Logo
শিরোনাম

বিএনপি ক্ষমতার লোভে অপরাজনীতি করছে : পরশ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৪ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ১১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ বলেছেন, ক্ষমতার লোভে বিএনপি অপরাজনীতি করছে। সত্যকে মিথ্যা দিয়ে আপনাদের অপরাজনীতি ঢাকতে পারবেন না। প্রপাগান্ডা ছড়িয়ে কোনো লাভ হবে না। আপনাদের দেশের জনগণ বিশ্বাস করে না। আজ মঙ্গলবার দুপুরে মহানগরীর শিববাড়ি মোড়ে অনুষ্ঠিত খুলনা জেলা ও মহানগর যুবলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

যুবলীগ চেয়ারম্যান পরশ বলেন, বিএনপি অগণতান্ত্রিক পন্থা পছন্দ করে। আর আওয়ামী লীগ গণতন্ত্রের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। এই প্রজন্ম বিএনপিকে পছন্দ করে না। দেশের বিভিন্ন সেক্টরের উন্নয়নের কথা বিবেচনায় রেখে জনগণ আওয়ামী লীগের সঙ্গেই রয়েছে। নির্বাচনের মাধ্যমেই তা প্রমাণিত হবে। নীতি আদর্শ বর্জিত বিএনপি সোজা পথে ক্ষমতায় যেতে চায়। কিন্তু জনগণ তা কখনো হতে দেবেন না। উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষায় জনগণ আবারও আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আনবেন।

পরশ আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশটা আজ মর্যাদাপূর্ণ স্থানে রয়েছে। পৃথিবীর বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় রাষ্ট্রপরিচালনা করছেন।

দলীয় নেতাকর্মীদের সরকারের উন্নয়নকে মানুষের মাঝে তুলে ধরার আহ্বান জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ঐক্যবদ্ধভাবে কাজের মধ্য দিয়ে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করতে হবে।

সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন বাগেরহাট-১ আসনের সংসদ সদস্য শেখ হেলাল উদ্দিন। প্রধান বক্তা ছিলেন আওয়ামী যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাঈনুল হোসেন খান। সভাপতিত্ব করেন খুলনা জেলা যুবলীগের সভাপতি মো. কামরুজ্জামান জামাল। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন নগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শেখ শাহাজালাল হোসেন সুজন। সম্মেলনে কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতারা বক্তৃতা করেন।


আরও খবর



পঞ্চগড়ে দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৬.২ ডিগ্রি

প্রকাশিত:বুধবার ১৮ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩ | ৩৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পঞ্চগড়ে তিনদিন বিরতি দিয়ে ফের শৈত্যপ্রবাহ বইছে। কমেছে দিন ও রাতের তাপমাত্রা। টানা ১৪ দিন ধরে মৃদু থেকে মাঝারি শৈত্যপ্রবাহের ঘন কুয়াশা আর হিমশীতল বাতাসের কারণে হাড় কাঁপানো শীত অনুভূত হচ্ছে। স্থবিরতা দেখা দিয়েছে জনজীবনে।

বুধবার (১৮ জানুয়ারি) সকাল ৯টায় সর্বনিম্ন ৬ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করেছে তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিস। এই তাপমাত্রা দেশের মধ্যে সর্বনিম্ন।

এদিকে তিন ধরে ঘনকুয়াশায় ঢেকে রয়েছে গোটা এলাকা। টানা শৈত্যপ্রবাহে ঘনকুয়াশা আর কনকনে শীতে ছিন্নমূল, খেটে খাওয়া ও নিম্ন আয়ের মানুষের দুর্ভোগ বেড়েছে। দাম বেড়েছে পুরাতন গরম কাপড়ের।

তেঁতুলিয়া আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. রাসেল শাহ বলেন, বুধবার সকাল ৯টায় সর্বনিম্ন ৬ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়। মঙ্গলবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৯ দশমিক ৪ এবং সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ১৯ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আগামী দুই-দিন রাত ও দিনের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকতে পারে।


আরও খবর

কড়াইয়ের গরম তেলে পড়ে শিশুর মৃত্যু

শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩




জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে রঙিন ফুলকপির আবাদ

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৪ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ৩৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

শেরপুর জেলায় রঙিন ফুলকপি চাষ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। স্থানীয় কৃষক শফিকুল ইসলাম সারা বছরই তার জমিতে নানান ধরনের সবজি চাষাবাদ করে থাকেন। তবে এবার তিনি কৃষি অফিসের পরামর্শে রঙিন ফুলকপি চাষ করে চমক দেখিয়েছেন। শফিকুল তার অল্প জমিতে রাসায়নিক সার ও কীটনাশক ব্যবহার না করে শুধু জৈব সার প্রয়োগ করে চার রঙের ফুলকপি চাষ করে দ্বিগুণ লাভবান হয়েছেন। তার এমন সফলতা দেখে আগ্রহী হচ্ছেন স্থানীয় কৃষকরাও।

উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বনাগাঁও পূর্বপাড়ার শফিকুল ইসলাম। তিনি সারা বছরই নানা রকম শাক-সবজির আবাদ করেন। এ বছর তিনি কৃষি অফিসের পরামর্শে ১৫ শতক জমিতে চার রঙের ফুলকপির বীজ বপন করেন।

শফিকুল ইসলাম জানান, ১৫ শতাংশ জমিতে চারাসহ সব মিলে তার খরচ হয়েছে ৩০ হাজার টাকা। কোন ধরণের কীটনাশক-সার ব্যবহার না করেই শুধু জৈব সার ব্যবহার করেন তিনি। চারা রোপণের ৭০ থেকে ৭৫ দিন পর বাগানে আসে রঙ্গিন ফুলকপি। বর্তমানে বিক্রি শুরু করেছেন তিনি। তার আশা বাগান থেকে ১ লাখ ৩০ হাজার টাকার মতো বিক্রি হবে পুষ্টিগুণে ভরপুর এই রঙিন ফুলকপি। মজার ব্যাপার হলো রঙিন এসব ফুলকপি দেখতে প্রতিদিনই এলাকার কৃষকসহ সাধারণ মানুষ আমার জমিতে ভিড় করছেন। কেউ নিচ্ছেন চাষের পরামর্শ আবার কেউ কেউ তুলছেন ছবি। তাছাড়া বাজারে নেয়া মাত্রই বিক্রি হয়ে যায় এসব রঙিন কপি।

একই এলাকার কৃষক জামিল মিয়া জানান, আমাদের এলাকায় শফিকুল ইসলামের আগে অন্য কেউ রঙিন ফুলকপির চাষ করেনি। এসব কপি আবাদে খরচ কম এবং বাজারে চাহিদা ও দাম বেশি। আগামীতে আমিও আমার জমিতে রঙিন ফুলকপির চাষ করব।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হুমায়ুন দিলদার বলেন, কৃষক শফিকুল ইসলাম শাকসবজি চাষে খুবই আগ্রহী। তিনি প্রথমবারের মতো রঙিন ফুলকপি চাষ করে লাভের মুখ দেখছেন। তার দেখাদেখি স্থানীয় অনেক কৃষকই এখন রঙিন ফুলকপি চাষে আগ্রহী হয়ে উঠছেন। আমাদের মাঠকর্মীরা কৃষকদের সবসময় সহযোগিতা করে থাকে। 

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ-পরিচালক ড. সুকল্প দাস জানান, সাধারণ কপির চেয়ে রঙিন ফুলকপির চাহিদা বাজারে বেশি। উৎপাদন খরচও তুলনামূলক খুব একটা বেশি না। কৃষকদের সকল পরামর্শ দিতে জেলা কৃষি বিভাগ সব সময় পাশে আছে। আমাদের মাঠকর্মীরা কৃষকদের পরামর্শ দিয়ে বিভিন্ন সহযোগিতা করে আসছে।

নিউজ ট্যাগ: রঙিন ফুলকপি

আরও খবর

লোগো পদ্ধতি ধান চাষে ফলন বাড়ে

মঙ্গলবার ২৪ জানুয়ারী ২০২৩

লালশাক চাষ করার সহজ উপায়

মঙ্গলবার ২৪ জানুয়ারী ২০২৩




রামচরণের কাছে বিশেষ আবেদন শাহরুখ খানের

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১২ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩ | ২৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

গত বছর মার্চ মাসে মুক্তি পেয়েছিল এস এস রাজমৌলি পরিচালিত ছবি আর আর আর। ছবির নাটু নাটু গানটি ইতিমধ্যে গোল্ডেন গ্লোবে সেরা গানের পুরস্কার জিতে নিয়েছে। শুধু কী তাই, ২০২৩-এর অ্যাকাডেমি পুরস্কারে সেরা বিদেশি ভাষার ছবির বিভাগেও মনোনয়নের সম্ভব্য তালিকায় রয়েছে আরআরআর। কিন্তু চূড়ান্ত তালিকায় পৌঁছয় কি না, সেই অপেক্ষায় রয়েছেন সকলেই। লাখ লাখ ভারতীয়র মতো আশা করে আছেন শাহরুখ খানও। তাই খানিকটা শিশুসুভল ভঙ্গিমায় রামচরণের কাছেই বায়না করে বসেন এসআরকে।

বুধবার পাঠান ছবির ট্রেলার মুক্তির পর রামচরণ টুইটে শাহরুখের চবির সাফল্য কামনা করে শুভেচ্ছাবর্তা পাঠান। পাল্টা জবাবে অভিনেতা লেখেন।, তোমাকে অনেক ধন্যবাদ, যখন অস্কার নিয়ে দেশে আসবে তোমরা, আমাকে ছুঁয়ে দেখতে দিয়ো। এই ছবির গান বিদেশের মাটিতে পুরস্কৃত হওয়ার ফের টুইট করেছেন শাহরুখ। সকাল থেকে নাকি নাটু নাটুর তালেই নাচছেন তিনি। অভিনেতা টুইটে লেখেন, সকালে উঠেই এই ভাল খবরটা পেলাম, তার পর থেকে নাটু নাটুর ছন্দেই দুলছি। অভিনেতার পোস্টের পাল্টা জবাবে শাহরুখকে পাঠান-এর জন্য আগাম শুভেচ্ছা জানান পরিচালক রাজামৌলি।


আরও খবর

আপাতত দেশে আসছে না 'পাঠান'

বুধবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৩




টেলিগ্রামে এলো নতুন কয়েকটি ফিচার

প্রকাশিত:শনিবার ০৭ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৩ | ৫১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ইনস্ট্যান্ট মেসেজিং অ্যাপ টেলিগ্রামে নতুন কয়েকটি ফিচার এসেছে। মিডিয়া ফাইল হাইড, পরিচিত ব্যবহারকারীদের জন্য আলাদা প্রোফাইল পিকচারসহ রয়েছে চমকপ্রদ সব ফিচার। তাহলে চলুন দেখে নেই এক নজরে-

হিডেন মিডিয়া : হিডেন মিডিয়া ফিচারটি ব্যবহার করে ব্যবহারকারীরা তাদের বিভিন্ন ছবি ও ভিডিওগুলো অস্পষ্ট করা যাবে। এছাড়া ভাঙ্গা বানানও ঠিক করা যাবে। এটি ব্যবহার করার জন্য থ্রি ডট আইকনে ক্লিক করতে হবে।

জিরো স্টোরেজ : টেলিগ্রামের নতুন ফিচারের ফলে ডিভাইসের কোনো জায়গা নষ্ট হবে না। অর্থাৎ টেলিগ্রামে আদান প্রদান করা কোনো মিডিয়া ফাইল ডিভাইসের স্টোরে থাকবে না। ফলে যখন দরকার ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

ড্রয়িং টুলস : টেলিগ্রামের ড্রয়িং টুলস আরও আপডেট করা হয়েছে। ফলে এখন থেকে আরও নির্ভুল উপায় রং বাছাই করে অঙ্কন করা যাবে।

প্রোফাইল পিকচার : প্রোফাইল পিকচার অপশনটি হলো আপনি চাইলে আপনার পরিচিত ব্যক্তিদের আলাদা প্রোফাইল ছবি ব্যবহার করতে পারবেন।

গ্রুপ সদস্যদের লুকিয়ে রাখা : গ্রুপের সদস্যদের লুকিয়া বা হাইড করা যাবে। যেসব গ্রুপের সদস্য সংখ্যা ১০০ এর বেশি, সেসব গ্রুপে এই সুবিধা পাওয়া যাবে।

অ্যানিমেটেড ইমোজি : টেলিগ্রাম সর্বশেষ নতুন ১০টি ইমোজি প্যাক যুক্ত করেছে। তবে এগুলো শুধুমাত্র টেলিগ্রাম প্রিমিয়াম ব্যবহারকারীরাই ব্যবহার করতে পারবেন।

নিউজ ট্যাগ: টেলিগ্রাম

আরও খবর



থাইল্যান্ডে জীবন্ত পুড়ে মরল ১১ জন

প্রকাশিত:সোমবার ২৩ জানুয়ারী 20২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ১২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

থাইল্যান্ডে চন্দ্রবর্ষ ছুটিতে যাত্রীবাহী এক ভ্যান দুর্ঘটনার কবলে পড়েছে। এতে দুই শিশুসহ ১১জন পুড়ে মারা গেছেন। আজ সোমবার দেশটির পুলিস এ তথ্য জানিয়েছে। খবর এনডিটিভির।

পুলিশ কর্নেল ইঙ্গিওস পোলদেজ বলেন, ভ্যানে ১২ জন যাত্রী ছিলেন। আমনাত চারওয়িন প্রদেশ থেকে ব্যাংককে যাচ্ছিল, পথিমধ্যে যখন মধ্যে নাখন রাসছাসিমা প্রদেশের এক হাইওয়েতে শনিবার রাতে মোড় নেয় তখন দুর্ঘটনার কবলে পড়ে।

বার্তাসংস্থা এএফপিকে ইঙ্গিওস বলেন, একজন যাত্রী কেবল ভ্যানের জানালা দিয়ে বের হয়ে আসতে পারেন কিন্তু বাকি যাত্রীরা আটকা পড়ে এবং আগুনে পুড়ে মারা যান।

বেঁচে যাওয়া ২০ বছর বয়সী থানাচিত কিংকায়েও জানান, তিনি ঘুমিয়ে ছিলেন কিন্তু চিৎকারে হুট করে ঘুম ভেঙে যায়। তিনি বলেন, আমি জেগে উঠি এরপর যা বুজতে পারি যে ভ্যানটি উল্টে গেছে। আমি কি হয়েছে কিছুই দেখিনি।

কিংকায়েও আরও বলেন, দুর্ঘটনার পর পেছন থেকে আগুন পুরো ভ্যানকে গ্রাস করে। এরমধ্যে আমি একটি জানালায় লাথি দিতে থাকি এবং ছোট ফাঁকা দিয়ে বের হতে সক্ষম হয়। বের হওয়ার কিছুক্ষণ পরেই ভ্যানটি বিস্ফোরিত হয়।

দেশটিতে প্রায়শই দুর্ঘটনা ঘটে থাকে বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। বিশেষ করে ছুটির দিনে ব্যস্ত রাস্তায় দেশটিতে অহরহ দুর্ঘটনা ঘটে।


আরও খবর