Logo
শিরোনাম

বর্জ্য অপসারণ করা হবে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে : তাপস

প্রকাশিত:বুধবার ২১ জুলাই 20২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৬৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কোরবানির পশুর বর্জ্য ২৪ ঘণ্টার মধ্যে অপসারণ করার ঘোষণা দিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

বুধবার (২১ জুলাই) জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে ঈদের নামাজ আদায় শেষে তিনি এ ঘোষণা দেন। মেয়র তাপস বায়তুল মোকাররমে ঈদুল আজহার প্রধান ও প্রথম জামাতে অংশ নেন।

ঈদের নামাজ আদায় শেষে তিনি সাংবাদিকদের ঈদের শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ঢাকা শহর থেকে সব বর্জ্য অপসারণ অপসারণ করা হবে।

তিনি বলেন, আজ থেকেই আমাদের পরিচ্ছন্নকর্মীরা বর্জ্য অপসারণের কাজ করবেন। আমাদের কর্মীরা বর্জ্য সংগ্রহে মাঠে থাকবেন। আপনারা কোরবানির বর্জ্য তাদের হাতে দেবেন। যাতে একটি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন নগরী আমরা ঢাকাবাসীকে উপহার দিতে পারি।

জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে ঈদুল আজহার প্রধান ও প্রথম জামাত অনুষ্ঠিত হয় সকাল ৭টায়। এই জামাতে ইমাম ছিলেন বায়তুল মুকাররম জাতীয় মসজিদের সিনিয়র পেশ ইমাম হাফেজ মুফতি মাওলানা মো. মিজানুর রহমান। মুকাব্বির ছিলেন বায়তুল মুকাররমের মুয়াজ্জিন মো. আতাউর রহমান।

ঈদুল আজহার দুই রাকাত নামাজ শেষে হাজারো মুসল্লির অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত মোনাজাতে করোনাভাইরাস থেকে মুক্তির জন্য দোয়া করা হয়। বায়তুল মোকাররমে এবার ঈদুল আজহার মোট পাঁচটি জামাত অনুষ্ঠিত হবে।

দ্বিতীয় জামাত সকাল ৮টায়, তৃতীয় জামাত সকাল ৯টায় এবং চতুর্থ জামাত সকাল ১০টায় অনুষ্ঠিত হয়। আর পঞ্চম ও শেষ জামাত হবে সকাল ১০টা ৪৫ মিনিটে।

এর আগে গতকাল মঙ্গলবার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণ করা হবে বলে আশা করেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম।

আতিক বলেন, আসন্ন ঈদুল আজহায় স্থানীয় কাউন্সিলরসহ সকলের আন্তরিক সহযোগিতায় ২৪ ঘণ্টার মধ্যে কোরবানির পশুর বর্জ্য অপসারণ করা হবে। বিশেষ পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রমের আওতায় আসন্ন ঈদুল আজহায় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনে সর্বমোট ১১ হাজার ৫০৮ জন কর্মী কোরবানির বর্জ্য অপসারণ কাজে নিয়োজিত থাকবে।

তিনি বলেন, কোরবানি পশুর বর্জ্য অপসারণে গুলশানের নগর ভবনে কন্ট্রোল রুম স্থাপন করা হয়েছে। কন্ট্রোল রুমের নম্বরগুলো হলো- ০২৫৮৮১৪২২০, ০৯৬০২২২২৩৩৩ এবং ০৯৬০২২২২৩৩৪।

তিনি আরও বলেন, কোরবানির পশুর বর্জ্য দ্বারা যাতে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশের সৃষ্টি না হয়, সে জন্য ওয়ার্ড কাউন্সিলরদের মাধ্যমে নগরবাসীর মাঝে ইতোমধ্যে ছয় লাখ ৫০ হাজার বর্জ্য ব্যাগ, ৫০ মেট্রিক টন ব্লিচিং পাউডার এবং ৫ লিটার আয়তনের ১০০৫ ক্যান স্যাভলন বিতরণ করা হয়েছ।


আরও খবর



প্রধানমন্ত্রীর প্রণোদনায় যেন স্বজনপ্রীতি না হয়

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ জুলাই ২০২১ | ৫৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

প্রধানমন্ত্রীর প্রণোদনা প্রদানে যাতে স্বজনপ্রীতি না হয় সেদিকে সতর্ক থাকার কঠোর নির্দেশনা দিয়েছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এ ক্ষেত্রে কোনো অনিয়ম সহ্য করা হবে না বলে হুঁশিয়ারি দেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রধানমন্ত্রীর প্রণোদনা প্রদানে যেন স্বজনপ্রীতি না হয় এবং প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তদের হাতে  পৌঁছায় সেদিকে কঠোরভাবে সতর্ক থাকতে হবে ৷

বুধবার (১৪ জুলাই) সকালে সরকারি বাসভবনে ব্রিফিংকালে এসব কথা বলেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতোমধ্যেই লকডাউনে ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় মানুষের সহায়তা, গ্রামীণ কর্ম-সৃজন,পর্যটনখাত এবং পরিবহন শ্রমিক ও খেটে খাওয়া মানুষের জন্য ৩২০০ কোটি টাকার প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা দিয়েছেন ৷ সত্যিকার অর্থে ক্ষতিগ্রস্তরা যাতে তালিকাভুক্ত হয় সেদিকে সর্বোচ্চ মনোযোগ দিতে হবে।

ঈদযাত্রায় মানুষের ভোগান্তি কমানোর পাশাপাশি খেটে খাওয়া মানুষের আর্থিক নিরাপত্তা এবং ঈদকে ঘিরে অর্থনীতির প্রবাহ গতিশীল রাখতে সরকার লকডাউন শিথিল করার এই উদ্যোগ নিয়েছে বলে জানান সেতুমন্ত্রী।

ওবায়দুল কাদের বলেন, মনে রাখতে হবে সাময়িক এ বিধিনিষেধ শিথিলের সুযোগ নিয়ে আমরা যেন গড্ডালিকা প্রবাহে গা না ভাসাই। এ পরিস্থিতিতে নিজেই হতে হবে নিজের রক্ষক। নিজেদের উদাসীনতা এবং অপরিনামদর্শিতায় উৎসবের যাত্রা যেন জীবনের শেষ যাত্রায় রূপ না নেয়।

তিনি বলেন, ঈদকে সামনে রেখে প্রধানমন্ত্রী লকডাউনে ব্রেক দিলেও করোনা কাউকে ব্রেক দেবে না, প্রাণঘাতী রূপ নিয়ে সংক্রমণ ছড়াবেই ৷ তাই শতভাগ মাস্ক পরিধানের কোন বিকল্প নেই।


আরও খবর



তালেবান ঠেকাতে আফগানিস্তানে নৈশকালীন কারফিউ

প্রকাশিত:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৬১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

তালেবানের অগ্রযাত্রা ঠেকাতে আফগানিস্তানে নৈশকালীন কারফিউ জারি করেছে সরকার। শনিবার দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তথ্য জানিয়েছে।

এক বিবৃতিতে মন্ত্রণালয় বলেছে, ‘সহিংসতা নিয়ন্ত্রণে এবং তালেবানের যাতায়াত সীমিত করতে দেশের ৩১টি প্রদেশে নৈশকালীন কারফিউ জারি করা হয়েছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আহমাদ জিয়া জিয়া জানিয়েছেন, স্থানীয় সময় শনিবার রাত ১০টা থেকে ভোর ৪টা পর্যন্ত এই কারফিউ চলবে।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরা জানিয়েছে, কারফিউ জারির কারণ একেবারেই সোজাসাপ্টা। অনেক বছর ধরেই যুদ্ধরত এলাকাগুলো দিনের বেলা দখল করেছিল আফগান বাহিনী, আর অধিকাংশ ক্ষেত্রে তালেবান বিজয় পেয়েছে রাতের বেলা।

কারদান বিশ্ববিদ্যালয়ের আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের প্রধান ফাহিম সাদাত বলেন, ‘আফগানিস্তানের শহরগুলোর বিশাল জনগোষ্ঠীকে কারফিউ এই বার্তা দিবে যে, যুদ্ধ এখন বাড়ির দরজায়, সমাজের যে অংশ নিজেদের সরকারের সমর্থক বলে ভাবে তাদের এখন জেগে ওঠার সময় হয়েছে এবং যেভাবে পারে সেভাবেই তাদের সহযোগিতার সময় এসেছে।

গত মে মাস থেকে আফগানিস্তানের বিস্তীর্ণ অঞ্চল দখল করতে শুরু করে তালেবান। মার্কিন নেতৃত্বাধীন ন্যাটো সেনারা দেশটি ছেড়ে যাওয়ার পরপর কৌশলগত সীমান্তগুলো তারা দখল করে ফেলেছে।


আরও খবর



খুলনায় করোনা ইউনিটে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু

প্রকাশিত:শুক্রবার ০৯ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২২ জুলাই ২০২১ | ৬৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গে খুলনার চারটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ২৪ ঘণ্টায় ২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার (৯ জুলাই) সকাল ৮টা পর্যন্ত আগের ২৪ ঘণ্টায় তাদের মৃত্যু হয়। যা এ পর্যন্ত সর্বোচ্চ মৃত্যুর রেকর্ড।

মারা যাওয়া ২৭ জনের মধ্যে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে ১১ জন, খুলনা জেনারেল হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ৫, শহীদ শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ১ জন ও বেসরকারি গাজী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

 



আরও খবর



প্রতিদিন অনলাইনে প্রায় ২০০ কোটি টাকার পশু বিক্রি হচ্ছে

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৬৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মহামারি করোনা ভাইরাসের ভয়াবহ সংক্রমণ এড়াতে কোরবানির পশু বিক্রির মাধ্যম হিসেবে অনলাইন প্লাটফর্ম বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। কোরবানির ঈদকে কেন্দ্র করে প্রতিদিন এ মাধ্যমে প্রায় ২০০ কোটি টাকা পশু বিক্রি হচ্ছে। সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী অনলাইনে পশু বিক্রি ২০০০ কোটি টাকা ছাড়িয়েছে। গড়ে প্রতিদিন ১৭ হাজারের পশু বিক্রি হচ্ছে অনলাইনে।

শনিবার (১৭ জুলাই) প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের কোরবানিযোগ্য পশু বিক্রয় কার্যক্রম অগ্রগতির সর্বশেষ প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে এসেছে। ২ জুলাই থেকে ১৭ জুলাই পর্যন্ত ১৬ দিনে অনলাইনে এসব পশু বিক্রি হয়েছে। এ পর্যন্ত গরু, মহিষ, ছাগল, ভেড়াসহ কোরবানিযোগ্য পশুর অনলাইন বাজার বসেছে প্রায় ১৮০০টি।

প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর সূত্র জানায়, গত ১৬ দিনে মোট ২ লাখ ৮৯ হাজার ৮১৯টি পশু বিক্রি হয়েছে, যার বাজারমূল্য দুই হাজার ১৪২ কোটি ৫৫ লাখ ৭ হাজার ১৬৮ টাকা। গত একদিনে শনিবার বিক্রি হয়েছে ২৫ হাজার ৯৯২টি পশু। যার বাজারমূল্য ১৭৭ কোটি ৮৬ লাখ ৬ হাজার ৩৪১ টাকা।

প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের দেওয়া তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, অনলাইনে পশু বিক্রিতে সবচেয়ে বেশি এগিয়ে চট্টগ্রাম বিভাগ। এ বিভাগে মোট ১ লাখ ৪৩ হাজার ৪১৬টি পশু বিক্রি হয়েছে, যার বাজারমূল্য ১ হাজার ২৫ কোটি ২১ লাখ ২৪ হাজার ৯৪৮ টাকা।

পরের স্থানে রয়েছে ঢাকা বিভাগ। এ বিভাগে এখন পর্যন্ত ৪০ হাজার ৫০৬টি পশু বিক্রি হয়েছে ৩৮৭ কোটি ৪৬ লাখ ৯৩ হাজার ২৩২ টাকায়।

রাজশাহী বিভাগে ৪১ হাজার ২৮১টি পশু বিক্রি হয়েছে ২৩৫ কোটি ৯৩ লাখ ৮২ হাজার ৮৪০ টাকায়। খুলনা বিভাগে ১৬ হাজার ৩০৩টি কোরবানির পশু বিক্রি হয়েছে ১০৩ কোটি ৬৪ লাখ ১৯ হাজার ১০০ টাকায়। বরিশাল বিভাগে দুই হাজার ২৭০টি গবাদি পশু বিক্রি হয়েছে ১৫ কোটি ৫১ লাখ ৭৯ হাজার ৪০০ টাকায়।

সিলেট বিভাগে ৩ হাজার ২৬৩টি কোরবানির পশু বিক্রি হয়েছে ১৯ কোটি ১৯ লাখ ৩৪ হাজার ২৫৮ টাকায়। রংপুর বিভাগে ৪১ হাজার ১৭৬টি পশু বিক্রি হয়েছে ২০৯ কোটি ২৩ লাখ ৯ হাজার ৩১০ টাকায়। ময়মনসিংহ বিভাগে ১ হাজার ৬০৪টি পশু বিক্রি হয়েছে ১৪ কোটি ৬৩ লাখ ৪৬ হাজার ৪০০ টাকায়।

মোট ২ লাখ ৮৯ হাজার ৮১৯টি পশু বিক্রি হয়েছে। এর মধ্যে গরুর সংখ্যা ২ লাখ ২৩ হাজার ৩৪৯টি এবং ছাগল ও ভেড়া রয়েছে ৬৬ হাজার ৪৭০টি। সবমিলিয়ে কোরবানির মোট বাজারমূল্য মোট বাজারমূল্য ২ হাজার ১৪২ কোটি ৫৫ লাখ ৭ হাজার ১৬৮ টাকা।


আরও খবর

ব্যাংকে লেনদেন দেড়টা পর্যন্ত

রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১




বায়তুল মোকাররমে মুসল্লিদের উপস্থিতি কম

প্রকাশিত:শুক্রবার ০২ জুলাই 2০২1 | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | ৬০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কঠোর লকডাউনের পাশাপাশি বৃষ্টির কারণে বিভিন্ন স্থান থেকে বায়তুল মোকাররমে আজ নামাজ আদায় করতে আসা মুসল্লিদের সংখ্যা ছিল কম। ফলে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার প্রবণতা বেশি লক্ষ করা গেছে। নির্দিষ্ট দূরত্ব মেনে নামাজ আদায় করেছেন উপস্থিত মুসল্লিরা।

শুক্রবার জুমার নামাজে অন্যান্য সময়ের তুলনায় অনেক ফাঁকা ছিল মুসল্লিদের চলাফেরা ও অবস্থান। মূল চত্বর ছাড়া বারান্দা-সিঁড়িসহ বিভিন্ন স্থান প্রায় খালি ছিল। যেখানে অন্যান্য জুমায় নিচের মার্কেট চত্বর বা আশপাশের ফাঁকা স্থানে কাতার করে নামাজ আদায় করতে দেখা যায় মুসল্লিদের।

মসজিদে দেখা যায়, মূলভবনে ভেতরে একটির পর একটি কাতার ছেড়ে মুসল্লিদের নামাজ আদায় করছেন। এছাড়া বেশিরভাগ কাতারেই দাঁড়ানোর ক্ষেত্রে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে হয়েছে। পাশাপাশি অজুখানাসহ বিভিন্ন স্থানে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা ছিল। আগত মুসল্লিদের বেশিরভাগ অংশকেই মাস্ক পরে মসজিদে আসতে দেখা গেছে। তাদের হাতে ছিল জায়নামাজও।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ আশঙ্কাজনকভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় দেশের সব জুমা ও পাঁচ ওয়াক্তের নামাজ এবং অন্যান্য ধর্মীয় উপাসনালয়ে প্রার্থনার আগে ও পরে কতিপয় বিষয়ে নিরুৎসাহিত করতে শর্ত বেঁধে দিয়ে জরুরি বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়।

নিউজ ট্যাগ: বায়তুল মোকাররম

আরও খবর

পবিত্র ঈদুল আজহা আজ

বুধবার ২১ জুলাই 20২১