ৩৮ বলে ফিফটি পূর্ণ করার পর ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে বাউন্ডারির কাছে ক্যাচ তুলে দিয়ে ফেরেন বাবর। তার আগে ৪২ বলে ৫৩ রান করেন পাকিস্তানের এই অধিনায়ক।

বাবর আজম আউট হওয়ার পর ফিফটি পূর্ণ করে ৪৩ বলে ৫টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৫৭ রান করে ফেরেন আরেক ওপেনার মোহাম্মদ রিজওয়ান। এরপর শান সামুদকে সঙ্গে নিয়ে ৫ বল আগেই দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন মোহাম্মদ হারিস।   


আরও খবর

রোনালদোকে টপকে গেলেন মেসি

রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২




ডেঙ্গুতে আজও পাঁচজনের মৃত্যু, শনাক্ত ৭৯৬

প্রকাশিত:বুধবার ০৯ নভেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ৬৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে আরও পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। ডেঙ্গুতে গতকালও পাঁচজন মারা যায়। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ১৮৭ জনে।

আজ বুধবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের ইনচার্জ ডা. মো. জাহিদুল ইসলাম স্বাক্ষরিত প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ডেঙ্গুতে আরও ৭৯৬ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। এ নিয়ে সারা দেশে হাসপাতালে ভর্তি ডেঙ্গুরোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ৩ হাজার ১৪৪ জনে।

গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন আক্রান্তদের মধ্যে ঢাকায় ৪৫৯ জন ও ঢাকার বাইরে ৩৩৭ জন। এদিকে এ পর্যন্ত চলতি বছরে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ৪৫ হাজার ৫৯৮ জন এবং সুস্থ হয়েছে ৪২ হাজার ২৬৭ জন।


আরও খবর



বিএনপির সমাবেশে লোক নেই, মাঠ ফাঁকা: ওবায়দুল কাদের

প্রকাশিত:শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:রবিবার ০৪ ডিসেম্বর ২০২২ | ১৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, রাজশাহীতে বিএনপির বিভাগীয় সমাবেশ হচ্ছে, জনসমাগম নেই, মাঠ ফাঁকা। আর ময়মনসিংহ জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে জনতার ঢল। তিল ধারণের ঠাঁই নেই। শনিবার আওয়ামী লীগ ময়মনসিংহ জেলা ও মহানগর শাখার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের উদ্বোধন শেষে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আগামী নির্বাচনে খেলা হবে হাওয়া ভবনের বিরুদ্ধে, দুর্নীতির বিরুদ্ধে। খেলা হবে লুটপাটের বিরুদ্ধে, খেলা হবে এই ডিসেম্বর বিজয়ের মাসে। আন্দোলন হলে রাজপথ, জনপথ, শহর, পাড়া-মহল্লা ইউনিয়ন ও জেলা পর্যায়ে নেতাকর্মীরা অবস্থান নেবে।

এর আগে শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় জাতীয় সঙ্গীতের মাধ্যমে দলীয় ও জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে ময়মনসিংহ জেলা ও মহানগর শাখার ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের উদ্বোধন হয়।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট জহিরুল হক খোকার সভাপতিত্বে এবং জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহিত উর রহমান শান্ত সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন দলের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক, দলের যুগ্ম সম্পাদক শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি, দলের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, মির্জা আজম এমপি ও শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল, সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল এমপি, সদস্য মারুফা আক্তার পপি ও রেমন্ড আরেং, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী শরীফ আহমেদ এমপি, সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ প্রমুখ নেতারা।  


আরও খবর