Logo
শিরোনাম

ছাগলনাইয়ায় পানিতে ডুবে ভাই-বোনের মৃত্যু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ আগস্ট ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ৯৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ফেনীর ছাগলনাইয়ায় পুকরের পানিতে ডুবে তানহা (৮) ও তামিম (৭) নামের ২ ভাই-বোনের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৫ আগস্ট) দুপুরে উপজেলার মহামায়া ইউনিয়নের যশপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

নিহত শিশুরা যশপুর গ্রামের একটি বাসার ভাড়াটিয়া টিপু সুলতানের ছেলেও মেয়ে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানাযায়, দুপুরে গোসল করতে নেমে দুই ভাই-বোন নিখোঁজ হয়। পরবর্তীতে পুকুরে তাদের লাশ পাওয়া যায়।

ছাগলনাইয়া থানার অফিসার ইনচার্জ শহিদুল ইসলাম জানান, ঘটনাটি শুনেছি। পুলিশ যাওয়ার আগেই তারা বাচ্চা দুটোর লাশ নিয়ে দাফন করার জন্য তাদের গ্রামের বাড়ি খাগড়াছড়ি জেলার রামগড়ের কৈয়ারা নিয়ে গেছেন। টিপু সুলতান ছাগলনাইয়ায়র যশপুরে একটি খামারে কাজ করতেন। সেখানে পরিবার পরিজন নিয়ে থাকতেন।  


আরও খবর

ভাতিজার লাশ দেখে চাচার মৃত্যু

সোমবার ০৫ সেপ্টেম্বর ২০২২




আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায় তিফা

প্রকাশিত:রবিবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২ | ৪২জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আগামী অক্টোবরে ইন্দোনেশিয়ায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে সুন্দরী প্রতিযোগিতা মিস গ্র্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল ২০২২-এর দশম আসর। চূড়ান্ত পর্বে অংশ নেবেন ৬০টি দেশের প্রতিযোগী। বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করছেন তাওহিদা তাসনিম তিফা। তিনি  এবার মিস গ্র্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ ২০২২ নির্বাচিত হন। এ ছাড়া মিস ওয়ার্ল্ড বাংলাদেশ ২০১৭ প্রতিযোগিতায় পঞ্চম স্থান এবং মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ ২০২০-এ সেরা দশে ছিলেন। এরপর নির্বাচিত হন আনফরগেটেবল বিউটি অব বাংলাদেশ ২০২২ এবং আরও ৬৪টি দেশের সঙ্গে অংশ নেন ওয়ার্ল্ডস আনফরগেটেবল বিউটি ২০২২ নামের একটি ফটো প্রতিযোগিতায়। এতে মিস স্পিরিট উপাধি পান তিফা। আগামী ২৫ অক্টোবর ইন্দোনেশিয়ার ওয়েস্ট জাভা প্রভিন্সের বোগর রিজেন্সিতে সেন্টুল আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টারে হবে মিস গ্র্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল ২০২২ প্রতিযোগিতা। এ আসরে অংশ নিতে ৩ অক্টোবর দেশ ছাড়বেন তিফা।

তিফা জানান, বিউটি প্যাজেন্টে অংশ গ্রহণের মধ্য দিয়ে তিনি পরিচিতি পাচ্ছেন এবং সেবামূলক কাজের অনুপ্রাণীত হচ্ছেন। তিনি ভবিষ্যতে সুবিধাবঞ্চিতদের জন্য কাজ করতে চান। চলতি বছরের শুরুতে গাজীপুরে প্রজেক্ট নুরজাহান নামের একটি শিশু পুষ্টিবিষয়ক সেবামূলক কাজে নেতৃত্ব দেন তিফা। এ ছাড়া নিয়মিত কাজ করছেন গাজীপুর রেলওয়ে এলাকার শিশুদের নিয়ে। আমি বাংলাদেশের হয়ে নিজের সেরাটা উপস্থাপন করতে চাই। দুঃখের বিষয়, বাংলাদেশে এখনো অনেকের ধারণা, সুন্দরী প্রতিযোগিতা মানেই মিডিয়াতে কাজ করা। একটা ইন্টারন্যাশনাল টাইটেল জিতে সেই পরিচিতি ব্যবহার করে মেয়েরা যে রাজনীতিবিদ, বিজনেস ওমেন, ফিলানথ্রপিস্ট, ডিপ্লোম্যাট হচ্ছেন; সে খবর অনেকেই রাখি না।

কিছুটা আফসোস নিয়ে তিফা বলেন, আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতায়ও আমরা স্পন্সর পাই না। ভারত, ফিলিপাইন, সাউথ আফ্রিকার মতো দেশে বড় বড় ডিজাইনার বিউটি প্যাজেন্টের মাধ্যমে তাঁদের দেশীয় পণ্য বিশ্বমঞ্চে তুলে ধরেন। অথচ দুঃখের বিষয়, আমরা এখনো এসব নিয়ে ভাবি না। হাসি-তামাশা আর ট্রল করেই উড়িয়ে দিই! আমার বিশ্বাস, একদিন এই অবস্থার উন্নতি হবে।


আরও খবর

দুরন্তপনার ৫ বছর

বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২




দেশে রপ্তানিতে বইছে সুবাতাস

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ | ৫৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বৈশ্বিক সংকটকালে ডলার ধরে রাখতে এলএনজির মতো উচ্চমূল্যের জ্বালানিপণ্য আমদানি কমিয়ে দেয় সরকার। এতে দেশের বিদ্যুৎ উৎপাদন কিছুটা ব্যাহত হয়। জ্বালানি সাশ্রয়ে আগস্টজুড়ে রাজধানীসহ সারাদেশে আবাসিক ও বাণিজ্যিক এলাকার পাশাপাশি রপ্তানিমুখী শিল্প এলাকায় শিডিউল করে লোডশেডিং কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়। তবে লোডশেডিংয়ের প্রভাবে দেশের রপ্তানি খাতে বড় কোনো ধাক্কা লাগেনি। বরং চলতি অর্থবছরের প্রথম দুই মাসে রপ্তানিতে সুবাতাসই বইছে।

সদ্য সমাপ্ত আগস্ট মাসে বিভিন্ন পণ্য রপ্তানি করে ৪৬০ কোটি ৭০ লাখ ডলার আয় করেছেন দেশীয় উদ্যোক্তারা। গত অর্থবছরের একই সময়ে অর্থাৎ আগস্টে ৩৩৮ কোটি ৩০ লাখ ডলারের পণ্য রপ্তানি হয়েছিল। সে হিসেবে এ বছর আগস্টে রপ্তানি প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৩৬ দশমিক ১৮ শতাংশ, যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৭ দশমিক ১৪ শতাংশ বেশি।  চলতি (২০২২-২৩) অর্থবছরের প্রথম দুই মাসে (জুলাই-আগস্ট) পণ্য রপ্তানি থেকে ৮৫৯ কোটি ১৮ লাখ ডলার এসেছে, যা গত অর্থবছরের (২০২১-২২) একই সময়ের চেয়ে ২৫ দশমিক ৩১ শতাংশ বেশি। রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরোর (ইপিবি) হালনাগাদ প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

রপ্তানির মতোই ইতিবাচক ধারায় ফিরেছে রেমিট্যান্স। চলতি অর্থবছরের প্রথম দুই মাসে প্রবাসীরা ২ বিলিয়ন ডলারের রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন। গত অর্থবছরের শুধু এপ্রিল মাসে রেমিট্যান্স ২ বিলিয়ন ডলারের বেশি এসেছিল। চলতি অর্থবছরের প্রথম দুই মাস জুলাই ও আগস্টে প্রবাসীদের পাঠানো ৪১৩ কোটি ডলার সমপরিমাণ অর্থ দেশে এসেছে। আগের অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় যা ৪৫ কোটি ডলার বা ১২ দশমিক ২৯ শতাংশ বেশি।

ইপিবির তথ্য বলছে, আগস্টে ৭১১ কোটি ২৬ লাখ ডলারের তৈরি পোশাক রপ্তানি হয়েছে, যা গত অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে ২৬ দশমিক ১ শতাংশ বেশি। এতে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৭ দশমিক ২৪ শতাংশ বেশি আয় হয়েছে। এছাড়া চামড়াজাত পণ্যে বিগত অর্থবছরের আগস্টের তুলনায় এবার প্রবৃদ্ধি হয়েছে ২৭ দশমিক ৭৭ শতাংশ, পাটজাত পণ্যে ২২ দশমিক ৬৭ শতাংশ, সিরামিক পণ্যে ১৮ দশমিক ০৬ শতাংশ, প্লাস্টিকে ৬০ দশমিক ০৯ আর স্পেশালাইজড টেক্সটাইল পণ্যে প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৭৩ দশমিক ১৭ শতাংশ।


আরও খবর

৩১ ডিসেম্বরের পর পাম অয়েল বিক্রি বন্ধ

বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২




কুষ্টিয়ায় দুই মোটরসাইকেলের প্রতিযোগিতায় ৩ যুবক নিহত

প্রকাশিত:শনিবার ১০ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ৬৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কুষ্টিয়ায় দুটি মোটরসাইকেলের গতির প্রতিযোগিতায় তিন যুবক নিহত হয়েছে। শুক্রবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ মহাসড়কের বটতৈল আনসার ক্যাম্পের কাছে এ দুঘটনা ঘটে। এসময় আরও একজন আহত হয়েছেন।

নিহতরা হলেন কুষ্টিয়া শহরের মোহিনী মিল এলাকার জুয়েল (২৫) ও কুমাড়গাড়া এলাকার শওকত আলীর ছেলে ফারুক মিস্ত্রী (২৪) ও মনোহর শেখের ছেলে রাহুল (২০)। গুরুতর আহত শহরতলীর চেড়হাস এলাকার বিপ্লবকে (২০) কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে দ্রুত ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

কুষ্টিয়া হাইওয়ে পুলিশের ওসি ইদ্রিস আলী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, রাত ৮ টার দিকে দুটি মোটরসাইকেলে করে চারজন যুবক কুষ্টিয়ার দিকে আসছিলেন। এ সময় তারা একে অপরের থেকে দ্রুত যাওয়ার প্রতিযোগিতায় লিপ্ত হন। এক পর্যায়ে কুষ্টিয়া-ঝিনাইদহ মহাসড়কের বটতৈল আনসার ক্যাম্পের কাছে দুটি মোটরসাইকেল কার্গোর সাথে ধাক্কা খায়। এতে ঘটনাস্থলেই দুজন এবং হাসপাতালে যাওয়ার পর একজনের মৃত্যু হয়।


আরও খবর



ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তুমুল লড়াই, এগিয়ে লুলা

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ০৪ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ | ২৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের প্রথম রাউন্ডের ভোট গ্রহণ শেষ হয়েছে। দুই প্রেসিডেন্ট প্রার্থী জইর বলসোনারো এবং লুইজ ইনাসিও লুলা দা সিলভার মধ্যে এখন পর্যন্ত জয়ের দৌড়ে এগিয়ে আছেন লুলা। দেশটির ৯৯ শতাংশ ভোট কেন্দ্রের ফলাফল অনুযায়ী, ৪৮ দশমিক ৩ শতাংশ ভোট পেয়েছেন লুলা। অপর দিকে ৪৩ দশমিক ৩ শতাংশ ভোট পেয়েছেন বলসোনারো। ব্রাজিলের ইলেকটোরাল ট্রাইব্যুনালের বরাত দিয়ে এসব তথ্য জানিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি।

ব্রাজিলের নির্বাচনী নিয়ম অনুসারে প্রথম ধাপের নির্বাচনে কোনো প্রার্থী যদি ৫০ শতাংশের বেশি ভোট পান তবে প্রথমা ধাপেই তিনি বিজয়ী বলে ঘোষিত হবে। যেহেতু প্রথম ধাপের নির্বাচনে দুই প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর কেউই ৫০ শতাংশের বেশি ভোট পাননি, সেহেতু নিকটতম দুই প্রতিদ্বন্দ্বীর মধ্যে দ্বিতীয় দফায় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। দ্বিতীয় ধাপে যে প্রার্থী বেশি ভোট পাবেন তিনিই প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হবেন।

ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, বলসোনারে ও লুলা দা সিলভার মধ্যে কে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হবেন, তা জানতে ব্রাজিলবাসীকে প্রায় চার সপ্তাহ অপেক্ষা করতে হবে। আগামী ৩০ অক্টোবর দ্বিতীয় দফায় ভোট অনুষ্ঠিত হবে। আজ থেকে ২৮ বছর আগে ব্রাজিল এমন ঘটনা ঘটেছিল। নির্বাচনের আগে বিভিন্ন জরিপে আশাতীতভাবে এগিয়ে ছিলেন লুলা দা সিলভা। ধারণা করা হয়েছিল, তিনি প্রথম দফার ভোটেই ৫০ শতাংশের বেশি ভোট পেয়ে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হবেন। কিন্তু প্রকৃত ভোটের ফলাফলে অপ্রত্যাশিতভাবে অনেক বেশি ভোট পেয়েছেন বর্তমান প্রেসিডেন্ট ও সাবেক সেনা অধিনায়ক বলসোনারো। বলা যায়, লুলা ও বলসোনারোর মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছে।

৭৬ বছর বয়সী লুলা এরই মধ্যে দুই মেয়াদে-২০০৩ থেকে ২০০৬ এবং ২০০৭ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত-প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করেছেন। বিগত শতকের ৭০ এর দশকে লুলা শ্রমিক আন্দোলনের নেতা হিসেবে রাজনীতিতে পদার্পণ করেন। তিনি ব্রাজিলে বেশ জনপ্রিয়।  অপরদিকে, ৬৭ বছর বয়সী বর্তমান প্রেসিডেন্ট বলসোনারো রাজনীতিতে প্রবেশের আগে ব্রাজিলের সেনাবাহিনীর ক্যাপ্টেন ছিলেন। ২০১৮ সালে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়ার আগ পর্যন্ত তিনি ফেডারেল ডিস্ট্রিক্টের ডেপুটি ছিলেন। এই পদে তিনি টানা ২৭ বছর দায়িত্ব পালন করেন। দেশটিতে বলসোনারো রক্ষণশীল রাজনীতির সমর্থক বলে পরিচিত।

এদিকে সাও পাওলোর প্রধান সড়কে এক বিশাল সমাবেশে সমর্থকদের উদ্দেশ্যে লুলা দা সিলভা বলেছেন, আমরা এই নির্বাচনে জিততে যাচ্ছি। চূড়ান্ত বিজয় না আসা পর্যন্ত আমরা লড়াই করে যাব।

নিউজ ট্যাগ: লুলা দা সিলভার

আরও খবর

‘হাসি’ মানুষের সবচেয়ে ভালো ওষুধ

শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২




যুক্তরাষ্ট্রে এখনো প্রধান সমস্যা মূল্যস্ফীতি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ৪১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

যুক্তরাষ্ট্রের জন্য এখনো অন্যতম সমস্যা হলো মূল্যস্ফীতি। শুরু থেকেই মূল্যস্ফীতির ওপর নজর রাখছে হোয়াইট হাউজ। কারণ এটি প্রেসিডেন্ট বাইডেনের জনপ্রিয়তার ওপর প্রভাব ফেলে। তবে মূল্যস্ফীতির ভীতি এখন কিছুটা কমেছে। ১৩ সেপ্টেম্বর প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, বার্ষিকভিত্তিতে চলতি বছরের আগস্টে ভোক্তা মূল্যসূচক বেড়ে দাঁড়িয়েছে আট দশমিক তিন শতাংশে।

তবে মাসিকভিত্তিতে এ সময়ে মূল্য বেড়েছে মাত্র শূন্য দশমিক এক শতাংশ। এমন পরিস্থিতিতে দেশটির রিপাবলিকান নীতি নির্ধারকরা বাইডেনের সময়ের রেকর্ড মূল্যস্ফীতির সমালোচনা করার পরামর্শ দিয়েছেন। মূলত আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের মূল্য কমার পরই দেশটিতে মূল্যস্ফীতির ভয়হীন পরিসংখ্যান সামনে এসেছে। চলতি বছরের জুনে তেলের দাম অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে যায়। যদিও তা কমে ব্যারেলপ্রতি ১০০ ডলারের নিচে নেমে এসেছে।

তবে জ্বালানি ও খাদ্যের দাম বাদ দিলে মাসিকভিত্তিতে আগস্টে মূল মূল্যস্ফীতি পাওয়া যায় শূন্য দশমিক ছয় শতাংশ। এই হারে বার্ষিক মূল্যস্ফীতির হার দাঁড়ায় সাত দশমিক চার শতাংশে, যা ফেডারেল রিজার্ভের লক্ষ্যমাত্রা দুই শতাংশের চেয়ে অনেক বেশি। এদিকে বিনিয়োগকারীরা মনে করেন, এই মাসের শেষের দেকে ফেড তার টানা তৃতীয় তিন-চতুর্থাংশ-পয়েন্ট সুদের হার বৃদ্ধির জন্য বেছে নেবে। অনুমানকারীরা ভেবেছিলেন মাসিকভিত্তিতে আগস্টে মূল্যস্ফীতি শূন্য দশমিক তিন শতাংশে আসবে। কিন্তু শূন্য দশমিক ছয় শতাংশের ফলে বোঝা যাচ্ছে প্রত্যাশার চেয়ে মূল্যের ওপর চাপ অনেক বেশি। একারণেই ফের সুদের হার বাড়ানোর দিকে নজর ফেডের।

মূল মূল্যস্ফীতির ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতার কারণে নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে শ্রম বাজারে। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি বেকার ব্যক্তির জন্য মোটামুটি দুটি পদ খালি রয়েছে। এতে কিছুটা সুবিধাজনক অবস্থায় রয়েছে চাকরিপ্রত্যাশীরা। ফেডের আটলান্টা শাখার তথ্য অনুযায়ী, আগস্ট মাসে মজুরি বার্ষিকভিত্তিতে বেড়েছে প্রায় সাত শতাংশ। ফেডের রেট সেটিং কমিটির সদস্যদের প্রত্যাশা বেকারত্বের হার ২০২৪ সালে চার দশমিক এক শতাংশে থাকাতে পারে, বর্তমানে যা রয়েছে তিন দশমিক সাত শতাংশে। কিন্তু জন হপকিন্স ইউনিভার্সিটির লরেন্স বল ও আইএমএফের ড্যানিয়েল লেই-প্রাচি মিশ্রের সাম্প্রতিক একটি গবেষণাপত্রে যুক্তি দিয়ে বলা হয়েছে, ২০২৪ সালে মূল মূল্যস্ফীতি দুই দশমিক সাত শতাংশ থেকে আট দশমিক আট শতাংশের মধ্যেই বেকারত্বের হার চার দশমিক এক শতাংশে থাকবে।

মূল্যস্ফীতি ইস্যুতে মানুষের মধ্যে নানা ধরনের প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে। বিশেষ করে ভোক্তাদের মধ্যে উদ্বেগ রয়েছে। কারণ যেকোনো মূল্যই গুরুত্বপূর্ণ। প্রকৃতপক্ষে পেট্রলের দাম আমেরিকানদের বেশি দৃষ্টি আকর্ষণ করে। তবে জুন থেকে দেশটিতে মূল্যস্ফীতি উল্লেখযোগ্য হারে কমেছে।

নিউজ ট্যাগ: মূল্যস্ফীতি

আরও খবর

‘হাসি’ মানুষের সবচেয়ে ভালো ওষুধ

শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২