Logo
শিরোনাম

দেশে ডেঙ্গুতে মৃত্যু নেই, আক্রান্ত ১৪

প্রকাশিত:মঙ্গলবার ২৪ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ২৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

দেশে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ১৪ জন। একই সময়ে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে কারও মৃত্যু হয়নি।

আজ মঙ্গলবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম থেকে এ তথ্য জানানো হয়। এতে বলা হয়, ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন ৫৮ জন। আর চলতি বছর এ পর্যন্ত ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ছয়জন।

প্রতিবেদনে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে নতুন ভর্তি হওয়া রোগীদের ৫ জনই ঢাকার বাসিন্দা। আর ঢাকার বাইরের ৯ জন। এ ছাড়া দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি থাকা রোগীদের ২৯ জন ঢাকার এবং বিভাগে ২৯ জন ঢাকার বাইরে।

প্রসঙ্গত, দেশে ডেঙ্গুর প্রকোপ মারাত্মক আকার ধারণ করে ২০১৯ সালে। ওই বছর ১ লাখের বেশি মানুষ ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন। মারা যান ১৪৮ জন। পরের বছর ডেঙ্গু রোগের বিস্তার ঘটেনি। ২০২১ সালের মাঝামাঝি ও ২০২২ সালে এসে উদ্বেগজনকহারে বাড়তে থাকে ডেঙ্গু রোগী।


আরও খবর

৮ ডেঙ্গুরোগী হাসপাতালে ভর্তি

বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩




শপথ নিলেন নিউজিল্যান্ডের নতুন প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩ | জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নিউজিল্যান্ডের ৪১তম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছেন ক্রিস হিপকিন্স। দেশটির বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী জেসিন্ডা আরডার্নের স্থলে নতুন নেতা হিসেবে ক্রিস হিপকিন্সকে বেছে নিয়েছে ক্ষমতাসীন লেবার পার্টি।

বুধবার (২৫ জানুয়ারি) রাজধানী ওয়েলিংটনে একটি অনুষ্ঠানে ৪৪ বছর বয়সী ক্রিস হিপকিন্সকে শপথ বাক্য পাঠ করান নিউজিল্যান্ডের গভর্নর জেনারেল।

নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর হিপকিন্স বলেছেন, এটি আমার জীবনের সবচেয়ে বড় সম্মান ও দায়িত্ব। আগামীর চ্যালেঞ্জগুলো নিয়ে আমি উজ্জীবিত ও উদ্দীপ্ত।’

মহামারি করোনা মোকাবিলার জন্য চিপ্পি নামে পরিচিত হিপকিন্সের সুনাম রয়েছে। ২০০৮ সালে তিনি প্রথমবারের মতো পার্লামেন্টের জন্য নির্বাচিত হন। ২০২০ সালের জুলাইয়ে তিনি স্বাস্থ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব নেন। 

হিপকিন্সই প্রধানমন্ত্রী হিসেবে একমাত্র মনোনীত ব্যক্তি ছিলেন। রবিবার তার দলের এক বৈঠকে তাকে বেছে নেওয়া হয়।


আরও খবর



যুক্তরাষ্ট্রের রাজনীতিতে উত্তাপ বাড়াচ্ছে গ্যাসের চুলা

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৯ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:বুধবার ২৫ জানুয়ারী ২০২৩ | ২৬জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রান্নার কাজে গ্যাসের ব্যবহার নিয়ে সম্প্রতি উত্তপ্ত বিতর্ক শুরু হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। গত ৯ জানুয়ারি কেন্দ্রীয় সংস্থা কনজ্যুমার প্রোডাক্ট সেফটি কমিশনের (সিপিএসসি) অন্যতম কমিশনার রিচার্ড ট্রুমকা জুনিয়র মার্কিন সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গকে জানান, তারা গ্যাস হব নিষিদ্ধের বিষয়টি বিবেচনা করছেন। এটিকে গোপন বিপদ বলেও উল্লেখ করেছিলেন তিনি। কিন্তু তার এই মন্তব্যে ফুঁসে ওঠেন রক্ষণশীলরা। অনেকেই এর জন্য সরাসরি মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে দায়ী করেছেন।

টেক্সাসের রিপাবলিকান কংগ্রেসম্যান রনি জ্যাকসন টুইটারে ক্ষোভপ্রকাশ করে বলেন, হোয়াইট হাউসের পাগলরা যদি চুলা নিতে আসে, তারা আমার মৃতের মতো ঠান্ডা হাত থেকে সেটি ছিনিয়ে নিতে পারে। এসো, নিয়ে যাও! অ্যান্ড্রু গ্রুয়েল নামে টেলিভিশনের এক তারকা শেফ ওই পরিকল্পনার প্রতিবাদে টেপ দিয়ে নিজেকে চুলার সঙ্গে বাঁধেন। এমনকি কিছু ডেমোক্র্যাটও ক্ষোভপ্রকাশ করেন। পশ্চিম ভার্জিনিয়ার সিনেটর জো মানচিন এই নিষেধাজ্ঞার পরিকল্পনাকে বিপর্যয়ের রেসিপি হিসেবে অভিহিত করেছেন।

কিন্তু হঠাৎ গ্যাসের চুলা যুক্তরাষ্ট্রে বিতর্কের কেন্দ্রে উঠে এলো কেন? দেশটিতে প্রায় ৩৮ শতাংশ পরিবারে গ্যাসের চুলা রয়েছে। যদিও রাজ্যভেদে এর হার ভিন্ন হতে পারে। অনেকের মতে, এগুলো বৈদ্যুতিক চুলার তুলনায় সস্তা এবং বেশি কার্যকরী, এমনকি গ্যাসের চুলায় রান্না করা খাবারের স্বাদও নাকি বেশি ভালো।

১৯৩০-এর দশকে যুক্তরাষ্ট্রে একটি বিজ্ঞাপনের স্লোগান ছিল কুকিং উইথ গ্যাস (গ্যাস দিয়ে রান্না)। এটি মার্কিনিদের মনে পাকাপোক্ত আসন করে নিয়েছে। আমেরিকান গ্যাস অ্যাসোসিয়েশন নামে একটি বাণিজ্যিক সংগঠন কুকিং উইথ গ্যাস ডট অর্গ ওয়েবসাইটে নিয়মিত রেসিপি প্রকাশ করে থাকে। স্পনসর করা সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টে দেশটির ইনফ্লুয়েন্সাররাও তাদের গ্যাসের চুলা নিয়ে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন।

কিন্তু সমস্যা হলো, এসব চুলা নাইট্রোজেন ডাই অক্সাইডসহ বিভিন্ন দূষণকারী পদার্থ নির্গত করে এবং হাঁপানিসহ স্বাস্থ্য ও পরিবেশগত নানা ঝুঁকি তৈরি করে। ভেন্টিলেশন বা বায়ু চলাচলের উন্নত ব্যবস্থা থাকলে এসব বিপদের ঝুঁকি হয়তো কিছুটা কমানো সম্ভব। কিন্তু তাতেও অভ্যন্তরীণ দূষণ খুব একটা কমে না। জ্বলন্ত গ্যাস থেকে কার্বন ডাই অক্সাইড ও মিথেনসহ নানা গ্রিনহাউস গ্যাসও নির্গত হয়। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের মূল্যস্ফীতি নিয়ন্ত্রণ আইনে গ্রাহকদের গ্যাসের চুলার পরিবর্তে বৈদ্যুতিক চুলা ব্যবহারের জন্য প্রণোদনা দেওয়া হচ্ছে। এতে ৮৪০ মার্কিন ডলার পর্যন্ত ছাড় পাওয়া যায়। কিন্তু দেশটিতে যেহেতু ৬০ শতাংশ বিদ্যুৎই গ্যাস ও কয়লা পোড়ানোর মাধ্যমে উত্পাদিত হয়, তাই গ্যাসের চুলার বিকল্পও পুরোপুরি সবুজ বা নিরাপদ থাকছে না।

জীবাশ্ম জ্বালানির ব্যবহার কমানোর চেষ্টায় বেশ কিছু ডেমোক্র্যাট-শাসিত সিটি কাউন্সিল গ্যাসের ব্যবহার সীমিত করতে আইন পাস করেছে। ২০১৯ সালে যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম শহর হিসেবে নতুন ভবনগুলোতে হিটিং ও রান্নার কাজে জীবাশ্ম জ্বালানির ব্যবহার নিষিদ্ধ করে বার্কলে। সে সময় ক্যালিফোর্নিয়ার রেস্তোরাঁ অ্যাসোসিয়েশন নগর কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে মামলা করার চেষ্টা করেছিল (পরে এক বিচারক মামলাটি খারিজ করে দেন)।

চলতি বছর নিউইয়র্ক সিটিতে কিছু নতুন ভবনে গ্যাসের ব্যবহার নিষিদ্ধ করা হবে। নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যের জন্য প্রস্তাবিত অনুরূপ পরিকল্পনাটি গত বছর আইনসভায় পাস হতে ব্যর্থ হয়েছিল। তবে সেখানকার ডেমোক্র্যাট গভর্নর ক্যাথি হোচুল হয়তো আবার চেষ্টা করতে পারেন। ২০২১ সাল থেকে এ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে ২০টির বেশি রাজ্য স্থানীয় নিষেধাজ্ঞাগুলো আটকানোর জন্য আইন চালু করেছে৷ এসব রাজ্যের মধ্যে বেশিরভাগই রিপাবলিকান-শাসিত এবং কিছু রাজ্য গ্যাস উত্পাদকও।

প্রশ্ন হলো, যুক্তরাষ্ট্রে কি সত্যিই গ্যাসের চুলা নিষিদ্ধ হতে পারে? আপাতত মার্কিনিদের রান্নার অভ্যাসে কেন্দ্রীয় সরকারের হস্তক্ষেপ অবশ্যম্ভাবী নয়। গত ১১ জানুয়ারি হোয়াইট হাউসের এক মুখপাত্র নিশ্চিত করেছেন, এই মুহূর্তে বাইডেন প্রশাসনের গ্যাসের চুলা নিষিদ্ধের কোনো পরিকল্পনা নেই। স্বাধীন সংস্থা সিপিএসসি-ও কারো গ্যাসের চুলার নিতে আসছে না বলে টুইটারে জানিয়েছেন কমিশনার ট্রুমকা। এরপরও জাতীয়ভাবে যদি কখনো কোনো নিষেধাজ্ঞা আসে, সেটি হতে পারে বড়জোর নতুন কুকারের ওপর, পুরোনো গ্যাসের চুলায় নয়। সিপিএসসির বর্তমান অগ্রাধিকার হলো নতুন পণ্যের মান উন্নত করা। এটি গ্যাসের চুলা রক্ষাকারীদের কিছুটা হলেও স্বস্তি দেওয়া উচিত।

নিউজ ট্যাগ: গ্যাসের চুলা

আরও খবর



বিশ্বে প্রথম নাকে দেওয়ার করোনা ভ্যাকসিন বাজারে আনল ভারত

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ১৮জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

নাকে দেওয়া করোনা ভ্যাকসিন বিশ্বে প্রথম বাজারে এনেসে ভারত। এর নামা দেওয়া হয়েছে ইনকোভ্যাক। বৃহস্পতিবার দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা. মনসুখ মান্দাভিয়া এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং এই ভ্যাকসিনের উদ্বোধন করেছেন।

ভারতীয় রুপিতে এর দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ৮০০ টাকা। হায়দরাবাদ-ভিত্তিক ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারক সংস্থা ভারত বায়োটেক এ ভ্যাকসিন তৈরি করেছে। সরকারের কাছে প্রতিষ্ঠানটি এ ভ্যাকসিন বিক্রি করবে ৩২৫ রুপিতে আর বেসরকারি হাসপাতালেগুলোতে বিক্রি হবে ৮০০ রুপিতে।

গত বছরের ডিসেম্বরে প্রাথমিক দুই ডোজ করোনা টিকা যারা নিয়েছেন, তারা বুস্টার ডোজ হিসেবে ইনকোভ্যাক’ নিতে পারবেন বলে অনুমোদন দেয় দেশটির সরকার।

ভারতের ওষুধের মান নিয়ন্ত্রক সংস্থা সেন্ট্রাল ড্রাগস স্ট্যান্ডার্ড কন্ট্রোল অর্গানাইজেশন (সিডিএসসিও) ১৮ বছর বা তার বেশি বয়সীদের জন্য জরুরি পরিস্থিতিতে নাকে দেওয়ার ভ্যাকসিন ইনকোভ্যাক’ ব্যবহারের অনুমোদন দেয়। ইনকোভ্যাকের দু’টি ডোজ ২৮ দিনের ব্যবধানে ব্যবহার করতে হবে।

তবে যারা করোনাভাইরাসের সতর্কতা বা বুস্টার ডোজ নিয়েছেন তারা নাকের ভ্যাকসিন নিতে পারবেন না বলে জানিয়েছেন ভারতের সরকারের ভ্যাকসিন টাস্ক ফোর্সের প্রধান।

ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারক ভারত বায়োটেকের মতে, এখন যে কেউ চাইলে কোউইন (CoWin) ওয়েবসাইটে গিয়ে ইনকোভ্যাকের ডোজ নেওয়ার জন্য অ্যাপয়েন্টমেন্ট বুক করতে পারবেন।


আরও খবর



লঁসের কাছে হারল মেসি-নেইমারহীন পিএসজি

প্রকাশিত:সোমবার ০২ জানুয়ারী 2০২3 | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ১৯ জানুয়ারী ২০২৩ | ৫৫জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

লিওনেল মেসি ও নেইমারকে ছাড়া খেলতে নেমে হার দিয়ে নতুন বছর শুরু করেছে ক্রিস্তফ গালতিয়ের দল। ঘরের মাঠে ৩-১ গোলে জিতে পিএসজির সঙ্গে ব্যবধান কমিয়েছে দুই নম্বরে থাকা লঁস।

বিশ্বকাপজয়ী মেসি এখনও পিএসজির হয়ে মাঠে ফেরেননি। আগের ম্যাচে দুই মিনিটের মধ্যে দুটি হলুদ কার্ড দেখায় এই ম্যাচে নেই নেইমার। ভয়ঙ্কর ত্রিফলা আক্রমণভাগের আরেকজন কিলিয়ান এমবাপে দুয়েকবার ঝলক দেখালেও খুব একটা কার্যকর ছিলেন না।

শেমেসোয়াফ ফ্রাঙ্কোভস্কি চমৎকার গোলে লঁসকে এগিয়ে নেওয়ার পর সমতা ফেরান উগো একিতিকে। লোইস ওপেন্দা আবার স্বাগতিকদের এগিয়ে নেওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে ব্যবধান বাড়ান ক্লদ-মরিস।

পেলের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে জন্য এক মিনিট ধরে হাততালি দিয়ে শুরু হয় মাঠের লড়াই। প্রথম মিনিটেই সুযোগ তৈরি করে করে লঁস। তবে পিএসজির রক্ষণ ভালোভাবেই সামাল দেয় প্রথম আক্রমণ।

মৌসুমে প্রথম হারের পরও শীর্ষেই পিএসজি। ‌১৭ ম্যাচে তাদের পয়েন্ট ৪৪। সমান ম্যাচে ১২ জয় ও চার ড্রয়ে লঁসের পয়েন্ট ৪০।

নিউজ ট্যাগ: পিএসজি

আরও খবর



হাড়কাঁপানো শীতের কারণে দিল্লিতে স্কুল বন্ধ ঘোষণা

প্রকাশিত:সোমবার ০৯ জানুয়ারী ২০২৩ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৭ জানুয়ারী ২০২৩ | ৪০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

কনকনে শীতে বিপর্যস্ত ভারতের রাজধানী দিল্লি। এর ফলে সেখানকার সব বেসরকারি স্কুল ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে রাজ্যটির শিক্ষা বিভাগ। এ সময় সরকারি স্কুলগুলোও বন্ধ থাকবে। যদিও শীতকালীন ছুটি শেষে অধিকাংশ স্কুলে আজ সোমবার থেকে পাঠদান কার্যক্রম শুরু করার কথা ছিল।

গতকাল রোববার দিল্লিতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ১ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এটি গত দশ বছরের মধ্যে দ্বিতীয় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। এরপরই আসে এ ঘোষণা।

এনডিটিভি জানায়, গতকাল শিক্ষা অধিদপ্তরের সার্কুলারে বলা হয়, দিল্লিতে চলমান শৈত্যপ্রবাহের কারণে ১৫ জানুয়ারি পর্যন্ত সব বেসরকারি স্কুল বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হলো।

বর্তমানে পুরো উত্তর ভারতে শীতল বাতাসের প্রভাব রয়েছে। দিল্লিতেও শীতের প্রকোপ চলছে। পাঞ্জাব, হরিয়ানা, চণ্ডীগড়, দিল্লি, উত্তরপ্রদেশ, উত্তরাখণ্ড, উত্তর রাজস্থান, বিহার, পশ্চিমবঙ্গ, সিকিম, আসাম, ত্রিপুরা, মধ্যপ্রদেশে কুয়াশা দুই থেকে তিন দিন ধরে জেঁকে বসেছে। যার কারণে ভারতের আবহাওয়া দপ্তর একাধিক সতর্কবার্তাও জারি করেছে।

দিল্লিতে প্রতিদিনই সর্বনিম্ন তাপমাত্রার রেকর্ড ভাঙছে। রোববার ছিল মৌসুমের শীতলতম দিন। এর আগে ২০২১ সালের ১ জানুয়ারি তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল ১ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।


আরও খবর