Logo
শিরোনাম

বিদেশগামী কর্মীদের টিকার জন্য বিশেষ নিবন্ধন শুরু

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ৬৪৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সৌদি আরব ও কুয়েতগামী কর্মীদের করোনা টিকার জন্য বিশেষ নিবন্ধন কার্যক্রম শুরু হয়েছে। সোমবার বিকালে বিদেশগামী কর্মীদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে করোনা টিকা প্রদান বিষয়ে আয়োজিত এক ভার্চুয়াল প্রেস ব্রিফিংয়ে এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়। প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী ইমরান আহমদ এর উদ্বোধন করেন।

ব্রিফিংয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ইমরান আহমদ বলেন, সমস্যা শুরু হয়েছে মে মাসে। আমরা যৌথভাবে কাজ করে যাচ্ছি। আর যৌথ নেতৃত্বের সুবিধা হলো অল্প সময়ের মধ্যে সুরক্ষা অ্যাপে পরিবর্তন করতে পেরেছি। প্রবাসী ভাইদের সমস্যার শেষ নেই। তবে আমাদের মন্ত্রণালয় তাদের সমস্যা সমাধাণের জন্য ২৪ ঘন্টা দাঁড়িয়ে রয়েছে। ভ্যাক্সিন নেওয়ার জন্য বিশেষ রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রম চালু করতে যাচ্ছি। সৌদি ও কুয়েতগামী কর্মীদের ভ্যাক্সিন নিতে যে জট লেগেছে, তা আগামী এক সপ্তাহের মধ্যেই নিরসন করতে পারবো।

তিনি আরও বলেন, আইসিটি, প্রবাসী কল্যাণ ও স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় প্রবাসীদের সমস্যা সমাধানে যৌথভাবে কাজ করছে। কোনো সমস্যা হলে আমরা সমাধান করবো। আপনারা (প্রবাসী কর্মী) শান্তিতে বিদেশ যেতে পারবেন। বিশেষ রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রমের উদ্বোধন ঘোষণা করছি। পর্যায়ক্রমে সব প্রবাসী কর্মীরা ভ্যাক্সিন পাবেন।

বিশেষ অতিথি আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ২০ লাখ মানুষের কাছে ৩৩৩ কল সেন্টারের মাধ্যমে খাদ্য পৌঁছে দেওয়া সম্ভব হয়েছে। করোনাকালীন সময়ে অর্থনীতির চাকা বেগবান রেখেছেন এক কোটির বেশি প্রবাসী ভাই বোনেরা। ২২ বিলিয়ন ডলার রেমিটেন্স আসছে এই প্রবাসীদের হাত ধরে। আর তাদের বিদেশ যাওয়ার জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ সমস্যা সমাধানের চষ্টো করছি। বিদেশগামী কর্মীদের বিশেষ রেজিস্ট্রেশন আজ (সোমবার) থেকেই শুরু হয়ে যাবে। তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশের সুরক্ষা প্লাটফর্মটি আন্তর্জাতিক পর্যায়ে সুনাম অর্জন করেছে। যদি কোনো ত্রুটি থাকে তাহলে সঙ্গে সঙ্গে আমরা তা সমাধানের চষ্টো করবো। আমাদের সরকারের মূল লক্ষ্য হচ্ছে জনগণের সেবা করা।

আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এনএম জিয়াউল আলম, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মনিরুল সালেহীন, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক ড. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলমসহ সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগের প্রতিনিধিরা ভার্চুয়াল এ ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন। ব্রিফিংয়ে সুরক্ষা টিমের মো. হারুন অর রশিদ সুরক্ষা অ্যাপে নিবন্ধন (পাসপোর্ট)' অপশনে গিয়ে কিভাবে বিদেশগামী কর্মীরা নিবন্ধন সম্পন্ন করবেন তা দেখান।


আরও খবর



বিশ্বকাপ দেখতে দর্শককে করাতে হবে কোভিড টেস্ট

প্রকাশিত:শুক্রবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ২৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

করোনা সংক্রমণ এড়াতে কাতার বিশ্বকাপেও করাতে হবে টেস্ট। স্টেডিয়ামে ঢুকতে প্রমাণ দেখাতে হবে করোনা নেগেটিভ হওয়ার।

বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) আয়োজক দেশটি জানায়, ছয় বছর অথবা এর বেশি বয়সের সবাইকে কাতারে পৌঁছানোর ৪৮ ঘণ্টার মাধ্যে করোনা ভাইরাস টেস্ট করাতে হবে। অথবা দেশটিতে পৌঁছানোর ২৪ ঘণ্টা আগে করানো টেস্টে করোনা নেগেটিভের ফল দেখাতে হবে। এক্ষেত্রে অফিসিয়ালি কোনো মেডিকেল কেন্দ্র থেকে টেস্ট করাতে হবে। স্ব-শাসিত হওয়া যাবে না।

এছাড়া জনসমাগমে প্রবেশ করার আগে ১৮ বছর বা এর বেশি বয়সী দর্শকদের সরকার নির্ধারিত একটি এপ ডাউনলোড করে নিতে হবে। যার নাম দেওয়া হয়েছে এহতেরাজ। এটি একটি ট্রেসিং অ্যাপলিকেশন। গণপরিবহনে সবাইকে মাস্ক পরতে হবে। যদি কেউ সেই দেশে থাকা অবস্থায় কোভিড পজিটিভ হয় তবে সরকারের নিয়ম অনুযায়ী আইসোলেশনে থাকতে হবে।

বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় এই টুর্নামেন্ট শুরু হবে ২০ নভেম্বর। যা চলবে ১৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত।


আরও খবর

হার দিয়ে সিরিজ শুরু বাংলাদেশের

শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২




মেক্সিকোতে ৬ পুলিশ কর্মকর্তাকে গুলি করে হত্যা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ৩৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

উত্তর আমেরিকার দেশ মেক্সিকোতে ৬ পুলিশ কর্মকর্তাকে গুলি করে হত্যা করেছে বন্দুকধারীরা। স্থানীয় সময় বুধবার দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় জাকাতেকাস প্রদেশে এই ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, ক্যালেরা দে ভিক্টর রোজালেসের একটি ক্রীড়া কেন্দ্রে প্রশিক্ষণের সময় পাঁচ পুলিশ কর্মকর্তাকে গুলি করে হত্যা করা হয়। ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর পর আরও দুই কর্মকর্তা গুলিবিদ্ধ হন। এদের মধ্যে একজন পরে মারা যান। 

জাকাতেকাসের গভর্নর ডেভিড মনরিয়াল এটিকে কাপুরুষোচিত হামলা হিসেবে আখ্যা দিয়েছেন। 

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে জাকাতেকাসে সহিংসতা বেড়েছে। রাজ্যটি দিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মাদক চোরাচালান হয়। এ নিয়ে স্থানীয় সিনালোয়া এবং জালিস্কো নিউ জেনারেশন গ্রুপের মধ্যে প্রায়ই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। 

গত জানুয়ারিতে, জাকাতেকাস রাজ্যের গভর্নরের প্রাসাদের সামনে পরিত্যক্ত একটি গাড়িতে ১০টি মরদেহ পাওয়া যায়।  ২০০৬ সালে মেক্সিকোতে মাদকবিরোধী যুদ্ধ শুরু করে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী। গত ১৬ বছরে এই যুদ্ধে প্রায় ৩ লাখ ৪০ হাজার মানুষ নিহত হয়েছেন। 


আরও খবর

‘হাসি’ মানুষের সবচেয়ে ভালো ওষুধ

শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২




কয়েক হাজার রুশ সেনাকে ঘিরে ফেলেছে ইউক্রেনীয় বাহিনী

প্রকাশিত:শনিবার ০১ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ | ৩৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় শহর লাইমানে মস্কোর জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি ঘাঁটিতে থাকা হাজার হাজার রুশ সেনাকে ঘিরে রেখেছে কিয়েভের সেনারা। ইউক্রেন সেনাবাহিনীর এক মুখপাত্র শনিবার এ তথ্য জানিয়েছেন।

এই শহরটিকে দোনেতস্ক অঞ্চলের উত্তরে রসদ ও পরিবহন কেন্দ্র হিসাবে ব্যবহার করা হচ্ছিল। ইউক্রেনের সেনারা এখন শহরটিকে ঘিরে ফেলায় এটি সমগ্র দোনবাস অঞ্চল দখল করার রুশ পরিকল্পনার ওপর একটি বড় আঘাত হবে।

ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় বাহিনীর মুখপাত্র সের্হি চেরেভাতিই বলেছেন, লাইমান এলাকায় জড়ো হওয়া রুশ বাহিনীকে ঘিরে রাখা হয়েছে।’

তিনি বলেন, লাইমান গুরুত্বপূর্ণ কারণ এটি ইউক্রেনীয় দোনবাসকে মুক্ত করার আগের পদক্ষেপ। এর মধ্য দিয়ে ক্রেমিনা ও সিভিয়েরোডোনেটস্কের আরও ভেতরে যাওয়ার একটি সুযোগ এবং এটি মনস্তাত্ত্বিকভাবে খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’

চেরেভাতিই জানান, লাইমানে প্রায় পাঁচ থেকে সাড়ে পাঁচ হাজার রুশ সেনা ছিল। কিন্তু কিছু সেনা হতাহতের শিকার হওয়ায় এবং কিছু সেনা ঘেরাও থেকে বের হয়ে আসার চেষ্টা করছে। এতে সেনা সংখ্যা হ্রাস পেতে পারে।


আরও খবর

‘হাসি’ মানুষের সবচেয়ে ভালো ওষুধ

শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২




ইতালির সম্ভাব্য প্রধানমন্ত্রী, কে এই জর্জা মেলোনি

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ | ৫০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ইতালির নির্বাচনে কট্টর ডানপন্থী জর্জা মেলোনি জয় পেয়েছেন বলে দাবি করেছেন। এর ফলে তিনি এখন দেশটির ইতিহাসে প্রথম নারী প্রধানমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন। মেলোনি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ইতালির সবচেয়ে কট্টর সরকারের নেতৃত্ব দিতে যাচ্ছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। কিন্তু ইউরোপের তৃতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির দেশ হিসেবে ইতালির সম্ভাব্য সে পরিবর্তনের প্রভাব হয়ত দেখা যাবে গোটা ইউরোপের ওপরই। কট্টর ডানপন্থী হওয়ায় ও ফ্যাসিবাদী পরিচয় থাকায় তাকে নিয়ে আলোচনা হচ্ছে সারা বিশ্বেই।

জর্জিয়া মেলোনির জন্ম ১৯৭৭ সালে। মাত্র ১৫ বছর বয়সে তিনি ইতালির রাজনৈতিক দল মোভিমেন্তো সোশিয়ালে ইতালিয়ানোর (এমএসআই) তরুণদের সংগঠনে যোগ দিয়েছিলেন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর দলটি গড়ে তুলেছিলেন ইতালির ফ্যাসিবাদী শাসক বেনিতো মুসোলিনির অনুসারীরা। এই সংগঠনকে তার দ্বিতীয় পরিবার হিসেবে অভিহিত করেছেন মেলোনি।

মেলোনির যখন জন্ম হয়, তখন তার মায়ের বয়স ছিল ২৩ বছর। এর মাত্র দেড় বছর আগেই মেলোনির বড় বোন আরিয়ানা পৃথিবীতে এসেছিল। সংসারের খরচ মেটাতে নানা ধরনের পেশার সঙ্গে জড়িয়েছিলেন মেলোনির মা। কিশোরী বয়সেই একই পথে হেঁটেছিলেন মেলোনি। পানশালার কর্মী থেকে বাচ্চাদের দেখভালঅনেক কিছুই করতে হয় তাঁকে।

মেলোনির বাবা ছিলেন ইতালির রাজধানী রোমের উত্তরাঞ্চলের ধনী এলাকার বাসিন্দা। পেশায় একজন হিসাবরক্ষক। মেলোনির শৈশবেই তিনি তাদের ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন। পরে ক্যানারি দ্বীপপুঞ্জে বসবাস শুরু করেন। মেলোনিদের দেখতে অবশ্য মাঝেমধ্যে আসতেন। তবে ১১ বছর বয়সে মেলোনি সিদ্ধান্ত নেন, বাবার সঙ্গে আর যোগাযোগ রাখবেন না। মেলোনিকে নিয়ে ইতালির আবরুজো অঞ্চলে ব্রাদার্স অব ইতালির গভর্নর মার্কো মার্সিলিও বলেন, কোনো কিছু পেতে হলে কীভাবে লড়াই করতে হয়, তা তিনি ছোটবেলা থেকেই শিখেছেন। এটাই তার চরিত্র গঠন করেছে।

মেলোনি যখন এমএসআইয়ে তরুণদের সংগঠনের নেতা, তখন ইতালির বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে বামপন্থী রাজনৈতিক সংস্কৃতির আধিপত্য ছিল। সেখানে একমাত্র ডানপন্থী সংগঠন হিসেবে সক্রিয় ছিল এমএসআইয়ের ছাত্রসংগঠন। এই সংগঠনে বড় ভূমিকা রেখেছিলেন মেলোনি। ফ্যাসিবাদী পরিচয় পেছনে ফেলতে ১৯৯৫ সালে ন্যাশনাল অ্যালায়েন্স (এএন) নাম নেয় এমএসআই। এএনকে রক্ষণশীল ডানপন্থী জাতীয়তাবাদী দল হিসেবে পরিচিত করা হয়। এর কয়েক বছরের মাথায় মেলোনি এএনের তরুণদের সংগঠনের প্রেসিডেন্ট হন। আর মাত্র ২৯ বছর বয়সে ইতালির পার্লামেন্টে পা রাখেন তিনি।

একই সময়ে মধ্যম ডানপন্থী দল ফোরজা ইতালিয়া গঠন করেন বেরলুসকোনি। এএনের সঙ্গে জোট গড়ে ফোরজা ইতালিয়া। পরে এই জোট ইতালিতে ক্ষমতায় আসে। প্রধানমন্ত্রী হন বেরলুসকোনি। ওই সরকারের অধীনে ২০০৮ সালে ইতালির সর্বকনিষ্ঠ যুববিষয়ক মন্ত্রী হন মেলোনি। এরপর ২০১২ সালে রাজনৈতিক জীবনে সবচেয়ে বড় সিদ্ধান্ত নেন তিনিফ্রাতেল্লি দি ইতালিয়ার প্রতিষ্ঠা। জাতীয়তাবাদ, রক্ষণশীলতা ও ইউরোপীয় ইউনিয়ন নিয়ে সংশয়ের আদর্শে গড়ে ওঠে ফ্রাতেল্লি দি ইতালিয়া। আন্তর্জাতিক আর্থিক বাজার, অভিবাসী ও সমকামীদের অধিকার নিয়ে খোলাখুলিভাবে অসহিষ্ণুতা দেখিয়েছে দলটি।

এদওয়ার্দো নোভেলি একজন সমাজবিজ্ঞানী ও রোম থ্রি বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনৈতিক যোগাযোগ বিষয়ের অধ্যাপক। তিনি বলেন, মেলোনির যে দর্শন সেটি ঈশ্বর, পরিবার ও স্বদেশ নীতিকে অনুসরণ করে। এই নীতির ভিত্তি খ্রিষ্টান পরিচয়, ঐতিহ্যগত পারিবারিক কাঠামো এবং ইতালীয় দেশপ্রেমিকদের নিয়ে গড়ে ওঠা একটি জাতি। মেলোনির এই দর্শন ইতালির নাগরিকদের দুই ভাগে ভাগ করবে বলে মনে করেন এদওয়ার্দো নোভেলি। তার ভাষ্যমতে, মেলোনি প্রধানমন্ত্রী হলে তার এই দর্শনের প্রভাব আসবে ইতালির আইন, সরকারি কর্মকাণ্ড ও অর্থনীতিসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে।

ইতালিতে নির্বাচনের দিন যতই ঘনিয়ে আসছিল, মেলোনির জয়ের সম্ভাবনা ততই পোক্ত হচ্ছিল। তিনি ও তার জোট ইউরোপের স্থিতিশীলতার জন্য বিপদ হয়ে দাঁড়াবেন না, তা ইউরোপীয় ইউনিয়নকে বোঝানোর জন্য এরই মধ্যে তাকে নমনীয় আচরণ করতে হয়েছে। এর কারণও অবশ্য আছে। ইউরোপীয় ইউনিয়নের সহায়তা তহবিল থেকে ২০০ বিলিয়ন ডলার পাচ্ছে ইতালি। শুধু ইউরোপীয় ইউনিয়নই নয়, পশ্চিমা সামরিক জোট ন্যাটোর প্রতিও বারবার আনুগত্যের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন মেলোনি। পাশাপাশি এটাও নিশ্চিত করতে হয়েছে চলমান যুদ্ধে রাশিয়ার বিরুদ্ধে ইউক্রেনকে সমর্থন দিয়ে যাবে তার দল।

রোমের লুইস বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসের অধ্যাপক লরেঞ্জো কাস্তেলানি বলেন, নির্দিষ্ট কিছু বিষয়ে সুর বেশ নরম করেছেন মেলোনি। আন্তর্জাতিক আর্থিক বাজার ও ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতি তাঁর যে অবিশ্বাস ছিল, সেদিক দিয়েও নরম হয়েছেন। একটি শক্তিশালী দল হিসেবে সরকারে আসতেই নিজের আচরণে বেশ সাবধানতার সঙ্গে পরিবর্তন এনেছেন তিনি। সমালোচকেরা বলছেন, মেলোনির এই সুরবদল শুধুই লোক দেখানোর জন্য। ইতালির ইউনিভার্সিটি অব বোলোনিয়ার অধ্যাপক পিয়েরো ইগনাজি বলেছেন, কোনো পরিবর্তন আসেনি। ইতালির ডানপন্থী রাজনীতির যে চরিত্র, তা নতুনভাবে দেখা যাচ্ছে। আর নব্যফ্যাসিবাদকে আরও আকর্ষণীয়ভাবে তুলে ধরা হচ্ছে। তার ভাষ্যমতে, মেলোনির সুরে যে পরিবর্তন, সেখানে ছদ্মবেশ রয়েছে।

এমন ধারণার কারণও আছে। নির্বাচনের আগেই সম্প্রতি এক সমাবেশে তিনি বলেছিলেন, ইউরোপীয় ইউনিয়নের ভালো সময় শেষ হয়েছে। সেখানে সমালোচনা করেন গণহারে অভিবাসনের। নাগরিক স্বাধীনতার ওপর হাঙ্গেরির বিধিনিষেধের নিন্দা জানিয়ে গত শুক্রবার ইউরোপীয় পার্লামেন্টের একটি প্রতিবেদনেও সমর্থন জানায়নি তার দল।

নিউজ ট্যাগ: জর্জা মেলোনি

আরও খবর

‘হাসি’ মানুষের সবচেয়ে ভালো ওষুধ

শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২




এক বাগাইড়ের দাম উঠলো ৫১ হাজার

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ | ৬৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া পদ্মা নদীতে জেলেদের জালে ৩৮ কেজি ওজনের বিশাল আকারের একটি বাগাইড় মাছ ধরা পড়েছে। মাছটি ১ হাজার তিনশত ৫০ টাকা কেজি দরে ৫১ হাজার ৩০০ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

আজ শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে দৌলতদিয়া ৬ নম্বর ফেরি ঘাটের আক্কাস হালদারের জালে মাছটি ধরা পরে। মাছটি ফেরি ঘাট এলাকায় আড়তদার বাবু সরদারের ঘরে নিয়ে আসলে বিশাল আকারের বাঘাড় মাছটিকে এক নজর দেখতে অনেকেই ভীড় করেন।

মাছটি নিলামে প্রতি কেজি ১ হাজার ৩০০ টাকা দরে মোট ৪৯ হাজার ৪০০ টাকায় স্থানীয় মাছ ব্যবসায়ী মো. শাজাহান শেখ কিনে নেন। পরে মাছটি ১ হাজার ৩শত ৫০ টাকা কেজি দরে ৫১ হাজার ৩০০ টাকায় বিক্রি করা হয়েছে।

দৌলতদিয়া শাকিল সোহান মৎস আড়তের মাছ ব্যবসায়ী মো. শাজাহান বলেন, ৩৮ কেজি ওজনের মাছটি বিভিন্ন জায়গায় মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে ঢাকার এক ব্যবসায়ীর কাছে ৫১ হাজার ৩০০ টাকায় বিক্রি করেছি।

রাজবাড়ী জেলার পদ্মা নদীতে মাঝে মধ্যেই জেলেদের জালে বড় বড় রুই, কাতল, মৃগেল, বোয়াল, পাঙ্গাস, চিতল, বাগাড়সহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ ধরা পরে।


আরও খবর