শিরোনাম

চাল-গমের দাম বাড়ার কারণ জানালেন কৃষিমন্ত্রী

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৪১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আটার দাম বাড়ার কারণে মানুষ চালে ঝুঁকছে, এটি চালের দাম বৃদ্ধির অন্যতম একটি কারণ বলে জানিয়েছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক।

মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) সপ্তম ডি-৮ মিনিস্ট্রিয়াল মিটিং অন অ্যাগ্রিকালচার অ্যান্ড ফুড সিকিউরিটি নিয়ে ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে কৃষিমন্ত্রী এ তথ্য জানান। কৃষি মন্ত্রণালয়ের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

কৃষিমন্ত্রী জানিয়েছেন, দেশে ১০ লাখ রোহিঙ্গা রয়েছে। প্রতিবছর ২২-২৪ লাখ নতুন মুখ যোগ হচ্ছে। এছাড়া, অ্যানিমেল ফিড হিসেবেও চালের কিছু ব্যবহার হচ্ছে। এসব বিষয় ও কিছুটা মুদ্রাস্ফীতির ফলে চালের দাম কিছুটা বেশি। কিন্তু বাজারে গেলে চাল পাওয়া যায় না বা মানুষ কিনতে পারে না এমন পরিস্থিতি নেই। দেশে খাদ্যের কোনও সংকট নেই।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, চালের উৎপাদন প্রতিবছর বাড়ছে। বাজারে চালের পর্যাপ্ততা রয়েছে। কিন্তু আমাদের মনে রাখতে হবে, বর্তমানে বিশ্ববাজারে গমের দাম বেড়েছে। ধানের উৎপাদন ভালো হয়েছে। কিন্তু এখন দেখা যাচ্ছে চালের দাম একটু একটু করে বাড়ছে। এটার যৌক্তিক কারণ আছে কি না, জানতে চাইলে কৃষিমন্ত্রী বলেন, সবসময় গমের দাম কম থাকে। যখন আটার দাম কম থাকে, তখন মানুষ আটা খায়। এখন তার উল্টো হয়েছে, গমের দাম বেশি। এতে মানুষ আবার চালের দিকে ঝুঁকেছে। এটাও একটি কারণ।

মন্ত্রী বলেন, চাল আমাদের প্রধান খাদ্য। চালের সঙ্গে এখন আমরা গম খাচ্ছি, গমের উৎপাদনও বাড়ছে। ভুট্টা উৎপাদন হচ্ছে, ভুট্টা মূলত পশুখাদ্য হিসেবে ব্যবহৃত হয়। এটি পোলট্রি, লাইভস্টক ও ফিশারিজ ক্ষেত্রে মুরগি, গরু ও মাছকে খাওয়ানো হয়। বিভিন্ন ফসল করার জন্য আমাদের জমিও বরাদ্দ দিতে হচ্ছে। জমিও চলে যাচ্ছে। বিভিন্ন ফসলের মধ্যে জমি ব্যবহারের প্রতিযোগিতা হচ্ছে। প্রতি বছর ২০-২৪ লাখ নতুন মুখ যুক্ত হচ্ছে, তাদের খাদ্যের যোগান দিতে হচ্ছে। রোহিঙ্গারা রয়েছে ১০ লাখ, তাদের খাদ্যও আমরা স্থানীয়ভাবে সরবরাহ করে থাকি।


আরও খবর



বাংলাদেশ-মালদ্বীপ দ্বিপাক্ষিক আলোচনা শুরু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৩ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৭১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মালদ্বীপে তার প্রথমবারের মতো ছয় দিনের দ্বিপাক্ষিক সফরের দ্বিতীয় দিনে আজ বৃহস্পতিবার (২৩ ডিসেম্বর) প্রেসিডেন্ট কার্যালয়ে মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম মোহাম্মদ সোলিহর সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় আলোচনা শুরু করেছেন।

আলোচনার পর বাংলাদেশ ও মালদ্বীপের মধ্যে স্বাস্থ্য, শিক্ষা, দ্বৈত কর পরিহার, বন্দি বিনিময়, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ে দুটি চুক্তি ও দুটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের কথা রয়েছে।

চুক্তি দুটি হচ্ছেদ্বৈত কর পরিহার এবং বন্দী বিনিময়। আর দুটি সমঝোতা স্মারক হচ্ছেবাংলাদেশ ও মালদ্বীপের মধ্যে স্বাস্থ্য সেবা ও চিকিৎসা বিজ্ঞান (নবায়ন) এবং দুদেশের যুব ও ক্রীড়া ক্ষেত্রের উন্নয়নে সহযোগিতা।

এ ছাড়া, বাংলাদেশ ও মালদ্বীপের মধ্যে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক নিয়োগ চুক্তি নবায়ন করা হবে। সফরকালে দক্ষিণ এশিয়ার দেশ দুটির মধ্যে বন্ধুত্বের বন্ধন হিসেবে বাংলাদেশ মালদ্বীপকে ১৩টি সামরিক যান উপহার দিবে। 

এর আগে প্রধানমন্ত্রী মালেতে সে দেশের প্রেসিডেন্টের কার্যালয়ে পৌঁছালে মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম মোহাম্মদ সোলিহ তাকে লাল গালিচা সংবর্ধনাসহ আনুষ্ঠানিকভাবে অভ্যর্থনা জানান। এ সময় বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে গার্ড অব অনার ও গান স্যালুট দেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী উভয় দেশের লাইন অব প্রেজেনটেশন পরিদর্শন করেন।

শেখ হাসিনা প্রেসিডেন্টের কার্যালয়ে রক্ষিত দর্শনার্থী বইয়ে সই করেন এবং সেখানে ফটো সেশনে অংশ নেন।


আরও খবর



আগামীকাল না.গঞ্জ নির্বাচন নিয়ে সিদ্ধান্ত

প্রকাশিত:সোমবার ১০ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৩৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ১১টি বিধিনিষেধ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে সরকার। আজ সোমবার বিকেলে এ প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, উন্মুক্ত স্থানে সকল সামাজিক, রাজনৈতিক, ধর্মীয় অনুষ্ঠান এবং সমাবেশ পরবর্তী নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত বন্ধ রাখতে হবে। আগামী ১৩ জানুয়ারি থেকে এ বিধিনিষেধ কার্যকর হবে।

এদিকে আলোচিত নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনের ভোটগ্রহণের তারিখ আগামী ১৬ জানুয়ারি। নির্বাচনে প্রার্থীদের প্রচারণার শেষ তারিখ আগামী ১৪ জানুয়ারি। ফলে সরকার আরোপিত বিধিনিষেধের কারণে নাসিক নির্বাচন নিয়ে দেখা দিয়েছে সংশয়।

নাসিক নির্বাচন হবে কি না প্রসঙ্গে জানতে চাইলে নির্বাচন কমিশনের অতিরিক্ত সচিব অশোক কুমার দেবনাথ বলেন, নির্বাচন নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে আগামীকাল (মঙ্গলবার) ইসিতে সভা হওয়ার কথা রয়েছে। যেহেতু ১৩ জানুয়ারি থেকে বিধিনিষেধ কার্যকর হবে, আমরা চাইবো নাসিক নির্বাচনের প্রচারণা একদিন আগেই শেষ করার। তবে এ ব্যাপারেও আগামীকালের বৈঠকে সিদ্ধান্ত হবে।

এর আগে গত বছরের জুন মাসে প্রথম ধাপের ইউপি নির্বাচনের সময় প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) নূরুল হুদা বলেছিলেন, যেসব এলাকায় করোনার প্রকোপ কম কিংবা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বিধিনিষেধ নেই, সেখানেই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

গত বছরের ২১ এপ্রিল প্রথম ধাপে ইউনিয়ন নির্বাচন হওয়ার কথা থাকলেও করোনার জন্য পিছিয়ে তা ২১ জুন ধার্য করে ইসি। পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় ৩৭১টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন হওয়ার কথা থাকলেও ২০০ ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচনের ঘোষণা দেওয়া হয়।

নিউজ ট্যাগ: করোনাভাইরাস

আরও খবর



শিল্পী সমিতি কারো ব্যবসার জায়গা না : ফেরদৌস

প্রকাশিত:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ২১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির আসন্ন নির্বাচনে ইলিয়াস কাঞ্চন-নিপুণ প্যানেল থেকে কার্যকরী পরিষদের সদস্য পদে নির্বাচন করছেন অভিনেতা ফেরদৌস।

২৮ জানুয়ারি অনুষ্ঠেয় নির্বাচনের বিভিন্ন দিক নিয়ে ফেরদৌস জানান, বড় পদে নির্বাচন না করে কার্যকরী পরিষদের সদস্য পদে নির্বাচন করছি। কারণ অনেক সিনেমার শুটিংয়ের কারণে যে সময় নিয়ে নির্বাচনের প্রস্তুতি নিতে হয় তা আমার হাতে ছিল না। আর খুব একটা সময়ও দিতে পারব না। শুধু শুধু বড় পদ নিয়ে লাভ কী। যে পদে কাজ করতে পারব সেই পদেই নির্বাচন করছি।

সবসময় শিল্পীদের পাশে থাকার চেষ্টা করি। বর্তমান যে কমিটি আছে সেই কমিটিতে আমি ছিলাম না। শিল্পী সমিতি কোনো রাজনৈতিক সংগঠন নয়, লাভজনক প্রতিষ্ঠান নয়। শিল্পী সমিতি কারো ব্যবসার জায়গাও না। শিল্পীদের কল্যাণের জন্য এ সমিতি করা হয়েছে। কিন্তু দেখা গেছে, বর্তমান কমিটির অনেকে নিজের স্বার্থে সংগঠনকে ব্যবহার করছেন।


আরও খবর



অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলবে ট্রেন, ২৫ শতাংশ টিকিট অনলাইনে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ১১ জানুয়ারী ২০২২ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

করোনার নতুনভাবে বিস্তার রোধে নতুন বিধিনিষেধ চালু করেছে সরকার। সেই অনুযায়ী ট্রেনের টিকিট বিক্রির ক্ষেত্রে নতুন সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। আগামী ১৫ জানুয়ারি থেকে প্রতিটি আন্তঃনগর ট্রেনে অর্ধেক যাত্রী নেওয়া হবে। অর্থাৎ মোট আসন সংখ্যার অর্ধেক টিকিট বিক্রি করবে রেলওয়ে। টিকিটের ৫০ শতাংশের মধ্যে ২৫ শতাংশ অনলাইনে এবং বাকি ২৫ শতাংশ কাউন্টারে পাওয়া যাবে।

মঙ্গলবার (১১ জানুয়ারি) রেলওয়ের চিফ কমার্শিয়াল ম্যানেজার (সিসিএম-পূর্ব ও পশ্চিম) মো. নাহিদ হাসান খানের সই করা একটি আদেশে এসব তথ্য জানানো হয়।

করোনাভাইরাস জনিত রোগের বিস্তার রোধে সার্বিক কার্যাবলী ও চলাচলে সরকার কর্তৃক বিধিনিষেধ দিয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। এতে ট্রেন, বাস ও লঞ্চে সক্ষমতার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচল করার নির্দেশনা রয়েছে।

যাত্রীবাহী আন্তঃনগর ট্রেন পরিচালনার ক্ষেত্রে রেলওয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী ও যাত্রীদের স্বাস্থ্যগত নিরাপত্তার স্বার্থে সামাজিক দূরত্ব ও মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিতের মাধ্যমে টিকিট বিক্রিতে কয়েকটি সংশোধন আনা হয়েছে। এগুলো হলো

১. যাত্রীদের সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতকরণে আন্তঃনগর ট্রেনগুলোর বিদ্যমান আসন সংখ্যার অর্ধেক টিকিট বিক্রি হবে।

২. হ্রাসকৃত আসন সংখ্যার অর্ধেক অর্থাৎ মোট আসন সংখ্যার ২৫ শতাংশ টিকিট কাউন্টারে পাওয়া যাবে। বাকি অর্ধেক আসনের অর্থাৎ মোট আসন সংখ্যার ২৫ শতাংশ টিকিট মোবাইল অ্যাপ বা অনলাইনের মাধ্যমে ইস্যু করা হবে।

৩. আন্তঃনগর ট্রেনগুলোর স্ট্যান্ডিং টিকিট ও স্টেশনের প্লাটফর্ম টিকিট বিক্রি সম্পূর্ণভাবে বন্ধ থাকবে।

৪. রেলপথ মন্ত্রণালয় অনুমোদিত ইমার্জেন্সি কোটা ও ম্যানুয়াল অনুযায়ী কোটা ব্যতীত আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট বিক্রিতে সব ধরনের কোটা ব্যবস্থা রহিত করা হবে।

৫. কাউন্টারে টিকিট বিক্রি ও ট্রেন ভ্রমণের ক্ষেত্রে যাত্রীদের মাস্ক পরা নিশ্চিত করতে হবে।

৬. প্রচলিত নিয়মানুযায়ী ও স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মেনে আন্তঃনগর ট্রেনে ক্যাটারিং সেবা প্রদান ও রাত্রিকালীন বেডিং সরবরাহ করা হবে।

আদেশে আরও বলা হয়, সংশোধনীগুলো আগামী ১৫ জানুয়ারি থেকে কার্যকর হবে। এক্ষেত্রে বিভিন্ন সময়ে জারিকৃত টিকিট এবং স্বাস্থ্যবিধি পরিপালনের অন্যান্য নিয়মাবলী অপরিবর্তিত থাকবে।


আরও খবর



এসএসসি ও সমমানে পাসের হার ৯৩.৫৮ শতাংশ

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ৩০ ডিসেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২ | ৪৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

চলতি বছরের মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। পরীক্ষায় এবার গড়ে ৯৩ দশমিক ৫৮ শতাংশ পরীক্ষার্থী পাস করেছে। গতবার ছিল ৮২ দশমিক ৮৭ শতাংশ। সেই হিসাবে এবার পাসের হার বেড়েছে ১০ দশমিক ৭১ শতাংশ।

বৃহস্পতিবার (৩০ ডিসেম্বর) বেলা ১১টায় এ ফল প্রকাশ করা হয়। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শিক্ষার্থীদের মাঝে বিনামূল্যে বই বিতরণের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়।

গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠানে যোগ দেন প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে এসএসসি ও সমমানের ফল গ্রহণ করেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় নির্দিষ্ট সময়ের প্রায় ৯ মাস পর ১৪ নভেম্বর এসএসসি পরীক্ষা শুরু হয়। এর মাধ্যমে দেড় বছর পর প্রথম কোনো পাবলিক পরীক্ষায় বসে শিক্ষার্থীরা। সব বোর্ড মিলিয়ে এবার এসএসসি ও সমমানে মোট পরীক্ষার্থী ছিল ২২ লাখ ২৭ হাজার ১১৩ জন। এর মধ্য উত্তীর্ণ হয়েছে ২০ লাখ ৯৬ হাজার ৫৪৬ জন।

অন্যদিকে নয়টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের অধীনে শুধু এসএসসি পরীক্ষায় গড় পাসের হার ৯৪ দশমিক শূন্য ৮।

পরে শিক্ষামন্ত্রী আনুষ্ঠানিকভাবে সাংবাদিকদের কাছে ফলাফলের বিস্তারিত তুলে ধরবেন। পরীক্ষার্থীরা শিক্ষাবোর্ডের ওয়েবসাইট ও এসএমএসের মাধ্যমে ফল জানতে পারবে। এছাড়া স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রতিষ্ঠানে গিয়ে সবাইকে ফল দেখার অনুরোধ জানিয়েছে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড।

নিউজ ট্যাগ: এসএসসি

আরও খবর

ফের অবরুদ্ধ শাবি ভিসি !

সোমবার ১৭ জানুয়ারী ২০২২