Logo
শিরোনাম

বিয়ের বাড়তি ফি আদায় বন্ধে নজরদারির সুপারিশ

প্রকাশিত:সোমবার ২১ মার্চ ২০২২ | হালনাগাদ:শনিবার ২১ মে ২০২২ | ৯৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কাজিরা মুসলিম বিবাহ তালাক নিবন্ধন করার নির্ধারিত ফি’র বেশি টাকা যাতে নিতে না পারেন সেজন্য মন্ত্রণালয়কে নজরদারি বাড়াতে বলেছে আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি। সোমবার (২১ মার্চ) জাতীয় সংসদ ভবনে সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে মুসলিম বিবাহ ও তালাক (নিবন্ধন) আইন এবং বিধিমালা নিয়ে আলোচনায় এ সুপারিশ করা হয়। কমিটির সভাপতি শহীদুজ্জামান সরকার এতে সভাপতিত্ব করেন। কমিটির সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান, আব্দুল মজিদ খান এবং ব্যারিস্টার রুমিন ফারহানা বৈঠক উপস্থিত ছিলেন।

তারা বলছে, বিয়ের নিবন্ধকরা একাধিক হিসাবের খাতা রেখে সরকারকে অসত্য তথ্য দেন, যার ফলে ভোগান্তিতে পড়ে মানুষ। সরকার নির্দিষ্ট ফি ঠিক করে দেওয়ার পরও নিবন্ধকরা যে বেশি ফি নিচ্ছেন, সে জন্য জবাবদিহিতার মধ্যে আনতে বলেছে কমিটি।

বৈঠকে জানানো হয়, মুসলিম বিবাহ ও তালাক (নিবন্ধন) বিধিমালা ২০০৯ এ বলা আছে, একজন নিকাহ নিবন্ধক চার লাখ টাকা পর্যন্ত দেনমোহরের ক্ষেত্রে প্রতি এক হাজার টাকার জন্য সাড়ে ১২ টাকা ফি নিতে পারবেন। দেনমোহার চার লাখের বেশি হলে প্রতি এক লাখ বা অংশ বিশেষের জন্য ১০০ টাকা নিবন্ধন ফি নিতে পারবেন। সর্বনিম্ন ফি হবে ২০০ টাকা। তালাক নিবন্ধনের ফি ৫০০ টাকা। একজন নিবন্ধক প্রতি বছর সরকারি কোষাগারে ১০ হাজার টাকা নিবন্ধন ফি এবং নবায়নের জন্য পাঁচ হাজার টাকা জমা দেন।

বৈঠক শেষে এ প্রসঙ্গে কমিটির সভাপতি শহীদুজ্জামান সরকার বলেন, আমাদের কাছে অনেক সময় এই বেশি ফি আদায় নিয়ে অভিযোগ আসে। আমরা নিজেরাও দেখেছি সরকার নির্ধারিত ফি’র বাইরে গিয়ে কাজী সাহেবরা টাকা নেন। তারা দুই রকমের খাতা রাখেন। মন্ত্রণালয়কে এ ব্যাপারে নজদারি বাড়াতে বলা হয়েছে। বেশি ফি যারা নিচ্ছেন, তাদের একটা জবাবদিহিতার মধ্যে আনতে হবে। তালাক নিবন্ধনের নকল সংগ্রহ করার জন্য নিবন্ধকরা টাকা আদায় করেন দাবি করে কমিটির সভাপতি বলেন, এর জন্য টাকার দরকার নেই। তবুও নেওয়া হচ্ছে।

বৈঠকে মন্ত্রণালয় জানায়, বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগে ২০২০-২১ অর্থবছরে ৯ জন নিবন্ধককে কারণ দর্শানোর নোটিশ দেওয়া হয়। এর মধ্যে দুই জনের সনদ বাতিল করা হয়।

এসময় আরও জানানো হয়, ২০১৯ থেকে ২০২১ সাল পর্যন্ত মোট সাত কোটি ৮৫ হাজার টাকা ৪৫৮ টাকা নিকাহ রেজিস্ট্রার কর্তৃক কোষাগারে জমা পড়েছে।

 

 

 


আরও খবর



বন্দরে ৭৬ কেজি গাঁজাসহ র‌্যাবের জালে ২ মাদক ব্যবসায়ী

প্রকাশিত:শনিবার ০৭ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৫৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নারায়ণগঞ্জের বন্দর এলাকা থেকে গাঁজাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। শনিবার (৭ মে) র‍্যাব-১১ এর অধিনায়ক লে. কমান্ডার মাহমুদুল হাসান প্রেরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। এসময় গ্রেফতারকৃত আসামিদের কাছ থেকে ৭৬ কেজি গাঁজা জব্দ করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- মো. রমজান আলী (৩২) এবং মো. রুবেল (৩৪)।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে শনিবার (৭ মে) সকালে র‌্যাব-১১ এর সদস্যরা বিশেষ অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে।

এতে আরও বলা হয়, প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা গেছে, তারা উভয়ই এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। তারা পরস্পর যোগসাজশে দীর্ঘদিন যাবৎ অভিনব কায়দায় কুমিল্লাসহ বিভিন্ন জেলার সীমান্তবর্তী এলাকা হতে নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য গাঁজা সংগ্রহ করে নিয়ে এসে ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন জেলায় সরবরাহ করে আসছিল।


আরও খবর



অসঙ্গতির বিরুদ্ধে সিয়াম-পূজার নৃত্য

প্রকাশিত:শনিবার ২৩ এপ্রিল ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৬৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ঈদে মুক্তি পেতে যাচ্ছে সিয়াম আহমেদ ও পূজা চেরি অভিনীত আলোচিত সিনেমা শান। যেটি নির্মাণ করেছেন এম রহমান। এবার ঈদে বড় পর্দার পাশাপাশি ছোট পর্দায়ও দেখা যাবে সিয়াম-পূজা জুটিকে।

বিটিভির ঈদের বিশেষ ইত্যাদি অনুষ্ঠানের একটি সেগমেন্টে হাজির হবেন সিয়াম ও পূজা। সমাজের নানান অনিয়ম-অসঙ্গতি দেখে অনেকেরই দুঃচিন্তা হয়, ক্ষোভ জন্মায়, এই বিষয়ের ওপর তৈরি ইত্যাদির একটি দলীয় সংগীতের সঙ্গে নৃত্য পরিবেশন করবেন ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় এই জুটি।

নাচটিতে তাদের সঙ্গে অংশগ্রহণ করেছেন ইত্যাদির নিয়মিত নৃত্য ও অভিনয় শিল্পীরা। ফাগুন অডিও ভিশন জানায়, শত ব্যস্ততার মাঝেও শিল্পীরা এই নাচটিকে সুন্দর করার জন্যে আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করেছেন এবং নিয়মিত মহড়ায়ও অংশ নিয়েছেন। এদিকে, এবারের ঈদ ইত্যাদিতে দর্শকদের মুখোমুখি হতে দেখা যাবে অভিনয় তারকা অপূর্ব ও চিত্রনায়িকা পূর্ণিমাকে।

ইত্যাদি রচনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনা করেছেন হানিফ সংকেত। নির্মাণ করেছে ফাগুন অডিও ভিশন। বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে ঈদের বিশেষ ইত্যাদি একযোগে প্রচারিত হবে ঈদের পরদিন রাত ৮টার বাংলা সংবাদের পর।


আরও খবর



আরব আমিরাতে আগামীকাল ঈদ

প্রকাশিত:রবিবার ০১ মে ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ মে ২০২২ | ৫৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সংযুক্ত আরব আমিরাতের আকাশে আজ রবিবার পবিত্র শাওয়াল মাসের চাঁদ দেখা গেছে। ফলে দেশটিতে ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে আগামীকাল সোমবার (২ মে)। 

ইন্টারন্যাশনাল অ্যাস্ট্রনমি সেন্টার (আইএসি) রবিবার ঘোষণা করেছে যে, আবুধাবির আকাশে শাওয়াল মাসের চাঁদ উঠেছে।

তবে ধুলোময় আবহাওয়ার কারণে খালি চোখে ঈদের চাঁদ দেখা যায়নি। জ্যোতির্বিদ্যার কৌশল ব্যবহার করে চাঁদ ওঠার বিষয়টি নিশ্চিত হয়েছে আইএসি।এর মানে আগামীকাল, ২ মে (সোমবার) ঈদুল ফিতর হবে।


আরও খবর



সুনামগঞ্জে বাড়ছে নদ-নদীর পানি

প্রকাশিত:শনিবার ১৪ মে ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২০ মে ২০22 | ৪৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সীমান্তের ওপার থেকে আসা পাহাড়ি ঢলে সুরমা, যাদুকাটা, রক্তি, বৌলাই কুশিয়ারা পাটলাইসহ সকল নদ-নদীর পানি বেড়েছে। গত কয়েক দিনের বৃষ্টিপাতেও ভাটির উপজেলা তাহিরপুর, বিশ্বম্ভরপুর, জামালগঞ্জ, ধর্মপাশার পানি বেড়েছে অনেক। হাওর এলাকার নদ-নদীতে মেঘালয়ের পাহাড়ি ঢল নেমে আসছে হু হু করে।

তাহিরপুর উপজেলার রতনশ্রী, গোলাবাড়ি, মান্দিয়াতা, জয়পুরসহ টাংগুয়া ও মাটিয়ান হাওর তীরবর্তী বিভিন্ন গ্রাম ঘুরে দেখা যায় পাহাড়ি ঢলের পানিতে গ্রামের ছোট ছোট খালগুলো পরিপূর্ণ।

ঢলের পানিতে ভেসে আসা পলির কারণে হাওরের পানির রঙও বদলেছে। পানিশূন্য হাওরগুলোতে বিভিন্ন স্লুইসগেট রেগুলেটর ও বাঁধের ফাঁক-ফোকর দিয়েও পানি প্রবেশ করতে দেখা গেছে।

মান্দিয়াতা গ্রামের আব্দুল জলিল বলেন, এখন হাওরে পানি ঢুকলে মাছের উৎপাদন বাড়বে। হাওরে কোনও ফসল নেই। তাই ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা নেই। তবে বৃষ্টির কারণে ধান-চাল শুকাতে সমস্যা হচ্ছে।

বালিজুড়ি গ্রামের কৃষকরা জানান, আকস্মিক পাহাড়ি ঢলে তাদের বাদাম ক্ষেত তলিয়ে গেছে। দ্রুত পানি সরে গেলে তেমন ক্ষয়ক্ষতি হবে না। বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার সলুকাবাদ ইউনিয়নের সোনাপুর রাবারড্যাম উপচে খরচার হাওরের উঁচু জমিতে পানি প্রবেশ করছে।

দোয়ারাবাজারে টানা তিন দিনের বৃষ্টিপাত ও মেঘালয় থেকে নেমে আসা আকস্মিক ঢলে উপজেলার নিম্নাঞ্চল ও লোকালয়সহ বিভিন্ন রাস্তাঘাট তলিয়ে যাওয়ায় বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে জনজীবন।

সুরমা, চেলা, মরা চেলা, চিলাই, চলতি, কালিউরি, ধূমখালি ও ছাগলচোরাসহ বিভিন্ন হাওর, খাল-বিলের পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় বন্যার আশঙ্কা করছেন উপজেলাবাসী।

সীমান্তবর্তী বাংলাবাজার, লক্ষীপুর, বগুলা, নরসিংপুর, সুরমা, দোহালিয়া, পান্ডারগাঁও, মান্নারগাঁও ও দোয়ারা সদর ইউনিয়নের বিভিন্ন রাস্তা, মাঠঘাট, আউশ জমিতেও পানি ঢুকছে। পানিবৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে মাঠের অবশিষ্ট বোরো ফসল ও রবিশস্য উৎপাদন অনিশ্চয়তায় পড়বে বলে আশঙ্কা করছেন কৃষকরা।

মাঠ ও গোচারণ ভূমিতে পানি উঠায় গো-খাদ্য সংকটের শঙ্কায় আছেন মৎস্য খামারিরা। গত বছরেই চার দফা বন্যায় ভেসে গিয়েছিল এখানকার শতাধিক খামারের কোটি টাকার মাছ ও রেনু।

দোয়ারাবাজার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) দেবাংশু কুমার সিংহ বলেন, পানি বাড়লেও কোথাও ক্ষয়ক্ষতির খবর এখনও পাওয়া যায়নি। তবে দুর্যোগ মোকাবিলায় আমাদের প্রশাসনিক তৎপরতা থাকবে।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা বিমল চন্দ্র সোম বলেন, সদর বিশ্বম্ভরপুর দোয়ারাবাজার উপজেলার কিছু জমিতে পানি প্রবেশের খবর পেয়েছি। সুনামগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জহরুল ইসলাম জানান, উজানে বৃষ্টিপাতের ফলে পাহাড়ি ঢল নেমেছে। আগামী ৭২ ঘণ্টা নদ-নদীর পানি আরও বাড়তে পারে।


আরও খবর



ব্রীজের রেলিংয়ে লেগে ট্রেনের ছাদে চড়া শিক্ষার্থীর মৃত্যু

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৬ মে ২০২২ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২ | ৭৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নেত্রকোনা-মোহনগঞ্জ রেলপথে বৃহস্পতিবার (০৫ মে) বিকেলে কমিউটার ট্রেনের ছাদে চড়ে ব্রীজের রেলিংয়ে লেগে মাথা ফেটে শাহরিয়ার ইসলাম স্বপ্ন নামে এক শিক্ষার্থী মারা গেছে। নেত্রকোনা সদর উপজেলাধীন কংশ নদীর ওপর ঠাকুরাকোনা ব্রীজে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত শাহরিয়ার নেত্রকোনা আঞ্জুমান আদর্শ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের ২০২২ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থী ও আটপাড়া উপজেলার দুওজ গ্রামের তোফায়েল আহমেদের ছেলে।

জানা গেছে, শাহরিয়ার ইসলাম স্বপ্ন মোহনগঞ্জ ষ্টেশন থেকে ঢাকাগামী কমিউটার ট্রেনের ছাদে চড়ে যাওয়ার পথে ঠাকুরাকোনা ব্রীজে পৌঁছলে তিনি কানে ইয়ার ফোন লাগিয়ে দাঁড়িয়ে পড়লে ব্রীজের রেলিংয়ে লেগে মাথা ফেটে ঘটনাস্থলেই মারা যান। পরে নেত্রকোনা ষ্টেশন থেকে স্থানীয়দের সহযোগিতায় পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠায়।

নেত্রকোনা মডেল থানার ওসি খন্দকার শাকের আহমেদ বলেন, ময়নাতদন্ত ছাড়াই পরিবারের কাছে লাশ হস্তান্তর করা হবে।

 


আরও খবর