Logo
শিরোনাম

বেড়েছে আটা ও তেলের দামও

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৬০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আরেক দফা হালিপ্রতি মুরগির ডিমের দাম বেড়েছে ২ টাকা। ডিমের পাশাপাশি আটা ও তেলের দাম বেড়েছে। রাজধানীতে লিটারপ্রতি সয়াবিন তেলের দাম বেড়েছে ৪ টাকা আর আটার দাম বেড়েছে কেজি প্রতি ২ টাকা। এছাড়া চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে চাল, ডাল এবং চিনিও।

নতুন করে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বাড়ায় ক্রেতারা চরম অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। তারা বলছেন, করোনার কারণে আয় নেই। আর এ সময়ে একের পর এক জিনিসিপত্রের দাম পাল্লা দিয়ে বাড়ছে। মাছ-মাংস, চাল-ডালের পর এখন ডিমের দাম বাড়ছে। আমাদের এখন না খেয়ে থাকতে হবে।

রাজধানীর বাজারগুলোতে দেখা গেছে, হালিপ্রতি লেয়ার মুরগির লাল ডিম বিক্রি হচ্ছে ৩৯-৪০ টাকায়। আর ডজন বিক্রি হচ্ছে ১১৫ টাকায়। আর হাঁস কিংবা দেশি মুরগির ডিম বিক্রি হচ্ছে ৫৮-৬০ টাকা হালিতে। তবে ডজন বিক্রি হচ্ছে ১৬৫-১৭৫ টাকায়।

বাজারে খোলা আটা বিক্রি হচ্ছে ৩৩-৩৫ টাকা কেজিতে। আগের সপ্তাহে বিক্রি হয়েছিল ৩০-৩২ টাকা কেজিতে। আর প্যাকেট জাত আটা বিক্রি হচ্ছে কেজিপ্রতি ৪০ টাকা করে।

বোতলের লিটারপ্রতি সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে ১৫২-১৫৩ টাকায়, যা আগের সপ্তাহে বিক্রি হয়েছিল ১৪৮-১৪৯ টাকায়। আর প্রতি লিটার খোলা সয়াবিন তেল বিক্রি হচ্ছে ১২৮-১৩০ টাকায়। আগের সপ্তাহে খোলা সয়াবিন তেল বিক্রি হয়েছিল ১২৫ টাকায়।

অন্যদিকে লিটারপ্রতি খোলা পাম অয়েল তেল বিক্রি হচ্ছে ১১৮-১১৬ টাকায়। আগে খোলা পাম অয়েল বিক্রি হতো ১০৮ থেকে ১১০ টাকায়।

বাজারে ব্রয়লার মুরগি বিক্রি হচ্ছে ১৪৫-১৫০ টাকা কেজি দরে। ব্রয়লার মুরগি ছাড়াও সোনালী মুরগি বিক্রি হচ্ছে ২২০ থেকে ২৪০ টাকায় দেশি মুরগি বিক্রি হচ্ছে ৪২০ থেকে ৪৪০ টাকা দরে। আর গরুর মাংস বিক্রি হচ্ছে ৬০০ টাকা কেজি দরে। আর খাসির মাংস বিক্রি হচ্ছে ৮০০-৮৫০ টাকা কেজিতে। অর্থাৎ আগের সপ্তাহের দরে বিক্রি হচ্ছে গরু ও খাসির মাংস।

পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৪৫-৫০ টাকা কেজিতে। রসুন বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ১২০ টাকায়। এর মধ্যে দেশি রসুন বিক্রি হচ্ছে ৭০-৮০ টাকা কেজিতে। প্রকারভেদে ৯০ টাকা কেজিতেও বিক্রি হচ্ছে। আর আমদানি করা বড় দানার রসুন বিক্রি হচ্ছে ১২০-১২৫ টাকা কেজিতে। প্রতি কেজি দেশি আদা বিক্রি হচ্ছে ৭০ টাকায়। বিদেশি আদা বিক্রি হচ্ছে ১১০-১১৫ টাকা কেজিতে।

কাঁচামরিচ বিক্রি হচ্ছে ১০০-১২০ টাকা কেজিতে। কেজিপ্রতি টমেটো বিক্রি হচ্ছে ৮০-১০০ টাকায়। বেগুন ৫০ টাকা, কচুর লতি ৪০ টাকা, বরবটি, চিচিঙ্গা, ঝিঙ্গা, ঢ্যাঁড়স ও ধুন্দল ৫০ টাকা, দেশি শসা ৫০ টাকা, পেঁপে ২০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

মাছের মধ্যে সবচেয়ে কম দামে বিক্রি হচ্ছে পাঙাশ মাছ। এ মাছ রাজধানীতে ১২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। তেলাপিয়া বিক্রি হচ্ছে ১৩০-১৮০ টাকা কেজিতে। রুই মাছ বিক্রি হচ্ছে ২৪০-৩০০ টাকা কেজিতে। আর মৃগেল মাছ বিক্রি হচ্ছে ২২০-২৬০ টাকা কেজিতে। এছাড়া শিং মাছ কেজিপ্রতি ৫৫০-৭০০ টাকা, চিংড়ি মাছ বিক্রি হচ্ছে ৫০০-৭৫০ টাকা কেজিতে।

নিউজ ট্যাগ: বাজার দর

আরও খবর



গুঞ্জন সত্যি করে দ্বিতীয় বিয়ের খবর জানালেন মাহিয়া মাহি

প্রকাশিত:সোমবার ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৭০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

প্রথম স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদের পর চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি আবারও বিয়ে করছেন বলে সম্প্রতি মিডিয়ায় যে গুঞ্জন চাউর হয়েছিল তা এখন বাস্তবে রূপ নিয়েছে। সে গুঞ্জনের বাস্তবতা নিজেই গভীর রাতে প্রকাশ করলেন এই নায়িকা। অবশেষে সেই সারপ্রাইজ নিয়ে হাজির হলেন চিত্রনায়িকা মাহি। ফেসবুকে ছবি প্রকাশ করে নিজের দ্বিতীয় বিয়ের কথা জানিয়ে চমকে দিয়েছেন তিনি।

রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) দিনগত রাত ১২টা ২৫ মিনিটে অর্থাৎ ১৩ সেপ্টেম্বর (সোমবার) ফেসবুকে নিজের বিয়ের ছবি মাহি নিজেই প্রকাশ করেছেন। যেখানে দেখা যাচ্ছে বিয়ের মঞ্চে ব্যবসায়ী বর কামরুজ্জামান সরকার রাকিবের পাশে বসে আছেন কনে মাহি। অভিনেত্রীর কাছ থেকে কাবিননামায় স্বাক্ষর নেওয়া হচ্ছে।

বিয়ের বিশেষ এই মুহূর্তের ছবিটি প্রকাশ করে মাহি জানান, সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) ১২টা ৫ মিনিটে তাদের বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়েছে।

ছবির ক্যাপশনে মাহি লেখেন, আলহামদুলিল্লাহ। আজ ১৩/০৯/২১ইং ১২টা ০৫ মিনিটে আমাদের বিবাহ সম্পন্ন হলো। এর আগের সব কথা আসলেই গুজব ছিল। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন, এটাই একমাত্র চাওয়া।

এর আগে গত ১১ জুন দিনগত রাতে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুকে একটি ছবি পোস্ট করেন তিনি। সেখানে মেহেদি রাঙা হাত, কপালে ছোট লাল টিপ, নাকে ছিলো নাকফুল, পরনে লাল কাতান শাড়িতে নববধূর মতোই সেজেছিলেন মাহি।

ক্যাপশনে এই নায়িকা লিখেছিলেন, আমি তোমাকে গানে, সিনেমায় এমনকি সব জায়গায় অনুভব করি, আলহামদুলিল্লাহ।

মাহির ছবি ও ক্যাপশন দেখে তার ভক্তদের মাথা ঘুরপাক খেতে শুরু করে। কেননা সেই পোস্টটি তার বিয়ের দিকেই ইঙ্গিত করে। তবে রাকিবের সঙ্গেই বিয়ের বিষয়টি স্পষ্ট হয় ওই ছবির কমেন্ট বক্সে। সেখানে রাকিব কমেন্ট করেছিলেন, কে তুমি? জবাবে মাহি লিখেছিলেন, বউ

পরবর্তীতে মাহির ফেসবুক স্ট্যাটাসগুলো আরও রোমান্টিক হয়ে ওঠে। ১৪ জুন লিখেন, মিসিং ইউ। ১৮ জুন লিখেন, আমি সারা দুনিয়া ঘুরিয়া দেখি, সুখ তো আমার ব্যালকনিতেই ছিল। এরপর লিখেন, একজন কেউ থাকুক যে তোমাকে ছাড়বে না। তিনি লিখেছেন, আমি ১২ বছরের সম্পর্ক ভেঙে যেতে দেখেছি, আবার ১২ দিনের সম্পর্ক আজীবন টিকে যেতেও দেখেছি।

এখানেই শেষ নয়। জুন মাসের শেষ সপ্তাহে মাহি ফেসবুকে তিনবার লেখেন, ‌আলহামদুল্লিলাহ। আগস্ট মাসের ৬ তারিখে আবারও একইভাবে লেখেন, আলহামদুল্লিলাহ। তার সেসব স্ট্যাটাসের কমেন্টবক্সে রাকিবও লিখেছেন আলহামদুলিল্লাহ

ব্যক্তিজীবনে ২০১৬ সালের ২৫ মে সিলেটের ব্যবসায়ী পারভেজ মাহমুদ অপুকে বিয়ে করেছিলেন মাহিয়া মাহি। তবে শুরু থেকেই তাদের দাম্পত্য জীবনে কলহ চলছে বলে গুঞ্জন চাউর হলেও সেসব গুঞ্জন উড়িয়ে দিতেন নায়িকা। সকল জল্পনার অবসান ঘটিয়ে গেলো ২২ মে দিনগত রাতে স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদের বিষয়টি স্পষ্ট করে স্ট্যাটাস দেন তিনি।

মাহি লিখেন, এই পৃথিবীর সবচেয়ে ভালো মানুষটার সঙ্গে থাকতে না পারাটা অনেক বড় ব্যর্থতা।

কিছুদিন যেতে না যেতেই আবারও মাহির বিয়ের গুঞ্জন ওঠে। মাহি সে বিষয়টি অস্বীকার করলেও গুঞ্জন পিছু ছাড়ে না। এ সংক্রান্ত কিছু ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। যা এই গুঞ্জনকে জোরালো করে।



আরও খবর



স্থগিত পরীক্ষা গ্রহণে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নির্দেশনা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩১ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৮৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আগামী সেপ্টেম্বর থেকে স্থগিত পরীক্ষা শুরু হতে পারে বলে জানা গেছে। করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় এক আসন খালি রেখে জেড পদ্ধতিতে কেন্দ্রে আসন বিন্যাস করা হবে। এছাড়া, সংশ্লিষ্ট সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে অনুসরণ করার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। সোমবার (৩০ আগস্ট) রাতে পরীক্ষা গ্রহণ সংক্রান্ত নির্দেশাবলী বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করেছে কর্তৃপক্ষ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে পরীক্ষা গ্রহণ সংক্রান্ত নির্দেশাবলীতে বলা হয়েছে, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা গ্রহণ এবং পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে অনুসরণ করার জন্য অনুরোধ করা হচ্ছে। পরীক্ষা কেন্দ্রে দুই জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে অন্তত ৩ ফুট দূরত্ব বজায় রেখে (আসন বিন্যাসের নমুনা-১ অথবা আসন বিন্যাসের নমুনা-২ এর অনুরূপভাবে) আসন ব্যবস্থা করতে হবে। এক্ষেত্রে প্রয়োজনে কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে ভেন্যু কেন্দ্রে পরীক্ষা গ্রহণ করা যাবে।

আরও বলা হয়েছে, সব শিক্ষক, পরীক্ষার্থী, কর্মকর্তা ও কর্মচারী মাস্ক পরিধান করে পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করবে। মাস্ক সঠিক নিয়মে পরতে হবে এবং মাস্ক ছাড়া কেউ পরীক্ষা কেন্দ্র প্রবেশ করতে পারবে না। শুধুমাত্র পরীক্ষার্থীর পরিচয় নিশ্চিত করার জন্য সাময়িক মাস্ক খোলা যাবে।

নির্দেশনায় আরও বলা হয়, পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশের আগে হাত ধোয়ার জন্য প্রয়োজনীয় সাবান এবং পানির ব্যবস্থা রাখতে হবে। প্রয়োজনে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবস্থা রাখতে হবে।

দেশের করোনা পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক গত মার্চ মাসে স্থগিত ঘোষণা করা হয় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে চলমান বিভিন্ন পরীক্ষা। তবে বর্তমানে কোভিড-১৯ পরিস্থিতি কিছুটা উন্নতি, টিকাদান কার্যক্রম সম্প্রসারণ ও সর্বোপরি শিক্ষার্থীদের ভবিষ্যৎ বিবেচনা করে স্থগিত পরীক্ষাসমূহ অনুষ্ঠানের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।



আরও খবর

৫ অক্টোবর খুলছে ঢাবির হল

শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

অষ্টম ও নবম শ্রেণির ক্লাসও সপ্তাহে দুই দিন

বৃহস্পতিবার ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১




আফগান পরিস্থিতি নিয়ে জরুরি বৈঠকে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ

প্রকাশিত:সোমবার ৩০ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৭৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার এবং পুরো দেশের নিয়ন্ত্রণ তালেবানের হাতে চলে যাওয়ার পর এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। আফগানিস্তানের চলমান পরিস্থিতি নিয়ে

আফগানিস্তানের চলমান পরিস্থিতি নিয়ে করোণীয় নির্ধারণে বৈঠকে বসবে জাতীয় সংঘের নিরাপত্তা পরিষদের পাঁচ দেশ। সোমবার (৩০ আগস্ট) এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে বলে রেডিও পাকিস্তানের বরাত দিয়ে জানিয়েছে দেশেটির প্রভাবশালী পত্রিকা ডন।

আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার এবং পুরো দেশের নিয়ন্ত্রণ তালেবানের হাতে চলে যাওয়ার পর এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। আফগানিস্তানের চলমান পরিস্থিতি নিয়ে এ বৈঠকে যুক্তরাজ্য এবং ফ্রান্স একটি সমাধান উত্থাপন করতে পারে বলে জানা গেছে। যা আফগানিস্তানের মানুষের জন্য শান্তি বয়ে আনবে।

এদিকে আফগান পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার জন্য বিভিন্ন দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের নিয়ে একটি ভার্চ্যুয়াল সভার আয়োজন করেছে যুক্তরাষ্ট্র। ভার্চ্যুয়াল এ সভায় যুক্তরাষ্ট্রসহ কানাডা, ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি, জাপান, যুক্তরাজ্য, তুরস্ক, কাতার, ইউরোপীয় ইউনিয়ন এবং ন্যাটোভূক্ত দেশগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রী উপস্থিত থাকবেন।

তালেবান-যুক্তরাষ্ট্রের চুক্তি অনুযায়ী ৩১ আগস্টের মধ্যে আফগানিস্তান থেকে সব বিদেশি সেনা সরিয়ে নেওয়ার কথা বলা হয়েছে। এ সময়ের পরই পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের মধ্যে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: আফগানিস্তান

আরও খবর

আফগানিস্তানে আবারও বিস্ফোরণ, নিহত ৭

রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১




ঢাকায় পৌঁছাল সিনোফার্মের ৫৪ লাখ টিকা

প্রকাশিত:শনিবার ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৮৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সিনোফার্ম থেকে বাংলাদেশ সরকারের কেনা আরও ৫৪ লাখ করোনাভাইরাসের টিকা ঢাকায় পৌঁছেছে। টিকার চালান নিয়ে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট শুক্রবার (১০ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত ১২টা ৪৫ মিনিটে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের জনসংযোগ কর্মকর্তা তাহেরা খন্দকার এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। তিনি জানান, টিকা নিয়ে ফ্লাইট শুক্রবার দিবাগত রাত ১২টা ৪৫ মিনিটে ঢাকায় পৌঁছায়। স্বাস্থ্য অধিদফতরের লাইন ডিরেক্টর ও টিকা কর্মসূচির পরিচালক ডা. সামসুল হকও তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ৫৪ লাখ টিকা শুক্রবার রাতেই আসছে।

এর আগে, শুক্রবার রাতে ঢাকায় নিযুক্ত চীনা দূতাবাসের ডেপুটি চিফ অব মিশন হুয়ারং ইয়ান তার ভেরিফায়েড ফেসবুকে জানান, সিনোফার্ম থেকে ক্রয় করা ৫৪ লাখ টিকা শনিবার (১১ সেপ্টেম্বর) সকালে ঢাকায় পৌঁছাবে।

এদিকে, শুক্রবার স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক সাংবাদিকদের জানান, প্রতি সপ্তাহে আমরা ৫০ লাখ ডোজ টিকা পাওয়ার সিডিউল পেয়েছি। এভাবে চলতি মাসের চার সপ্তাহে চারটি টিকার চালান আসার কথা রয়েছে। প্রতি চালানে আসবে ৫০ লাখ ডোজ টিকা। আগামী নভেম্বর পর্যন্ত এটি চলমান থাকবে।

গত ১২ মে প্রথমবার সিনোফার্মের তৈরি পাঁচ লাখ টিকা উপহার হিসেবে বাংলাদেশে পাঠায় চীন। এরপর দ্বিতীয় দফায় গত ১৩ জুন আরও ছয় লাখ উপহারের টিকা আসে। সবশেষ ১৩ আগস্ট সিনোফার্ম থেকে আরও ১০ লাখ টিকা বাংলাদেশকে উপহার হিসেবে পাঠায় চীন। অর্থাৎ বাংলাদেশকে ২১ লাখ সিনোফার্মের টিকা উপহার দেয় চীন।

এছাড়া কোভ্যাক্সের আওতায় তিন চালানে সিনোফার্ম থেকে দেশে এসেছে ৩৪ লাখ ৬১ হাজার ৮০১ ডোজ টিকা। আর সিনোফার্ম থেকে বাংলাদেশ সরকারের কেনা ৭০ লাখ ডোজ টিকার সঙ্গে ৩০ আগস্ট ঢাকায় এসেছে আরও ৫৬ লাখ ডোজ সিনোফার্মের টিকা। আজকের চালান বাদে এখন পর্যন্ত চীন থেকে সিনোফার্মের ১ কোটি ৮১ লাখ ৬১ হাজার ৮০১ ডোজ টিকা দেশে এসেছে।




আরও খবর

ডেঙ্গুতে হাসপাতালে আরও ২৩২ রোগী

শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১

করোনায় আরও ৩৫ জনের মৃত্যু

শনিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১




১৬ ইউপি চেয়ারম্যানসহ ১৯ জনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ৩১ আগস্ট ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | ৮২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

জাল কাগজপত্র তৈরি করে সরকারি চাল আত্মসাতের অভিযোগে ১৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) । মামলায় ১৬ জন ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান এবং কাউন্সিলরদের আসামি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার দুদকের সদরদপ্তরের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৬ আগস্ট রংপুর সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের দুর্নীতি দমন কমিশনের সহকারী পরিচালক মো. হোসাইন শরীফ বাদী হয়ে মামলাটি করেন।

মামলায় আসামিরা হলেন গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মো. জহিরুল ইসলাম, ১ নম্বর কামাদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শাহেদ হোসেন চৌধুরী, ২ নম্বর কাটাবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. তাহাজুল ইসলাম, ৩ নম্বর শাখাহার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আব্দুল লতিফ সরকার, ৪ নম্বর রাজাহার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শাকিল আলম, ৫ নম্বর সাপমারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, আ. র. ম. শরিফুল ইসলাম জজ, ৬ নম্বর দরবস্ত ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আতিকুর রহমান আতিক, ৭ নম্বর তালুককানুপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আব্দুল কাদের প্রধান, ৮ নম্বর নাকাই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আকতারা বেগম, ১০ নম্বর রাখালবুরুজ ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. শাহদাত হোসেন, ১১ নম্বর ফুলবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মো. আব্দুল মান্নান মোল্লা, ১২ নম্বর গুমানীগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের মো. শরীফ মোস্তফা জগলুল রশিদ রিপন, ১৩ নম্বর কামারদহ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. শরিফুল ইসলাম রতন, ১৪ নম্বর কোচাশহর ইউনিয়ন পরিষদের মো. মোশাররফ হোসেন, ১৫ নম্বর শিবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সেকেন্দার আলী মন্ডল, ১৬নং মহিমাগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আব্দুল লতিফ প্রধান, ১৭ নম্বর শালমারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আমির হোসেন শামীম এবং গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভার কাউন্সিলর মোছা. গোলাপী বেগম।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, আসামিরা পারস্পরিক যোগসাজসের মাধ্যমে ২০১৬-১৭ অর্থবছরে গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জের উপজেলায় ধর্মীয় সভার অনুকূলে জিআরের বরাদ্দকৃত পাঁচ হাজার ৮২৩ মেট্রিকটন সরকারি চাল জালিয়াতির মাধ্যমে উত্তোলন করেন। পরে কালোবাজারে বিক্রি করেন।

সরকারি ২২ কোটি তিন লাখ ২১ হাজার ৫৯০ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের দণ্ডবিধির ৪০৯/৪৬৭/৪৬৮/৪৭১/১০৯ ধারা এবং ৫(২) ধারায় মামলা করা হয়।


আরও খবর

২০০ টাকার জন্য বাবাকে পিটিয়ে খুন

বুধবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১