Logo
শিরোনাম

বিয়ে নয়, টাকার বিনিময়ে ঝর্ণার সঙ্গে মেলামেশা করতেন মামুনুল হক

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ মে ২০২১ | ২৪২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

গত ৩ এপ্রিল এক নারীকে নিয়ে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে রয়্যাল রিসোর্টে অবকাশ যাপনের সময় হাতেনাতে ধরা পড়েন হেফাজতে ইসলাম নেতা মামুনুল হক। তিনি দাবি করেন, ওই নারী তার দ্বিতীয় স্ত্রী। তবে ঘটনার পর প্রায় এক ডজন অডিও-ভিডিও ফাঁস হওয়ার কারণে প্রকাশ্যে এসেছে হেফাজত নেতা মাওলানা মামুনুল হকের অনৈতিক কর্ম। তার মানবিক বিয়ে গল্পের অসারতাও প্রমাণিত হয়েছে।

মাওলানা মামুনুল হকের সঙ্গে থাকা ওই নারীর নাম জান্নাত আরা ঝর্ণা (২৭)। আট ভাই-বোনের মধ্যে ঝর্ণা দ্বিতীয়। মামুনুল হক ওই সময় নারীর নাম আমেনা তৈয়্যেবা বললেও তার নাম জান্নাত আরা ঝর্ণা।

জান্নাত আরা ঝর্ণার আগে বিয়ে হয়েছে, সেই ঘরে আব্দুর রহমান ও তামীম নামে দুজন পুত্র সন্তান আছে। এবার হেফাজত নেতা মামুনুল হকের কথিত স্ত্রী জান্নাত আরা ঝর্ণার লেখা ২০০ পৃষ্ঠার ৩টি ডায়েরি খুঁজে পাওয়া গেছে। যাতে রয়েছে চাঞ্চল্যকর সব তথ্য। একটি বেসরকারি টেলিভিশনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ডায়েরিগুলো তার মায়ের বলে নিশ্চিত করেছেন ঝর্ণার পুত্র আব্দুর রহমান।

ঝর্ণার ডায়েরিতে লেখা, আমাকে বিয়ে না করেই গ্রীনরোডের একটি বাসায় রাখেন মামুনুল হক। আমাকে খরচের টাকাও দিতেন। কিন্তু বিয়ে করে স্ত্রী বানাননি।

ঝর্ণার ডায়েরিতে লেখা, বিয়ের আশ্বাসের বিনিময়ে অবৈধ মেলামেশা করতেন মামুনুল যা মেনে নিতে পারেননি ঝর্ণা। বিয়ে না করে দীর্ঘদিন ধরে তার সাথে মেলামেশা করেছেন মামুনুল হক। বিবাহবহির্ভুত মেলামেশার অনুশোচনার কথাও উঠে এসেছে ঝর্ণার ডায়েরিতে। ডায়েরির পাতায় পাতায় রয়েছে মামুনুলের প্রতিশ্রুতি ভঙ্গের আর্তনাদ।

ডায়েরিতে ঝর্ণা লেখেন, আমি তাকে ভালোবাসি না ঘৃণা করি বুঝতে পারছি না। কিন্তু সে আমার জীবনকে নরক বানিয়ে ফেলছে।

ডায়েরিগুলো তার মায়ের বলে নিশ্চিত করে ঝর্ণার বড় ছেলে আব্দুর রহমান বলেন, 'একজন মহিলার সন্তানের জন্ম সাল। তার বিয়ে বিচ্ছেদ ও তার মনের দুঃখের কথা কি অন্য কেউ লেখে। এটা তার বাসা থেকে পাওয়া। আর এটা আমার মায়ের ডায়েরি।'

ঝর্ণা পুত্র আরো বলেন, আমাকে সে (ঝর্ণা) বলেছিলো আমার কিছু ব্যক্তিগত ডায়েরি আছে। আমি ডায়েরির বিষয়ে শিওর কারণ এটা আমার মায়েরই হাতের লেখা।

ডায়েরিতে ঝর্ণা বিয়ে প্রসঙ্গে লিখেছেন, মামুনুল হক বিয়ের স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন। কিন্তু সেই স্বপ্ন তিনি পূরণ করেননি।

বিষয়ে ঝর্ণা পুত্র ডায়েরির রেফারেন্স দিয়ে বলেন, তাদের মধ্যে একটি এ্যাগ্রিমেন্ট হয়েছিলো। কিন্তু বিয়ে হয়নি।

ঝর্ণা পুত্র আবারও বললেন, কাউকে বিশ্বাস করার আগে ভালো করে যাচাই বাছাই করার জন্য। কারণ মুখোশধারী মানুষকে দাড়ি টুপিতে চেনা যায় না।

মামুনুল হকের বিচার দাবি করেন ঝর্ণার বড় ছেলে আব্দুর রহমান।

কয়েকদিন ধরে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার পর বৃহস্পতিবার ফেসবুক লাইভে এসে বিষয়টির জন্য ক্ষমা চান মামুনুল হক। সেখানে তিনি স্বীকার করেন গত কয়েক দিনে ফাঁস হওয়া ফোনালাপ তারই ছিল। আত্মপক্ষ সমর্থন করে মামুনুল বলেন, স্ত্রীকে সন্তুষ্ট করতে, স্ত্রীকে খুশি করতে প্রয়োজনীয় ক্ষেত্রে সীমিত পরিসরে কোনো সত্যকে গোপন করা যায়।

প্রসঙ্গত, ৩ এপ্রিল বিকেলে রাজধানীর অদূরে সোনারগাঁয়ের একটি রিসোর্টে হেফাজত নেতা মামুনুল হক একজন নারীসহ অবস্থান করছেন এমন খবর পেয়ে স্থানীয় কিছু লোকজন, ছাত্রলীগ-যুবলীগের নেতা-কর্মীরা তার কক্ষটি ঘেরাও করেন। যদিও মামুনুল হক সঙ্গে থাকা নারীকে তার দ্বিতীয় স্ত্রী বলে দাবি করেন। পরে সন্ধ্যা সোয়া সাতটার দিকে হেফাজতের একদল নেতাকর্মী, মাদ্রাসাছাত্র মিছিল নিয়ে এসে রয়েল রিসোর্ট নামের ওই অবকাশযাপন কেন্দ্রটিতে ব্যাপক ভাঙচুর চালিয়ে মামুনুলকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়।



আরও খবর



শিমুলিয়া ঘাট থেকে যাত্রীদের ফিরিয়ে দিচ্ছে পুলিশ

প্রকাশিত:শনিবার ০৮ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ মে ২০২১ | ৩৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে সরকারি নির্দেশনায় শনিবার সকাল থেকে শিমুলিয়া-বাংলাবাজার রুটে দিনের বেলায় ফেরি চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্পোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি)।

সংস্থাটির পক্ষ থেকে জানানো হয়, শুধু রাতের বেলায় পণ্যবাহী পরিবহন পারাপারের জন্য ফেরি চলাচল করবে।

তবে ফেরি চলাচল বন্ধ ঘোষণা পরও মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে আসতে দেখা গেছে যাত্রীদের। পুলিশের কঠোর অবস্থানের কারণে শিমুলিয়া ঘাটের প্রবেশমুখ থেকে তাদের ফিরে যেতে বাধ্য করা হচ্ছে।

যাত্রীরা জানান, মাঝরাতের এ ঘোষণা তাদের অনেকেই জানেন না। হঠাৎ করে ঘাটে এসে দেখেন ফেরি বন্ধ আর পুলিশ তাদের ঘাট এলাকা থেকে বের করে দিচ্ছে।

অন্যদিকে ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়ে, মাওয়া চৌরাস্তা ও শিমুলিয়া ঘাটের প্রবেশমুখে পুলিশকে টহল দিতে দেখা গেছে। এসব টহল থেকে দক্ষিণবঙ্গগামী যাত্রীদের ফিরিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

শিমুলিয়া ফেরি ঘাটের ট্রাফিক পুলিশের পরিদর্শক (টিআই) হিলাল উদ্দিন বলেন, শিমুলিয়া ঘাটের এক কিলোমিটার দূর থেকে যাত্রীদের ফিরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। কোন যাত্রীকে শিমুলিয়া ঘাট এলাকয় ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। এতদিন লঞ্চ ও স্পিডবোট চলাচল বন্ধ ছিল আর আজ থেকে দিনের বেলা ফেরি চলাচল বন্ধ ফলে কোনভাবেই নদী পার হতে পারবেন না কেউ।

যাত্রীদের ঘাট এলাকায় ভীড় না করতে অনুরোধ করেন তিনি।

বিআইডব্লিউটিসির শিমুলিয়া ঘাটের ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) শাফায়াত আহমেদ জানান, শেষ রাত থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ করে দিয়েছেন তারা। তবে সন্ধ্যার পর কয়েটি ফেরি দিয়ে সার্ভিস চালু রাখা হবে এ ব্যাপারে এখনও পর্যন্ত তিনি কিছু জানেন না বলে জানান।


আরও খবর



এসএসসি-এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া হবে

প্রকাশিত:বুধবার ০৫ মে ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ মে ২০২১ | ৫৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

গত বছর এসএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হলেও করোনাভাইরাসের কারণে এইচএসসি পরীক্ষায় নেওয়া সম্ভব না হওয়ায় দেওয়া হয় অটোপাস। এ বছরও করোনার কারণে সঠিক সময়ে পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হয়নি। ফলে নির্ধারিত সময় থেকে আরও দু-তিন মাস পিছিয়ে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া হতে পারে বলে জানিয়েছেন আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব কমিটির সভাপতি ও ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক নেহাল আহমেদ।

বুধবার (৫ মে) এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, চলতি বছর এসএসসি-এইচএসসির জন্য সিলেবাস সংক্ষিপ্ত করে দেওয়া হয়েছে। আগামী জুন-জুলাইয়ে এসএসসি ও সেপ্টেম্বরে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত ছিল কিন্তু সেটি হয়তো আরও দু-এক মাস পিছিয়ে যেতে পারে। তবে পরীক্ষা হবে, এতে কোনো সন্দেহ নেই।

তিনি আরও বলেন, গতবার এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের যেভাবে পাস করানো হয়েছে, তাকে অটোপাস বলা যায় না। কারণ তাদের পরীক্ষার সম্পূর্ণ প্রস্তুতি ছিল। এবারের এসএসসি কিংবা এইচএসসির বিষয়টি ভিন্ন। তারা ক্লাসে যেতে পারেনি। এজন্য সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে হলেও এবার পরীক্ষায় বসতেই হবে শিক্ষার্থীদের।

চলতি বছরের ২৭ জানুয়ারি এনসিটিবিতে কারিকুলাম বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে বৈঠক করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এসএসসির জন্য ৬০ দিন এবং এইচএসসির জন্য ৮৪ দিনের সংক্ষিপ্ত সিলেবাস করার নির্দেশ দেন।

ওই বৈঠক শেষে শিক্ষামন্ত্রী সাংবাদিকদের জানান, ৯ মে এসএসসির এবং ১৫ জুন এইচএসসির সব ক্লাস শেষ করে জুনে এসএসসি ও জুলাই বা আগস্টে এইচএসসি পরীক্ষা নেওয়া হবে। এ সময়ের মধ্যে যতটুকু পড়ানো যাবে ততটুকু সিলেবাস সংক্ষিপ্ত করা হবে। এ সংক্ষিপ্ত সিলেবাস থেকে পরীক্ষা প্রশ্ন ও উত্তরপত্র মূল্যায়ন করা হবে কিন্তু চলমান করোনা পরিস্থিতির কারণে সেটি সম্পন্ন হয়নি।

এদিকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের (মাউশি) সচিব মো. মাহবুব হোসেন জানান দেশে করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এলে আগের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হবে।

শিক্ষা সচিব বলেন, দেশের পরিস্থিতির উন্নতি হলে আগামী ২৩ মে স্কুল-কলেজ খুলে দেওয়া হবে। আমাদের আগের ঘোষণা অনুযায়ী যে সিদ্ধান্ত ছিল তা এখনো বহাল রয়েছে। এটি বাস্তবায়নে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে ব্যবস্থা নিতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এর আগে গত ২৫ মার্চ করোনাভাইরাস সংক্রান্ত জাতীয় পরামর্শক কমিটির বৈঠক শেষে ২৩ মে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার ঘোষণা দিয়ে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনাভাইরাস সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় শিক্ষার্থী, শিক্ষক, কর্মচারী ও অভিভাবকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা এবং সার্বিক নিরাপত্তার বিষয়টি বিবেচনা করে ও কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় পরামর্শক কমিটির পরামর্শক্রমে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পর্যায়ের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আগামী ঈদুল ফিতরের পর ২৩ মে ক্লাস শুরুর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে এ সময়ে অনলাইন শিক্ষাকার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বলে জানানো হয়। একইসঙ্গে শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান জানান শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

মহামারি করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে দিশেহারা বিশ্ববাসী। বাংলাদেশেও প্রতিদিন করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন কয়েক হাজার মানুষ। মৃত্যুর তালিকায় যুক্ত হচ্ছে নতুন নতুন নাম। এ ভাইরাস প্রতিরোধে সারাদেশে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে গত বছরের ১৭ মার্চ থেকে। চলতি বছরের শুরুর দিকে করোনা পরিস্থিতি কিছুটা নিয়ন্ত্রণে এলে কয়েক দফা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত হলেও শেষ পর্যন্ত তা আর হয়ে ওঠেনি।


আরও খবর



কালিয়াকৈর উপজেলা হেফাজতের আমির দুই ভাইসহ গ্রেফতার

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ মে ২০২১ | ১১৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব আল্লামা মামুনুল হককে গ্রেফতারের প্রতিবাদে কিছু দুষ্কৃতকারী কালিয়াকৈর থানাধীন চন্দ্রা টু কালামপুরগামী রোডে চন্দ্রার সিএনজিচালিত

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলা হেফাজতের আমির ও ওলামা পরিষদের সভাপতি মুফতি মাওলানা মো. এমদাদুল্লাহ ওরফে এমদাদুল হককে (৫০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ সময় তার দুই ভাইকেও গ্রেফতার করা হয়। সোমবার জেলা পুলিশের এক প্রেস নোটের মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

গ্রেফতার মুফতি মাওলানা মো. এমদাদুল্লাহ ওরফে এমদাদুল হকের দুভাই হলেন  মো. আশরাফুল ইসলাম (৪০) ও মোহাম্মদ আলী (৪৮)। মুফতি মাওলানা মো. এমদাদুল হক কালিয়াকৈরের চন্দ্রা দারুম-উলুম মাহমুদনগর মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল ও কালিয়াকৈর ওলামা পরিষদের সভাপতি তার ভাই মো. আশরাফুল ইসলাম চন্দ্রা দারুম-উলুম মাহমুদনগর মাদ্রাসার আরবি প্রভাষক।

গাজীপুর জেলা পুলিশের (কালিয়াকৈর-শ্রীপুর জোনের) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আল মামুন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ জানায়, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানা যায়, হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব আল্লামা মামুনুল হককে গ্রেফতারের প্রতিবাদে কিছু দুষ্কৃতকারী কালিয়াকৈর থানাধীন চন্দ্রা টু কালামপুরগামী রোডে চন্দ্রার সিএনজিচালিত অটোরিকশা স্ট্যান্ডে একত্রিত হয়ে ধংসাত্মক কার্যক্রম চালাতে পারে। এমন গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে রবিবার রাত সোয়া ১২টার দিকে গাজীপুর জেলা পুলিশের একটি দল কালিয়াকৈর থানাধীন কালামপুরে উপস্থিত হলে ৩৫-৪০ জন দুষ্কৃতকারী পুলিশকে লক্ষ্য করে অতর্কিতভাবে কয়েকটি ককটেল নিক্ষেপ করে।

এতে তিন পুলিশ সদস্য আহত হন এবং আত্মরক্ষার্থে পুলিশ কয়েক রাউন্ড শটগানের গুলি করে। আহত পুলিশ সদস্যদের কালিয়াকৈর উপজেলা হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তবে অন্যরা পালিয়ে গেলেও ঘটনাস্থল থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

এ ঘটনায় এসআই মোর্শেদ আলী মোল্লা বাদী হয়ে কালিয়াকৈর থানা মামলা রজু করেন।

নিউজ ট্যাগ: গাজীপুর

আরও খবর



আড়িয়াল বিলে ৬ বিঘা জমির ধান কাটলো স্বেচ্ছাসেবক লীগ

প্রকাশিত:শুক্রবার ২৩ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৩ মে ২০২১ | ৭৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মুন্সীগঞ্জ থেকে কায়সার সামির

বৈশ্বিক মহামারী করোনার দ্বিতীয় লকডাউনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে মুন্সিগঞ্জের কৃষকের ধান কেটে দিলো স্বেচ্ছাসেবক লীগ। শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত জেলার শ্রীনগর উপজেলার আড়িয়াল বিলে কৃষক আবুল বেপারীর তিন একর জমির পাকা ধান কেটে ঘরে তুলে দিল আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ।


ধানকাটা কার্যক্রমে অংশ নেয় কেন্দ্রীয় সভাপতি বাবু নির্মল রঞ্জন গুহ, সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান বাবু, কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি কাজী শহীদুল্লাহ্ লিটন, কাজী মোয়াজ্জেম হোসেন, বানিজ্য বিষয়ক সম্পাদক আনোয়ারুল আযিম, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক এড. সালমা হাই টুনী, উপ-ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক শ্যামল গোস্বামী, কেন্দ্রীয় সদস্য নজরুল ইসলাম, একেএম আজগর আলী, আবু জাফর, ফয়সাল আহমেদ, জাহাঙ্গীর হোসেন বাবর,  মুন্সীগনঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি আল মাহমুদ বাবু, সাধারণ সম্পাদক তাজুল ইসলাম পিন্টু, শ্রীনগর থানা স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি জহিরুল হক নিশাদ শিকদারসহ অনেকে।


সভাপতি বাবু নির্মল রঞ্জন গুহ বলেন, আমরা কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ করোনার প্রথম ঢেউয়েও প্রান্তিক ও অসহায় কৃষককে ধানকাটার কাজে সহযোগিতা করেছিলাম। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশক্রমে করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়েও অসহায় কৃষককে ধানকেটে ঘরে তোলার ক্ষেত্রে সার্বিক সহযোগিতা করবো।

তিনি আরো বলেন, আমরা বিগত দিনের ন্যায় কার্যক্রমে অংশগ্রহন করেছি, যাতে এই করোনাকালীন পরিস্থিতিতে সারা বাংলাদেশের আমাদের সংগঠনের নেতাকর্মীগণ যাতে এসকল কার্যক্রমে অংশ নিয়ে অসহায় কৃষক ও সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়াই।

সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান বাবু বলেন, আমরা করোনাকালীন সংকটের সময় জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশক্রমে বিশেষজ্ঞ ডাক্তার দ্বারা ফ্রী টেলি হেলথ সার্ভিস, এ্যাম্বুলেন্স সার্ভিস, অক্সিজেন সিলিন্ডার সার্ভিস, মাস্ক এবং প্রয়োজনীয় ত্রাণ বিতরণসহ বিভিন্ন কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছি। স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে না আসা পর্যন্ত এ কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

কৃষক আবুল বেপারী জানান, শ্রমিক সঙ্কটের কারণে ধান পেকে গেছে। স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতৃবৃন্দ ধান কেটে দেওয়ায়, তিনি তাদের ও প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞ।


আরও খবর



করোনায় দেশে মৃত্যুর সকল রেকর্ড ছাড়ালো

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ এপ্রিল ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ১৪ মে ২০২১ | ৯৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সর্বাত্মক লকডাউনর পঞ্চম দিন রোববার (১৮ এপ্রিল) দেশে করোনায় সর্বোচ্চ ১০২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১০ হাজার ৩৮৫ জনে। এর আগে শনিবার (১৭ এপ্রিল) একদিনে সর্বোচ্চ ১০১ জনের মৃত্যু হয়।

এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩ হাজার ৬৯৮ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এতে দেশে এখন পর্যন্ত মোট করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৭ লাখ ১৮ হাজার ৯৫০ জনে।

করোনাভাইরাস নিয়ে রোববার (১৮ এপ্রিল) বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

এদিকে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, রোববার (১৮ এপ্রিল) সকাল পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে মারা গেছেন ১১ হাজার ৮০৬ জন এবং নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৭ লাখ ৮৯ হাজার ১১৩ জন। এ নিয়ে বিশ্বে মোট করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৩০ লাখ ২৩ হাজার ৮১৩ জনের এবং আক্রান্ত হয়েছেন ১৪ কোটি ১৩ লাখ ৫৩৮ জন। এ ছাড়া সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১১ কোটি ৯৯ লাখ ১৪ হাজার ৭৮৭ জন।

করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৩ কোটি ২৩ লাখ ৭২ হাজার ১১৯ জন। মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৮০ হাজার ৭৫৬ জনের।

আক্রান্তে দ্বিতীয় ও মৃত্যুতে তৃতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে এখন পর্যন্ত সংক্রমিত হয়েছেন এক কোটি ৪৭ লাখ ৮২ হাজার ৪৬১ জন এবং মারা গেছেন এক লাখ ৭৭ হাজার ১৬৮ জন।

আক্রান্তে তৃতীয় এবং মৃত্যুতে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত করোনায় এক কোটি ৩৯ লাখ ১৩৪ জন সংক্রমিত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ৭১ হাজার ৮৮৯ জনের।

আক্রান্তের দিক থেকে চতুর্থ স্থানে রয়েছে ফ্রান্স। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫২ লাখ ৬০ হাজার ১৮২ জন। ভাইরাসটিতে মারা গেছেন এক লাখ ৫৯৩ জন।

আক্রান্তের দিক থেকে রাশিয়া রয়েছে পঞ্চম স্থানে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৪৬ লাখ ৯৩ হাজার ৪৬৯ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন এক লাখ ৫ হাজার ১৯৩ জন।

এদিকে আক্রান্তের তালিকায় যুক্তরাজ্য ষষ্ঠ, তুরস্ক সপ্তম, ইতালি অষ্টম, স্পেন নবম এবং জার্মানি দশম স্থানে রয়েছে। এই তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ৩৩তম।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরের শেষ দিকে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান থেকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হয়। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৮টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে কোভিড-১৯।


আরও খবর