Logo
শিরোনাম

ড্রেনে পড়ে শিক্ষার্থীর মৃত্যু : ১০ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে রিট

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৪৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

চট্টগ্রামে ড্রেনে পড়ে শিক্ষার্থী সেহরীন মাহবুব সাদিয়ার (১৯) মৃত্যুর ঘটনায় পরিবারকে ১০ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক) ও সিসিবি ফাউন্ডেশনের পক্ষে রিটটি দায়ের করেন ব্যারিস্টার অনিক আর হক।

রিটে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিব, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব, চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন, চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্টদের বিবাদী করা হয়েছে।

তথ্যমতে, গত ২৭ সেপ্টেম্বর রাতে চট্টগ্রাম নগরীর আগ্রাবাদ মাজার গেট ও আগ্রাবাদ মোড়ের মাঝামাঝি এলাকায় ডায়মন্ড রেস্টুরেন্টের বিপরীত পাশের খোলা ড্রেনে পা-ফসকে পড়ে নিখোঁজ হন চট্টগ্রামের ইন্টারন্যাশনাল ইসলামিক ইউনিভার্সিটির কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের স্নাতক প্রথমবর্ষের শিক্ষার্থী সেহরীন মাহবুব সাদিয়া। এর পাঁচ ঘণ্টা পরে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিউজ ট্যাগ: হাইকোর্টে রিট

আরও খবর



১২ জন বিধায়ককে নিয়ে দল ছাড়লেন মুকুল

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৫ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৪৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মেঘালয়ে কংগ্রেসে বড়সড় ভাঙন ধরাল তৃণমূল। সূত্রের খবর, কংগ্রেস নেতা মুকুল সাংমা অন্তত ১২ জন বিধায়ককে নিয়ে দল ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিতে চলেছেন। এর ফলে মেঘালয়ে কংগ্রেসের বিধায়ক সংখ্যা ১৮ থেকে কমে হবে ৬। সেই হিসেবে মেঘালয়ে প্রধান বিরোধী দল হতে পারে তৃণমূল।

২০১০ থেকে ২০১৮ পর্যন্ত মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন মুকুল। বর্তমানে তিনি ওই রাজ্যের বিরোধী দলনেতা। পূর্ব গারো পাহাড়ের প্রভাবশালী নেতা মুকুল দল ছাড়লে মেঘালয়ে কংগ্রেসের বড় ক্ষতি হবে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকেরা।

প্রসঙ্গত, ২০০৪ সালের লোকসভা ভোটের আগে মেঘালয়ের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা লোকসভার প্রাক্তন স্পিকার পি এ সাংমা এনসিপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেন। সে বছর লোকসভা ভোটে তৃণমূলের টিকিটে জেতেন তিনি। প্রয়াত পূর্ণের ছেলে কনরাড বর্তমানে মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী এবং এনপিপি দলের প্রধান।

কিন্তু মুকুল হঠাৎ কেন কংগ্রেস ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিলেন? স্থানীয় সূত্রে খবর, মাস দেড়েক আগে তাঁর বিরোধী গোষ্ঠীর নেতা হিসেবে পরিচিত লোকসভার সাংসদ ভিনসেন্ট পালাকে মেঘালয় প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি করা হয়। তার পর থেকেই তৃণমূলের সঙ্গে যোগাযোগ শুরু মুকুলের। এত দিনে তা পরিণতি পেল।

সুস্মিতা দেবের পর মুকুল এমন একজন নেতা তৃণমূলে যোগ দিতে চলেছেন, যাঁর উত্তর-পূর্বে জনভিত্তি রয়েছে।


আরও খবর



বিশ্ববাজারে তেলের দাম কমলে দেশেও কমবে: নসরুল হামিদ

প্রকাশিত:শনিবার ০৬ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ১০৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের মূল্য হ্রাস পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বাংলাদেশে এর প্রতিফলন ঘটবে। ২০১৬ সালেও জ্বালানি তেলের মূল্য হ্রাস করা হয়েছিল। জ্বালানি তেলের বৈশ্বিক মূল্যবৃদ্ধি ও পাচার রোধে মূল্য সমন্বয় করা হয়েছে।

আজ শনিবার (৬ নভেম্বর) যুক্তরাজ্যের গ্লাসগোতে অবস্থানকালে অনলাইনে কয়েকজন বেসরকারি চ্যানেলের সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মীর মোহাম্মদ আসলাম উদ্দিনের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, সার্বিক প্রেক্ষাপট বিবেচনা করে বৃহত্তর জাতীয় স্বার্থে সরকার ৪ নভেম্বর দেশে ডিজেল ও কেরোসিনের মূল্য পুনঃনির্ধারণ করেছে। যদিও আশপাশের অন্যান্য দেশের তুলনায় বাংলাদেশে ডিজেলের মূল্য এখনও কম। আজকে (৬ নভেম্বর ) ভারতের কলকাতায় প্রতি লিটার ডিজেলের মূল্য ৮৯.৭৯ রুপি বা ১০৪ টাকা। ২৬টি স্থলবন্দর দিয়ে প্রতিদিন যে পরিমাণ পণ্যবাহী ট্রাক বাংলাদেশে ঢুকে তাও বিবেচনার বিষয়। পাচারের আশঙ্কা তো রয়েছেই।

প্রতিমন্ত্রী এ সময় আরও বলেন, আমাদের ইলেকট্রিক যানবাহনের দিকে যেতে হবে। বিশেষ করে পাবলিক পরিবহনগুলো ইলেকট্রিক করা গেলে দেশে পরিবেশবান্ধব যানবাহন নিশ্চিত হবে। ইলেকট্রিক যানবাহনের ইঞ্জিনের দক্ষতাও বেশি, সাশ্রয়ীও। তেল আমদানির খরচও কমে যাবে।


আরও খবর

বিশ্ববাজারে কমেছে স্বর্ণের দাম

শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১




ইরানি দূতাবাসে অজ্ঞাত সন্ত্রাসীদের হামলা

প্রকাশিত:রবিবার ২১ নভেম্বর 20২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৫৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

জার্মানির হামবুর্গ শহরে অবস্থিত ইরানি দূতাবাসে অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা হামলা চালিয়েছে।

স্থানীয় সময় শুক্রবার রাতে অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা দূতাবাসের দরজায় ককটেল মেরে পালিয়ে যায়। এ হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়েছে তেহরান।  খবর আনাদোলুর।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাঈদ খাতিবজাদে ওই নিন্দা জানানোর পাশাপাশি জার্মানিতে ইরানি কূটনৈতিক মিশনগুলোর নিরাপত্তা রক্ষায় আন্তরিক ও দায়িত্ববান হওয়ার জন্য বার্লিন সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

এ হামলার ঘটনায় কনস্যুলেটের প্রবেশদ্বারের ক্ষতি হলেও কেউ হতাহত হয়নি। হামলার প্রত্যক্ষদর্শী একজন গাড়িচালক জানিয়েছেন, তিনি দুই ব্যক্তিকে ঘটনাস্থল থেকে দ্রুতগতিতে পালিয়ে যেতে দেখেছেন।

এ ঘটনার জের ধরে জার্মানির পুলিশ রোমানিয়ার সন্দেহভাজন দুই নাগরিককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে। এ ঘটনার পর ইরানি কনস্যুলেটের আশপাশে মেট্রোরেল চলাচল বন্ধ করে দেওয়া হয়।

ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র এই হামলার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে এর হোতাদের উপযুক্ত শাস্তি দেওয়ার পাশাপাশি এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি রোধ করার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে বার্লিনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।


আরও খবর



সোনামণিদের মানসিক স্বাস্থ্যকে অবহেলা নয়

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৪ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১ | ৭৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

করোনাকালে বিশ্বজুড়ে একটি বিষয় অবহেলিত থেকে যাচ্ছে-তা হলো শিশু-কিশোরদের মাঝে মানসিক স্বাস্থ্যের অবনতি। এ ব্যাপারে এখনই যদি কোনো পদক্ষেপ না নেওয়া হয়, তাহলে শিশুরা এ জাতির জন্য ভবিষ্যতে অনেক বড় দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়াতে পারে।

মানসিক সুস্বাস্থ্য ছাড়া স্বাস্থ্য পূর্ণতা পায় না। ইউনিসেফের তথ্যমতে, সারা বিশ্বে প্রায় ২২০ কোটিরও বেশি হচ্ছে শিশু, যা মোট জনসংখ্যার প্রায় ২৮ শতাংশ। করোনা মহামারির কারণে স্কুল-কলেজ দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার ফলে তাদের মাঝে দুশ্চিন্তা, অস্থিরতা এবং বিষণ্নতাসহ নানা ধরনের মানসিক সমস্যা দেখা দিতে পারে।

শিশুদের নিয়ে কাজ করা আন্তর্জাতিক সংস্থা সেইভ দ্য চিলড্রেন করোনা মহামারি শুরু হওয়ার পর ৪৬টি দেশের ১৩২৭৭ জন শিশু এবং ৩১৪৮৩ জন শিশুর অভিভাবকের ওপর একটি গবেষণা পরিচালনা করে। গবেষণাতে শিশু-কিশোরদের মানসিক স্বাস্থ্যের ওপর আশঙ্কাজনক ফলাফল বের হয়ে আসে-

১. ৩২ শতাংশ শিশু নিজ ঘরে পারিবারিকভাবে নির্যাতনের শিকার হয়।

২. ৮৩ শতাংশ শিশুর মাঝে অবসাদ, বিষণ্নতা এবং বিভিন্ন নেতিবাচক প্রভাব তৈরি হয় এবং মাত্র ৪৬ শতাংশ পিতামাতা এবং অভিভাবক এ বিষয়গুলো খেয়াল করেন।

৩. যেসব শিশু তাদের বন্ধুদের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন অবস্থায় ছিল তাদের মাঝে অধিক দুশ্চিন্তা এবং অসুখী মনোভাব তৈরি হয়। যেসব শিশুর স্কুল ১-৪ সপ্তাহ বন্ধ ছিল, তাদের ৬২ শতাংশের মাঝে নেতিবাচক মনোভাব তৈরি হয়। পাশাপাশি যাদের স্কুল ১৭-১৯ সপ্তাহ বন্ধ ছিল, তাদের মাঝে এ হার ছিল আরও ভয়াবহ (৯৬ শতাংশ)। বাংলাদেশে ১ বছরেরও বেশি সময় ধরে স্কুল বন্ধ থাকায় মানসিক স্বাস্থ্যের ওপর ভয়াবহ প্রভাব পড়া স্বাভাবিক।

এর পাশাপাশি যেসব শিশুর অতিরিক্ত যত্নের প্রয়োজন তারা আরও বেশি মানসিক ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে। যেমন- ওসিডি, অটিজম, সেরেব্রাল পালসিসহ এ ধরনের অন্যান্য সমস্যায় ভুগতে থাকা শিশুরা এক দুর্বিষহ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। যদিও এ ব্যাপারে ইতোমধ্যে অনেক দেশ পদক্ষেপ গ্রহণ শুরু করেছে, তবু এখনো অনেক পদক্ষেপ নেওয়ার প্রয়োজন।

৪. টিকাদান কর্মসূচির মতো মানসিক সুস্বাস্থ্য কর্মসূচি চালু করা দরকার যেখানে সরকারি, বেসরকারি সব স্তরের অংশগ্রহণ এবং অবদান থাকবে।

৫. সব স্বাস্থ্যকর্মীদের অবশ্যই মানসিক স্বাস্থ্য নিয়ে প্রশিক্ষণ থাকা লাগবে।

৬. শিশুদের এবং তাদের পিতামাতাদের মানসিক স্বাস্থ্য উন্নতির লক্ষ্যে নিয়মিত সচেতনতামূলক কার্যক্রম এবং সভা করতে হবে।

৭. যে কোনো শিশু যে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে তাকে অতিসত্বর চিহ্নিত করে চিকিৎসকের কাছে পাঠাতে হবে।


আরও খবর

আজকের ভালো মন্দ

রবিবার ২৮ নভেম্বর ২০২১




সুদানে অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভে গুলিতে নিহত ১০

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ১৮ নভেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৬ নভেম্বর ২০২১ | ৬১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সুদানে অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভে গুলি চালিয়েছে নিরাপত্তা বাহিনী। এতে ১০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। আহত অর্ধশত। সামরিক অভ্যুত্থানের পর সেনাশাসনের বিরোধিতায় দেশটির রাজপথে বিক্ষোভে নামে হাজার হাজার মানুষ। এর ধারাবাহিকতায় বুধবার বিক্ষোভকারীরা রাজধানীর খার্তুম এবং বাহরি এবং ওমদুরমান শহরে মিছিল করে।

এসময় নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা গুলি এবং টিয়ার গ্যাস নিক্ষেপ করে। এর আগে শহরগুলোতে বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হয় মোবাইল সংযোগ। আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়, নিহতদের মধ্যে দুজন রয়েছেন খার্তুমে, সাতজন বাহরিতে এবং একজন ওমদুরমানে। এ বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে সুদানের নিরাপত্তা বাহিনীর পক্ষ থেকে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

তবে বেসামরিক-মিত্র সুদানিজ সেন্ট্রাল ডক্টরস কমিটি ফেসবুকে জানিয়েছে, খার্তুমে আজকের অভ্যুত্থান বিরোধী মিছিল চলাকালীন নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে তিনজন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছে।


আরও খবর