Logo
শিরোনাম

ডেঙ্গু থেকে বাঁচার উপায় জানালো সিডিসি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২২ সেপ্টেম্বর 20২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ৩৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বাড়তে শুরু করেছে ডেঙ্গুর সংক্রমণ। মারাত্মক এই অসুখের কারণে মৃত্যুর ঘটনাও কম নয়। ডেঙ্গু থেকে বাঁচতে হলে সতর্কতার বিকল্প নেই। বিশেষজ্ঞদের মতে, এই রোগের বাহক হচ্ছে ইজিপ্টাই মশা। এই মশার কামড়ের কারণে দেখা দেয় ডেঙ্গু। এক্ষেত্রে সব এডিস মশা নয়, বরং সংক্রামিত এডিস মশা কামড়ালে ডেঙ্গু হয়ে থাকে।

মশাবাহিত ডেঙ্গু রোগ ভাইরাস থেকে হয়। সুস্থ মানুষ এই ভাইরাসে সংক্রামিত হলে শরীরে বিভিন্ন লক্ষণ ফুটে ওঠে। প্রতিবছরই ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব লক্ষ করা যায়। এই রোগ থেকে বাঁচার জন্য সতর্কতা অবলম্বন করা জরুরি। সচেতন হলে ডেঙ্গু থেকে বাঁচা সম্ভব। ডেঙ্গুর লক্ষণ নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল (সিডিসি) বিশেষভাবে সতর্ক করেছে।

সিডিসির সতর্কবার্তা অনুসারে ডেঙ্গু রোগের লক্ষণ হলো- মাথা ব্যথা, চোখের পেছনে ব্যথা, পেশি, জয়েন্ট ও হাড়ে ব্যথা, বমি বা বমি ভাব ইত্যাদি।

সিডিসি বলছে, ডেঙ্গু গুরুতর হলে দেখা দিতে পারে- পেটে ব্যথা, দিনে ৩ বারের বেশি বমি, মাড়ি ও নাক দিয়ে রক্ত পড়া, বমিতে রক্ত, অতিরিক্ত দুর্বলতা।

ডেঙ্গুর কোনো ওষুধ নেই। তাই জোর দিতে হবে রোগ প্রতিরোধ ব্যবস্থার প্রতি। এমনটাই জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

ডেঙ্গু প্রতিরোধে করণীয় সম্পর্কে সিডিসি জানাচ্ছে- বাড়িতে মশা থাকলে তা নিধন করতে হবে। মশা মারার বিভিন্ন পদ্ধতি ব্যবহার করা যেতে পারে। যেসব পদ্ধতির পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই সেগুলো বেছে নিন। পরিবেশ ও স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর উপায় বাদ দিতে হবে। এসময় চেষ্টা করুন ফুলহাতা জামা পরে থাকার। সেইসঙ্গে পরুন ফুলপ্যান্ট। এতে মশা সহজে কামড় বসাতে পারবে না।  ঘুমানোর সময় অবশ্যই মশারি টাঙিয়ে ঘুমাবেন। এতে মশার কামড় থেকে বাঁচা সহজ হবে। ঘরের পাশাপাশি খেয়ালও রাখতে হবে বাইরের পরিবেশের প্রতি। বৃষ্টি বা অন্য কোনো কারণে জমে থাকা পানি যত দ্রুত সম্ভব ফেলে দিন। টব, ঘরের কার্নিশ বা অন্যান্য জায়গা পরিষ্কার করে রাখুন। মশার লার্ভা জমে থাকতে দেখলে নষ্ট করুন।

নিউজ ট্যাগ: ডেঙ্গু জ্বর

আরও খবর

করোনায় একজনের মৃত্যু, কমেছে শনাক্ত

বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২




ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে আরও ৫২৪ জন

প্রকাশিত:বুধবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ২৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ডেঙ্গু আক্রান্ত  হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে ৫২৪ জন। এর মধ্যে ঢাকায় ৩৭৩ এবং ঢাকায় বাইরের হাসপাতালে ভর্তি ১৫১ জন। একই সময়ে ডেঙ্গুতে মারা গেছেন আরও একজন।

বুধবার (২৮ সেপ্টেম্বর) স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

এতে বলা হয়, বর্তমানে দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে মোট ১ হাজার ৮২০ জন ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছে। ঢাকার ৫০টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে বর্তমানে ১ হাজার ৩৮৮ এবং অন্যান্য বিভাগে ভর্তি রয়েছে ৪৩২ জন রোগী।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়েছে, চলতি বছরের এ পর্যন্ত ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে ৫৫ জন। আক্রান্ত হয়ে সারাদেশে ১৫ হাজার ৩৪৬ জন রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। এর মধ্যে ঢাকায় ১১ হাজার ৭৬৪ এবং আর ঢাকার বাইরে ৩ হাজার ৫৮২ জন।

অন্যদিকে, চিকিৎসা নিয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছে ১৩ হাজার ৪৭১ জন। এর মধ্যে ঢাকায় ১০ হাজার ৩৪৯ এবং ঢাকার বাইরে বিভিন্ন স্থানে ৩ হাজার ১১২ জন।


আরও খবর

করোনায় একজনের মৃত্যু, কমেছে শনাক্ত

বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২




আচরণবিধি না মানলে শাস্তি : ইসি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

আচরণবিধি না মানলে শাস্তির ব্যবস্থা নিতে সারাদেশে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারদের চিঠি দিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। বৃহস্পতিবার (৬ অক্টোবর) ইসির কার্যালয়ে এক ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান নির্বাচন কমিশনার মো. আলমগীর।

তিনি বলেন, সরকারি দল হিসেবে ক্ষমতাসীন দলের নেতা, এমপি, মন্ত্রীরা আইন মানতে বাধ্য। নির্বাচন কমিশনার বলেন, গাইবান্ধার নির্বাচন নিয়ে জাতীয় পার্টির অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ সময় মো. আলমগীর নির্বাচনকালীন এলাকায় আচরণবিধি লঙ্ঘন না করতে ক্ষমতাসীন দলের প্রতি আহ্বান জানান। জাতীয় সংসদের স্পিকার ও সচিবদের কাছেও চিঠি পাঠাবে বলে জানান নির্বাচন কমিশনার।


আরও খবর



আরবাজে মুগ্ধ মালাইকা

প্রকাশিত:সোমবার ০৩ অক্টোবর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ১৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মালাইকা-আরবাজের বিচ্ছেদ নিয়ে চর্চা কম হয়নি। এ সিদ্ধান্তের নেপথ্যে কারণ অনুসন্ধানও করেছিলেন অনেকেই। এবার নতুন করে আবারও আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে তারা। ২০১৭ সালে ভেঙে যায় ১৮ বছরের দাম্পত্য। নিজেদের মতো করে জীবন সাজিয়েছেন তারা। আরবাজ খান এবং মালাইকা অরোরা। দুই জনের পথ এখন আলাদা হলেও বন্ধুত্ব রয়েছে অটুট।

বিচ্ছেদ মোটেই মধুর নয়। বরং কিছু কিছু ক্ষেত্রে আলাদা হওয়ার পরেই খুলে যায় সম্পর্কের নতুন দিক। যেমনটা হয়েছে মালাইকা-আরবাজের ক্ষেত্রে। এ বিষয়ে মালাইকা বললেন, এখন আমাদের সমীকরণ আরও ভালো হয়ে উঠেছে। আমরা অনেক পরিণত হয়েছি। একজন মানুষ হিসেবেও উন্নতি হয়েছে আমার। ছেলের সঙ্গেও সম্পর্ক আরও ভালো হয়েছে। ও জানে যে, এখন আমি খুশি।

মালাইকার কথায়, প্রাক্তন স্বামীর সঙ্গে আমার খুবই ভালো সম্পর্ক। বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়ে আমি খুশি। নিজের জন্য রুখে দাঁড়াতে পেরেছি।  আরবাজের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর ফের প্রেমে পড়েন মালাইকা। অভিনেতা অর্জুন কাপুরের সঙ্গে সম্পর্কে রয়েছেন তিনি। অন্যদিকে, আরবাজও ভালোবাসা খুঁজে পেয়েছেন অভিনেত্রী জর্জিয়া আড্রিয়ানির মধ্যে।

'ইন্ডিয়াস বেস্ট ডান্সার'-এর বিচারক হিসেবে শেষ পর্দায় এসেছেন মালাইকা। আরবাজকে দেখা যাবে সনি লাইভ-এর তনভে।


আরও খবর

দুরন্তপনার ৫ বছর

বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২




বরিশালে ভাইয়ের হাতে ভাই খুন

প্রকাশিত:বুধবার ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২ | হালনাগাদ:শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২ | ৫১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বরিশালের উজিপুরে বড় ভাইয়ের ধাক্কায় পড়ে গিয়ে আঘাত পেয়ে মাদকাসক্ত ছোট ভাইয়ের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার (১৩ সেপ্টেম্বর) বিকেলে উপজেলার শোলক ইউপির রামেরকাঠি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত হীরালাল বৈদ্য (২২) ওই গ্রামের সুনীল বৈদ্য’র ছেলে।

পরিবারের বরাতে উজিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল আহসান জানান, ভাইদের মধ্যে গণ্ডগোল হয়। এতে হীরালাল অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। তখন চিকিৎসককে জানানো হয়, তিনি গাছ থেকে পড়ে গেছেন। এতে তার মৃত্যু হয়েছে। পরে শুনতে পেয়েছি ভাইয়ে ভাইয়ে মারামারিতে একজনের মৃত্যু হয়েছে। তার মরদেহ উদ্ধার করার জন্য পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

উজিরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা. রাকিব হাসান জানান, স্বজনরা জানিয়েছে গাছ থেকে পড়ে গিয়ে হীরালাল আহত হয়েছেন। পরে তাকে মৃত ঘোষণার পর স্বজনরা মরদেহ নিয়ে গেছেন।

ডা. রাকিব হাসান বলেন, মৃতের কানের নিচে আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। গাছ থেকে পড়ে না লাঠির আঘাতে মৃত্যু হয়েছে ময়নাতদন্ত না করে নিশ্চিত হওয়া যাবে না।

শোলক ইউনিয়নের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য পার্থ প্রতীম মণ্ডল বলেন, নিহত হীরালাল মাদকাসক্ত ছিলেন। পরিবার থেকে তাকে পাবনা মানসিক হাসপাতালে চিকিৎসায় রাখা হয়।

মা নিনা বৈদ্য’র বরাতে ইউপি সদস্য বলেন, সাতদিন আগে হীরালালকে বাড়িতে আনা হয়। সোমবার (১২ সেপ্টেম্বর) মন্দির থেকে দানবাক্স ছিনতাইয়ের চেষ্টা করে হীরালাল। এ বিষয়টি স্থানীয়রা বড় ভাই বাবুরাম বৈদ্যের কাছে নালিশ দেয়।

বাবুরাম ভাইকে গালমন্দ করলে তাকে চড় দেয় হীরালাল। এরপর বাবুরামও ক্ষিপ্ত হয়ে হীরালালকে চড়-ঘুষি মারেন। এ সময় হীরালাল গাছের ওপর পড়ে নাক থেকে রক্ত বের হওয়া শুরু হয়। পরিবারের অন্য সদস্যরা তাকে উজিরপুর হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

ইউপি সদস্য বলেন, হাসপাতালে হীরালালের মৃত্যুর কারণ জানতে চাইলে গাছ থেকে পড়ে গেছে বলে জানিয়েছিল পরিবার। এ কারণে মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর হয়।

পরে পুলিশ ঘটনা জানতে পেরে রাত সাড়ে ৯টার দিকে ওই বাড়িতে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। তবে পালিয়ে গেছেন হীরালালের ভাই বাবুরাম।

রাতে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে উজিরপুর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) কমল স্বজনদের বরাত দিয়ে জানান, মাদকসেবী হীরোলাল ৩ মাস রিহাবে থেকে ৭ দিন আগে বাড়িতে আসেন। বৃদ্ধা মাকে মারতে গিয়ে বড় ভাইয়ের ধাক্কায় গাছের সঙ্গে আঘাত পেয়ে আহত হন। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য বরিশাল সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে।


আরও খবর

পিতাকে কুপিয়ে জখম করল ছেলে

শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২




শিশুর ফিডার পরিষ্কার করবেন যেভাবে

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০22 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ০৬ অক্টোবর ২০২২ | ৪৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

শিশুর যত্নে মা-বাবা ছাড় দিতে চান না একচুলও। এরপরেও অনেক সময় অজান্তেই কিছু ভুল হয়ে যেতে পারে। ভালো করতে গিয়ে হতে পারে মন্দ। এর ফলস্বরূপ শিশু হতে পারে অসুস্থ। বিশেষজ্ঞদের মতে, শিশুর দুধ খাওয়ার বোতল বা ফিডার সঠিকভাবে ধোয়া এবং জীবাণুমুক্ত রাখা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। নয়তো শিশু ভুগতে পারে মারাত্মক সব অসুখে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, শিশুর বয়স এক বছর না হওয়া পর্যন্ত যতবার তাকে ফিডারে দুধ খাওয়ানো হবে ঠিক ততবারই টিট এবং স্ক্রু ক্যাপ পরিষ্কার এবং জীবাণুমুক্ত করতে হবে। এর বড় কারণ হলো শিশুদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বড়দের সমান নয়। তারা অনেক ধরণের সংক্রমণের সঙ্গে লড়াই করতে পারে না। অপরদিকে দুধ এমন একটি খাবার যাতে ব্যাকটেরিয়া খুব দ্রুত স্থান করে নেয়। আপনার শিশুকে যদি ফিডারে দুধ খাওয়ান তাহলে সেটি সঠিকভাবে পরিষ্কার করতে হবে।

কীভাবে পরিষ্কার করবেন: শিশুর দুধ খাওয়ার ফিডার পরিষ্কার করার জন্য প্রথমে গরম পানি নিন। এরপর বোতলের ভেতরের অংশ ব্রাশ দিয়ে ভালোভাবে পরিষ্কার করুন। মনে রাখবেন ব্রিস্টল যেন শক্ত হয়। টুথ ব্রাশ দিয়ে গর্ত থেকে জমে থাকা দুধ পরিষ্কার করুন। এবার তাতে গরম পানি এবং লেবুর রস দিয়ে দিন। নেড়ে পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে শুকিয়ে নিন।

ফুটন্ত পদ্ধতি ব্যবহার: এই পদ্ধতি ব্যবহারের জন্য পানি দিয়ে একটি বড় হাঁড়িতে, টিটি এবং বোতলের সমস্ত অংশ দিন। পানি ফুটতে দিন। এভাবে ৫ মিনিট ফুটিয়ে নিন। বের করার আগে ফিডারের সব অংশ হাঁড়ির ভেতরেই ঠান্ডা হতে দিন। এরপর একটি পরিষ্কার পাত্রে রাখুন এবং ফ্রিজে রেখে দিন ২৪ ঘণ্টা।

জীবাণুমুক্ত করুন: ফিডার কেবল ধুয়ে নিলেই হবে না, এটি করতে হবে জীবাণুমুক্তও। এই পদ্ধতিতে ফিডার পরিষ্কার করে সমস্ত অংশ জীবাণুমুক্ত করুন। নির্দেশ অনুযায়ী পানি যোগ করুন। আপনি যদি মাইক্রোওয়েভ স্টেরিলাইজার ব্যবহার করেন তবে জীবাণুনাশক মাইক্রোওয়েভে রাখুন এবং এটি চালু করুন। এবার সমস্ত জীবাণুমুক্ত অংশ একটি পরিষ্কার, ঢাকনাযুক্ত পাত্রে রেফ্রিজারেটরে সংরক্ষণ করুন।

নিউজ ট্যাগ: শিশুর ফিডার

আরও খবর

৭ অক্টোবর: আজকের রাশিফল

শুক্রবার ০৭ অক্টোবর ২০২২