Logo
শিরোনাম

বছরের প্রথম সূর্যগ্রহণ ও ‘ব্ল্যাক মুন’ ৩০ এপ্রিল

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৯ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৯৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

চলতি বছরে দুটি সূর্যগ্রহণ দেখবে বিশ্ববাসী। তার একটি এ মাসেই, অন্যটি হবে অক্টোবরে। চলতি বছরের প্রথম সূর্যগ্রহণটি ঘটতে চলেছে ৩০ এপ্রিলে। যদিও এটি পূর্ণগ্রাস নয়, আংশিক সূর্যগ্রহণ।

বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে এটি দেখা গেলেও বাংলাদেশ থেকে দেখা যাবে না। গ্রহণ সব সময়ই খুব বিরল এক মহাজাগতিক ঘটনা। তবে এবারই প্রথম এই গ্রহণের সঙ্গে ঘটছে আরও এক বিরল মহাজাগতিক ঘটনা। সেটি হল ব্ল্যাক মুন। নাসা বলেছে, এ ব্ল্যাক মুনই এবারে সূর্যকে ঢাকবে।

ব্ল্যাক মুন খুব বিরল এক মহাজাগতিক ঘটনা। ২০২১ সালে এ ঘটনার মুখোমুখি আমরা হইনি। এর নানা ব্যাখ্যা দিয়েছেন মহাকাশবিদেরা। কেউ একে বলেন, নিউ মুন, কেউ বলেন কোনো এক অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল সিজনের থার্ড মুন, একই ক্যালেন্ডার মান্থে এটিকে সেকেন্ড নিউ মুনও কেউ কেউ বলেন।

৩০ এপ্রিল রাত ১২টা ১৫ মিনিটে গ্রহণ শুরু হয়ে মধ্যরাত পর্যন্ত চলতে থাকবে। এবারের এ সূর্যগ্রহণ বাংলাদেশসহ এশিয়া থেকে দেখা যাবে না। গ্রহণ দেখা যাবে আর্জেন্টিনা, পেরু, বলিভিয়া, উরুগুয়ে, ব্রাজিলের একাংশ, আন্টার্কটিকা, ফকল্যান্ড থেকে।


আরও খবর



শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে বিরোধীদের আনা অনাস্থা প্রস্তাব খারিজ

প্রকাশিত:বুধবার ১৮ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৩৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দাদা পারেননি, ভাই পারলেন। বিরোধীদের প্রবল চাপের মুখে চলতি মাসেই প্রধানমন্ত্রী পদে ইস্তফা দিয়েছিলেন মাহিন্দা রাজাপক্ষে। অর্থনৈতিক সঙ্কটে জর্জরিত শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষে কিন্তু সে দেশের পার্লামেন্টে বিরোধীদের আনা অনাস্থা প্রস্তাব ঘিরে ভোটাভুটিতে জয়ী হলেন।

মঙ্গলবার শ্রীলঙ্কার পার্লামেন্টে অনাস্থা প্রস্তাবের পক্ষে পড়েছে ৬৮টি ভোট। বিপক্ষে ১১৯টি। সংখ্যালঘু তামিলদের রাজনৈতিক দল তামিল ন্যাশনাল অ্যালায়ান্স-এর এক পার্লামেন্ট সদস্যের আনা ওই অনাস্থা প্রস্তাব প্রধান বিরোধী দল এসজেপি সমর্থন করলেও শাসক দল এসএলপিপি এবং সদ্য-মনোনীত প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমসিঙ্ঘের দল ইউএনপি বিরোধিতা করে।

প্রসঙ্গত, গত কয়েক মাস ধরেই অর্থনৈতিক সঙ্কটে ভুগছে শ্রীলঙ্কা। তার জন্য মাহিন্দা এবং তাঁর ভাই তথা শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট গোতাবায় দায়ী বলে অভিযোগ আন্দোলনকারীদের। সরকার সমর্থক ও বিরোধীদের সংঘর্ষে বেশ কিছু মানুষের মৃত্যুও হয়েছে। সামগ্রিক পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে গত সপ্তাহে সেনা এবং পুলিশের হাতে ক্ষমতা তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া।


আরও খবর



বাজার এসেছে রাজশাহীর আম

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৩ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৬৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাজশাহীতে গুটিজাতের আম নামানো শুরুর মধ্যদিয়ে আম কেনাবেচা শুরু হয়েছে। শুক্রবার (১৩ মে) সকাল থেকে আম চাষিরা গাছ থেকে আম নিয়ে বাজারজাত করছেন। তবে খুব অল্প পরিমাণে এই আম পাওয়া যাচ্ছে।

রাজশাহী বানেশ্বর বাজারে সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, গুটিজাত আম বিক্রি হচ্ছে প্রতি মণ আম ১ হাজার ১৪শ' টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। তারপরও হাটে আম ক্রেতা-বিক্রেতার দেখা নেই।

আম ব্যবসায়ী নয়ন বলেন, জেলা প্রসাশনের পক্ষ থেকে গাছের আম নামানোর নির্দিষ্ট সময়সীমা বেঁধে দিলেও এখনও আম পরিপক্ক হয়নি। ফলে এখন হাট বাজারে আম আসেনি।

সরুজ আলী নামে অপর আম ব্যবসায়ী বলেন, হাটে যে অল্প সংখ্যক আম এসেছে সেগুলোর বেশির ভাগই পাকেনি। এ আম পরিপক্ক হতে সময় লাগবে। বাজার জমতে আরও বেশ কিছুদিন সময় লাগবে।

এদিক, আম নামানোর প্রথম দিনে রাজশাহীর মহানগরীর বাজারের দু-একটি দোকান ছাড়া আম তেমন কোনো দোকানে চোখে পড়েনি। সেখানকার ক্রেতারা বলছেন আমের দাম অনেকটা বাড়তি।

উল্লেখ্য, রাজশাহীতে গাছ থেকে আম নামানোর সময়সূচি নির্ধারণ করেছে রাজশাহী জেলা প্রশাসন। মূলত তিনধাপে পর্যায়ক্রমে ২০ মে গোপালভোগ, ২৫ মে লক্ষণভোগ, ২৫ মে রাণিপছন্দ, ২৮ মে খিরসাপাত-হিমসাগর, ৬ জুন ল্যাংড়া, ১৫ জুন আম্রপালি ও ফজলি, ১০ জুলাই বারি-৪ ও আশ্বিনা, ১৫ জুলাই গোলমতী, ২০ আগস্ট ইলমতি আম নামাতে পারবেন আম চাষিরা। এ বছর ১৮ হাজার হেক্টর জমিতে থাকা বাগান থেকে দুই লাখ ১৬ হাজার টন আম উৎপাদন হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

রাজশাহীতে চলতি মৌসুমে ১৮ হাজার ৫১৫ হেক্টর জমিতে আম চাষ হয়েছে। আর ২ লাখ ১৪ হাজার ৬৭৬ টন আম উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।

সেই হিসাবে চলতি মৌসুমে রাজশাহীতে ৯০০ কোটি টাকার বেশি কোনাবেচা হবে বলে জানিয়েছেন রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর।

নিউজ ট্যাগ: রাজশাহীর আম

আরও খবর



১১০ টাকায় ভোজ্যতেল বিক্রির ঘোষণা স্থগিত

প্রকাশিত:সোমবার ১৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৪১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

১৬ মে থেকে খোলাবাজারে ১১০ টাকা লিটার সয়াবিন তেলসহ অন্যান্য পণ্য বিক্রি শুরু করার কথা ছিল ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি)। কিন্তু রোববার (১৫ মে) সন্ধ্যায় হুট করেই সেই কার্যক্রম স্থগিত করে বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে সংস্থাটি।

সংস্থাটি বলছে, রাজধানীতেও এখন শুধু ফ্যামিলি কার্ডে পণ্য দেওয়া হবে। খোলাবাজারে ট্রাকে করে আর পণ্য বিক্রি হবে না। ফ্যামিলি কার্ড কার্যক্রম বাস্তবায়নে সোমবার (১৬ মে) থেকে খোলা বাজারে পণ্য বিক্রি স্থগিত করা হয়েছে।

টিসিবির বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বিক্রয় কার্যক্রম সুশৃঙ্খলভাবে পরিচালনা এবং প্রকৃত সুবিধাভোগীর নিকট নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য সাশ্রয়ী মূল্যে পৌঁছানোর লক্ষ্যে সরকার নীতিগতভাবে ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে টিসিবির পণ্য (ভোজ্যতেল, মশুর ডাল, চিনি) বিক্রির সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে।

ঢাকা (উত্তর ও দক্ষিণ) ও বরিশাল সিটি করপোরেশনে ফ্যামিলি কার্ড প্রণয়ন ও বিতরণ কার্যক্রম চলমান রয়েছে। ফ্যামিলি কার্ড বিতরণ কার্যক্রম সম্পন্ন হওয়ার পর হতে শুধুমাত্র এই কার্ডের মাধ্যমেই টিসিবির পণ্য ক্রয়-বিক্রয়  কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

সে কারণে ওই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের নিমিত্তে চলতি মাসে স্বল্প পরিসরে সাধারণ ট্রাকসেল কার্যক্রম (১৬ হতে ৩০ পর্যন্ত) স্থগিত করা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে সংস্থাটির পক্ষ থেকে।

আগামী জুন মাসে ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে এক কোটি নিম্নআয়ের পরিবারের নিকট টিসিবি কর্তৃক ভর্তুকিমূল্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য বিক্রি করা হবে বলে জানিয়েছে টিসিবি।

এর আগে গত ১১ মে টিসিবির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল ১৬ মে থেকে কম মূল্যে তেল ও অন্যান্য পণ্য বিক্রি করা হবে। তখন বলা হয় সারা দেশের সব মহানগরী, জেলা ও উপজেলায় ২৫০-৩০০টি খোলা ট্রাকের মাধ্যমে আগামী ১৬ মে থেকে ৩০ মে পর্যন্ত বিক্রি কার্যক্রম চলবে।

ট্রাক থেকে একজন ক্রেতা ৫৫ টাকা কেজি দরে সর্বোচ্চ দুই কেজি চিনি, ৬৫ টাকা কেজি দরে সর্বোচ্চ দুই কেজি মসুর ডাল, ১১০ টাকা দরে ২ লিটার সয়াবিন তেল কিনতে পারবেন। এছাড়া গত মাসের অবশিষ্ট ছোলা ৫০ টাকা কেজি দরে ভোক্তার চাহিদা অনুযায়ী বিক্রি করা হবে বলে ঘোষণা দিয়েছিল টিসিবি।


আরও খবর



দেশের যেসব জায়গায় ঝড়-বৃষ্টি হতে পারে আজ

প্রকাশিত:রবিবার ১৫ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৫৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আবহাওয়া অধিদফতর রোববার সকাল ৯টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, দেশের বেশ কিছু বিভাগ ও জেলায় ঝড়-বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। পশ্চিমা লঘুচাপের বর্ধিতাংশ পশ্চিমবঙ্গ এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে এটি উত্তরপশ্চিম বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।

এমন অবস্থায় রংপুর, ময়মনসিংহ ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায়; রাজশাহী, ঢাকা ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং খুলনা ও বরিশাল বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝড়োহাওয়ার সঙ্গে বিজলী চমকানোসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে সেইসঙ্গে দেশের উত্তরাঞ্চলের কোথাও কোথাও মাঝারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে।

এ ছাড়া সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। আগামী ৭২ ঘণ্টার (৩ দিন) পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, এ সময়ের শেষের দিকে বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টিপাতের প্রবণতা বাড়তে পারে।


আরও খবর



ঈদ উপলক্ষে বাড়তি নিরাপত্তা জাতীয় চিড়িয়াখানায়

প্রকাশিত:সোমবার ০২ মে 2০২2 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৫৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ঈদুল ফিতরের ছুটিতে বিনোদন কেন্দ্রগুলোতে নেওয়া হয়েছে নানা ধরনের ব্যবস্থা। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, চিড়িয়াখানায় অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে বাড়ানো হয়েছে নিরাপত্তা ব্যবস্থা। 

সোমবার দুপুরে জাতীয় চিড়িয়াখানার কিউরেটর (ভারপ্রাপ্ত পরিচালক) মো. মজিবুর রহমান গণমাধ্যমকে জানান, এবারের ঈদে দর্শনার্থী বেশি আসবে চিড়িয়াখানায়। বিষয়টি মাথায় রেখে দর্শনার্থীদের নিরাপত্তার বিষয়ে অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে। এজন্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে জানানো হয়েছে। চিড়িয়াখানায় টহলে থাকবে পুলিশ ও র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। ঈদকে সামনে রেখে চিড়িয়াখানায় চিন্তায় পকেটমার ও ইভটিজিংয়ের ঘটনা এড়াতে ২৮টি স্থানে লাগানো আছে সিসি ক্যামেরা। সার্বক্ষণিক মনিটরিং করা হবে।

তিনি বলেন, গরমে প্রাণীগুলোর পানিশূন্যতা এড়াতে ইলেক্ট্রোলাইয়ের ব্যবস্থা করা হয়েছে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে ও স্ট্রেস বা চাপ কমাতে ভিটামিন সি'র ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রাণীগুলোর জন্য চৌবাচ্চায় পানি দিয়ে গোসলের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এবারের গরমের মৌসুমে এখন পর্যন্ত চিড়িয়াখানার কোনো পশু-পাখির কোন সমস্যা হয়নি। ঈদে চিড়িয়াখানা খোলা থাকছে সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৬টা পর্যন্ত।


আরও খবর