Logo
শিরোনাম

বিক্ষোভ ও মিছিলে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে মাদ্রাসার শিশু শিক্ষার্থীদের

প্রকাশিত:সোমবার ২৯ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৪৩৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

হেফাজতে ইসলামের দেশব্যাপী বিক্ষোভ ও মিছিলে ব্যবহার করা হয়েছে মাদ্রাসার শিশু শিক্ষার্থীদের। চট্টগ্রামের হাটহাজারী, পটিয়া, ফটিকছড়ি ছাড়াও ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় ভোরের আলো ফুটতেই এসব ক্ষুদে মাদ্রাসা শিক্ষার্থীদের রাস্তায় দেখা গেছে।

গত শুক্রবার বায়তুল মোকাররমের সংগঠিত সংঘর্ষের ঘটনার পর থেকে বিভিন্ন স্থানে সহিংসতার শিকার হয়েছে অসংখ্য শিশু। হাটহাজারীতে শুক্রবারের সংঘর্ষের ঘটনায়  আহত ৯ ক্ষুদে মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা  দিয়েছে স্থানীয়রা।

গত রবিবার ব্রাহ্মণবাড়িয়া, ফেনী, সিলেটে চরম সহিংসতায় শিশুদের ব্যবহার করা হয়েছে ঢাল হিসেবে। বিশেষ করে হরতালের সময় পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল নিক্ষেপ, গাড়িতে অগ্নিসংযোগ এবং রাস্তায় ব্যারিকেড তৈরি করতে শিশুদের ব্যবহার করা হয়েছে দেশের বিভিন্ন এলাকায় ।

জাতিসংঘের ইউনিসেফের পক্ষ থেকে রাজনৈতিক কর্মকাণ্ডে শিশুদের ব্যবহার করার জন্য উদ্বেগ প্রকাশ করা হলেও হেফাজতে ইসলামের  মিছিল ও বিক্ষোভের অগ্রভাগে শিশুদের ঢাল হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে।

জানতে চাইলে শিশু ও মনোরোগ পরামর্শক ফজিলেতুন নেসা শাপলা বলেন, কোমলমতি শিশুদের যখন লেখাপড়া এবং খেলাধুলা করার কথা, তখন তাদের সহিংস কাজে নৃশংসভাবে ব্যবহার করা হচ্ছে। যা সম্পূর্ণ বেআইনি এবং চরম মানবতাবিরোধী। রাজনীতিতে হীনম্মন্যতার কাজে ব্যবহারের ফলে শিশুরা শিশুসুলভ আচরণ ভুলে যায়। আচরণে একধরনের উন্মাদনা দেখা দেয়।

সাম্প্রতিক সময়ে দেশের রাজনৈতিক সহিংসতায় শিশুরা আক্রান্ত হওয়ায় বেশ কয়েকবার উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ইউনাইটেড নেশনস চিলড্রেনস ফান্ড (ইউনিসেফ)।  ঢাকাস্থ ইউনিসেফের কার্যালয়ের বিভিন্ন  প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ উদ্বেগের কথা জানানো হয়েছে।

আশঙ্কাজনকভাবে শিশুরা আন্দোলনের শিকার হচ্ছে। তাই রাজনৈতিক সুবিধার জন্য শিশুদের ব্যবহার অবশ্যই বন্ধ করতে হবে। নির্বাচনের আগে ও চলাকালে শিশুদের নিরাপদ আশ্রয় নিশ্চিত করতে হবে। সব দেশে রাজনৈতিক কোলাহল থেকে শিশুদের নিরাপদে রাখতে রাজনৈতিক দলের দায়বদ্ধতা রয়েছে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্টরা ।


আরও খবর



পদ্মা সেতু প্রকল্পের মেয়াদ আরও ২ বছর বাড়াতে আবেদন

প্রকাশিত:সোমবার ২২ মার্চ ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১০ এপ্রিল ২০২১ | ৯৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণ (দ্বিতীয় সংশোধিত) প্রকল্পের মেয়াদ ২ বছর বাড়িয়ে ২০২৩ সালের জুন পর্যন্ত অনুমোদন দিতে যাচ্ছে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগ (আইএমইডি)। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ইতোমধ্যে চারবার পদ্মা সেতু নির্মাণ প্রকল্পের মেয়াদ বৃদ্ধি পেয়েছে। এবার পঞ্চমবারের মতো এই প্রকল্পের মেয়াদ বাড়তে যাচ্ছে। তবে এবার মেয়াদ বাড়লেও বাড়ছে না ব্যয়।

সোমবার (২২ মার্চ) এ বিষয়ে আইএমইডি সচিব প্রদীপ রঞ্জন চক্রবর্তী গণমাধ্যমকে বলেন, কদিনের মধ্যে মেয়াদ বাড়িয়ে দেব। আমরা মেয়াদ বাড়ানোর পক্ষে। কিন্তু কতটুকু মেয়াদ বাড়াবো, সেটা এনালাইসিস করে জানিয়ে দেব। এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয় নাই।

সূত্র জানায়, প্রকল্পটির মূলসেতু ও নদীশাসন কাজসহ অবশিষ্ট কাজ সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করার জন্য ২০২২ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত ১ বছর এবং দরপত্রের শর্ত অনুযায়ী রক্ষণাবেক্ষণ কাজ ও ঠিকাদারদের দেনাপাওনা মিটিয়ে দেয়ার জন্য আরো ১ বছরসহ সুপারিশ ও মতামত প্রতিপালন সাপেক্ষে প্রকল্পটির ব্যয় বৃদ্ধি ব্যতিরেকে মেয়াদ (তৃতীয়বার) ২০২৩ সালের জুন পর্যন্ত নির্ধারণ করা যেতে পারে বলে আইএমডি মত দিয়েছে।

আইএমডি সুপারিশ করেছে, বিভিন্ন অঙ্গভিত্তিক কাজ নির্ধারিত মেয়াদে সমাপ্ত করার লক্ষ্যে সময়াবদ্ধ কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন এবং নিয়মিত ফলোআপ সভা করে বাস্তবায়ন অগ্রগতি মূল্যায়ন করা প্রয়োজন। পুনর্বাসন কার্যক্রমের আওতায় গৃহীত আয়বর্ধকমূলক কর্মসূচির যথাযথ বাস্তবায়ন নিশ্চিত করাসহ প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত ব্যক্তিবর্গ যাতে কর্মসংস্থানের মাধ্যমে স্বাবলম্বী হতে পারে সে লক্ষ্যে জব প্লেসমেন্টের বিষয়ে গুরুত্ব প্রদান করা যেতে পারে। প্রকল্পের কারিগরি ব্যবস্থাপনা এবং নিরাপত্তা ব্যবস্থাপনার বর্তমান কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে হবে। এসব বিষয়ের আলোকে গৃহীত ব্যবস্থার তথ্যাদি আগামী ১ মাসের মধ্যে আইএমইডিকে অবহিত করতে হবে।

২০০৭ সালের জুলাইয়ে পদ্মা সেতু প্রকল্পের কাজ শুরু হয়। শেষ হওয়ার কথা ছিল ২০১৫ সালের জুনে। প্রথম সংশোধনী এনে প্রকল্পের মেয়াদ ২০১৫ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত করা হয়। দ্বিতীয় সংশোধনীতে প্রকল্পের মেয়াদ আরো ৩ বছর বাড়িয়ে করা হয় ২০১৮ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত।

তারপর ব্যয় বৃদ্ধি ব্যতিরেকে পদ্মা সেতুর মেয়াদ দুইবার বাড়ানো হয়েছে। প্রথমবার বাড়িয়ে করা হয় ২০১৯ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত। দ্বিতীয়বার করা হয়, ২০২১ সালের জুন পর্যন্ত। এবার ব্যয় বৃদ্ধি ব্যতিরেকে প্রকল্পের মেয়াদ আরও ২ বছর বাড়িয়ে ২০২৩ সালের জুন পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হচ্ছে, যা চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে।

পদ্মা সেতু প্রকল্পের ব্যয়ও বৃদ্ধি পেয়েছে তিনবার। প্রকল্পটির মূল ব্যয় ছিল ১০ লাখ ১৬ হাজার ১৭৫ কোটি ৩০ লাখ টাকা। প্রথম সংশোধনীতে ব্যয় দ্বিগুণ বাড়িয়ে করা হয় ২০ লাখ ৫০ হাজার ৭২০ কোটি ১৬ লাখ টাকা। আর তৃতীয়বার মেয়াদ বৃদ্ধি করে করা হয় ৩০ লাখ ১৯ হাজার ৩৩৮ কোটি ৭৬ লাখ টাকা।

এই প্রকল্পের প্রধান প্রধান কাজগুলো হলো ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার মূল সেতু, ১৪ কিলোমিটার নদীশাসন, ১২ কিলোমিটার সংযোগ সড়ক ও সার্ভিস এরিয়া নির্মাণ এবং ২ হাজার ৬৯৩ দশমিক ২১ হেক্টর ভূমি অধিগ্রহণ করা।

২০২১ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত ক্রমপুঞ্জিত অগ্রগতি ২৪ হাজার ৫৩২ কোটি ৪৮ লাখ টাকা, যা শতাংশের হিসাবে ৮১ দশমিক ২৫ শতাংশ। আর বাস্তব অগ্রগতি ৮৪ শতাংশ।

পদ্মা সেতুর মেয়াদ বাড়ানোর বিষয়ে ৪ ফেব্রুয়ারি সেতু বিভাগ আবেদনে বলেছে, পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণ প্রকল্পের মেয়াদ আগামী ৩০ জুন শেষ হবে। বর্তমানে এই প্রকল্পের বাস্তব কাজ ৮৩ শতাংশ সম্পন্ন হয়েছে। অবশিষ্ট বাস্তব কাজ সমাপ্ত করতে ব্যয় বৃদ্ধি ব্যতিরেকে এবং ১ বছর ডিফেক্ট নটিফিকেশন পিরিয়ডসহ ২০২৩ সালের জুন পর্যন্ত মেয়াদ বৃদ্ধি করা প্রয়োজন। এ অবস্থায় পদ্মা বহুমুখী সেতু নির্মাণ প্রকল্পের পরিচালকের প্রস্তাব অনুযায়ী ব্যয় বৃদ্ধি ব্যতিরেকে প্রকল্পের মেয়াদ ২০২৩ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত বৃদ্ধির প্রস্তাবটি পরবর্তী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রেরণ করা হলো।


আরও খবর



বক্স অফিসে সুলতানের তিন দিনে সংগ্রহ ১৭ কোটি

প্রকাশিত:সোমবার ০৫ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৬৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

তামিল তারকা কার্থি ও রশ্মিকা মন্দানার সুলতান সিনেমা দর্শকের মন জয় করেছে। প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাওয়া এ রুরাল ড্রামা একই নামে তেলেগু ভাষায় মুক্তি পেয়েছে। আর বক্স অফিসে সংগ্রহও বেশ ভালো।

ভারতের বিনোদনভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ফিল্মিবিট ডটকমের খবর, তিন দিনে এ সিনেমার নেট কালেকশন ১৩.৭৫ কোটি রুপি (তামিল ভার্সন)। প্রথম দিন সংগ্রহ করে ৫.০৫ কোটি, দ্বিতীয় দিন ৩.৯০ কোটি ও তৃতীয় দিন ৪.৮০ কোটি রুপি। অন্যদিকে, তেলেগু ভার্সন সংগ্রহ করেছে ৩.৬০ কোটি রুপি। তামিল ও তেলেগু মিলিয়ে মোট সংগ্রহ দাঁড়িয়েছে ১৭.৩৫ কোটি রুপি।

ড্রিম ওয়ারিয়র পিকচার্সের ব্যানারে বাক্কিরাজ কন্নানের রচনা ও পরিচালনায় সিনেমাটি প্রযোজনা করেছেন এস আর প্রকাশ বাবু ও এস আর প্রভু। এতে কার্থি-রশ্মিকা ছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় দেখা গেছে নেপোলিয়ন, লাল, যোগী বাবু, হারিশ পেরারি, রামচন্দ্র রাজু ও নবাব শাহকে।

নিউজ ট্যাগ: সুলতান

আরও খবর



মিয়ানমারে ফের নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে নিহত ৫

প্রকাশিত:বুধবার ০৭ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ | ৬৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মিয়ানমারে বুধবার সামরিক অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভে গুলি চালিয়ে পাঁচজনকে হত্যা করেছে নিরাপত্তা বাহিনী। খবর রয়টার্সের।

দেশটির উত্তরপশ্চিমাঞ্চলের কেইল শহরের এক অধিবাসী রয়টার্সকে জানান, জান্তা সরকারবিরোধী এক বিক্ষোভে নিরাপত্তা বাহিনী গুলি চালিয়েছে। ওই অধিবাসী জানান, তাকে এক প্রত্যক্ষদর্শী এ তথ্য জানিয়েছেন যিনি পাঁচটি মরদেহের ছবি তুলেছেন।

স্থানীয় গণমাধ্যমগুলো প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে জানিয়েছে, সেখানে হতাহতের ঘটনা ঘটেছে ও বারবার গুলির শব্দ শোনা গেছে। মিজিমা ও ইরাবতী সংবাদমাধ্যম জানায়, পাঁচজন মারা গেছেন ও কয়েকজন আহত হয়েছেন।

গত ফেব্রুয়ারিতে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী অং সান সুচির নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করে ক্ষমতা দখলের পর থেকেই দেশটির সকল স্তরের জনগণ অভ্যুত্থানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ শুরু করে। প্রায় প্রতিদিনই এসব বিক্ষোভে গুলি চালাচ্ছে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী। এখন পর্যন্ত নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে ৫৮০ জন বিক্ষোভকারী মারা গেছেন।

মিয়ানমারের এই জনবিক্ষোভের নেতৃত্ব দিচ্ছে মূলত তরুণরাই। বিক্ষোভের আয়োজন ও প্রচারণার জন্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমই তাদের প্রধান মাধ্যম। জান্তা সরকার ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট ও মোবাইল ডেটা সার্ভিস ব্যাপক বিঘ্নিত করার কারণে বিক্ষোভকারীদের প্রচারণার কাজ বেশ ব্যহত হচ্ছে।

ইন্টারনেটে প্রতিবন্ধকতার বিষয়গুলো পর্যবেক্ষণ করে এমন একটি প্রতিষ্ঠান হলো নেটব্লকস। নেটব্লকসের প্রতিষ্ঠাতা অ্যাল্প টকার রয়টার্সকে বলেন, ফেব্রুয়ারী থেকে তথ্যের অতল গহ্বরে মিয়ানমার ধাপে ধাপে ধসে পড়েছে।

তিনি বলেন, যোগাযোগ এখন খুব বেশি রকমের সীমিত এবং অল্প কিছু মানুষ তা ব্যবহার করতে পারছে।

প্রিন্ট মিডিয়া বন্ধ থাকায় বিক্ষোভকারীরা তাদের বার্তা ছড়িয়ে দিতে এখন বিকল্প উপায় ব্যবহার করছে। তারা এ-ফোর সাইজের কাগজে দৈনিক খবরের প্যাম্ফলেট তৈরি করে তা ডিজিটালভাবে শেয়ার করার পাশাপাশি ছাপিয়েও জনগণের মধ্যে বিতরণ করছে।

নিউজ ট্যাগ: মিয়ানমার

আরও খবর

মিয়ানমারে সেনা অভিযানে নিহত ৮২

রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১




কালবৈশাখী ঝড়ে ৫ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:রবিবার ০৪ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ১০ এপ্রিল ২০২১ | ১১৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ ও পলাশবাড়ী উপজেলায় কালবৈশাখী ঝড়ে ২ নারীসহ ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। রোববার (৪ এপ্রিল) বেলা ৩ টার দিকে গাইবান্ধা জেলার বিভিন্ন উপজেলায় হঠাৎ শুরু হওয়া ঝড়ে ঘরবাড়ি-গাছপালা ভেঙে পড়লে তারা নিহত হন। এই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা প্রশাসক আবদুল মতিন।

নিহত হলেন, পলাশবাড়ী উপজেলার বেতকাপা ইউনিয়নের মোস্তাফুর গ্রামের গোফফার রহমান এবং ডাকেরপাড়া গ্রামের জাহানারা বেগম। আর সুন্দরগঞ্জ উপজেলার ধোপাডাঙ্গা ইউনিয়নের দোয়ারা গ্রামের ছোলায়মান মিয়ার স্ত্রী ময়না বেগম (৪০)। অন্য দুই নিহত ব্যক্তির নাম জানা যায়নি।

ঝড়ে বিভিন্ন সড়কে ভেঙে পড়া গাছ অপসারণে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা কাজ করছেন। তবে তাৎক্ষণিকভাবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানাতে পারেননি তারা।

নিউজ ট্যাগ: কালবৈশাখী ঝড়

আরও খবর



বিক্ষোভ কর্মসূচির ধরন জানালেন মামুনুল হক

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৯ এপ্রিল ২০২১ | ৮৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

হেফাজতে ইসলামের পূর্বঘোষিত বিক্ষোভ কর্মসূচি শুক্রবার (২ এপ্রিল)। দলটির আমিরে হেফাজত আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরীর নির্দেশে যেভাবে পালনের সিদ্ধান্ত হয়েছে তা জানিয়ে ভেরিফায়েড ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন সংগঠনটির কেন্দ্রীয় যুগ্ম-মহাসচিব ও ঢাকা মহানগরের সাধারণ সম্পাদক আল্লামা মামুনুল হক।

বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) দুপুর ১২টার দিকে মামুনুল হক তার ফেসবুক পেজে লেখেন, পূর্বঘোষিত ওই বিক্ষোভ কর্মসূচির অংশ হিসেবে কেন্দ্রীয়ভাবে ঢাকার বায়তুল মোকাররম মসজিদের উত্তর গেটে বাদ জুমা সমাবেশ হবে। সমাবেশে আসা বা ফেরার পথে মিছিল হবে না। নিজস্ব স্বেচ্ছাসেবক ব্যবস্থাপনা শক্তিশালী করে সমাবেশ শান্তিপূর্ণভাবে পালন করা হবে।

গত রোববার (২৮ মার্চ) দিনব্যাপী হরতাল পালন শেষে বিকেলে রাজধানীর পল্টনে হেফাজতের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মাওলানা নুরুল ইসলাম জিহাদী এ কর্মসূচি ঘোষণা করেছিলেন।  

নিউজ ট্যাগ: মামুনুল হক

আরও খবর