Logo
শিরোনাম

বাড়তে পারে গ্যাস-বিদ্যুতের দাম

প্রকাশিত:শুক্রবার ১২ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ | ৮৬০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আসন্ন শীত মৌসুমে গ্যাসের চাহিদা বাড়ছে। তবে কমছে গ্যাস উৎপাদন। আন্তর্জাতিক বাজারে এলএনজির (তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস) দাম বৃদ্ধির কারণে আমদানি কমেছে। এ অবস্থায় শীতে কমপক্ষে ৪০ শতাংশ বাড়তি চাহিদা মেটানোর মতো বিকল্প ব্যবস্থা নেই। ফলে আসন্ন শীত মৌসুমে তীব্র গ্যাস সংকটের আশঙ্কা রয়েছে।

সংশ্লিষ্টরা বলেছেন, বাড়তি গ্যাসের জোগান দিতে আমদানি করা এলএনজি এখন একমাত্র ভরসা। কিন্তু সেই এলএনজির দামও আন্তর্জাতিক বাজারে ৫ গুণ বেড়েছে। চলতি অর্থবছরের বাজেটে দেশের জ্বালানি খাতের জন্য ভর্তুকি বাবদ বরাদ্দ রয়েছে এক হাজার কোটি টাকা।

অথচ গত ৭ মাসেই আন্তর্জাতিক বাজার থেকে এলএনজি কিনতে গিয়ে প্রায় ১০ হাজার কোটি টাকা ক্ষতির মুখে পড়েছে সরকার। এরই মধ্যে তেলের দাম বাড়ানো হয়েছে। বিশেষজ্ঞরা বলেছেন, আন্তর্জাতিক বাজারে তেল ও গ্যাসের দামের বর্তমান পরিস্থিতি বজায় থাকলে ক্ষতির মাত্রা কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে তা বলা কঠিন।

এমন পরিস্থিতিতে দেশের বাজারে গ্যাসের দাম বাড়তে পারে। আর গ্যাসের দাম বাড়লে বিদ্যুতের দামও বাড়বে। সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য জানা গেছে।

শীতের শুরুতে দেশের বিদ্যুৎ কেন্দ্র, সার ও শিল্পকারখানায় গ্যাসের চাহিদা ক্রমশ বাড়ছে। কিন্তু সে অনুযায়ী সরবরাহ বাড়ানো যাচ্ছে না। এতে সক্ষমতা থাকলেও পুরোপুরি উৎপাদনে যেতে পারছে না গ্যাসভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলো।

কোনো কোনোটি দিনের পর দিন বন্ধই রাখতে হচ্ছে। এছাড়া গ্যাস বিতরণ কোম্পানিগুলোতে নতুন সংযোগ ও লোড বৃদ্ধির আবেদনের স্তূপ পড়েছে। সরবরাহ না থাকায় এর কোনো সুরাহা হচ্ছে না।

পেট্রোবাংলার হিসাব অনুযায়ী বৃহস্পতিবার দেশের গ্যাস ক্ষেত্রগুলো থেকে ৩ হাজার ৪২ ঘনফুট এমএমসিএফডি গ্যাস উৎপাদিত হয়েছে। কিন্তু বিতরণ করা হয়েছে ২৯১৩ ঘনফুট এমএমসিএফডি।

এরমধ্যে বিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলোতে সরবরাহ করা হয়েছে ১০৯১ ঘনফুট। যা মোট গ্যাস বিতরণের ৩৭ শতাংশ। যদিও পাওয়ার প্ল্যান্টগুলোর দিনে চাহিদা ছিল ২২৫২ ঘনফুট গ্যাস। এছাড়া সার কোম্পানিগুলোর দিনে চাহিদা ছিল ৩১৬ ঘনফুট গ্যাস।

বিতরণ করা হয়েছে ১২৮ ঘনফুট। মোট বিতরণের ৪ শতাংশ সরবরাহ করা হয়েছে। শিল্পকারখানাসহ অন্যান্য সব খাতে বিতরণ করা হয়েছে ১৬৯৫ ঘনফুট গ্যাস। যা মোটা বিতরণের ৫৮ শতাংশ।

সম্প্রতি বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ গণমাধ্যমকে বলেছেন, সারা দুনিয়াতে তেল, গ্যাস, কয়লার দাম বেড়ে গেছে। অনেক দেশ টাকা দিয়েও এসব পণ্য কিনতে পারছে না।

বহু দেশে বিদ্যুৎ উৎপাদন সংকটে পড়েছে, তীব্র লোডশেডিংয়ে পড়েছে অনেক ধনী দেশও। কিন্তু এখন পর্যন্ত বাংলাদেশে সংকট হয়নি। আগামীতেও আমাদের তেল ও আমদানি করা এলএনজিতে সংকট হবে না।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভূতত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক ও জ্বালানি বিশেষজ্ঞ বদরুল ইমাম বলেন, কয়েক বছর পরপর ছোট একটি-দুটি গ্যাসক্ষেত্র আবিষ্কার তেমন কোনো গুরুত্ব বহন করে না।

অনুসন্ধানে বাড়তি জোর না দেওয়াই সরকারের সবচেয়ে বড় ভুল। তিনি বলেন, কম সম্ভাবনা নিয়েও অনেক দেশ এর চেয়ে বেশি অনুসন্ধান চালায়।

 

 

নিউজ ট্যাগ: গ্যাস-বিদ্যু

আরও খবর

বিশ্ববাজারে কমেছে স্বর্ণের দাম

শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১




শিগগির সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনীর রিভিউ শুনানি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১৬ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৭৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশের প্রায় পাঁচ মাস পর ২০১৭ সালের ২৪ ডিসেম্বর ষোড়শ সংশোধনী নিয়ে আপিল বিভাগের দেওয়া রায় রিভিউ (পুনর্বিবেচনা) চেয়ে আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ

শিগগির সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনীর উচ্চ আদালতের আদেশের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রপক্ষের রিভিউ আবেদনের বিষয়ে শুনানি হবে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

তিনি বলেন, সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের মামলাটি বর্তমানে আপিল বিভাগে রিভিউর জন্য আছে। আমরা সুপ্রিম কোর্টের রুলসের error apparent on the face of the record গ্রাউন্ডে এ রিভিউ চেয়েছি। এ মামলায় রিভিউর জন্য আমাদের যথেষ্ট মেরিটও আছে। মামলাটি শুনানির জন্য আমরা এরই মধ্যে আপিল বিভাগের কাছে অনুরোধ জানিয়েছি। আপিল বিভাগ আমাদের জানিয়েছে, শিগগির এ মামলার শুনানি হবে।

মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) সংসদে পাসের জন্য উত্থাপিত বিরোধীদলীয় নেতা ও উপনেতা (পারিতোষিক ও বিশেষাধিকার) বিল-২০২১ বাছাই কমিটিতে পাঠানোর প্রস্তাবের ওপর আলোচনাকালে এ কথা জানান তিনি।

এর আগে বিলটি বাছাই কমিটিতে পাঠানোর প্রস্তাবের ওপর আলোচনাকালে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য মুজিবুল হক চুন্নু ১৬তম সংশোধনীর রিভিউর সর্বশেষ কী অবস্থা তা জানতে চান।

২০১৭ সালের ৩ জুলাই সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী অবৈধ ও বাতিল ঘোষণা করে রায় দেন আপিল বিভাগ। ওই রায়ে হাইকোর্টের রায়ের কিছু পর্যবেক্ষণ এক্সপাঞ্জ করে রাষ্ট্রপক্ষের আপিল সর্বসম্মতভাবে’ খারিজ করে দেওয়া হয়। পরে একই বছরের ১ আগস্ট এ মামলার পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশিত হয়। পূর্ণাঙ্গ রায় প্রকাশের প্রায় পাঁচ মাস পর ২০১৭ সালের ২৪ ডিসেম্বর ষোড়শ সংশোধনী নিয়ে আপিল বিভাগের দেওয়া রায় রিভিউ (পুনর্বিবেচনা) চেয়ে আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ।

২০১৭ সালের ২৪ ডিসেম্বর এ আবেদন দায়েরের পর কেটে গেছে তিন বছরেরও বেশি সময়। রিভিউ আবেদনটি এখনো আপিল বিভাগে শুনানির অপেক্ষায় আছে।

এর আগে ২০১৪ সালে অসামর্থ্যতা ও অযোগ্যতার কারণে বিচারপতিদের অপসারণের ক্ষমতা সংসদের হাতে ফিরিয়ে নিয়ে সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনীটি জাতীয় সংসদে পাস করা হয়। সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিলের হাতে এ ক্ষমতা ছিল। এরপর সংশোধনীটির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে ৯ জন আইনজীবী রিট দায়ের করেন। পরে হাইকোর্ট সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে সংশোধনীটি বাতিল ও অসাংবিধানিক ঘোষণা করে রায় দেন। ওই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করে রাষ্ট্রপক্ষ।


আরও খবর



নতুন সিনেমায় তাহসান-বাঁধন জুটি

প্রকাশিত:সোমবার ২২ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৫৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বড় পর্দায় কাজের ধারাবাহিকতা রেখে আবারও সিনেমায় যুক্ত হলেন তাহসান। নাম আ ব্লেসড ম্যান। এটি নির্মাণ করবেন বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নির্মাতা সাদিক আহমেদ। রোববার (২১ নভেম্বর) রাতে ফেসবুকে ভিডিও বার্তায় সিনেমাটির কথা জানান তাহসান।

তিনি বলেন, রেডি হয়েছি একটি কনসার্ট আছে। কিন্তু বের হওয়ার আগেই দেখি বাসায় একটি কেক। অ্যাপল বক্স ফিল্মস থেকে এসেছে কেকটা। একটা খবর জানানোর জন্যই এই পোস্টটা করছি। নতুন সিনেমা আ ব্লেসড ম্যান-এর কাজ শুরু হতে যাচ্ছে। আপনাদের কাছে আমরা দোয়া চাচ্ছি। এই সিনেমায় কাজ করছেন বিশ্ব জয় করে আসা আমাদের সবার প্রিয় অভিনেত্রী আজমেরী হক বাঁধন। তার সঙ্গে আছি আমি। আমাকে যে কেন নিলো! পরিচালনা করছেন সাদিক আহমেদ। খুব মেধাবী একজন ব্রিটিশ নির্মাতা। তিনি ইতোমধ্যে দেশে এসেছেন। তার সঙ্গে বৈঠক হয়েছে।

সিনেমাটির গল্প নিয়ে দারুণ উচ্ছ্বসিত তাহসান। বললেন, চিত্রনাট্য সত্যিই অসাধারণ। বাংলা সিনেমা অনেকভাবে আমরা দেখেছি, কিন্তু সাদিক আহমেদের দেখার ভঙ্গিমা একেবারে আলাদা।

অন্যদিকে একইভাবে ঘোষণা দিয়েছেন অভিনেত্রী আজমেরী হক বাঁধনও। তিনি বলেছেন, এ সিনেমার গল্পটি দারুণ। আর আমার চরিত্রটি অসম্ভব রকমের পছন্দ হয়েছে। অনেক চ্যালেঞ্জিং একটা চরিত্র। প্রায় সব কিছুর প্রস্তুতি নেওয়া শেষ। কিছু দিনের মধ্যেই আমরা শুটিং শুরু করব।

বেশ কিছু দিন ধরেই দেখা যাচ্ছে, বাঁধন তার ওজন কমাচ্ছেন। সেই রহস্যটাও ফাঁস করলেন তিনি। বললেন, আমার শারীরিক ওজন কেন কমে যাচ্ছে এ প্রশ্ন অনেকেই করেছেন। এর পেছনে মূল কারণ, এই সিনেমা, এর চরিত্র। এর জন্য আরও ওজন কমাতে হবে।

নিউজ ট্যাগ: তাহসান-বাঁধন

আরও খবর



সিনহার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করায় নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে চার্জশিট

প্রকাশিত:সোমবার ০১ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৯৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মিথ্যা তথ্য দিয়ে সাবেক প্রধান বিচারপতি এস কে সিনহার বিরুদ্ধে মামলা করার অভিযোগে সাবেক যোগাযোগমন্ত্রী ব্যারিস্টার নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করেছে দুদক। সম্প্রতি ঢাকার সিনিয়র স্পেশাল জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদালতে এ চার্জশিট দাখিল করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের পরিচালক মো. বেনজীর আহম্মেদ।

সোমবার (১ নভেম্বর) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আদালতের সাধারণ নিবন্ধন শাখার কর্মকর্তা জুলফিকার হোসেন।

সাবেক প্রধান বিচাপতি এস কে সিনহার বিরুদ্ধে ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা ঘুষ নেওয়ার যে অভিযোগ করেছিলেন, তার কোনও প্রমাণ পাননি তদন্ত কর্মকর্তা। এ কারণে উল্টো নাজমুল হুদার বিরুদ্ধেই আদালতে অভিযোগপত্র দিয়েছে দুদক।

২০১৮ সালের ২৭ সেপ্টেম্বর ব্যারিস্টার নাজমুল হুদা বাদী হয়ে শাহবাগ থানায় এস কে সিনহার বিরুদ্ধে একটি মামলা করেন।

মামলার অভিযোগে তিনি বলেছিলেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে তার বিরুদ্ধে হওয়া একটি মামলা উচ্চ আদালতে ডিসমিস করার পরও প্ররোচিত হয়ে মামলাটির রায় পরিবর্তন করা হয়। মামলাটি ডিসমিস করতে দুই কোটি টাকা এবং অন্য একটি ব্যাংক গ্যারান্টির আড়াই কোটি টাকার অর্ধেক ১ কোটি ২৫ লাখ টাকা ঘুষ চান এসকে সিনহা।

পরে মামলাটির তদন্ত শুরু করে দুদকে। দীর্ঘ দেড় বছর তদন্ত করে এসকে সিনহার বিরুদ্ধে নাজমুল হুদার মামলাটি মিথ্যা প্রমাণিত হয়। আর মিথ্যা তথ্য দেওয়ার অভিযোগে উল্টো ব্যারিস্টার নাজমুল হুদার বিরুদ্ধেই মামলা করে দুদক।

দুদক আইনের ২৮-এর ২ ধারায় বলা হয়েছে, কেউ যদি মিথ্যা তথ্য দিয়ে অভিযোগ দায়ের করে আর সেটি যদি তদন্তে বেরিয়ে আসে তাহলে অভিযোগ দায়েরকারীর বিরুদ্ধে মামলা করা হবে। এ ক্ষেত্রেও তাই হয়েছে। যেহেতু অভিযোগটি প্রমাণিত হয়নি তাই তার বিরুদ্ধে মামলা করে দুদক।

পরে ২০২০ সালের ১৯ ফেব্রুয়ারি ঢাকা বিভাগীয় কার্যালয়-১-এ নাজমুল হুদার বিরুদ্ধে মামলাটি দায়ের করেন সংস্থাটির পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেন।


আরও খবর



পিরোজপুরে মাদ্রাসা ছাত্র রাফি চার দিন ধরে নিখোঁজ

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৬ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৪২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পিরোজপুর সদর উপজেলার ধুপপাশা কেরাতুল হাফেজীয়া মাদ্রাসার এক শিক্ষার্থী ৪ দিন ধরে নিখোঁজ রয়েছে। মাদ্রাসা থেকে গত ৪ দিন আগে বের হয়ে সে আর ফিরে আসেনি বলে জানা গেছে।

নিখোঁজ মো. রেজওয়ান আহম্মেদ রাফি (১৫) জেলার সদর উপজেলার পূর্ব শিকারপুর (মুসলিম পাড়া) এলাকার মো. কাবিল হাওলাদারের পুত্র।

রাফির বাবা কাবিল হাওলাদার নিখোঁজের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আমি ২২ নভেম্বর ধুপপাশা কেরাতুল হাফেজীয়া মাদ্রাসায় খোঁজ নিয়ে জানতে পারি আমার ছেলে রাফি ২১ নভেম্বর সন্ধ্যায় মাদ্রাসা থেকে বাড়ির উদ্দেশ্যে বের হয়। তবে সে বের হয়ে আজও বাড়িতে ফেরে নি। আমি অনেক জায়গায় খোঁজ নিয়েও তাকে পাইনি। পরে পিরোজপুর সদর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছি।

ধুপপাশা কেরাতুল হাফেজীয়া মাদ্রাসার পরিচালক গোলাম মাওলা রসুল বলেন, রাফি প্রায়ই এমন করে বাড়িতে যায়। ওই দিন সে আমার অনুপস্থিতে মাদ্রাসা থেকে বের হয়ে ছাত্র জিহাদের কাছে বলে বাড়িতে গেছে। পরদিন রাফির বাবা মাদ্রাসায় খোঁজ নিলে আমি বলেছি যে রাফি বাড়িতে যাওয়ার কথা বলে বের হয়েছে। তারপর শুনি সে নিখোঁজ।

পিরোজপুর সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আ. জা. মো. মাসুদুজ্জামান জানান, এ ঘটনায় নিখোঁজ শিক্ষার্থী রাফির বাবা থাকায় একটি জিডি করেছেন। পুলিশ নিখোঁজ শিক্ষার্থীর সন্ধানে কাজ করে যাচ্ছে।


আরও খবর



পাকিস্তান সহ ছয় দেশের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা তুলে নিল সৌদি

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৬ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ | ৩৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ছয় দেশের নাগরিকদের ওপর থেকে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করে নিয়েছে সৌদি আরব।  কোভিড-১৯ মহামারি ছড়িয়ে পড়ার পর এই নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছিল।

বৃহস্পতিবার সৌদির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানায়।  ইন্দোনেশিয়া, পাকিস্তান, ব্রাজিল, ভিয়েতনাম, মিসর, ও ভারতের নাগরিকদের মধ্যে যারা করোনার টিকার পূর্ণ ডোজ নিয়েছেন তারা সৌদি ভ্রমণ করতে পারবেন।  তাদের ক্ষেত্রে এখন থেকে ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টিন করা লাগবে না।  ১ ডিসেম্বর থেকে এই নীতি কার্যকর হবে।  


আরও খবর