Logo
শিরোনাম

এবারের বিগবস চ্যাম্পিয়ন হলেন দিব্যা আগারওয়াল

প্রকাশিত:রবিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৯১জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

প্রথমবার ওটিটি প্ল্যাটফর্মে প্রচার শুরু হয়েছে ভারতীয় জনপ্রিয় রিয়ালিটি শো বিগবস। এবারের আসরে চ্যাম্পিয়ন হলেন দিব্যা আগারওয়াল।

প্রথম রানার আপ হয়েছেন নিশান্ত এবং দ্বিতীয় রানার আপ হয়েছেন শমিতা শেঠি। 

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবর, বিগবসের এ  রায় প্রথম টুইটারে ফাঁস করেন গওহর খান। দিব্যাকে অভিননন্দ জানিয়ে প্রাক্তন বিগ বস প্রতিযোগী গওহর লেখেন, অভিনন্দন দিব্যা! খুব ভালো খেলেছো, শমিতা, নিশান্ত। প্রতীক তোমার সঙ্গে দেখা হবে বিগবস ১৫-র মঞ্চে

জানা গেছে, বিগবস ওটিটির চ্যাম্পিয়নের ট্রফি ছাড়াও ২৫ লাখ টাকার পুরস্কার জিতেন দিব্যা। তাকে দেখা যাবে বিগবসের ১৫তম আসরের মঞ্চে। 

বিগবসের গ্র্যান্ড ফিনালেতে বিশেষ অতিথি ছিলেন রীতেশ-জেনেলিয়া। এবার ওটিটির পর্ব শেষ। শিগগিরই শুরু হবে বিগ বসের ১৫তম আসর।

বিগবসের ওটিটি রাউন্ডেই উপস্থাপকের ভূমিকায় থাকার কথা ছিল সালমান খানের। তবে শুটিংয়ের ব্যস্ততায় এখনো উপস্থাপনায় আসেননি সালমান। এসব পর্ব উপস্থাপনা করছেন বলিউড নির্মাতা ও উপস্থাপক করন জোহর। তবে শিগগিরই মঞ্চে ফিরবেন বলিউড ভাইজান।

বর্তমানে স্পেনে অবস্থান করছেন সালমান৷ সেখানে তিনি টাইগার সিরিজের তৃতীয় সিনেমার শুটিংয়ে ব্যস্ত রয়েছেন। সিনেমাটিতে তার সঙ্গে জুটি বেধেছেন ক্যাটরিনা কাইফ। এর আগে রাশিয়া ও মুম্বাইয়ের বেশ কিছু লোকেশনে সিনেমাটির দৃশ্যধারণ করা হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: দিব্যা আগরওয়াল

আরও খবর

অবশেষে জামিন পেলেন শাহরুখপুত্র

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১

আজ ফের হাইকোর্টে আরিয়ানের জামিন শুনানি

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১




গণতন্ত্রে বিশ্বাসী হলে বিএনপি অবশ্যই নির্বাচনে অংশ নেবে: স্থানীয় সরকার মন্ত্রী

প্রকাশিত:শনিবার ০৯ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৯৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

গণতন্ত্রে বিশ্বাস থাকলে বিএনপি স্থানীয় সরকারসহ সকল নির্বাচনে অবশ্যই অংশগ্রহণ করবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মোঃ তাজুল ইসলাম বলেছেন

তিনি আজ কুমিল্লায় বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমির (বার্ড) ৫৪তম বার্ষিক পরিকল্পনা সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান।

মন্ত্রী বলেন, গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাপনার প্রতি যে রাজনৈতিক দলের বিশ্বাস ও অঙ্গীকার রয়েছে। সেই দলের নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করার কোনো সুযোগ নেই। আর যারা গণতন্ত্রে বিশ্বাসী নয়, স্বৈরতন্ত্রের জন্য অপেক্ষা করে তারা নির্বাচনে অংশ না নিয়ে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টির ষড়যন্ত্র করবে‌ এটায় স্বাভাবিক।

স্থানীয় সরকার নির্বাচনে বিএনপি অংশ নেবে কি-না এমন প্রশ্নের উত্তরে মোঃ তাজুল ইসলাম বলেন, প্রত্যেকটি রাজনৈতিক দলের উচিত জনগণের আশা-আকাঙ্ক্ষা প্রতিফলন ঘটানো। বিএনপি তাদের দলের ভালোমন্দ বোঝে। আমি মনে করি, দেশ ও মানুষের স্বার্থে দলটির নির্বাচনে অংশগ্রহণ উচিত।

এর আগে সম্মেলনে দেওয়া প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী বলেন, স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠান সমুহকে শক্তিশালী এবং জনপ্রতিনিধিদের মর্যাদা বৃদ্ধি করে জবাবদিহিতার আওতায় আনার লক্ষ্যে কাজ চলছে। জনপ্রতিনিধিদের অবজ্ঞা করার কোন সুযোগ নেই। কারণ বিপদে-আপদে সবার আগে মানুষের পাশে দাঁড়ায় এই জনপ্রতিনিধিরাই।

শেখ হাসিনা সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড তুলে ধরে তিনি জানান, পদ্মা সেতুসহ সকল মেগা প্রকল্প বাস্তবায়িত হলে দেশে অর্থনীতির নতুন সম্ভাবনা তৈরি হবে। শেখ হাসিনা ২০৪১ সালের যে লক্ষ্যমাত্রা ঠিক করেছেন তা অর্জন করা সম্ভব হবে। এজন্য

সব শ্রেণি পেশার মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হয় একত্রে কাজ করতে হবে।

মোঃ তাজুল ইসলাম বলেন, আমাদের কর্মকান্ড শুধু মিটিং আর কাগজে-কলমেই সীমাবদ্ধ রাখা যাবে না। নাগরিক সেবা দ্রুত সময় পৌঁছে দিতে হবে। মানুষ আমাদের মিটিং আর ফাইল ওয়ার্কের দিকে তাকিয়ে থাকে না। তারা চায় সেবা। আর এটি আমাদের নিশ্চিত করতে হবে।

বার্ডকে একটি সক্ষম প্রতিষ্ঠান উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, যুগের সাথে তাল মিলিয়ে এই প্রতিষ্ঠানকে তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার ও প্রসারে ভূমিকা রাখতে হবে। যে প্রকল্পটি গ্রহণ করা হোক না কেন সেটি অবশ্যই প্রডাক্টিভ হতে হবে এবং কোয়ালিটি বজায় রেখে সময়ের মধ্যে শেষ করতে হবে।

অপরিকল্পিতভাবে আর যেখানে সেখানে কোনো অবকাঠামো নির্মাণ করা যাবে না উল্লেখ করে তিনি জানান নগরের ন্যায় পরিকল্পিতভাবে গ্রামগুলোও গড়ে তুলতে হবে। এলক্ষ্যে বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমিকে কাজ করার আহ্বান জানান মন্ত্রী।

পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় বিভাগের সচিব মোঃ মশিউর রহমান এনডিসি'র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে গেস্ট অব অনার হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কুমিল্লা জেলার জেলা প্রশাসক মোঃ কামরুল ইসলাম এবং পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ পিপিএম (বার)।



আরও খবর



এবার মায়ের চরিত্রে পরীমণি

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৯৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সিনেমার পর্দা হোক কিংবা সোশ্যাল মিডিয়া, সবখানেই তাকে ঝলমলে-আকর্ষণীয় রূপে দেখা যায়। তবে স্বপ্নজাল সিনেমায় সাদামাটা চরিত্রে অভিনয় করে প্রশংসিত হয়েছেন এ নায়িকা পরীমণি।

এবার পরীমণি সাহসী এক সিদ্ধান্ত নিলেন। একটি সিনেমায় মায়ের চরিত্রে অভিনয় করবেন তিনি। নায়িকা হয়েও মায়ের রূপে অভিনয় করা, শুনতে অনেকটা অবিশ্বাস লাগতে পারে। তবে টিভি পর্দার সফল নির্মাতা অরণ্য আনোয়ারের প্রথম সিনেমাতে এই রূপেই দেখা যাবে পরীকে।

দীর্ঘ দিন দশকের নির্মাণ ক্যারিয়ারে প্রথমবারের মতো সিনেমা বানাচ্ছেন অরণ্য আনোয়ার। এর নাম দিয়েছেন মা। নির্মিত হবে সত্য ঘটনা অবলম্বনে। ১৯৭১ সালে মৃত ঘোষিত ৭ মাস বয়সী এক সন্তানকে নিয়ে তার অসহায় মায়ের আবেগের ঘটনা দেখা যাবে সিনেমাটিতে। এতে সেই অসহায় মায়ের চরিত্রে থাকছেন পরীমণি।

বুধবার (২৯ সেপ্টেম্বর) রাতে পরীমণি লিখিতভাবে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন এই সিনেমায়। তবে এ বছর তার কোনো শিডিউল ফাঁকা নেই। তাই আগামী বছরের জানুয়ারিতে সিনেমাটির কাজ শুরু হবে বলে জানা গেছে।

নতুন এই সিনেমায় যুক্ত হয়ে উচ্ছ্বসিত পরীমণি বলেন, এমন চরিত্রে আমি আর কাজ করিনি। আমার তো মা নেই। এবার সেই মায়ের চরিত্রেই অভিনয় করবো। আশা করছি, নিজেকে ভাঙতে পারবো।

অন্যদিকে নির্মাতা অরণ্য আনোয়ার জানালেন, মায়ের চরিত্রে অভিনয়ের জন্য পরীমণি রাজি হবেন কিনা, সেটা নিয়ে দ্বিধায় ছিলেন। তবে গল্প শুনে পরী মুগ্ধ হয়েছেন এবং সানন্দে রাজি হয়েছেন।

মা সিনেমাটি যৌথভাবে প্রযোজনা করছেন প্রকৌশলী পুলক কান্তি বড়ুয়া ও অরণ্য আনোয়ার। পরীমণি ছাড়া আর কে কে থাকছেন এই সিনেমায়, সেটা শিগগিরই প্রকাশ্যে আনা হবে বলে জানিয়েছেন নির্মাতা।

নিউজ ট্যাগ: পরীমণি

আরও খবর

অবশেষে জামিন পেলেন শাহরুখপুত্র

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১

আজ ফের হাইকোর্টে আরিয়ানের জামিন শুনানি

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১




পাটুরিয়ায় ফেরি দুর্ঘটনা: দ্বিতীয় দিনে উদ্ধার অভিযান চলছে

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ১৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মানিকগঞ্জের পাটুরিয়াঘাটে ডুবে যাওয়া ফেরি ও যান উদ্ধারের কাজ আজ বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় দিনের মতো চলছে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে আবারও উদ্ধার অভিযান শুরু করে ফায়ার সার্ভিস, কোস্টগার্ড ও নৌবাহিনীর কর্মীরা।

এর আগে বুধবার রাত সোয়া ৮টায় অভিযান স্থগিতের আগ পর্যন্ত ডুবে যাওয়া মোট ১০টি ট্রাক ও দুটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন বিআইডব্লিউটিএ এর সদস্য (পরিকল্পনা ও পরিচালনা) দেলোয়ার হোসেন। এর আগে বুধবার সকালে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়ায় ১৪টি ট্রাক ও ১৫টি মোটরসাইকেল নিয়ে রো রো ফেরি আমানত শাহ ডুবে যায়।

দৌলতদিয়া থেকে আসার পর পাটুরিয়া ৫নং ঘাটের কাছে এ ঘটনা ঘটে। তবে এতে কোনো যাত্রী বা পরিবহণ শ্রমিক নিখোঁজের খবর পাওয়া যায়নি। ঘটনার পরপরই ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি ইউনিট উদ্ধার কাজ শুরু করে।

এ ঘটনায় নৌপরিবহণ মন্ত্রণালয় অতিরিক্ত সচিব (উন্নয়ন) সুলতান আব্দুল হামিদকে প্রধান করে সাত সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। এছাড়া মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে চার সদস্যের একটি পৃথক তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। জেলা প্রশাসক আব্দুল লতিফ জানান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসককে প্রধান করে এ কমিটি গঠন করা হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ফেরির যাত্রী আবদুর রাজ্জাক জানান, ডুবে যাওয়া ফেরি আমানত শাহ-এ পানি উঠতে শুরু করে মাঝ নদী থেকেই। রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ঘাট থেকে ফেরিটি যখন মাঝ নদীতে পৌঁছায়, তখনই সামনের দিকে ডান পাশে থাকা একটি ছিদ্র দিয়ে পানি উঠতে শুরু করে। মুহূর্তের মধ্যে ফেরির ভেতর পানি জমে যায়। এ সময় পণ্যবাহী ট্রাক, কাভার্ড ভ্যানসহ ১৭টি গাড়ি ও বেশ কয়েকটি মোটরসাইকেল ছিল ফেরিতে।

উল্লেখ্য, ডুবে যাওয়া ফেরি আমানত শাহ ১৯৭৯ সালে আরিচা ফেরি সেক্টরে যোগ হয়। ফেরির মাস্টার শরিফুল ইসলাম লিটন জানান, ৪ মাস আগে ফেরিটি নারায়ণগঞ্জ থেকে ভারি মেরামত শেষে পাটুরিয়া সার্ভিসে আসে। তবে সম্প্রতি ফেরিটির তলদেশে একটি ফুটো হয়। সেটি মেরামত করার কথা ছিল। সেই ফুটো দিয়েই ফেরির ভেতরে পানি প্রবেশ করে বলে দাবি ট্রাক চালকদের।

বিআইডব্লিউটিসির এজিএম (মেরিন) আব্দুস সাত্তার জানান, ফেরিটি দীর্ঘদিন ধরে ফিটনেসবিহীনভাবে চলছিল। এ বিষয়ে নবায়নের জন্য আবেদন করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।



আরও খবর

বেগমগঞ্জে আ’লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১




রাজধানীতে ২৪ কেজি গাঁজাসহ আটক ৩

প্রকাশিত:বুধবার ০৬ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ | ৮৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

রাজধানীর বিমানবন্দর থানা এলাকা অভিযান পরিচালনা করে ২৪ কেজি গাঁজাসহ তিন মাদককারবারিকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা মিরপুর বিভাগ। গ্রেফতার হলেন- বাদশা পাঠান ওরফে রয়েল পাঠান, সালমা আক্তার ওরফে আকলিমা ও তানজিনা আক্তার লিজা।

মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) সন্ধ্যায় বিমানবন্দর ট্রাফিক পুলিশ বক্সের সামনে থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গোয়েন্দা মিরপুর জোনাল টিমের অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার মো. সাইফুল ইসলাম জানান, রাজধানীতে মাদকবিরোধী অভিযান পরিচালনাকালে সংবাদ আসে, বিমানবন্দরের ট্রাফিক পুলিশ বক্সের সামনে কতিপয় মাদক ব্যবসায়ী গাঁজা বিক্রির জন্য অবস্থান করছে।

এমন তথ্যের ভিত্তিতে ওই এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে ২৪ কেজি গাঁজাসহ গ্রেফতার করা হয় তিন কারবারিকে।

তিনি বলেন, তারা দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে গাঁজা সংগ্রহ করে ঢাকা শহরে বিক্রি করেন বলে প্রাথমিকভাবে জানিয়েছেন। বিমানবন্দর থানায় দায়ের করা মামলায় বুধবার তাদের আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

নিউজ ট্যাগ: গাঁজাসহ আটক

আরও খবর

মাদকবিরোধী অভিযানে গ্রেপ্তার ৮৯

বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১




ভারতে আটক নারী পাচারকারী যশোরের মনির

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০৭ অক্টোবর ২০২১ | হালনাগাদ:মঙ্গলবার ২৬ অক্টোবর ২০২১ | ১০৩জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

ভারতের গুজরাটের সুরাটে মনিরুল ইসলাম মনির নামে এক বাংলাদেশি গ্রেফতার হয়েছেন বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে ভয়েস অব আমেরিকা। এই মনিরের বিরুদ্ধে ২০০ নারীকে পাচারের অভিযোগ রয়েছে বলেও উল্লেখ করা হয়েছে ওই প্রতিবেদনে। 

মনিরুল ইসলাম মনিরের বাড়ি বাংলাদেশের যশোরে বলে উল্লেখ করা হয়েছে ওই প্রতিবেদনে। এতে আরও বলা হয়েছে ভারতের মধ্যপ্রদেশের ইন্দোর পুলিশের বিশেষ তদন্ত শাখার সদস্যরা তাকে গ্রেফতার করে। আটকের পর বুধবার তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে চাঞ্চল্যকর সব তথ্য পাচ্ছে পুলিশ।

মনির স্বীকার করেছেন দরিদ্র মেয়েদের বিয়ে করে পাচার করাই ছিল তার পেশা। মনির বিয়ে করেছেন ৭৫টি। নিজের বিয়ে করা স্ত্রীদের অবৈধভাবে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে নিয়ে যেতেন কলকাতায়। তারপর বিক্রি করে দিতেন ভারতের বিভিন্ন পতিতালয়ে।

ভারতীয় পুলিশ জানতে পারে বাংলাদেশের নারী পাচারের সঙ্গে বিশাল একটি চক্র জড়িত রয়েছে। মনির তাদের একজন। পুলিশ গত ১১ মাসে ভারতের বিভিন্ন এলাকা থেকে ১১ জন বাংলাদেশি নারীকে উদ্ধার করেছে। তাদের কাছ থেকে জানতে পেরেছে মনিরের নাম। এরপর মধ্য প্রদেশ পুলিশ মনিরের খোঁজে ১০ হাজার রুপি পুরস্কার ঘোষণা করে। শেষ পর্যন্ত মনির আটক হলো।

মনির পুলিশকে বলেছে, দালালের মাধ্যমে বাংলাদেশ থেকে নারীদের ভারতে নেওয়া হতো। পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদে প্রথম তাদের রাখা হতো। এরপর তাদের পাঠিয়ে দেওয়া হতো কলকাতা, ভোপাল, ইন্দোরসহ ভারতের বিভিন্ন স্থানে।

নিউজ ট্যাগ: নারী পাচারকারী

আরও খবর