Logo
শিরোনাম

দাবতে থাকা শহরে প্রশ্নবিদ্ধ ভারতের উন্নয়ন

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৪ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ২৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

হিমালয় সংলগ্ন ভারতের উত্তরাখণ্ড রাজ্যের জোশীমঠ শহরের কাছাকাছি একটি গ্রাম সুনীল। সেখানে দীর্ঘদিন ধরে স্ত্রী-কন্যা নিয়ে বসবাস করতেন ৫২ বছর বয়সী দুর্গা প্রসাদ সাকলানি। দুবছর আগে তাদের বাড়িতে প্রথম ফাটল দেখা দেয়। এরপর থেকে বহুবার কর্তৃপক্ষের কাছে অভিযোগ জানিয়েছেন বাড়ি দেবে যাচ্ছে বলে। কিন্তু দীর্ঘসময় এ বিষয়ে কেউ পাত্তাই দেয়নি

ভারত সরকার দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলগুলোকেও উন্নয়নের আওতায় আনতে চায়। কিন্তু হিমালয় এলাকায় সেটি করার অসুবিধাগুলো চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিচ্ছে জোশীমঠের সমস্যা। শহরটি হাইকার ও সুউচ্চ ধর্মীয় স্থানগুলোতে যাওয়া তীর্থযাত্রীদের জন্য একটি জাম্পিং-অফ পয়েন্ট (নতুন যাত্রা শুরুর জায়গা)।

ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) বরাবরই নিজেদের ধর্মভীরু দেখাতে চায়। কিন্তু তীর্থযাত্রীদের কাছে গুরুত্ব এবং সাম্প্রতিক দাবতে থাকার ঘটনার কারণে জোশীমঠ এখন দলটির জন্য বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এ মাসের শুরুর দিকে শহরটির বাড়িঘরে দৃশ্যমান ফাটল কয়েকগুণ বেড়ে যাওয়ার পর অবশেষে বিষয়টিতে মনযোগ দিতে শুরু করে কর্তৃপক্ষ। স্যাটেলাইটের তথ্য-চিত্র বলছে, নতুন বছরের মাত্র ১২ দিনে এলাকাটি পাঁচ সেন্টিমিটারের বেশি দেবে গেছে। এর আগে গত বছরের এপ্রিল ও নভেম্বরের মধ্যে দেবেছিল আরও নয় সেন্টিমিটার।

এ অবস্থায় স্থানীয় কর্তৃপক্ষ ওই এলাকায় সব ধরনের নির্মাণকাজ বন্ধ করে দিয়েছে। শত শত বাড়িকে অনিরাপদ ঘোষণা করা হয়েছে এবং দুর্গা প্রসাদ সাকলানি ও তার পরিবারসহ স্থানীয় বাসিন্দাদের অস্থায়ী বাসস্থানে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। সাকলানি পরিবারের পাঁচজন এখন একটি হোটেলে বসবাস করছেন। সরকার তাদের ক্ষতিপূরণ হিসেবে দেড় লাখ রুপি দিয়েছে। সাকলানি জানিয়েছেন, বিষয়টিতে কর্মকর্তারা এখন অন্তত খেয়াল করছেন

জোশীমঠ দেবে যাওয়ার সাম্প্রতিক কারণ হতে পারে ভূগর্ভস্থ জলাশয় ফেটে যাওয়া। এটি কী কারণে ঘটেছে তা নিয়ে তদন্ত চলছে। কিন্তু ১৯৭০-এর দশকেই অঞ্চলটি দেবে যাওয়ার উচ্চ ঝুঁকিতে থাকার কথা জানানো হয়েছিল। সেসময় একটি সরকারি কমিশন জানিয়েছিল, অতীতে ভূমিধসে জমা বালি ও পাথরের ওপর গড়ে ওঠার কারণে জোশীমঠ বৃহৎ উন্নয়নকাজের উপযোগী নয়। এছাড়া, গলে যাওয়া হিমবাহগুলো ভূপৃষ্ঠকে আরও আলগা করে দেওয়ায় বিপদ বেড়েছে বলে মনে করছেন উত্তরাখণ্ডের ভূতাত্ত্বিক সরস্বতী প্রকাশ সাতি। তিনি বলেন, আশপাশের শহর-গ্রামগুলোও একই সমস্যায় আক্রান্ত। এরপরও সাম্প্রতিক বছরগুলোতে পর্যটকদের আকৃষ্ট করার জন্য পরিকল্পিত বড় বড় নির্মাণ প্রকল্পগুলোর বিরোধিতা হয়েছে সামান্যই। এ নিয়ে সাতির প্রশ্ন, বৈজ্ঞানিক গবেষণা ও প্রতিবেদনগুলো যদি কখনো কার্যকর করাই না হয়, তাহলে সেগুলো দিয়ে কাজ কী?

স্থানীয় অনেকেই কেন্দ্রীয় সরকারের সমর্থনে হিন্দু তীর্থস্থানগুলোর মধ্যে নির্মিত একটি রাস্তা ও একটি জলবিদ্যুৎ প্রকল্পকে জোশীমঠের সাম্প্রতিক বিপদের জন্য দায়ী করেছেন৷ অতুল সাতি নামে স্থানীয় এক অধিকারকর্মী বলেন, বছরের পর বছর শহরটিকে রক্ষা করতে ব্যর্থ হয়েছে সরকার। এমনকি দুই বছর আগে ভূমিধসে ২০০ জন নিহত হওয়ার পরেও উদ্যোগ নেওয়া হয়নি। স্থানীয় একটি হিন্দু মঠের প্রধান সাংবাদিকদের বলেছেন, উন্নয়নকাজের মাধ্যমে হিমালয় অঞ্চলের পরিকল্পিত ধ্বংসযজ্ঞ ধর্মীয় ও সাংস্কৃতিক কেন্দ্র হিসেবে জোশীমঠের টিকে থাকাকে ঝুঁকির মধ্যে ফেলেছে।

সরকার অবশ্য এই বিপদের জন্য তার উন্নয়ন প্রকল্পগুলো দায়ী বলে স্বীকার করে না। তবে তারা জনমত নিয়ে চিন্তিত। চলতি মাসের মাঝামাঝি দেশটির জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ উত্তরাখণ্ডের কর্মকর্তা ও বিজ্ঞানীদের গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলা বন্ধ করতে বলেছে। যে ওয়েবসাইটে জোশীমঠ দেবে যাওয়ার গবেষণা তথ্য প্রকাশ করা হয়েছিল, সেখান থেকে তা অদৃশ্য হয়ে গেছে। এ কারণে কারও কারও আশঙ্কা, সরকার হয়তো বিষয়টিকে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করছে।

নিউজ ট্যাগ: জোশীমঠ শহর

আরও খবর



ভূমি আইন সম্পর্কিত খবর ভুয়া : মন্ত্রণালয়ের গণবিজ্ঞপ্তি

প্রকাশিত:রবিবার ২২ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৩ | ২৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ভূমি আইন পাস হয়েছে, ১০ জানুয়ারি থেকে কার্যকর হয়েছে এমন তথ্যকে ভুয়া খবর বা গুজব বলে দাবি করেছে ভূমি মন্ত্রণালয়। রোববার (২২ জানুয়ারি) ভূমি মন্ত্রণালয় থেকে এ সংক্রান্ত গণবিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়।

এতে বলা হয়, ভূমি আইন পাস হয়েছে, ১০ জানুয়ারি থেকে কার্যকর হয়েছে মর্মে একটি ভুয়া খবর/গুজব সম্প্রতি বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে/ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়েছে। যা ভূমি মন্ত্রণালয়ের নিয়মিত সংবাদ পর্যালোচনার সময় নজরে আসে। এ ধরনের ভুয়া খবর/গুজব জনমনে বিরূপ প্রভাব ও বিভ্রান্তি সৃষ্টি করছে- যা মোটেই কাম্য নয়।

প্রকৃত তথ্য হচ্ছে ভূমি আইন নামে কোনো আইন জাতীয় সংসদে এখন পর্যন্ত প্রণয়ন করা হয়নি। সর্বসাধারণকে এ ধরনের ভুয়া খবর/গুজবের বিষয়ে অধিকতর সতর্ক থাকার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ জানানো যাচ্ছে।

নিউজ ট্যাগ: ভূমি মন্ত্রণালয়

আরও খবর



আজকের রাশিফল: আজ কেমন যাবে আপনার দিন ?

প্রকাশিত:শনিবার ২১ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ৪৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

পুরনো জ্যোতিষশাস্ত্রের এমন একটি ধরন, যার মাধ্যমে বিভিন্ন সময়কাল নিয়ে ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়। যেমন দৈনিক রাশিফল প্রতিদিনের ঘটনার ভবিষ্যকথন করে, তেমন সাপ্তাহিক, মাসিক তথা বার্ষিক রাশিফল যথাক্রমে সপ্তাহ, মাস এবং বছরের ভবিষ্যদ্বাণী করে। বৈদিক জ্যোতিষে ১২টি রাশি- মেষ, বৃষ, মিথুন, কর্কট, সিংহ, কন্যা, তুলা, বৃশ্চিক, ধনু, মকর, কুম্ভ ও মীন-এর ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়। একই রকমভাবে ২৩টি নক্ষত্রেরও ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়ে থাকে।

মেষ রাশি: আপনার কোনো জিনিস আজ চুরি হতে পারে। তাই, সতর্ক থাকুন। কোনো অপ্রয়োজনীয় চিন্তায় আজ সময় নষ্ট করবেন না। আপনার কাছে আজ কিছুটা অবসর সময় থাকবে। যদিও, সেটিকে আপনি কোনো কারণবশত ভালোভাবে ব্যবহার করতে পারবেন না। আপনার শরীরকে ভালো রাখার চেষ্টা করুন। নিজের পছন্দের কোনো কাজ আজ আপনি করতে পারেন। অর্ধাঙ্গিনীর সাথে ভালো সময় কাটবে।

বৃষ রাশি: কোনো নতুন আর্থিক পরিকল্পনার মাধ্যমে আজ আপনি লাভবান হবেন। আপনার স্বাস্থ্য আজ দুর্দান্ত থাকবে। আপনার মধ্যে আজ ভরপুর আত্মবিশ্বাস বজায় থাকবে। তাই, এই দিনটিকে কাজে লাগান। সময়ের মধ্যেই আজ সমস্ত কাজ শেষ করার চেষ্টা করুন। যার ফলে আপনি কিছুটা অবসর সময় পাবেন। কোনো আত্মীয়ের কাছ থেকে আজ এক বিরাট চমক পাবেন।

মিথুন রাশি: অবসর সময়ে আজকে আপনি কোনো কিছু সৃজনশীল কাজ করতে পারেন। আপনি আজ কোনো খেলাধূলায় অংশগ্রহণ করতে পারেন। যেটিতে আপনি ভালো ফলাফল করবেন। কর্মক্ষেত্রে আজ কিছুটা পরিশ্রম হতে পারে। যাঁরা বৈদেশিক বাণিজ্যের সাথে যুক্ত রয়েছেন আজ তাঁরা ক্ষতির সম্মুখীন হতে পারেন। তাই, সতর্ক হন। প্রেমের জন্য দিনটি ভালো।

কর্কট রাশি: বাড়ির ফেলে রাখা কাজগুলি শেষ করার জন্য আজ একটি অনুকূল দিন। শরীর ভালো রাখতে আজ আপনি হাঁটাহাঁটির প্রতি আকৃষ্ট হবেন। প্রেমের জন্য দিনটি সত্যিই ভালো। ব্যবসায়ীদের জন্য আজকের দিনটি দুর্দান্ত। বিবাহিত জীবন সুখের হবে। আপনি আজ আপনার কোনো ভুল বুঝতে পেরে সেটিকে সংশোধনের চেষ্টা করবেন। পরিবারের সদস্যদের সাথে আজ কিছুটা সময় কাটান।

সিংহ রাশি: ব্যবসায়ীদের জন্য আজকের দিনটি সত্যিই দুর্দান্ত। আপনি আজ কোনো খেলাধূলায় অংশগ্রহণ করতে পারেন। যেটিতে আপনি ভালো ফলাফল করবেন। বাড়ির সমস্যাগুলির সমাধান করতে আজ আপনাকে আপনার বুদ্ধি এবং প্রভাবকে কাজে লাগাতে হবে। দিনটি আপনার বিবাহিত জীবনের সেরা দিন হতে পারে। কর্মক্ষেত্রে সতর্কতার সাথে কাজ করুন। কোনো সামাজিক কর্মকান্ডে আজ যুক্ত থাকতে পারেন।

কন্যা রাশি: দিনের শেষ ভাগে আর্থিক দিকটি উন্নত হবে। আপনার মধ্যে আজ ভরপুর আত্মবিশ্বাস বজায় থাকবে। তাই, এই দিনটিকে কাজে লাগান। পরিবারে নতুন একজনের আগমন আজ আনন্দের মূহুর্ত বয়ে আনবে। আপনি আজকে আপনার বেশিরভাগ সময়টা আপনার পরিবারের লোকজনের সাথে কাটাতে পারেন। বিবাহিতদের জন্য দিনটি ভালো। শিশুদের সাথে কিছুটা সময় কাটান।

তুলা রাশি: কোনো কঠিন সমস্যায় পড়ে দ্রুততার সাথে সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়ে আজ আপনি লাভবান হতে পারেন। কোনো ঝগড়ুটে ব্যক্তির সাথে বিবাদ আজ আপনার মেজাজ খারাপ করে দিতে পারে। পূর্বে আপনার কাছ থেকে ঋণ নিয়ে এখনও আপনাকে ফেরত দেননি এমন ব্যক্তিদের সাথে আর লেনদেন করবেন না। কোনো অবাঞ্ছিত ঝামেলা আজ এড়িয়ে চলা উচিত। শিশুদের সাথে কিছুটা সময় কাটান।

বৃশ্চিক রাশি: কোনো অপ্রয়োজনীয় কাজে আজ সময় নষ্ট করবেন না। আজকে কোনো জায়গায় বিনিয়োগ করা থেকে বিরত থাকা উচিত। জীবনসঙ্গীর সাথে আজ দুর্দান্ত সময় কাটবে। এই রাশির পড়ুয়ারা আজকে মোবাইল চালিয়ে অনেকটা সময় নষ্ট করতে পারে। আজকে আপনি হঠাৎই ছুটি নেওয়ার পরিকল্পনা করতে পারেন এবং পরিবারের সাথে সময়ও কাটাতে পারেন। আত্মীয়দের সাথে ভালো সময় কাটবে।

ধনু রাশি: কোনো ভুল ভাব বিনিময় আপনাকে আজ সমস্যায় ফেলতে পারে। স্বাস্থ্য সম্পর্কে অবশ্যই সচেতন হন। বিশেষ করে উচ্চ রক্তচাপের রোগীরা সতর্ক থাকুন। পূর্বে আপনার কাছ থেকে ঋণ নিয়ে এখনও আপনাকে ফেরত দেননি এমন ব্যক্তিদের সাথে আর লেনদেন করবেন না। কোনো শিক্ষামূলক ভ্রমণ আপনার সচেতনতাকে বাড়িয়ে তুলবে। মনের মধ্যে ইতিবাচক চিন্তা বজায় রাখুন।

মকর রাশি: আজকে দিনের শুরুটা যতই ক্লান্তিকর হোকনা কেন বেলা বাড়ার সাথে সাথে আপনি ভালো ফল পেতে থাকবেন। দিনের শেষ ভাগে আজ আর্থিক দিকটি উন্নত হবে। অন্যদের সাথে খুশি ভাগ করে নেওয়ার মাধ্যমে আজ আপনার স্বাস্থ্যের বিকাশ ঘটতে পারে। আপনি আজ কিছুটা অবসর সময় পাবেন। অর্ধাঙ্গিনীর সাথে কোনো বিষয় নিয়ে মনোমালিন্য হতে পারে।

কুম্ভ রাশি: সন্ধ্যেবেলায় অতিথিদের উপস্থিতিতে আজ বাড়িতে দুর্দান্ত সময় কাটবে। আপনি আজ কোনো ধর্মীয় কর্মে মনোনিবেশ করতে পারেন। যা আপনাকে মানসিক শান্তি এনে দেবে। সবার সাথে কথা বলার সময়ে সংযত হয়ে কথা বলুন। আপনার কাছে আজ কিছুটা অবসর সময়ে থাকবে। পাশাপাশি, সেই সময়ে আপনি কোনো বহুপ্রতিক্ষিত কাজ করতে পারেন। জীবনসঙ্গীর সাথে আজ দুর্দান্ত সময় কাটবে।

মীন রাশি: আজকে আপনি হঠাৎই ছুটি নেওয়ার পরিকল্পনা করতে পারেন এবং পরিবারের সাথে সময়ও কাটাতে পারেন। অহেতুক চিন্তা আজ করবেন না। আর্থিক দিক থেকে আজকের দিনটি ভালো। পাশাপাশি, আজকের করা কোনো বিনিয়োগের মাধ্যমে আপনি লাভবান হবেন। আপনার মধ্যে আজ ভরপুর আত্মবিশ্বাস বজায় থাকবে। তাই, এই দিনটিকে কাজে লাগান। কর্মক্ষেত্রে ভালো সময় কাটবে।

নিউজ ট্যাগ: আজকের রাশিফল

আরও খবর

আজকের রাশিফল: জেনে নিন কেমন কাটবে দিন ?

শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩

অ্যাকনে যখন মাথার ত্বকে

বুধবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৩




হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের রোডমার্চে পুলিশের বাধা

প্রকাশিত:শনিবার ০৭ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ৬০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সাত দফা দাবি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় অভিমুখে স্মারকলিপি দিতে রমনা কালীমন্দির থেকে রোডমার্চ শুরু করে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ। আজ শনিবার টিএসসি হয়ে শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে পৌঁছালে রোডমার্চ সামনে এগোতে দেয়নি পুলিশ।

জানা যায়, রমনা কালীমন্দির থেকে রোডমার্চ শুরু করে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ। রোডমার্চ শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে পৌঁছালে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের বেশ কিছুক্ষণ আলোচনা হয়। এরপর রোডমার্চ সমাপ্ত করে দেওয়া হয়। এ সময় পরিষদের অন্যতম সভাপতি নিম চন্দ্র ভৌমিকের নেতৃত্বে সাত সদস্যের একটি কমিটি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে স্মারকলিপি দিতে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়।

বিকেল ৩টা ৫০ মিনিটে সাত সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ে অভিমুখে রওনা দেয়। প্রতিনিধি দলের অন্য সদস্যরা হলেন রানা দাশ গুপ্ত, কাজল দেবনাথ, উষাতন তালুকদার, জয়ন্ত কুমার দে, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি জে এল ভৌমিক, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক চন্দ্র নাথ পোদ্দার।


আরও খবর



৫ জানুয়ারি: ইতিহাসের এই দিনে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৫ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ৭৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আজ বৃহস্পতিবার ৫ জানুয়ারি ২০২৩। ২১ পৌষ, ১৪২৯, বঙ্গাব্দ। ১১ জমাদিউস সানি , ১৪৪৪ হিজরি।

ইতিহাসের প্রতিটি দিনেই ঘটে কিছু না কিছু যুগান্তকারী ঘটনা। তাই প্রতিটি দিনই এক একটি ইতিহাস। একনজরে দেখে নিন ইতিহাসের এ দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যুদিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনাবলি:

৬০৩ - ইরান ও রোম সম্রাজ্যের মধ্যে ২৪ বছরব্যাপী যুদ্ধ শুরু হয়।

১৫০০ - ডিউক লুদভিক সোফারজ ইতালির দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর এবং লাম্বারদিয়া অঞ্চলের রাজধানী ও প্রধান শহর মিলান জয় করেন।

১৫৫৪ - নেদারল্যান্ডের আইন্দহোভেনে ভয়াবহ অগ্নিকার্ড সংগঠিত হয়।

১৬৬৫ - প্যারিসে পৃথিবীর প্রথম সাময়িক প্রকাশিত হয়।

১৬৯১ - ইউরোপে সর্বপ্রথম কাগুজে মুদ্রা ছাপানো হয়।

১৭৫৯ - আমেরিকার প্রথম প্রেসিডেন্ট জর্জ ওয়াশিংটন মার্থা কসটিসকে বিবাহ করেন।

১৭৮১ - আমেরিকার স্বাধীনতা যুদ্ধ: ভার্জনীয়ার রিচমন্ড বন্দর ব্রিটিশ ক্যাপ্টেন বেনডিক্ট আরন্ল্ডের নেতৃত্বে ব্রিটিশ নৌ-বাহিনী জ্বালিয়ে দেয়।

১৭৮২ - আমেরিকার গৃহযুদ্ধ: ফ্রান্সের সেনাবাহিনী কর্তৃক ব্রিটিশ সেনানিবাস ব্রিমস্টনের সেন্ট কিটস অবরোধ।

১৮০৯ - ওসমানীয় ও বৃটিশ সরকারের মধ্যে একটি ঐতিহাসিক চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

১৮৫৪ - সান ফ্রান্সিসকোতে স্টিমারে বিস্ফোরন। এতে প্রায় ৩০০ মানুষ নিহত হয়।

১৮৬৭ - জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়ীতে জোড়াসাঁকো থিয়েটার এর উদ্বোধন করা হয়।

১৮৯৬ - অস্ট্রিয়ান সংবাদপত্র সংবাদ প্রকাশ করে উইলিয়াম রনজেনের আবিস্কৃত নতুন ধরনের রশ্মী নিয়ে যা পরে এক্স-রে হিসাবে পরিচিত হয়।

১৯০০ - আইরিশ নেতা জন রেডমন্ড ব্রিটিশ শাসনের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করে।

১৯০৯ - কলম্বিয়া পানামাকে স্বাধীন ঘোষনা করে।

১৯১৫ - প্রথম বিশ্ব যুদ্ধে তুর্কি বাহিনী ককেশাসে পরাজয় বরণ করে।

১৯১৮ - জার্মান ওয়ার্কার পিস গঠিত হয় যা পরে নাৎসি পার্টি হিসাবে পরিচিত হয়।

১৯১৯ - জার্মানিতে ন্যাশনাল সোশালিস্ট পার্টি গঠিত হয়।

১৯২২ - কাজী নজরুল ইসলামের বিখ্যাত বিদ্রোহী কবিতা প্রকাশিত হয়।

১৯২৯ - দক্ষিণ স্লাভিয়াতে রাজা আলেকজান্ডারের অভ্যুত্থান।

১৯৩৩ - গোল্ডেন গেট ব্রিজের কাজ শুরু হয়।

১৯৩৪ - কলকাতার ইডেন গার্ডেনে ভারত-ইংল্যান্ড প্রথম টেস্ট ক্রিকেট শুরু হয়।

১৯৩৪ - কলকাতায় ভয়াবহ হিন্দু-মুসলমান দাঙ্গা বাঁধে।

১৯৪২ - ৫৫টি জার্মান ট্যাংক উত্তর আফ্রিকায় পৌঁছায়।

১৯৫০ - ইলা মিত্রের নেতৃত্বে নাচোলে কৃষক বিদ্রোহের সূচনা হয়।

১৯৬৯ - পাকিস্তানে আইয়ুব-বিরোধী আন্দোলনের উদ্দেশ্যে ছাত্র সংগ্রাম পরিষদ গঠন করা হয়।

১৯৭১ - প্রথম ওয়ানডে ক্রিকেট ম্যাচ মেলবোর্নে অনুষ্ঠিত। এতে অংশ গ্রহন করে অস্ট্রোলিয়া ও ইংল্যান্ড।

১৯৯৬ - জাপানের প্রধানমন্ত্রী তোমিচ মুরায়ামার পদত্যাগ করেন।

১৯৯৬ - ফিলিস্তিনি স্বাধীনতা আন্দোলনের যোদ্ধা হামাস কর্মী ইয়াহিয়া আয়াস ইজরাঈলী বোমা হামলায় নিহত হন।

২০০০ শ্রীলংকায় গৃহযুদ্ধ বাঁধে। কলম্বোয় তামিল টাইগার নেতা কুমার পুনামবালাম পুলিশের গুলিতে নিহত হন।

২০১৪ - বিএনপি ও তার জোটের দল ছাড়াই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনে দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

জন্ম:

১২২৯ - রোমান সম্রাট রিচার্ডের জন্মগ্রহণ করেন।

১৫৯২ - মুঘল সম্রাট শাহজাহান জন্মগ্রহণ করেন।

১৮৪৬ - নোবেলজয়ী জার্মান সাহিত্যিক রুডলফ অইকেন জন্মগ্রহণ করেন।

১৮৫৫ - সেফটি ব্লেডের আবিষ্কারক কিং জিলেট জন্মগ্রহণ করেন।

১৮৮৫ - ইতালিয়ান বংশোদ্ভুত ইংরেজ কবি হামবার্ট উলফ জন্মগ্রহণ করেন।

১৯২৮ - পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী জুলফিকার আলী ভুট্টো জন্মগ্রহন করেন।

১৯৩৮ - ছড়াকার সুকুমার বড়ূয়া জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৪০ - লেখক অনুবাদক ফরুজ্জামান চৌধুরী জন্মগ্রহণ করেন।

১৯৬৯ - আমেরিকান গায়ক মার্লীন ম্যানসন জন্মগ্রহণ করেন।

মৃত্যু:

৮৪২ - বাগদাদের খলিফা আল মুতাসিম ইন্তেকাল করেন।

১০৬৬ - ইংল্যান্ডের রাজা এডওয়ার্ডের মৃত্যু হয়।

১৩২৬ - আলাউদ্দিন খিলজি মৃত্যুবরণ করেন।

১৮৯০ - প্রথম ভারতীয় ব্যারিস্টার জ্ঞানেন্দ্রমোহন ঠাকুর মৃত্যুবরণ করেন

১৯৮১ - রসায়নে নোবেলজয়ী মার্কিন বিজ্ঞানী হ্যারল্ড কেইটন উর মৃত্যুবরণ করেন।

১৯৩৩ - মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ৩০তম রাষ্ট্রপতি ক্যালভিন কুলিজ মৃত্যুবরণ করেন।

১৯৯৪ - কথাসাহিত্যক ও সঙ্গীত শিল্পী সুচরিত চৌধুরী মৃত্যুবরণ করেন।

১৯৯৫ - প্রথম বাঙালী মুসলমান অভিনেত্রী বনানী চৌধুরী মৃত্যুবরণ করেন।

দিবস:

গণতন্ত্র বিজয় দিবস (বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ),

গণতন্ত্র হত্যা দিবস (বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল),

জাতীয় পাখি দিবস (যুক্তরাষ্ট্র),

সন্তানকে কাজে নিয়ে যাওয়ার দিবস (অস্ট্রেলিয়া),

তুসিন্দা (সাইবেরিয়া, মন্টিনেগ্রো)

নিউজ ট্যাগ: ইতিহাসে এই দিনে

আরও খবর

১৮ জানুয়ারি: ইতিহাসের এই দিনে

বুধবার ১৮ জানুয়ারী ২০২৩

১৭ জানুয়ারি: আজকের এই দিনে

মঙ্গলবার ১৭ জানুয়ারী ২০২৩




৭২ আরোহী নিয়ে নেপালে প্লেন বিধ্বস্ত: ৪০ লাশ উদ্ধার

প্রকাশিত:রবিবার ১৫ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:সোমবার ২৩ জানুয়ারী 20২৩ | ৩৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নেপালে ৭২ জন আরোহী নিয়ে একটি প্লেন বিধ্বস্ত হয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৪০ জনের লাশ উদ্ধার হয়েছে।রোববার সকালে দেশটির কাস্কি জেলার পোখারায় বিমানটি বিধ্বস্ত হয়।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমের তথ্যমতে, ইয়েতি এয়ারলাইন্সের প্লেনটি নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডু থেকে পোখারা বিমানবন্দরে যাচ্ছিল। কিন্তু পুরোনো বিমানবন্দর ও নতুন পোখারা বিমানবন্দরের মাঝামাঝিতে প্লেনটি বিধ্বস্ত হয়। প্লেনটিতে ৬৮ যাত্রী ও চারজন ক্রু সদস্য ছিল। উদ্ধার কার্যক্রম শুরু হলেও ধারণা করা হচ্ছে, কেউ বেঁচে নেই।

পোখারা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর আপাতত বন্ধ রয়েছে। তবে, কী কারণে দুর্ঘটনাটি ঘটেছে তা এখনও জানা যায়নি।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী পুষ্পকমল দাহাল এক টুইট বার্তায় ভয়াবহ এই দুর্ঘটনার সকল সরকারি সংস্থা, নিরাপত্তা বাহিনী ও স্থানীয়দের উদ্ধারকাজে অংশ নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।


আরও খবর