Logo
শিরোনাম

বিয়ের হাত থেকে বাঁচতে রোগী সেজে হাসপাতালে বর

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ১৬৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

স্কুলবেলায় শিক্ষকের বকুনি এড়াতে পেটব্যথা, জ্বরের অজুহাত শুনেছেন। তাই বলে বিয়ের হাত থেকে বাঁচতে রোগী সেজে হাসপাতালে বর, এমন কথা শুনেছেন কখনও? তবে এমনটাই ঘটেছে ভারতের তেলেঙ্গানায়।

ওই বরের নাম অন্বেষ। তিনি আমেরিকার একটি তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থায় কাজ করেন। ছুটিতে ভারতে ফিরে বিয়ের জন্য আংটিবদলও হয়ে যায়। দুই পরিবারের তরফেই ঠিক করা হয়, একই জায়গায় হবে বিয়ের সব অনুষ্ঠান। দেখতে দেখতে হাজির হলো বিয়ের দিন। আত্মীয়-স্বজনে ছয়লাপ দুই বাড়িই।

বিয়ের লগ্নের ঠিক আগে আসে অন্বেষ তার বাড়ির লোকদের জানান, পা পিছলে বাথরুমে পড়ে গিয়ে চোট পেয়েছেন তিনি। হাসপাতালে নিয়ে যেতে হবে তাকে। এরপর তাকে হাসপাতালে নেওয়া হয়। প্রাথমিক চিকিৎসার পরে তাকে ছেড়েও দেওয়া হয় হাসপাতাল থেকে। তবে সেই চিকিৎসায় মোটেও সন্তুষ্ট হননি যুবক। ফের অসুস্থতার কথা বলতে থাকেন তিনি।

বাধ্য হয়েই পরিবারের লোকজন তাকে অন্য হাসপাতালে নিয়ে যান। তবে সেখানেও কোনো অসুস্থতা খুঁজে পাননি চিকিৎসকেরা। প্রায় পাঁচ ঘণ্টা নাটকের পরে অবশেষে জানা যায় আসল কারণ। কনের পরিবারের চাপের মুখে সত্যি কথাটা স্বীকার করতে বাধ্য হন যুবক। বিয়ের হাত থেকে বাঁচতেই এমন অসুস্থতার ভান করেছিলেন তিনি। ফাঁস হয়ে যায় সে কথা। শেষপর্যন্ত বিয়েটা হয়নি তার।

নিউজ ট্যাগ: হাসপাতালে বর

আরও খবর



১০ হাজার টাকার মধ্যে সেরা ৫ স্মার্টফোন

প্রকাশিত:সোমবার ২৩ জানুয়ারী 20২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ৪২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

স্মার্টফোন এখন হয়ে উঠেছে নিত্যসঙ্গী। প্রতিনিয়তই বাড়ছে স্মার্টফোনের চাহিদা। ছবি তোলা, দূর দুরান্তে ভিডিও কিংবা অডিও কলে কথা বলা, সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার সবই হচ্ছে এক স্মার্টফোনে। আবার অনেকেই স্মার্টফোনে কনটেন্ট তৈরি করে মাসে লাখ লাখ টাকা আয় করছেন। এদিকে বাজেটের কারণে নামিদামি স্মার্টফোন কিনতে পারেন না অনেকেই। তবে শুধু নামিদামি স্মার্টফোন নয় কমের মধ্যেও ভালো স্মার্টফোন পাবেন বাজারে। যদি আপনার বাজেট ১০ হাজারের মধ্যে হয় তাহলে দেখে নিন ৫টি স্মার্টফোনের খবর। যেগুলো পাবেন ১০ হাজার টাকার মধ্যেই-

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ০৩ কোর: স্যামসাংয়ের এই ফোনটিতে ২জি,৩জি এবং ৪জি নেটওয়ার্ক যুক্ত রয়েছে। ডুয়েল ন্যানো সিম সাপোর্ট, ৬.৫ ইঞ্চি ডিসপ্লের সঙ্গে পাবেন মিনিমাল নচ টাচ স্ক্রিন। রেজোলিউশন থাকছে এইচডি ৭২০x১৬০০ পিক্সেল। বডির ফ্রন্টে গ্লাস এবং ব্যাক সাইড প্লাস্টিক দেওয়া হয়েছে। ফোনটিতে রয়েছে ৮ মেগাপিক্সেল ব্যাক ক্যামেরা এবং ৫ মেগা পিক্সেল সেলফি ক্যামেরা যার ভিডিও রেজোলিউশন থাকছে ১০৮০ পিক্সেল। ফোনটিতে ৫০০০ এমএএইচয়ের ব্যাটারি। অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে ফোনটিতে থাকছে অ্যান্ড্রয়েড ১১ অপারেটিং সিস্টেম এবং ইউনিসকের চিপসেট ও প্রসেসর রয়েছে অক্টাকোর। কালো এবং নীল-দুটি রঙে বেছে নিতে পারবেন ফোনটি। বর্তমানে দেশের বাজারে এর দাম থাকছে ২/৩২ জিবি ৯ হাজার ৬৯৯ টাকা।

শাওমি রেডমি ৯এ: শাওমি বাংলাদেশ সহ বিশ্ববাজারে একটি বড় অংশ দখল করে আছে। যারা ১০ হাজারের মধ্যে একটি ভালো স্মার্টফোন খুঁজছেন তাদের প্রথম পছন্দ হতে পারে শাওমি রেডমি ৯এ সেটটি। ৬.৫৩ ইঞ্চি ডিসপ্লে, যার রেজোলিউশন থাকছে ১৬০০x৭২০ পিক্সেল, যেটি থাকছে ফুল এইচডিতে। ফোনটির ফ্রন্ট ক্যামেরা রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেল এবং ব্যাক ক্যামেরা রয়েছে ৫ মেগাপিক্সেল। আরও আছে ৫০০০ এমএএইচ ব্যাটারি এবং চার্জ করার জন্য ১০ ওয়াট এর ফাস্ট চার্জার। ২ জিবি র‍্যামের সঙ্গে এই ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ৩২ জিবি রোম। দাম থাকছে বর্তমানে মাত্র ৮ হাজার ৭৯৯ টাকা।

ভিভো ওয়াই০২: ভিভোর ফোন এখন বাজারের সেরা ফোনগুলোর তালিকায় শুরুতেই রাখা হয়। ১০ হাজার টাকা বাজেট থাকলে নিতে পারেন ভিভো ওয়াই০২ স্মার্টফোনটি। মিনিমাল নচ টাচ স্ক্রিনের পাশাপাশি ফোনটির ডিসপ্লের সাইজ থাকছে ৬.৫১ ইঞ্চি যার রেজোলিউশন থাকছে এইচডি+ ৭২০x১৬০০ পিক্সেল। সেই সঙ্গে ডিসপ্লের প্রযুক্তি হিসেবে থাকছে আইপিএস টাচ স্ক্রিন ও মালটিটাচ ফিচার। ফোনটিতে থাকছে ৮ মেগাপিক্সেল রিয়াম ক্যামেরা ও ৫ মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা। ২জিবি র‍্যাম এবং ৩২জিবি রোম ফোনটির বর্তমানে দাম থাকছে ৯ হাজার ৯৯৯ টাকা।

শাওমি রেডমি এ১: শাওমি রেডমি এ১ স্মার্টফোনটিতে দুটি ৮+০.৮ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরার পাশাপাশি ৫ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা। মিনিমাল নচ টাচ স্ক্রিন এবং ১৬৪.৯x ৭৬.৮x ৯.১ মিমি ডাইমেনশনের পাশাপাশি এই ফোনটির সঙ্গে থাকছে বড় মাপের একটি ডিসপ্লে। যার সাইজ ৬.৫২ ইঞ্চি। ডিসপ্লের রেজোলিউশন থাকছে এইচডি+ ৭২০x১৬০০ পিক্সেল। লিথিয়াম পলিমার ৫০০০ এমএএইচ ব্যাটারি এবং সেই সঙ্গে ১০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সুবিধা। ৩জিবি র‍্যাম ও ৩২জিবি রোম ফোনটির দাম থাকছে মাত্র ৯ হাজার ১৯০ টাকা।

রিয়েলমি সি৩০: ১০ হাজার টাকার মধ্যে আরও একটি দুর্দান্ত ফিচারের স্মার্টফোন রিয়েলমির সি৩০। এই মডেলের ফোনটিতে মিনিমাল নচ ডিসপ্লে এবং যার সাইজ থাকছে ৬.৫ ইঞ্চি এবং রেজোলিউশন থাকছে এইচডি+ ৭২০x১৬০০ পিক্সেল। ৮ মেগাপিক্সেল ব্যাক ক্যামেরা এবং সেলফি ক্যামেরা হিসেবে থাকছে ৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। ফোনটিতে দেওয়া হয়েছে লিথিয়াম পলিমার ৫০০০ এমএএইচ ব্যাটারি এবং সেই সঙ্গে ১০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সুবিধা। লেক ব্লু, ব্যাম্বো গ্রিন- এই দুই রঙে বেছে নিতে পারবেন ফোনটি। বর্তমানে ২/৩২ জিবি রিয়েলমি সি৩০ স্মার্টফোনটির দাম থাকছে ৯ হাজার ৯৯৯ টাকা।

নিউজ ট্যাগ: স্মার্টফোন

আরও খবর



এবার চঞ্চলের নায়িকা মনামী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৩ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩ | ৪৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কলকাতার বিনোদন অঙ্গনে মনামী ঘোষ বেশ আলোচিত নাম। সমরেশ মজুমদারের সাতকাহন অবলম্বনে নির্মিত সিরিয়াল দিয়ে ১৯৯৭ সালে তাঁর অভিনয়জীবন শুরু। এরপর এক আকাশের নিচে, ইরাবতীর কথাসহ অনেক ধারাবাহিকে দেখা গেছে তাঁকে। অনেক সিনেমায়ও অভিনয় করেছেন মনামী। তাঁকে পাওয়া যায় বেলাশেষে, ওগো বধূ সুন্দরী, ভূতের ভবিষ্যৎ, বেলাশুরু সিনেমাগুলোতে। নতুন খবর হলো, এবার মনামীকে দেখা যাবে বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেতা চঞ্চল চৌধুরীর নায়িকা হিসেবে।

বিশ্ববিখ্যাত চলচ্চিত্র নির্মাতা মৃণাল সেনের জন্মশতবার্ষিকী পালিত হবে এ বছর। এ উপলক্ষে অঞ্জন দত্ত, কৌশিক গাঙ্গুলি ও সৃজিত মুখোপাধ্যায় আলাদা তিনটি সিনেমা বানাচ্ছেন। সৃজিতের সিনেমার নাম পদাতিক, এতে মৃণাল সেনের চরিত্রে দেখা যাবে চঞ্চল চৌধুরীকে। এ সিনেমায় মৃণাল সেনের স্ত্রী গীতা সেনের চরিত্রে অভিনয় করবেন মনামী।

অনেক দিন দেশের বাইরে ছিলেন মনামী। নতুন বছরে তাঁর জন্য এত বড় চমক অপেক্ষা করে আছে, ভাবতেই পারেননি। ইতিমধ্যেই লুক সেট হয়ে গেছে তাঁর। জানালেন, সিনেমায় তাঁকে গীতা সেনের অল্প বয়স থেকে বেশি বয়স পর্যন্ত ধারণ করতে হবে। সে কারণে প্রস্থেটিক মেকআপের সাহায্য নিতে হতে পারে। এ মাসের মাঝামাঝি থেকে কলকাতায় শুরু হবে পদাতিক সিনেমার শুটিং।

হাওয়া, কারাগারসহ অনেক কাজের সুবাদে চঞ্চল চৌধুরী এখন কলকাতার জনপ্রিয় মুখ। তাঁর সঙ্গে অভিনয় করার সুযোগ পেয়ে ভীষণ আপ্লুত মনামী। পদাতিক সিনেমায় গীতা সেন চরিত্রটি নিয়ে মনামী বলছেন, গীতা সেন বরাবরই আড়ালে থাকতে পছন্দ করা ব্যক্তিত্ব। এই ধরনের চরিত্র ফুটিয়ে তোলা বেশ কঠিন। সৃজিতদা একটি ভিডিও ক্লিপস দিয়েছেন। সেখানে খুব অল্প সময়ের জন্য গীতা সেনকে দেখা গেছে।  সেগুলো দেখে আমি আমার মতো করে গীতা সেন হয়ে ওঠার চেষ্টা চালাচ্ছি।


আরও খবর

আপাতত দেশে আসছে না 'পাঠান'

বুধবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৩




বাগেরহাটে সড়ক দুর্ঘটনায় নারী নিহত

প্রকাশিত:বুধবার ২৮ ডিসেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩ | ৩৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বাগেরহাট-পিরোজপুর মহাসড়েকে বাগেরহাট কেন্দ্রেীয় বাস টার্মিনালের কাছে সড়ক দূর্ঘটনায় মনোয়ারা বেগম (৬০) নামে এক মোটরসাইকেল আরোহী নারী নিহত হয়েছেন।

নিহত মনোয়ারা বেগম বাগেরহাট সদরের ফতেপুর গ্রামের খোকন মল্লিকের স্ত্রী।

বাগেরহাট পুলিশের মিডিয়া সেলের প্রধান সমন্বয়কারী পুলিশ পরিদর্শক এস এম আশরাফুল আলম জানান, মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে বাগেরহাট শহর থেকে স্বামী খোকন মল্লিকের সাথে মোটরসাইকেলে করে ফতেপুর গ্রামের বাড়ীতে ফিরছিলেন মনোয়ারা বেগম। বাগেরহাট কেন্দ্রেীয় বাস টার্মিনালের কাছে পৌছালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি বাস তাদের মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দেয়। এতে তারা গুরুতর আহত হন। আহতদের উদ্ধার করে বাগেরহাট ২৫০ শয্যা জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হলে রাত ৮টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মনোয়ারা বেগম মারা যান। পুলিশ নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছে।

নিউজ ট্যাগ: সড়ক দুর্ঘটনা

আরও খবর



মধ্যরাতে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে ঢাবি ছাত্রীরা

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ১৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কুয়েত-মৈত্রী হলের প্রভোস্টের পদত্যাগের দাবিতে মধ্যরাতে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে অবস্থান নিয়েছে হলের আবাসিক ছাত্রীরা।  বৃহস্পতিবার রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের বাসভবনের সামনে অবস্থান নেন তারা।

তৃতীয় ও চতুর্থ বর্ষে উঠেও হলে সিট না পাওয়া, ক্যান্টিনে নিম্নমানের খাবার দেওয়া ও দাম বেশি নেয়া, হলে আগুন লাগার ঘটনায় প্রভোস্টের উদাসীনতাসহ বিভিন্ন অভিযোগ এনেছেন ছাত্রীরা।

ছাত্রীরা জানান, সিনিয়র ছাত্রীদের  অনেকেই সিট পায়নি। অথচ, জুনিয়ররা সিট পাচ্ছে। হলের মধ্যে কোনো ফার্মেসি নেই। আগুন লাগার ঘটনায় প্রভোস্টের উদাসীনতা লক্ষ্য করেছি। ছাত্রীদের দাপ্তরিক কাজে অবহেলা করেন উনি। এছাড়াও, ক্যান্টিনের খাবার নিয়ে অভিযোগ জানানো হলেও উনি কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি।

ইতোমধ্যে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. একেএম গোলাম রাব্বানী, শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. মো. নিজামুল হক ভূইয়া, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড. জিনাত হুদাসহ অনেকে।

ছাত্রীদের একটি প্রতিনিধি দল উপাচার্যের বাসভবনে প্রবেশ করে। সেখানে তারা তাদের বিভিন্ন দাবি উপাচার্যকে জানান। উপাচার্য সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিলে ছাত্রীরা হলে ফিরে যান।


আরও খবর



শীতে গর্ভবতীদের জন্য উপকারী ৫ খাবার

প্রকাশিত:শনিবার ১৪ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৪ জানুয়ারী ২০২৩ | ৩২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মা হওয়ার খবর পাওয়া হলো পৃথিবীর অন্যতম সুন্দর খবর। আর যারা মা হতে যাচ্ছেন তারা সবসময় চান এই সময়ে স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে। গর্ভাবস্থায় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো খাবারের ব্যাপারে সচেতন থাকা। কারণ এর সঙ্গে জড়িয়ে থাকে শিশুর স্বাস্থ্যের বিষয়টিও। এই সময়ে পর্যাপ্ত পুষ্টি, প্রোটিন এবং স্বাস্থ্যকর ফ্যাট খাবারের তালিকায় রাখা মা ও অনাগত শিশু উভয়ের স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। অন্যদিকে শীতকালে পাওয়া যায় পুষ্টিতে ভরপুর সবুজ শাক-সবজি এবং তাজা ফলমূল। যা গর্ভবতী মায়ের জন্য ভীষণ উপকারী। চলুন জেনে নেওয়া যাক, শীতকালে গর্ভবতীদের কোন ৫টি খাবার খাওয়া উচিত-

চর্বিযুক্ত মাছ: ডাঃ রোহিনী প্যাটেলের মতে, মাছ খাবারের তালিকায় একটি চমৎকার সংযোজন। ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিড শরীরের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। সামুদ্রিক খাবারে এই পুষ্টি উপাদান প্রচুর রয়েছে। যা শিশুর ব্রেইন এবং চোখের সঠিক বিকাশে সাহায্য করে। এছাড়াও এগুলো অকাল গর্ভপাত রোধ করতে সাহায্য করে।

লেগুম: মসুর ডাল, মটর, মটরশুটি, ছোলা, সয়াবিন এবং চিনাবাদাম হলো লেগুম জাতীয় খাবার। এগুলো দিয়ে বিভিন্ন ধরণের সুস্বাদু খাবারও তৈরি করা যায়। লেগুম উদ্ভিদজ্জ ফাইবার, প্রোটিন, আয়রন, ফোলেট এবং ক্যালসিয়াম সরবরাহ করে। ভিটামিন-বি এর মধ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হলো ফলিক অ্যাসিড (B9)। গর্ভাবস্থায় শরীরে এই পুষ্টি উপাদানগুলোর বেশি প্রয়োজন। বিশেষ করে প্রথম তিন মাসে এটি আপনার এবং আপনার অনাগত সন্তান উভয়ের জন্যই গুরুত্বপূর্ণ। গর্ভাবস্থায় প্রতিদিন কমপক্ষে ৬০০ মাইক্রোগ্রাম ফোলেট শরীরের জন্য প্রয়োজন। যা এই খাবারগুলো খাওয়ার মাধ্যমেই পাওয়া সম্ভব।

মিষ্টি আলু: শীতের খাবারের কথা বলতে গেলেই চলে আসে মিষ্টি আলুর নাম। গর্ভাবস্থায় মিষ্টি আলু খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। কারণ এতে রয়েছে পর্যাপ্ত কার্বোহাইড্রেট। এটি শরীরে শক্তি বাড়াতে কাজ করে। সেইসঙ্গে এটি রক্তে শর্করার মাত্রা ঠিক রাখে। মিষ্টি আলুতে রয়েছে ভিটামিন এ যা ভ্রুণের বিকাশেও সাহায্য করে। ডাঃ রোহিনী প্যাটেলের মতে এটি ত্বক, চোখ এবং রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থার জন্য ভালো।

সবুজ মটরশুঁটি: সবুজ মটরশুঁটি কাঁচা এবং রান্না দুইভাবেই খাবারের তালিকায় রাখা ভালো। এতে রয়েছে প্রচুর ফলিক এসিড যা গর্ভাবস্থায় খুব গুরুত্বপূর্ণ। এছাড়াও এগুলো জন্মগতভাবে ব্রেইন এবং মেরুদণ্ডের সমস্যা প্রতিরোধ করে। মটরশুঁটি খেলে সন্তান জন্মদানের পর পর্যাপ্ত দুধ উৎপাদন করতেও সাহায্য করে।

আখরোট: বাদাম সাধারণত ফাইবারের উৎস। আখরোট ভিটামিন ই প্রদান করে, যা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। এটি শীতকালে ঠান্ডা, সর্দি-কাশি থেকেও বাঁচায়। আখরোট ওমেগা-৩ এরও উৎস যা শিশুর ব্রেইনের বিকাশে সাহায্য করে। তাই গর্ভাবস্থায় শীতে আখরোট খাওয়া ভালো।


আরও খবর

৮ ডেঙ্গুরোগী হাসপাতালে ভর্তি

বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩