Logo
শিরোনাম

বিএনপি-জামায়াতের মদদপুষ্ট দিপ্তীষ হালদারের পদ প্রত্যাহার চেয়ে আ.লীগ নেতার আবেদন

প্রকাশিত:শনিবার ০৩ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৬৪২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
দলের বিদ্রোহী হিসাবে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করার অভিযোগে ওই দিপ্তীশ কুমার হালদারকে তখন দল থেকে বহিস্কার করা হয়। পরে স্বেচ্ছা সেবকলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান পাওয়ায় সংগঠনের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয়েছে

প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিদ্রোহী প্রার্থীকে দলীয় পদ থেকে প্রত্যাহার চেয়ে আবেদন করেছেন পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলা চেয়ারম্যান মাস্টার অমূল্য রঞ্জন হালদার। এ সংক্রান্ত একটি আবেদন পৌঁছে এ প্রতিনিধির কাছে। ওই আবেদন থেকে জানা গেছে, জেলার নাজিরপুর উপজেলা চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসাবে প্রতিদ্বদ্বীতা করা দিপ্তীশ কুমার হালদার স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় নতুন কমিটিতে সম্মানীত কার্য নির্বাহী সদস্য হিসাবে পদ পেয়েছে। ওই পদ থেকে তার (দিপ্তীষ কুমার হালদার) নাম প্রত্যাহার চেয়ে আবেদন করেছেন ওই উপজেলার আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ও নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচিত চেয়ারম্যান।

দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে দেয়া ওই আবেদনের মাধ্যমে জানা গেছে, গত ২০১৯ সালের ৩১ মার্চ জেলার নাজিরপুর উপজেলা পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। ওই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন ও নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচিত হন ওই উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক আহবায়ক ও উপজেলা চেয়ারম্যান মাস্টার অমূল্য রঞ্জন হালদার। আর ওই নির্বাচনে আ.লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী হিসাবে দোয়াত কলম প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেন স্বেচ্ছাসেবকলীগ কেন্দ্রী নেতা দিপ্তীশ কুমার হালদার। সেসময় দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করায় ওই দিপ্তীশ কুমার হালদারকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়।


ওই আবেদনে আরো উল্লেখ করা হয় বিদ্রোহী প্রার্থী ও ওই কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা সে সময় বিএনপি-জামায়াতের মদদে দলের মধ্যে বিশৃংখলা সৃষ্টির জন্যে তাকে প্রার্থী করা হয়। সম্প্রতি দেয়া এ অভিযোগের একটি কপি দলের নেতৃবৃন্দের কাছে পাঠিয়েছেন।

এ ব্যাপারে স্বেচ্ছা সেবকলীগ নেতা দিপ্তীষ কুমার হালদার জানান, আমি নির্বাচন করেছি তাতো মিথ্যা নয়। তিনিতো অভিযোগ দিতেই পারেন। তবে এ বিষয়টি নিয়ে নিউজ করার কি আছে?

এ ব্যাপারে আ.লীগ সমর্থিত নাজিরপুর উপজেলা চেয়ারম্যান মাস্টার অমূল্য রঞ্জন হালদার জানান, দলের বিদ্রোহী হিসাবে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করার অভিযোগে ওই দিপ্তীশ কুমার হালদারকে তখন দল থেকে বহিস্কার করা হয়। পরে স্বেচ্ছা সেবকলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান পাওয়ায় সংগঠনের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয়েছে। তাই দলের সভাপতির কাছে তাকে সংগঠনের পদ থেকে প্রত্যাহার চেয়ে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে এ আবেদন করেছি।

তিনি আরো জানান, নির্বাচনে দিপ্তীশ কুমার হালদারের নেতৃত্বে তখন আমার নির্বাচনী ক্যাম্পে হামলা, অগ্নিসংযোগ ও কর্মীদের মারধর করে আহত করে। সময় দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করায় ওই দিপ্তীশ কুমার হালদারকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়। ওই আবেদনে আরো উল্লেখ করা হয় বিদ্রোহী প্রার্থী ও ওই কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা সে সময় বিএনপি-জামায়াতের মদদে দলের মধ্যে বিশৃংখলা সৃষ্টির জন্যে তাকে প্রার্থী করা হয়। সম্প্রতি দেয়া এ অভিযোগের একটি কপি দলের নেতৃবৃন্দের কাছে পাঠিয়েছেন।

এ ব্যাপারে স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা দিপ্তীশ কুমার হালদার জানান, আমি নির্বাচন করেছি তাতো মিথ্যা নয়। তিনিতো অভিযোগ দিতেই পারেন। তবে এ বিষয়টি নিয়ে নিউজ করার কি আছে?

এ ব্যাপারে আ.লীগ সমর্থিত নাজিরপুর উপজেলা চেয়ারম্যান মাস্টার অমূল্য রঞ্জন হালদার জানান, দলের বিদ্রোহী হিসাবে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করার অভিযোগে ওই দিপ্তীশ কুমার হালদারকে তখন দল থেকে বহিস্কার করা হয়। পরে স্বেচ্ছা সেবকলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে স্থান পাওয়ায় সংগঠনের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয়েছে। তাই দলের সভাপতির কাছে তাকে সংগঠনের পদ থেকে প্রত্যাহার চেয়ে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে এ আবেদন করেছি।

তিনি আরো জানান, নির্বাচনে দিপ্তীশ কুমার হালদারের নেতৃত্বে তখন আমার নির্বাচনী ক্যাম্পে হামলা, অগ্নি সংযোগ ও কর্মীদের মারধর করে আহত করে।


আরও খবর



কেবিন বাদে ৬০ শতাংশ ভাড়া বাড়লো লঞ্চেও

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৯ এপ্রিল ২০২১ | ৫৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, অর্ধেক যাত্রী পরিবহনের শর্তে লঞ্চের ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়ছে। তবে বর্ধিত ভাড়া কেবিনের জন্য প্রযোজ্য হবে না।

বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) সচিবালয়ে নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, সরকারের সিদ্ধান্ত মেনে বাস ও ট্রেনের মতো ১ এপ্রিল থেকে লঞ্চেও অর্ধেক যাত্রী পরিবহন করবে। লঞ্চের ক্ষেত্রেও বাসের মতো ৬০ শতাংশ ভাড়া বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছে লঞ্চ মালিকরা। আমরা বাসের মতো ৬০ শতাংশ ভাড়া বাড়িয়েছি। তবে কেবিনে কোনো ভাড়া বাড়বে না।

করোনার সময়ে প্রয়োজন না হলে স্থানান্তর না হওয়ার অনুরোধ জানিয়ে তিনি বলেন, করোনার দ্বিতীয় ঢেউ এসেছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে না চললে বা এর ব‌্যতয় ঘটলে আইনানুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এছাড়া, যাত্রী পরিবহনের ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে অনুসরণ করতে হবে।

এসময় নৌপরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোহাম্মদ মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী, নৌপরিবহন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কমডোর আবু জাফর  মো. জালাল উদ্দিন, বিআইডব্লিউটিএর চেয়ারম্যান কমডোর গোলাম সাদেক উপস্থিত ছিলেন।


আরও খবর



ইডেন মহিলা কলেজে বাংলাদেশ হিউম্যান হেল্পিং সোসাইটি'র আহ্বায়ক কমিটি গঠিত

প্রকাশিত:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ২৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ইডেন মহিলা কলেজে বাংলাদেশের হিউম্যান হেল্পিং সোসাইটি'র কার্যক্রম বিস্তৃতি ও শাখা গঠনের লক্ষ্যে ০৮ (আট) সদস্যের আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে।

গতকাল রবিবার বাংলাদেশ হিউম্যান হেল্পিং সোসাইটি'র কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী পরিষদের সভাপতি নাইমুর রহমান সাকিব ও সাধারণ সম্পাদক  মাহমুদুল হাসান ইজাজ কর্তৃক স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে উক্ত কমিটি ঘোষণা করা হয়।

নতুন কমিটিতে আহ্বায়ক হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছেন তামান্না বেগম এবং সদস্য সচিব হিসেবে সুমনা হক চৈতী।   কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক আগামী ৬০ দিনের মধ্যে পূর্নাঙ্গ কমিটি গঠনের জন্য পদক্ষেপ গ্রহণ করতে বলা হয়েছে।

তামান্না বেগম বলেন, "মানব সেবামূলক কার্যক্রমে আমাদের সবার এগিয়ে আসা উচিৎ। বিশেষ করে বর্তমানে আমরা খুবই সংকটময় অবস্থার মধ্যে যাচ্ছি। আমাদের সবার মানবিক হওয়া অত্যন্ত জরুরী।"          

সুমনা হক চৈতী বলেন, "পারস্পরিক সহযোগিতায় অগ্রগতি, পরহিতে মানবের স্থায়ী সুখ, প্রেমমৈএীর মেলবন্ধনেই অস্তিত্ব বিকাশ। মানব সহযোগিতায় সেই পরহিতে ব্রতই এক সুমহান কর্ম। আর এ স্লোগান এ এগিয়ে যাক এই সংগঠন।"

এছাড়া আহ্বায়ক কমিটিতে রয়েছেন  যুগ্ম আহ্বায়ক ফারজানা মাহমুদা, সানজিদা রহমান সেতু। আহ্বায়ক সদস্য জারকা, রিফাত আনজুম তিনা, তাসনিম তাবাসসুম ও ফাতেমা তুক জোহরা।

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ হিউম্যান হেল্পিং সোসাইটি ২০১৩ সালের ০১লা মে প্রতিষ্ঠা লাভ করে। বর্তমানে বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলা, বিশ্ববিদ্যালয় ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে তাদের কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে।

নিউজ ট্যাগ: ইডেন মহিলা কলেজ

আরও খবর



তাঞ্জানিয়ার প্রেসিডেন্টের মৃত্যু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৮২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
আগামী ১৪ দিন সব পতাকা অর্ধনমিত থাকবে। এটা দুঃখের সংবাদ। যে রোগে প্রেসিডেন্ট মারা গেছেন, তা ১০ বছর ধরে তাকে ভোগাচ্ছিল। তাঞ্জানিয়ার সবচেয়ে বড় শহর দারুস সালামের একটি হাসপাতালে মাগুফুলি মারা

করোনাভাইরাস নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করে বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন। এমনকি পেঁপে এবং ছাগলেরও নাকি করোনা ধরা পড়েছে বলে মজা করেছিলেন তিনি। এমন বিতর্কিত সব মন্তব্য করা তাঞ্জানিয়ার প্রেসিডেন্ট জন পম্বে মাগুফুলি বুধবার মারা গেছেন।

বুধবার দেশটির সরকার জানিয়েছে, ৬১ বছর বয়সে মাগুফুলির মৃত্যু হয়েছে। মাগুফুলির মৃত্যুর খবর টেলিভিশনে ঘোষণার সময় দেশটির ভাইস প্রেসিডেন্ট সামিয়া সুলুহু হাসান বলেন, হৃদযন্ত্র ঘটিত সমস্যায় মাগুফুলির মৃত্যু হয়েছে।

দুই সপ্তাহের বেশি সময় ধরে আড়ালে ছিলেন মাগুফুলি। এসময় তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন বলে গুজব ছড়িয়ে পড়ে। তবে তাঞ্জানিয়ার ভাইস প্রেসিডেন্ট সুলুহু জানান, আমাদের প্রিয় প্রেসিডেন্ট বুধবার সন্ধ্যায় মারা গেছেন।

তিনি বলেন, আগামী ১৪ দিন সব পতাকা অর্ধনমিত থাকবে। এটা দুঃখের সংবাদ। যে রোগে প্রেসিডেন্ট মারা গেছেন, তা ১০ বছর ধরে তাকে ভোগাচ্ছিল। তাঞ্জানিয়ার সবচেয়ে বড় শহর দারুস সালামের একটি হাসপাতালে মাগুফুলি মারা গেছেন বলেও জানান সুলুহু।

মাগুফুলির মৃত্যুর খবরে দেশটির বিরোধী নেতা জিত্তো কাবওয়ে বলেছেন, তিনি শোক জানাতে ভাইস প্রেসিডেন্টের সঙ্গে কথা বলেছেন। টুইটারে পোস্ট করা এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, দেশের উন্নয়নে তার অবদানের জন্য জাতি তাকে মনে রাখবে।


আরও খবর

মিয়ানমারে সেনা অভিযানে নিহত ৮২

রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১




শিশুদের ওপর অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার ট্রায়াল স্থগিত

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১০ এপ্রিল ২০২১ | ৪৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
টিকাটি নিয়ে নিরাপত্তাজনিত কোনো ইস্যু নেই বলে জানিয়েছেন অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক অ্যান্ড্রু পোলার্ড। তিনি বলেন, বিজ্ঞানীরা আরও তথ্য হাতে নিয়ে রাখতে চাইছেন

অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি নভেল করোনাভাইরাসের টিকা শিশুদের শরীরে পরীক্ষামূলক প্রয়োগ স্থগিত করা হয়েছে। বয়স্কদের এই টিকা দেওয়ার পর সম্ভাব্য পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার কারণে শিশুদের ওপর টিকার পরীক্ষা বন্ধ রাখার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। যুক্তরাজ্যের সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ কথা জানিয়েছে। গত ফেব্রুয়ারিতে ছয় থেকে ১৭ বছর বয়সী শিশুদের ওপর অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার ট্রায়াল শুরু হয়েছে। ৩০০ স্বেচ্ছাসেবী শিশু ট্রায়ালে অংশ নিতে রেজিস্ট্রেশন করেছে।

এই টিকা নেওয়ার পর রক্ত জমাট বাঁধার সম্ভাব্য পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার অভিযোগ খতিয়ে দেখতে গবেষণা চালাচ্ছে যুক্তরাজ্যের মেডিসিন্স অ্যান্ড হেলথকেয়ার প্রোডাক্টস রেগুলেটরি এজেন্সি (এমএইচআরএ)। এদের কাছ থেকে তথ্য পাওয়ার আগ পর্যন্ত শিশুদের ওপর ট্রায়াল স্থগিত রাখতে চাইছে টিকা উৎপাদনকারী অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা কর্তৃপক্ষ।

তবে, টিকাটি নিয়ে নিরাপত্তাজনিত কোনো ইস্যু নেই বলে জানিয়েছেন অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক অ্যান্ড্রু পোলার্ড। তিনি বলেন, বিজ্ঞানীরা আরও তথ্য হাতে নিয়ে রাখতে চাইছেন।

অন্যদিকে, ইউরোপিয়ান মেডিসিন্স এজেন্সির (ইএমএ) নিরাপত্তা কমিটি জানিয়েছে, তারা এখনও কোনো সিদ্ধান্তে পৌঁছায়নি এবং পর্যবেক্ষণ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। এর আগে ইউরোপের ফ্রান্স, জার্মানি, ইতালি ও স্পেনসহ ১৩টি দেশ অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা প্রয়োগ স্থগিত করেছিল। ইএমএর আশ্বাসে তারা আবার টিকাটির প্রয়োগ শুরু করেছে।

যুক্তরাজ্যের এমএইচআরএ বলছে, অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার ঝুঁকির চেয়ে এর থেকে পাওয়া উপকারের পাল্লা অনেক ভারী। এর আগে যুক্তরাজ্যের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন বলেছেন, যাদের তারিখ দেওয়া হচ্ছে, তাদের উচিত সেই অনুযায়ী টিকা নেওয়া।

দেশটিতে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা ও ফাইজার-বায়োএনটেকের তৈরি দুটি টিকা প্রয়োগ চলছে। তৃতীয় হিসেবে মডার্নার টিকারও অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাজ্য সরকার। যুক্তরাজ্যে এ পর্যন্ত তিন কোটি ১৬ লাখ মানুষ করোনার টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছেন। আর ৫৪ লাখ মানুষ দ্বিতীয় ডোজ নিতে পেরেছেন।

ছয় কোটি ৬৬ লাখ মানুষের দেশ যুক্তরাজ্যের হাতে ৪৫ কোটি ৭০ লাখ ডোজ কোভিড-১৯ টিকার মজুত রয়েছে বলে জানিয়েছে বিবিসি। এর মধ্যে ১০ কোটি ডোজ অ্যাস্ট্রাজেনেকার তৈরি। এই বিশাল মজুদে যুক্ত হতে যাচ্ছে মডার্নার টিকা।


আরও খবর

মিয়ানমারে সেনা অভিযানে নিহত ৮২

রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১




আগামীকাল থেকে বাড়ছে লঞ্চের ভাড়াও

প্রকাশিত:বুধবার ৩১ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১০ এপ্রিল ২০২১ | ৫৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নৌ-পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, বৃহস্পতিবার থেকে অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচল করবে লঞ্চ। এ কারণে ভাড়া বাড়ানো হবে।

বুধবার সচিবালয়ে এক সভা শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান তিনি।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ভাড়ার বিষয় বিআইডব্লিউটিএ এবং মালিক পক্ষ বসে আমাদের জানিয়ে দেবেন। আমরা সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেবো।

খালিদ মাহমুদ বলেন, স্বাস্থ্যবিধিটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে ১৮ দফা নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে, সেটি অনুসরণ করতে বলা হয়েছে। সেগুলো বিবেচনা করে আমরা যেন ঈদযাত্রার প্রস্তুতিটা নিতে পারি। সবাই সম্মত হয়েছে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই আমাদের ঈদযাত্রা প্রস্তুতি নেওয়ার ক্ষেত্রে এবং ফিরতির বিষয়টাও একইভাবে। সকলেই বিষয়টি উপলব্ধি করেছে।

তিনি আরও বলেন, স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করতে গেলে আমাদের যাত্রী সংখ্যা কমিয়ে ফেলতে হয়। আমাদের গতবারের তিক্ত অভিজ্ঞতা আছে। সে অভিজ্ঞতা এবার কাজে লাগাতে চাই। লঞ্চ মালিক যারা আছেন তারা কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে কতটুকু স্বাস্থ্যবিধি রক্ষা করে ব্যবসায়িক ক্ষতি পূরণ করে কতটুকু ভাড়া বৃদ্ধি করা যায় আমাদের জানাবেন। আমরা দ্রুতই সিদ্ধান্ত নেবো।

উল্লেখ্য, করোনার বিস্তার ঠেকাতে আজ থেকে বাসগুলো ৫০ শতাংশ আসন খালি রেখে চলছে। এ জন্য বাসের ভাড়া বাড়ানো হয়েছে ৬০ শতাংশ।


আরও খবর