Logo
শিরোনাম

বিশ্বে করোনার তাণ্ডবে আরও ১০ হাজার প্রাণহানি

প্রকাশিত:বুধবার ০৯ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ৬৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মহামারি করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে এখনও দিশেহারা বিশ্ববাসী। দিন যতই যাচ্ছে তত ভয়ংকর রূপ নিচ্ছে মহামারি এ ভাইরাস। প্রতিদিন বেড়েই চলছে মৃতের সংখ্যা, আক্রান্তও হচ্ছে লাখ লাখ মানুষ। মহামারি এ ভাইরাসের নতুন ভারতীয় ধরন মানুষের মনে আতঙ্ক আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। করোনার টিকা আবিষ্কার হলেও এখনো কাটেনি শঙ্কা। এরই মধ্যে বিশ্বে করোনায় মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৩৭ লাখ ৬২ হাজার এবং আক্রান্ত হয়েছেন ১৭ কোটি ৪৭ লাখেরও বেশি মানুষ।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, বুধবার (৯ জুন) সকাল ৮টা পর্যন্ত পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে মারা গেছেন আরও ১০ হাজার ১৬৪ জন এবং আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৫৯ হাজার ১২৭ জন। আর গতকাল মঙ্গলবার (৮ জুন) বিশ্বে মৃত্যুর সংখ্যা ছিল ৭ হাজার ৮৮৫ জন এবং আক্রান্ত হয়েছিলেন ৩ লাখ ১০ হাজার ৭৯৫। ফলে আক্রান্ত ও মৃত্যু আবারও বেড়ে গেছে।

বিশ্বে এখন পর্যন্ত মোট করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৩৭ লাখ ৬২ হাজার ৫৭০ জনের এবং আক্রান্ত হয়েছেন ১৭ কোটি ৪৭ লাখ ৩৮ হাজার ৭৬২ জন। এদের মধ্যে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১৫ কোটি ৮১ লাখ ৩৩ হাজার ৯৩৫ জন।

করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৩ কোটি ৪২ লাখ ৪২ হাজার ৮৬৬ জন। মৃত্যু হয়েছে ৬ লাখ ১২ হাজার ৫২ জনের।

আক্রান্তে দ্বিতীয় ও মৃত্যুতে তৃতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে এখন পর্যন্ত মোট সংক্রমিত হয়েছেন ২ কোটি ৯০ লাখ ৮৮ হাজার ১৭৬ জন এবং এখন পর্যন্ত মোট মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ৫৩ হাজার ৫৫৭ জনের।

আক্রান্তে তৃতীয় এবং মৃত্যুতে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত করোনায় ১ কোটি ৭০ লাখ ৩৮ হাজার ২৬০ জন সংক্রমিত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ৪ লাখ ৭৭ হাজার ৩০৭ জনের।

আক্রান্তের দিক থেকে চতুর্থ স্থানে রয়েছে ফ্রান্স। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫৭ লাখ ১৯ হাজার ৯৩৭ জন। ভাইরাসটিতে মারা গেছেন ১ লাখ ১০ হাজার ১৩৭ জন।

এ তালিকায় পঞ্চম স্থানে রয়েছে তুরস্ক। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৫৩ লাখ ২৩৬ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন ৪৮ হাজার ৩৪১ জন।

এদিকে আক্রান্তের তালিকায় রাশিয়া ষষ্ঠ, যুক্তরাজ্য সপ্তম, ইতালি অষ্টম, আর্জেন্টিনা নবম এবং জার্মানি দশম স্থানে রয়েছে। এ ছাড়া বাংলাদেশের অবস্থান ৩২তম, যেখানে মোট মৃত্যু হয়েছে ১২ হাজার ৯১৩ জনের এবং মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৮ লাখ ১৫ হাজার ২৮২ জন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হয়। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৮টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯।



আরও খবর



পরীক্ষা এক বছর না দিলে বিরাট ক্ষতি হবে না : শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ১৩ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ৮৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, পরীক্ষা এক বছর না দিলে এমন কোনো বিরাট ক্ষতি হয়ে যাবে না। আপনাদের সুস্থতা এবং জীবন আমাদের কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তির ব্যাপারে কী করা যায় আমরা সেগুলো নিয়েও ভাবছি।

জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত এক অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে রবিবার (১৩ জুন) দুপুরে তিনি এসব কথা বলেন।

এ অনুষ্ঠানে ২০২১ সালের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের উদ্দেশে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আপনারা বিভ্রান্ত হবেন না, ভুল পথে যাবেন না। নিজেরা নিজেদের বাড়িতে সুস্থ থাকার চেষ্টা করুন, মানসিকভাবে সুস্থ থাকার জন্য কাজ করুন, কোনো খারাপ কিছুতে নিজেদের জড়িয়ে ফেলবেন না। ভয়ের কোনো কারণ নেই, পরীক্ষা দিতে হবে কিনা সেটি পরের কথা। নিজেদের যতটুকু শিক্ষা কার্যক্রমের সঙ্গে সংযুক্ত রাখা সম্ভব ততটুকু করুন, নিজে সুস্থ থাকুন। আমরা চাই আমাদের সন্তানরা সুস্থ থাকুক। পরীক্ষা এক বছর না দিলে জীবনে এমন কোনো বিরাট ক্ষতি হয়ে যাবে না।

শিক্ষামন্ত্রী আরো বলেন, আপনারা জানেন ১৩ জুন থেকে দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার চিন্তা আমাদের ছিল। সে বিষয়ের প্রস্তুতিও ছিল। কিন্তু আপনারা জানেন, এরই মধ্যে দেশের ২০টি জেলা ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে গেছে। প্রায় ১০টি জেলার বিভিন্ন জায়গায় লকডাউন চলছে। এখন নতুন করে যে ভ্যারিয়েন্টগুলো পাওয়া যাচ্ছে, সেগুলো অনেক বেশি ঝুঁকিপূর্ণ। এই পরিস্থিতিতে আমরা বাধ্য হয়েছি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গুলোর ছুটি ৩০ জুন পর্যন্ত বাড়াতে। এরপরও পরিস্থিতি কোন দিকে যায়, সেটার ওপর নজর রেখে আমাদের সিদ্ধান্ত নিতে হবে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আমরা যখনই খুলি না কেন শিক্ষা ব্যবস্থা চালু রাখা অত্যন্ত জরুরি। আমরা অনলাইনে শিক্ষা দিয়ে শতকরা ৮০/৮৫ ভাগের বেশি শিক্ষার্থীর কাছে পৌঁছাতে পেরেছি। যার ফলে অ্যাসাইনমেন্ট ব্যবস্থা চালু করে আমরা ৯৩ ভাগ শিক্ষার্থীদের কাছে পৌঁছাতে পেরেছি। আমাদের এই চেষ্টাগুলো অব্যাহত রয়েছে।

এসময় শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের উদেশে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, শিক্ষার্থীরা বাড়িতে যতটুকু সম্ভব তাদের পড়াশোনা চালিয়ে যাক। উদ্বেগের কোনো কারণ নেই। এমন কোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে না, যাতে তারা ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। আমাদের যে ক্ষতিটা তা শিক্ষা ব্যবস্থার। সামগ্রিক বিশ্বে এই ক্ষতিটা হচ্ছে। এই ক্ষতি কীভাবে পুষিয়ে নেওয়া যাবে সেই ব্যাপারে আমাদের পরিকল্পনা রয়েছে। কিন্তু এখন আমরা পরীক্ষা নিতে পারব কিনা, পরীক্ষা নিতে না পারলে বিকল্প কি ব্যবস্থা হবে, সবকিছু নিয়ে আমাদের চিন্তা ভাবনা রয়েছে। একেবারে প্রস্তুতির দিকেই আমরা যাচ্ছি।



আরও খবর



৫৩ দিন পর ফিরোজায় ফিরছেন খালেদা জিয়া

প্রকাশিত:শনিবার ১৯ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ৪৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

চিকিৎসা শেষে ৫৩ দিন পর গুলশানের বাসা ফিরোজায় ফিরছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। শনিবার সন্ধ্যা ৭টার পর তিনি এয়ারকেয়ার হাসপাতাল থেকে বাসায় উদ্দেশ্যে রওনা হবেন। বিএনপি চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইং সদস্য শায়রুল কবির খান বাংলাদেশ জার্নালকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে গত ২৭ এপ্রিল পোস্ট কোভিডসহ নানা জটিলতায় আক্রান্ত হয়ে বসুন্ধরায় এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি হন খালেদা জিয়া। এর ৬ দিন পর (৩ মে) শ্বাসকষ্ট অনুভব করলে তাকে সিসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। পরে অবস্থার উন্নতি হলে গত ৩ জুন চিকিৎসকদের পরামর্শে খালেদা জিয়াকে কেবিন ফিরিয়ে আনা হয়।

গত ১৪ এপ্রিল গুলশানের বাসা ফিরোজায় করোনায় আক্রান্ত হন তিনি। করোনামুক্ত হন গত ৯ মে।


আরও খবর



রাজশাহীতে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ৯ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৩ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ৮১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গত ২৪ ঘন্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে আরও ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন আরও ৯৮ জন। বৃহস্পতিবার (০৩ জুন) রামেকের উপ-পরিচালক ডা. মো: সাইফুল ফেরদৌস এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি জানান, হাসপাতালে মৃত ৯ জনের প্রত্যেকেই করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। এদের মধ্য চাঁপাইনবাবগঞ্জের পাঁচজন, রাজশাহীর দুইজন, নওগাঁর একজন ও পাবনার একজন রোগী ছিলেন।

বুধবার (০২ জুন) সকাল ৮টা থেকে বৃহস্পতিবার (০৩ জুন) সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘন্টায় এ জেলায় নতুন করে আরও ৯৮ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

হাসপাতালটির পাঁচটি করোনা ওয়ার্ডে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত ভর্তি আছেন ২২৪ জন রোগী। তাদের মধ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জের ৯৬ জন, রাজশাহীর ১০১ জন,  নওগাঁর ৯ জন, নাটোরের ৭ ও পাবনার ৬ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ২৯ জন।

হাসপাতালে করোনা রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় করোনা ডেডিকেটেড ওয়ার্ড বাড়ানোর সিধান্ত নিয়েছে হাসপাতাল কতৃপক্ষ।

এর আগে বুধবার (০২ জুন) রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনায় ৭ জন্য রোগী মারা যায়। এদের মধ্যে পাঁচজন করোনা পজেটিভ ছিলেন। বাকি দুজনের উপসর্গ ছিল। তার মধ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জের তিনজন, রাজশাহীর তিনজন ও নাটোরের একজন ছিলেন।

এদিকে বুধবার রাজশাহী জেলা প্রশাসক আব্দুল জলিল জানান, রাজশাহীতে চলমান বিধিনিষেধের (লকডাউন) চারটি শর্ত বাড়িয়েছে।

জেলার করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে প্রতিদিন সন্ধ্যা ৭টার মধ্যে সব দোকানপাট বন্ধ, ৭টার পর জনসাধারণের ঘরের বাইরে বের হওয়া, সব ধরনের গণজমায়েত ও সভা-সমাবেশ নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। একই সঙ্গে সব বিনোদনকেন্দ্রও বন্ধ রাখার নির্দেশ আরোপ করা হয়েছে।

আব্দুল জলিল জানান, জেলায় সপ্তাহ ধরে ক্রমাগত করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির কারণে উদ্বেগজনক পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। প্রতিদিনের করোনা টেস্টের বিপরীতে রাজশাহীতে সংক্রমণের হার ৪০ শতাংশের ওপরে যাচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে চলমান লকডাউনের মধ্যে চারটি শর্ত বাড়ানো হয়েছে। পাশাপাশি এসব শর্ত বাস্তবায়নে জেলা প্রশাসন কঠোরতা আনবে। তবে আম ও কৃষিপণ্য এসব নিষেধাজ্ঞার আওতামুক্ত থাকবে।



আরও খবর



দেশে ফাইজারের টিকা আসছে আজ

প্রকাশিত:রবিবার ৩০ মে ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ১৪৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কোভ্যাক্সের পক্ষ থেকে ফাইজার বায়োএনটেকের টিকা দেশে আসছে আজ। রবিবার রাতে ফাইজারের এক লাখ ৬২০ ডোজ টিকা দেশে এসে পৌঁছবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ভ্যাকসিন ডেপ্লয়মেন্ট কমিটির সদস্য সচিব ডা. শামসুল হক।

তিনি জানান, কোভ্যাক্সের পক্ষ থেকে রোববার রাত ১১টা ২০ মিনিটে কাতার এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে ফাইজারের টিকাগুলো দেশে পৌঁছবে। তবে কাদের এবং কবে থেকে এই টিকা দেওয়া হবে, সে বিষয়ে এখনো চূড়ান্ত হয়নি বলে জানান তিনি।

এর আগে গত ১৯ মে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মাইদুল ইসলাম জানিয়েছিলেন, ২ জুন গ্যাভির কোভ্যাক্স ফ্যাসিলিটি থেকে ফাইজারের অন্তত এক লাখ ৬ হাজার টিকা বাংলাদেশে পাঠাবে।

এদিকে দেশের চতুর্থ টিকা হিসেবে জরুরি ব্যবহারের জন্য অনুমোদন পেয়েছে ফাইজারের টিকা। গত বৃহস্পতিবার ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর মহাপরিচালক এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের পক্ষ থেকে গত ২৪ মে স্টিকার ইমারজেন্সি ইউজ অথরাইজেশনের জন্য আবেদন করা হয়। আবেদনের প্রেক্ষিতে অধিদপ্তরের ভ্যাকসিন দেওয়ার (ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে সিএমসি পার্ট রেগুলারিটি স্ট্যাটাস) পর্যবেক্ষণ করে ২৫ মে পাবলিক হেলথ ইমার্জেন্সির ক্ষেত্রে ওষুধ ইনভেস্টিগেশনাল ভ্যাকসিন এবং মেডিকেল ডিভাইস মূল্য নির্ধারণ কমিটির মতামতের জন্য উপস্থাপন করা হয়। কমিটির সুপারিশের ভিত্তিতে ২৭ মে টিকার অনুমোদন প্রদান করে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর।

প্রসঙ্গত, গত ৩১ ডিসেম্বর বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ফাইজারের টিকা জরুরি ব্যবহারের জন্য অনুমোদন করে। এই টিকা ১২ বছরের উপরের বয়সীদের ব্যবহারের উপযোগী এটি সংরক্ষণ করতে হিমাঙ্কের নিচে ৬০ থেকে ৯০ ডিগ্রি তাপমাত্রা প্রয়োজন হয়। তবে ২ থেকে ৮ ডিগ্রি তাপমাত্রায় ৫ দিন সংরক্ষণ করা সম্ভব।

দেশের করোনার সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর এ নিয়ে চারটি টিকা ইমারজেন্সি ইউজ অথরাইজেশন প্রদান করেছে। প্রথমেই ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট কর্তৃক উদ্ভাবিত অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্র্যাজেনেকা টিকার অনুমোদন দেওয়া হয়। পরে জরুরি ব্যবহারের জন্য রাশিয়ার উৎপাদিত টিকা স্পুটনিক-এর অনুমোদন দেওয়া হয়। ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর তারপরেই অনুমোদন দেয় চীনের সিনোফার্মের টিকা।


নিউজ ট্যাগ: ফাইজারের টিকা

আরও খবর



প্রতি ডোজ ১০ ডলারে চীন থেকে টিকা কিনবে সরকার

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৭ মে ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২০ জুন ২০21 | ৯৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

চীনের তৈরি সিনোফার্মার কোভিড টিকার প্রতি ডোজ ১০ ডলারে কেনার প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি।  একই সঙ্গে আগস্টের মধ্যে দেড় কোটি ডোজ ভ্যাকসিন কিনবে সরকার।

বৃহস্পতিবার সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির ১৯তম সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়।  সভা শেষ অতিরিক্ত সচিব শাহিদা আকতার ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, জুন, জুলাই ও আগস্ট এই তিন মাসে ৫০ লাখ ডোজ করে ভ্যাকসিন আসবে।

সভায় স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের অধীন সেন্ট্রাল মেডিকেল স্টোরস ডিপোর (সিএমএসডি) জন্য ৫৪ কোটি টাকায় নয়টি প্রতিষ্ঠান থেকে ছয় লাখ আরটি-পিসিআর টেস্ট কিট কেনার প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়।

এছাড়া, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের অধীনে স্বাস্থ্য অধিদফতরের কোভিড-১৯ ইমার্জেন্সি রেসপন্স অ্যান্ড প্যানডেমিক প্রিপেয়ার্ডনেস প্রকল্পের আওতায় এক হাজার ১৫৪ জন জনবল নিয়োগ এবং ১৩৩ কোটি ৭৫ লাখ ৪২ হাজার ৪১৬ টাকায় জাতিসংঘের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান ইউএনএফপিএ-এর কাছ থেকে ৪৮টি যানবাহন (আউটসোর্সিং) কেনার প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

এদিন স্থানীয় সরকার বিভাগের দুটি, স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের দুটি, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগের একটি, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের একটি, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের একটি, পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের একটি এবং বাস্তবায়ন পরিবীক্ষণ ও মূল্যায়ন বিভাগের একটি প্রস্তাবনা উত্থাপন করা হয়। আটটি প্রস্তাবে মোট অর্থের পরিমাণ দুই হাজার ৫০০ কোটি ৭৮ লাখ ৩৬ হাজার ৭৫০ টাকা। মোট অর্থায়নের মধ্যে সরকার (জিওবি) দেবে দুই হাজার ১১ কোটি ৫১ লাখ ৯৬ হাজার ৩৯৩ টাকা এবং বিশ্বব্যাংক, এডিবি, এএফডি ও ইআইবির ঋণ ৪৮৯ কোটি ২৬ লাখ ৪০ হাজার ৩৫৭ টাকা।


নিউজ ট্যাগ: চীনা টিকা

আরও খবর