Logo
শিরোনাম

বিশ্বের যে স্থানে রাত হয় না!

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১২ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ৯৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বিশ্বের বেশ কয়েকটি স্থোন আছে যেখানে সূর্যের দেখা পাওয়াই মুশকিল। আবার এমনও কিছু স্থান আছে যেখানে সূর্য অস্ত যেতেই ভুলে যায়। বিশ্বে এমন কয়েকটি স্থান আছে, যেখানে ২৪ ঘণ্টা পর্যন্তই কখনো কখনো দিন থাকে। সেসব স্থান কখনো পুরোপুরি অন্ধকার হয় না। দিনের পরিমাণই হয় সবচেয়ে বেশি। অর্থাৎ টানা ২৪ ঘণ্টাই সেখানে আপনি কেবল দিন দেখতে পাবেন। জেনে নিন সেসব অদ্ভুত জায়গার তালিকা-

ইউমা, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র: ওয়ার্ল্ড মেটিওরো লজিক্যাল অর্গানাইজেশনের মতে, ইউমা (অ্যারিজোনা) হলো পৃথিবীর দীর্ঘতম দিনযুক্ত স্থান। এখানে শীতকালে মোট ১১ ঘণ্টা ও গ্রীষ্মে ১৩ ঘণ্টা পর্যন্ত সূর্যের আলো দেখা যায়। এর মানে হলো, ইউমা বছরে গড়ে চার হাজার ১৫ ঘণ্টা সূর্যালোক পায়। এখানকার ৯০ হাজারেরও বেশি বাসিন্দা শুষ্ক জলবায়ুর সম্মুখীন হন। এই স্থানে বৃষ্টিপাত ২০০ মিলি মিটারের বেশি হয় না ও তাপমাত্রা বেশিরভাগ সময়ে ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের উপরে থাকে।

ফিনিক্স, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র: পৃথিবীর দ্বিতীয় রৌদ্রজ্জ্বল স্থান হলো মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ফিনিক্স। সেখানেও সূর্য অস্ত যায় না। ফিনিক্স কিন্তু আসলে অ্যারিজোনার রাজধানী। এই স্থান বছরে ৩ হাজার ৮৭২ ঘণ্টা সূর্যালোক পায়। এ কারণে স্থানটি সূর্যের উপত্যকা নামে পরিচিত। এই স্থানের জনসংখ্যা প্রায় দেড় মিলিয়ন। জুন ও সেপ্টেম্বর মাসে এখানকার তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রির উপরে চলে যায়। ১৯৯০ সালে এখানকার তাপমাত্রা রেকর্ড ৫০ ডিগ্রিতে গিয়ে পৌঁছেছিল।

আসওয়ান, মিশর: নীল নদী উপত্যকা সম্পর্কে কথা বলা জরুরি। মিশরের দক্ষিণ দিকে অবস্থিত আসওয়ান আফ্রিকার সবচেয়ে রৌদ্র করোজ্জ্বল শহর। সেখানে প্রতিদিন প্রায় সাড়ে ১০ ঘণ্টার বেশি সূর্যের আলো থাকে। প্রতিবছর প্রায় সূর্যের আলো থাকে প্রায় ৩ হাজার ৮৬৩ ঘণ্টা। এখানকার প্রাচীন শহর এলিফ্যান্টাইন হেলেনিস্টিক যুগ পর্যন্ত একটি গুরুত্বপূর্ণ স্থান ছিল।

রাজুকান, নরওয়ে: নরওয়ের দক্ষিণে একটি উপত্যকায় অবস্থিত ছোট গ্রাম রাজুকান। এর প্রাকৃতিক সম্পদ নানা কারণে ভীষণভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ভৌগোলিক অবস্থানের কারণে রাজুকান এলাকাটি বছরের ৬ মাস সূর্যের আলোও দেখতে পায় না। সেপ্টেম্বর মাস থেকে মার্চ মাস পর্যন্ত এখানে সূর্যের রশ্মি সবচেয়ে কম পড়ে।

ব্যারো, আলাস্কা: আলাস্কার এই ব্যারো অঞ্চলে সূর্য অস্ত যায় না। তবে নভেম্বর মাস থেকে শুরু করে পরবর্তী ৩০ দিন সূর্যের বিন্দুমাত্র আলোও দেখা যায় না। এই স্থান পোলার নাইটস নামেও পরিচিত। প্রচণ্ড শীতেও এই অঞ্চল পুরোপুরি অন্ধকারে ঢাকা থাকে। তুষারে ঢাকা পাহাড় ও মনমুগ্ধকারী হিমবাহ দেখতে যেতে পারেন বিখ্যাত আলাস্কার ব্যারোতে। গ্রীষ্ম বা শীতকাল যে কোনো সময়ই সেখানে যেতে পারেন পর্যটকরা।

নিউজ ট্যাগ: ইউমা

আরও খবর

সেন্টমার্টিনের রিপ কারেন্ট থেকে সাবধান!

বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩




মিয়ানমারে সেনাবাহিনীর অতর্কিত বিমান হামলায় নিহত ৭

প্রকাশিত:শুক্রবার ২০ জানুয়ারী ২০23 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩ | ২৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মিয়ানমারের স্যাগাইং অঞ্চলের একটি গ্রামে দেশটির সশস্ত্র বাহিনীর অতর্কিত বিমান হামলায় অন্তত ৭ বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। বুধবার গভীর রাতে স্যাগাইংয়ের ওই গ্রামে সশস্ত্র বাহিনী বিমান হামলা চালিয়েছে বলে স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন।

প্রায় দুই বছর আগে সেনাবাহিনীর ক্ষমতা দখলের পর থেকে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এই দেশটি নজিরবিহীন এক সঙ্কটের মুখোমুখি হয়েছে। গণতন্ত্রের পথে এক দশকের অস্থায়ী যাত্রার অবসান ঘটিয়ে সামরিক জান্তার ক্ষমতা দখল বিশ্বজুড়ে ক্ষোভের জন্ম দিয়েছে।

সেনাবাহিনীর অভ্যুত্থানের বিরোধীরা গেরিলা বাহিনী গঠন করে গণতান্ত্রিক সরকার ফিরিয়ে আনার দাবিতে আন্দোলন করছেন।

এক প্রত্যক্ষদর্শীর বর্ণনা ও বিবিসি বার্মিজের প্রতিবেদন অনুযায়ী, বুধবার গভীর রাতে স্যাগাইংয়ের কাথা শহরের মোয়ে তার লে গ্রামে ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে সামরিক বিমান থেকে বোমা ফেলা হয়েছে। তবে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম রয়টার্স এই তথ্যের সত্যতা যাচাই করতে পারেনি বলে জানিয়েছে।

এই বিষয়ে মন্তব্য জানতে তাৎক্ষণিকভাবে মিয়ানমারের জান্তার একজন মুখপাত্রের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি, বলছে রয়টার্স।

প্রত্যক্ষদর্শী এবং গণমাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী, সামরিক বাহিনীর বোমা হামলায় অন্তত সাতজন গ্রামবাসী মারা গেছেন। তাদের মধ্যে কয়েকজনের দেহ পুড়ে যাওয়ায় পরিচয় শনাক্ত করা যায়নি। বোমা হামলায় আহত হয়েছেন আরও কমপক্ষে পাঁচজন।

বোমা হামলার প্রত্যক্ষদর্শী ৪৪ বছর বয়সী জিন বলেন, কয়েক ডজন বাড়িঘর ধ্বংস হয়েছে এবং কিছু জেলায় যোগাযোগ ও বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে।

টেলিফোনে রয়টার্সকে তিনি বলেন, ভয়ানকভাবে পুড়ে যাওয়া কিছু মৃতদেহ গতকাল রাতে দাফন করা হয়েছে এবং অন্যদের আজ দাফন করা হবে।’ নিরাপত্তার কারণে নিজের পুরো নাম প্রকাশ করতে অস্বীকৃতি জানান জিন।

আরও বিমান হামলার আশঙ্কায় স্থানীয় বাসিন্দারা মোয়ে তার লে গ্রাম ছেড়ে পালিয়ে গেছেন বলে জানিয়েছেন তিনি। ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারিতে সেনাবাহিনী নির্বাচিত সরকারকে উৎখাত করার পর থেকে সংঘাতে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে মিয়ানমার। দেশজুড়ে প্রতিরোধ আন্দোলন ও কিছু সশস্ত্র গোষ্ঠী আবির্ভূত হয়েছে। আর এসব গোষ্ঠীকে মোকাবিলায় জান্তা বাহিনী প্রায়ই প্রাণঘাতী শক্তি ব্যবহার করছে।

জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ মিয়ানমারের সহিংসতা বন্ধ এবং ক্ষমতাচ্যুত নেত্রী অং সান সু চিসহ সব রাজনৈতিক বন্দীকে মুক্তি দিতে দেশটির সেনাবাহিনীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।


আরও খবর



আরবদের সঙ্গে সম্পর্ক পরীক্ষা করবে ইসরায়েল

প্রকাশিত:রবিবার ০৮ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩ | ৩৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ইসরায়েলের ইহুদিদের প্রতিনিধিত্ব করেন ইতামার বেন গিভির। ফিলিস্তিনিদের বিপক্ষে ঘৃণা ছড়ানোর অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। তিনি এমন একটি দলের নেতা যারা ইহুদি শ্রেষ্ঠত্ব প্রতিষ্ঠায় কাজ করছে। তারপরও ১ ডিসেম্বর তেল আবিবে সংযুক্ত আরব আমিরাতের জাতীয় দিবস উদযাপনে অন্যান্যদের সঙ্গে তাকেও আমন্ত্রণ জানানো হয়। কিন্তু এর একমাস পর সংযুক্ত আরব আমিরাতকে ঘটনার জন্য নিন্দা করতে হয়। চলতি বছরের ৩ জানুয়ারি বেন-গিভির আল-আকসা মসজিদে সফর করেন। আরব রাষ্ট্রগুলো তার এই সফরেরও নিন্দা জানান। সংযুক্ত আরব আমিরাত তার এই সফরকে মারাত্মক উসকানিমূলক বলে আখ্যায়িত করেন।

ইসরায়েলের ইতিহাসে বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর বর্তমান জোট সরকার সবচেয়ে বেশি ডানপন্থি। ফিলিস্তিনিদের ধারণা, পরিস্থিতি আরও অবনতি হতে পারে। তবে অতি ডানপন্থিদের নিয়ে সরকার গঠনের পরও আরব রাষ্ট্র ও ইসরায়েলের মধ্যে সম্পর্ক অব্যাহত থাকতে পারে। গত কয়েক দশক ধরে আর আরব রষ্ট্রগুলোর তীব্র নিন্দা হজম করতে হয় ইসরায়েলকে। ২০২০ সাল পর্যন্ত মাত্র দুইটি আরব রাষ্ট্র মিশর ও জর্ডানের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক সম্পর্ক ছিল ইসরায়েলের। এরপরে আসে আব্রাহাম চুক্তি। ২০২০ সালে বাহরাইন, মরক্কো, সুদান ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক সম্পর্ক স্থাপন করতে রাজি হয় ইসরায়েল। আরব দেশগুলো বিশেষ করে আমিরাত যুক্তি দেখায় এই নতুন সম্পর্কের ফলে ইসরায়েলে ওপর তাদের প্রভাব বাড়বে।

নেতানিয়াহু অধিকৃত পশ্চিম তীরে ইহুদি বসতি সম্প্রসারণ করতে চান। তিনিই প্রথম ইসরায়েলি নেতা যিনি তার জোটের অংশীদারদের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন পশ্চিমতীরকে সংযুক্ত করতে কাজ করবেন। যদিও এই পশ্চিমতীর একটি ভবিষ্যত ফিলিস্তিনি রাষ্ট্রের কেন্দ্রস্থল। এক্ষেত্রে অন্তত প্রকাশ্যে হলেও কিছুটা চাপ প্রয়োগ করতে আগ্রহী আরব নেতারা। এদিকে নেতানিয়াহুকে স্বাগত জানিয়েছে মিশর ও আমিরাতের শাসক। বাহরাইনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন তার প্রধানমন্ত্রী শান্তিতে বিশ্বাস করেন। তাছাড়া নেতানিয়াহু আশা করছেন তার প্রথম বিদেশ সফর শুরু হতে পারে আবুধাবি দিয়ে।

অন্যদিকে সৌদি আরবের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ফিলিস্তিন রাষ্ট্র তৈরি করলেই ইসরায়েলকে স্বীকৃতি দেওয়া হবে। এর আগে সৌদি সফর করে যুবরাজ মোহাম্মাদ বিন সালমানের সঙ্গে দেখা করেন। সে সফরে তারা ইরান ইস্যুতে একমত পোষণ করেন। নেতানিয়াহু মনে করছেন, তার শাসনামলে দ্বিতীয়বারের মতো কূটনৈতিক সফলতা আসবে। গত মাসে এক সক্ষাতকারে সৌদি আরবের সঙ্গে নতুন চুক্তির ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি। নতুন করে অনেক আরব দেশ ইসরায়েলের সঙ্গে চুক্তিতে যোগ দিতে চায়। কিন্তু সৌদি আরবের সঙ্গে চুক্তি হলে সেটা হবে বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

নিউজ ট্যাগ: ইসরায়েল

আরও খবর



বিশ্বব্যাংকের পূর্বাভাস

চলতি অর্থবছরে বাংলাদেশে প্রবৃদ্ধি নামবে ৫.২ শতাংশে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১২ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ৩১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বিশ্ব অর্থনীতিতে মন্দার শঙ্কা বাড়ছে। এর মধ্যেই ২০২৩ সালের বৈশ্বিক প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস প্রায় অর্ধেক কমিয়েছে বিশ্বব্যাংক। আর বিশ্ব অর্থনীতির মতো বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাসও কমিয়েছে সংস্থাটি। চলতি অর্থবছরে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি নামবে ৫.২ শতাংশে। গ্লোবাল ইকোনমিক প্রসপেক্টস জানুয়ারি ২০২৩ নামক এক বার্ষিক প্রতিবেদনে সংস্থাটি এই তথ্য সামনে এনেছে।

সংবাদমাধ্যম বলছে, বিশ্বব্যাংক চলতি অর্থবছরে বাংলাদেশের অর্থনীতির প্রবৃদ্ধি ৫.২ শতাংশে নামবে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে। যা আগের বছরের ৭.২ শতাংশ প্রবৃদ্ধি থেকে কম। এর আগে গত বছরের অক্টোবরে বলা হয়েছিল, ৬ দশমিক ১ শতাংশ প্রবৃদ্ধি অর্জিত হতে পারে বাংলাদেশের। বিশ্বব্যাংকের গ্লোবাল ইকোনমিক প্রসপেক্টস জানুয়ারি ২০২৩ রিপোর্টে বলা হয়েছে, ক্রমবর্ধমান মুদ্রাস্ফীতি, গৃহস্থালীর আয় ও সংস্থাগুলোর ব্যয়ের ওপর নেতিবাচক প্রভাব, সেইসাথে জ্বালানি ঘাটতি, আমদানি বিধিনিষেধ এবং মুদ্রানীতি কঠোর হওয়ার কারণে ২০২২-২৩ অর্থবছরে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি ৫.২ শতাংশে নামবে বলে আশা করা হচ্ছে।

রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে, বাংলাদেশের অনুমিত এই প্রবৃদ্ধি আগের বছরের ৭.২ শতাংশ প্রবৃদ্ধির তুলনায় কম। কিন্তু আশা করা হচ্ছে, এটি আবারও বাড়বে এবং ২০২৩-২৪ অর্থবছরে বাংলাদেশ তার সম্ভাব্য গতিতে ফিরে আসবে। অবশ্য পরিবর্তিত বৈশ্বিক পরিস্থিতির প্রভাবে বাংলাদেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বিশ্বব্যাংক বলেছে, বিশ্বব্যাপী জ্বালানির দাম এবং পরিবার ও ব্যবসার জ্বালানি চাহিদা মেটানোর বিষয়ে বাংলাদেশ বেশ সংকটের মধ্যে ছিল।

ওয়াশিংটন-ভিত্তিক এই ঋণদাতা সংস্থার মতে, বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ হ্রাস বাংলাদেশের অর্থনীতির সংকটে পড়ার ঝুঁকি বাড়িয়েছে। রিপোর্টে বলা হয়েছে, উচ্চ মূল্যবৃদ্ধির জেরে সরকার জ্বালানি খরচ কমাতে ব্ল্যাকআউট এবং কারখানা বন্ধ করার মতো পদক্ষেপ নিয়েছে। একইসঙ্গে যানবাহন ক্রয় বন্ধ করে দেওয়া এবং বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ সংরক্ষণের জন্য অন্যান্য পদক্ষেপের মধ্যে বিলাসবহুল পণ্য ক্রয় করাও কঠিন করে বাংলাদেশ সরকার।

বিশ্বব্যাংক বলেছে, করোনা মহামারির কারণে ২০১৯-২০ অর্থবছরে বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি ছিল ৩ দশমিক ৪ শতাংশ। এরপর ২০২০-২১ অর্থবছরে প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৬ দশমিক ৯ শতাংশ। আর গত অর্থবছরে এই প্রবৃদ্ধির হার ছিল ৭ দশমিক ২ শতাংশ। এছাড়া চলতি বছর বৈশ্বিক অর্থনীতি বিপজ্জনকভাবে মন্দার কাছাকাছি আসবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে বিশ্বব্যাংক। মঙ্গলবার সংস্থাটি সতর্ক করে বলেছে, বিশ্বের শীর্ষ অর্থনীতি যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ এবং চীনের দুর্বল প্রবৃদ্ধির জেরে এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হতে পারে।

এদিনই ২০২৩ সালের বৈশ্বিক প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস প্রায় অর্ধেক কমিয়েছে তারা। মূলত সারা বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সুদের হার বাড়ানোর প্রবণতা, ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন অব্যাহত ও বিশ্বের প্রধান অর্থনৈতিক শক্তিগুলোর নড়বড়ে অবস্থানের কারণে দেশগুলো অর্থনৈতিক মন্দার মুখোমুখি হয়েছে। আর এর জেরেই বৈশ্বিক প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস কমিয়েছে বিশ্ব ব্যাংক। ব্যাংকটি জানিয়েছে, তারা ২০২৩ সালে বৈশ্বিক মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) প্রবৃদ্ধি ১ দশমিক ৭ শতাংশ হবে বলে প্রত্যাশা করছে। ২০০৯ সাল ও ২০২০ সালের অর্থনৈতিক মন্দার সময়টা বাদ দিলে গত তিন দশকের মধ্যে এটিই হবে সবচেয়ে ধীর প্রবৃদ্ধির হার।

বিশ্ব ব্যাংক বলছে, প্রবৃদ্ধির হার কমায় উদীয়মান অর্থনীতি ও উন্নয়নশীল দেশগুলোর ওপর বড় ধরনের প্রভাব পড়বে। এসব দেশ ঋণের বোঝা মোকাবিলা করতে সমস্যায় পড়বে। এছাড়া দুর্বল মুদ্রা, আয়ের প্রবৃদ্ধিতে স্থবিরতা ও বাণিজ্যখাতে বিনিয়োগের পরিমাণ কমতে থাকায় পরবর্তী ২ বছরে এই দেশগুলোতে বার্ষিক প্রবৃদ্ধির হার ৩ দশমিক ৫ শতাংশ হবে বলে ধারণা করা হয়েছে, যা গত ২ দশকের তুলনায় অর্ধেক। ২০২২ সালের শেষের দিকে এসে জ্বালানি ও নিত্যপণ্যের অপেক্ষাকৃত কম মূল্যের কারণে কিছু পরিমাণে মূল্যস্ফীতির চাপ কমে এসেছে, তবে সংস্থাটি সতর্ক করে বলেছে, সরবরাহ খাতে নতুন করে বিঘ্ন দেখা দেওয়ার ঝুঁকি অনেক বেশি এবং সার্বিকভাবে মূল্যস্ফীতির ধারা অটুট থাকতে পারে।

সংস্থাটি আরও জানিয়েছে, এর ফলে কেন্দ্রীয় ব্যাংকগুলো প্রতিক্রিয়া হিসেবে পলিসি রেট বর্তমান প্রত্যাশিত হারের চেয়ে বেশি হারে বাড়াতে পারে। এসব উদ্যোগের পরিণাম হিসেবে বৈশ্বিক মন্দা পরিস্থিতির আরও অবনতি হতে পারে।

নিউজ ট্যাগ: বিশ্ব অর্থনীতি

আরও খবর



আজকের রাশিফল ৩ জানুয়ারি ২০২৩

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৩ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:রবিবার ২২ জানুয়ারী ২০২৩ | ৬৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আজকের রাশিফল এর ওপর চোখ রেখে শুরু করুন আপনার দিন। রাশিফল হল জ্যোতিষ শাস্ত্রের একটি অন্যতম অঙ্গ। বহু মানুষ রাশিফলের দিকে নজর রেখেই পদক্ষেপ নেন জীবনে। কারণ, রাশিফলই আপনাকে জানিয়ে দিতে পারে গোটা দিনের এক সামগ্রিক ছবি। পাশাপাশি, জীবনে চলার প্রতিটি পদক্ষেপে আপনার ভাগ্যের চাকা কোন দিকে ঘুরছে সে সম্পর্কেও আঁচ পেতে পারেন আপনি। এছাড়াও, সতর্ক হওয়া যায় আসন্ন বিপদ থেকেও। তাই, জেনে নিন কেমন যাবে আপনার দিনটি:

মেষ রাশি: সহায়ক গ্রহগুলি আজ আপনাকে সন্তুষ্ট বোধ করার প্রচুর কারণ এনে দেবে। জীবনসঙ্গীর সাথে আজ দুর্দান্ত সময় কাটবে। আপনার অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাত্রা বাড়িতে উত্তেজনার সৃষ্টি করতে পারে। অযথা অর্থব্যয় থেকে আজ বিরত থাকুন। মদ্যপান ত্যাগ করার চেষ্টা করুন। কোনো মূল্যবান উদ্যোগে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার আগে অবশ্যই সতর্ক হন। অত্যধিক ভ্রমণের ফলে আজ আপনি ক্লান্ত হয়ে পড়তে পারেন।

বৃষ রাশি: কোনো সামাজিক তথা ধর্মীয় অনুষ্ঠানের জন্য আজকের দিনটি নিঃসন্দেহে ভালো। আজকে করা বিনিয়োগ আজ আপনার আর্থিক সমৃদ্ধি বাড়িয়ে তুলবে। ভালোবাসার মানুষটির কাছ থেকে আজ আপনি একটি সুন্দর সারপ্রাইজ পেতে পারেন। কর্মক্ষেত্রে আজকে দুর্দান্ত দিন কাটবে। প্রেমের জীবন আজ প্রস্ফুটিত হবে। পাশাপাশি, অর্ধাঙ্গিনীর সাথে আজ দুর্দান্ত সময় কাটবে।

মিথুন রাশি: সন্ধ্যেবেলায় হঠাৎ করে বাড়িতে কোনো আত্মীয় চলে আসার কারণে আপনার কোনো পরিকল্পনা বিঘ্নিত হতে পারে। আজ আপনি আপনার শারীরিক সক্ষমতা বজায় রাখতে কোনো খেলাধূলায় অংশগ্রহণ করতে পারেন। কর্মক্ষেত্রে অপ্রয়োজনীয় কোনো কথা না বলাই ভালো। কোনো অভিজ্ঞ ব্যক্তির পরামর্শ ছাড়া কোথাও বিনিয়োগ করলে ক্ষতির সম্মুখীন হতে পারেন। আজকের দিনটিতে আপনার মানসিক শান্তি বজায় থাকবে। বিবাহিতদের জন্য দিনটি ভালো।

কর্কট রাশি: আজ এমন একটি ঘটনা ঘটতে পারে যা আপনাকে বিভ্রান্ত করে দিতে পারে। যাঁরা এখনও বেতন পাননি তাঁরা অর্থ সম্পর্কিত বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করতে পারেন। পাশাপাশি, সঙ্কট এড়াতে বন্ধুদের কাছ থেকে ঋণ চাইতে পারেন। বাড়ির কোনো কাজ করার সময়ে যত্নশীল হন। নাহলে কোনো সমস্যায় পড়তে পারেন। পরিবারের সদস্যদের সাথে সংযত হয়ে কথা বলুন।

সিংহ রাশি: আপনার সৃজনশীল ক্ষমতার বহিঃপ্রকাশ আজ ঘটবে। আজকের দিনটি অন্যান্য দিনগুলির তুলনায় অর্থনৈতিকভাবে আরও ভালো প্রমাণিত হবে এবং আপনি যথেষ্ট অর্থ উপার্জন করতে সক্ষম হবেন। গাড়ি চালানোর সময়ে আজ অবশ্যই যত্নশীল হন। কোনো ধর্মীয় স্থানে গিয়ে আপনার মানসিক শান্তি বৃদ্ধি পাবে। অবসর সময়ের আনন্দ উপভোগ করার জন্য আজ আপনি একাকী সময় কাটাতে পারেন।

কন্যা রাশি: আজকে ভালোবাসার মানুষটির চরিত্র নিয়ে কোনো সন্দেহ করবেন না। আপনি আজ কোনো দীর্ঘস্থায়ী অসুস্থতা থেকে পরিত্রাণ পেতে পারেন। অবসর সময়ে আজকে আপনি কোনো সিনেমা দেখতে পারেন। যদিও, সেই সিনেমাটি আপনার পছন্দ হবে না। অর্থাৎ, শুধু আপনার সময়টাই নষ্ট হবে। বিনোদন এবং আমোদ-প্রমোদের জন্য আজ ভালো দিন। ব্যবসায়িক কারবারগুলিকে আজ সতর্কতার সাথে সামলাতে হবে।

তুলা রাশি: প্রতিবেশীদের কাছ থেকে কিছু শোনার পরিপ্রেক্ষিতে আজকে আপনার স্ত্রীর আপনার ওপর রেগে যাবেন। আজ আপনি কোনো দীর্ঘস্থায়ী অসুস্থতা থেকে পরিত্রাণ পেতে পারেন। বাবা-মায়ের স্বাস্থ্যের প্রতি অতিরিক্ত নজর দিন। কোনো গুরুত্বপূর্ণ কাজ হঠাৎ স্থগিত হওয়ার কারণে আজ আপনি হতাশ হতে পারেন। যাঁরা আজ পর্যন্ত অহেতুক তাঁদের অর্থব্যয় করে আসছিলেন আজকে তাঁরা আর্থিক সঙ্কটে পড়বেন।

বৃশ্চিক রাশি: আজ আপনার কোনো পার্কে বেড়াতে গিয়ে এমন এক ব্যক্তির সাথে দেখা হতে পারে যাঁর সাথে অতীতে আপনার কোনো বিরোধ হয়েছিল। কর্মব্যস্ত দিনটির ধকল কমাতে আজ একটি সুন্দর ডিনারের পরিকল্পনা করুন। শিশুদের সাথে আজ কিছুটা সময় কাটান। এতে মন ভালো থাকবে। পারিবারিক দিকে কিছু সমস্যা আসতে পারে। বিবাহিতদের জন্য দিনটি ভালো।

ধনু রাশি: আকষ্মিক প্রেমঘটিত সাক্ষাৎ আজ আপনার মেজাজকে চাঙ্গা করে দেবে। আপনার অর্থনৈতিক দিকটি আজ শক্তিশালী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। পরিবারের প্ৰয়োজনীয়তাকে আজ অবশ্যই অগ্রাধিকার দিন। যদি আপনি কোনো ব্যক্তিকে অর্থ ধার দিয়ে থাকেন সেক্ষেত্রে আপনি আজ সেই টাকা ফেরত পেতে পারেন। অর্ধাঙ্গিনীর সাথে ভালো সময় কাটবে।

মকর রাশি: আজ এমন একটি ঘটনা ঘটতে পারে যা আপনাকে বিভ্রান্ত করে দিতে পারে। অত্যধিক দুশ্চিন্তা এবং চাপ আজ আপনার শরীর খারাপ করে দিতে পারে। তাই, মন ভালো রাখুন। আজ যদি আপনি আপনার বন্ধুদের সাথে বেড়াতে যাওয়ার পরিকল্পনা করে থাকেন সেক্ষেত্রে চিন্তাভাবনা করে অর্থব্যয় করুন। নাহলে আর্থিক সঙ্কটে পড়বেন। প্রেমের জন্য দিনটি ভালো।

কুম্ভ রাশি: আপনার বাড়ির পরিবেশে কোনো পরিবর্তন করার আগে সবার সম্মতি পেয়েছেন কি না সে বিষয়ে নিশ্চিত হন। দুর্বলতা এড়াতে আজ দীর্ঘভ্রমণ এড়িয়ে চলুন। আজকে আপনি আপনার কোনো বন্ধুর সাথে সময় কাটাতে পারেন। কর্মক্ষেত্রে আপনি আজ কোনো সাহসী পদক্ষেপ নেবেন। বিবাহিত জীবন সুখের হবে। আর্থিক দিক থেকে দিনটি ভালো।

মীন রাশি: কোনো অংশীদারিত্বে দায়বদ্ধ হওয়ার আগে অবশ্যই সতর্ক হন। আজ কোনো ধর্মীয় কাজে আপনি মনোনিবেশ করবেন। দীর্ঘসময়ের স্থগিত কোনো পাওনা আজ পুনরুদ্ধার করা যাবে। আপনার স্ত্রী আজ খুব আত্মকেন্দ্রিক কোনো কাজ করতে পারেন। আত্মীয় এবং বন্ধুদের কাছ থেকে কোনো অপ্রত্যাশিত উপহার এবং উপঢৌকন পাবেন। বাড়িতে আজ আপনি এমন কোনো একটি পুরোনো জিনিস খুঁজে পাবেন যা আপনাকে আপনার শৈশব মনে করিয়ে দেবে।

নিউজ ট্যাগ: রাশিফল

আরও খবর

আজকের রাশিফল: জেনে নিন কেমন কাটবে দিন ?

শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩

অ্যাকনে যখন মাথার ত্বকে

বুধবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৩




টিভিতে আজকের খেলা

প্রকাশিত:বুধবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩ | ১৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

অনূর্ধ্ব-১৯ নারী টি-২০ বিশ্বকাপের ম্যাচে আজ আরব আমিরাতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশের মেয়েরা। অস্ট্রেলিয়ায় ক্রিকেট মাঠের বিগ ব্যাশের সঙ্গে টেনিস কোর্টে রয়েছে অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের লড়াই।

চলুন এক নজরে দেখে আসা যাক ক্রীড়াপ্রেমীরা আজ টিভির পর্দায় কোন কোন খেলা উপভোগ করতে পারবেন।

ক্রিকেট

অ-১৯ নারী টি-২০ বিশ্বকাপ

বাংলাদেশ-সংযুক্ত আরব আমিরাত

বিকেল ৫টা ৪৫ মিনিট

র‍্যাবিটহোল, আইসিসি

ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ

বিকেল ৫টা ৪৫ মিনিট

র‍্যাবিটহোল, আইসিসি

বিগ ব্যাশ

মেলবোর্ন স্টার্স-সিডনি থান্ডার্স

বেলা ২টা ১৫ মিনিট

সনি টেন ১

ফুটবল

বুন্দেসলিগা

মেইঞ্জ-ডর্টমুন্ড

রাত ১১টা ৩০ মিনিট

সনি টেন ২

টেনিস

অস্ট্রেলিয়ান ওপেন

কোয়ার্টার ফাইনাল

সকাল ৬টা ও বেলা ২টা

সনি স্পোর্টস টেন ২ ও ৫


আরও খবর