Logo
শিরোনাম

ঈদের আগে রেমিট্যান্স এলো ১০ হাজার ৭০০ কোটি টাকা

প্রকাশিত:সোমবার ১৯ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৬৯জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

করোনা মহামারির মধ্যেও রেমিট্যান্স পাঠানো অব্যাহত রেখেছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। পবিত্র ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে চলতি জুলাই মাসের প্রথম ১৫ দিনে ১২৬ কোটি ৪২ লাখ মার্কিন ডলার (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ১০ হাজার ৭০০ কোটি টাকা) দেশে পাঠিয়েছেন রেমিট্যান্স যোদ্ধারা।

ঈদের আগে রেমিট্যান্স এলো ১০ হাজার ৭০০ কোটি টাকা। সোমবার (১৯ জুলাই) বাংলাদেশ ব্যাংকের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হালনাগাদ প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে।এদিকে সংশ্লিষ্টরা বলছেন রেমিট্যান্সের এ প্রবাহ অব্যাহত থাকলে মাস শেষে রেকর্ড পরিমাণ প্রবাসী আয় অর্জন করবে বাংলাদেশ।

ব্যাংক কর্মকর্তারা বলছেন, ঈদুল আজহার কারণে রেমিট্যান্স প্রবাহ বাড়ছে। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কর্মরত প্রবাসী বাংলাদেশিরা দেশে বসবাসরত তাদের পরিবার-পরিজনের কাছে বাড়তি অর্থ পাঠিয়েছেন। এছাড়া সরকারের নগদ ২ শতাংশ প্রণোদনা ও করোনায় বিদেশ ভ্রমণ নিয়ন্ত্রণের কারণে অপ্রাতিষ্ঠানিক খাত থেকে বৈধ চ্যানেলে রেমিট্যান্স বেশি আসছে। পাশাপাশি মহামারিতে এক ধরনের অনিশ্চয়তার কারণে প্রবাসীরা জমানো টাকা দেশে পাঠিয়ে দিচ্ছেন। সব মিলিয়ে রেমিট্যান্স প্রবাহ বাড়ছে।

করোনাভাইরাসের প্রকোপ শুরু হওয়ার পর দেশে রেমিট্যান্স প্রবাহ ঊর্ধ্বমুখী হয়। অবশ্য গত মার্চে তা অনেকটাই কমে আসে। তবে চলতি এপ্রিল মাসে আবারও এই প্রবাহ বেড়েছে। গত মার্চ মাসে দেশে রেমিট্যান্স এসেছে ১৯১ কোটি ৬৫ লাখ ডলার। এর আগে চলতি বছরের জানুয়ারিতে ১৯৬ কোটি ও ফেব্রুয়ারিতে ১৭৮ কোটি ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রতিবেদন বলছে, গত জুন মাসে প্রবাসী বাংলাদেশিরা ১৯৪ কোটি মার্কিন ডলার রেমিট্যান্স দেশে পাঠিয়েছেন। ফলে সদ্য সমাপ্ত ২০২০-২১ অর্থবছরে দেশে রেমিট্যান্স আহরণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ৪৭৭ কোটি  ৭৭ লাখ ডলার। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় দুই লাখ ১০ হাজার ৬১০ কোটি টাকার বেশি। এটি আগের অর্থবছরের চেয়ে ৩৬ দশমিক ১০ শতাংশ বেশি। এর আগে কোনো অর্থবছরে এত পরিমাণ রেমিট্যান্স আসেনি বাংলাদেশে।

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৯-২০ অর্থবছরে এক হাজার ৮২০ কোটি ডলার বা ১৮ দশমিক ২ বিলিয়ন ডলার রেমিট্যান্স পাঠিয়েছিলেন প্রবাসীরা। অর্থবছর হিসাবে ওই অংক ছিল এর আগে বাংলাদেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ রেমিট্যান্স আহরণ। তারও আগে ২০১৮-১৯ অর্থবছরে দেশে রেমিট্যান্স আহরণের রেকর্ড হয়। ওই সময় এক হাজার ৬৪২ কোটি ডলার রেমিট্যান্স দেশে আসে।

এদিকে রেমিট্যান্সের প্রবাহ চাঙ্গা থাকায় ইতিবাচক অবস্থায় রয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংকের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ। জুন মাস শেষে বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৪৬ দশমিক ৪২ বিলিয়ন ডলার বা প্রায় চার হাজার ৬৪২ কোটি ডলার; প্রতি মাসে ৪ বিলিয়ন ডলার আমদানি ব্যয় হিসেবে মজুদ এ বৈদেশিক মুদ্রা দিয়ে সাড়ে ১১ মাসের আমদানি ব্যয় মেটানো সম্ভব।

২০১৯ সালের ১ জুলাই থেকে প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সে ২ শতাংশ হারে প্রণোদনা দিচ্ছে সরকার। অর্থাৎ কোনো প্রবাসী ১০০ টাকা দেশে পাঠালে তার সঙ্গে আরও ২ টাকা যোগ করে মোট ১০২ টাকা পাচ্ছেন সুবিধাভোগী। এছাড়া ঈদ ও উৎসবে বিভিন্ন ব্যাংক ও মোবাইল ব্যাংকিংয়ের সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান সরকারের প্রণোদনার সঙ্গে বাড়তি এক শতাংশ দেওয়ার অফার দিচ্ছে। এতে করে বৈধ চ্যানেলে রেমিট্যান্স পাঠাতে উৎসাহী হচ্ছেন প্রবাসীরা।


আরও খবর

ব্যাংকে লেনদেন দেড়টা পর্যন্ত

রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১




মগবাজারে বিস্ফোরণে আরও একজনের মৃত্যু

প্রকাশিত:বৃহস্পতিবার ০১ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ জুলাই ২০২১ | ৬৭জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

মগবাজারে বিস্ফোরণের ঘটনায় রাসেল (২৩) নামের আরও একজন মারা গেছেন। শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তাঁর মৃত্যু হয়।

আজ বৃহস্পতিবার বেলা সোয়া  ২টার দিকে ইনস্টিটিউটের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) তাঁর মৃত্যু হয়। মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ইনস্টিটিউটের সমন্বয়কারী ডা. সামন্ত লাল সেন। এ নিয়ে এই ঘটনায় মৃত্যু বেড়ে ১১ জনে দাঁড়িয়েছে।

ডা. সামন্ত লাল সেন বলেন, রাসেলের শরীরের ৯০ শতাংশ দগ্ধ ও শ্বাসনালি পুড়ে গিয়েছিল। তাঁকে প্রথমে এইচডিইউতে রাখা হয়েছে। অবস্থার অবনতি হওয়ায় গতকাল তাঁকে আইসিইউতে নেওয়া হয়। তাঁর শরীরে কাটাছেঁড়ার ক্ষতও ছিল। চিকিৎসাধীন অবস্থায় আজ দুপুরে তাঁর মৃত্যু হলো।

ডা. সামন্ত লাল আরও বলেন, শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে কালু নামে একজন এবং ঢাকা মেডিকেলে আরও তিনজন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। 


আরও খবর

মতিঝিলে গাড়ির গ্যারেজে আগুন

রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১




এসএসসি-এইচএসএসির বিষয়ে শিগগিরই জানাব: শিক্ষামন্ত্রী

প্রকাশিত:বুধবার ৩০ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শুক্রবার ২৩ জুলাই ২০২১ | ৮৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image
বিশ্বে শিক্ষা নিয়ে কোনো সভা হলে বাংলাদেশের দ্রুততম সময়ের মধ্যে অনলাইনে এবং টেলিভিশনের মাধ্যমে পাঠদানের বিষয়টির প্রশংসা করা হয়

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, দেশে করোনার উচ্চ সংক্রমণের সময়কালে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার দাবি একেবারে অবান্তর। এটা এই পরিস্থিতিতে সম্ভব না। তবে শিগগিরই এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার বিষয়ে সিদ্ধান্ত জানানো হবে।

কী পদ্ধতিতে আমরা করব সবকিছুই জানাব। তবে, শিক্ষার্থী-অভিভাবকসহ সবাইকে বলব উদ্বিগ্ন হবেন না। বৈশ্বিক সংকট চলছে। এই সংকট মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে সকল ক্ষেত্রে সেভাবে সিদ্ধান্ত নিচ্ছি, যোগ করেন দীপু মনি। 

আজ বুধবার সংসদে বাজেট পাসের প্রক্রিয়ার সময় বিরোধী দলের সংসদ সদস্যদের বিভিন্ন ছাঁটাই প্রস্তাবের জবাব দিতে গিয়ে শিক্ষামন্ত্রী এসব কথা বলেন।

দীপু মনি আরও বলেন, বিশ্বের বহু দেশ, এমন কী উন্নত বিশ্বের দেশগুলোও পাবলিক পরীক্ষা বাতিল করেছে। কোনো কোনো ক্ষেত্রে প্রেডিকটেড গ্রেড দিচ্ছে। আমরা সেখানে ২০২০ সালের এসএসসি পরীক্ষা নিয়ে ফেলেছিলাম। এইচএসসি পরীক্ষা শুরুর দুই-তিনদিন আগে বন্ধ করতে বাধ্য হয়েছিলাম। পরে আমরা জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষার ফলের ভিত্তিতে তার ফলাফল দিয়েছিলাম। আমরা যেভাবে বিচার-বিশ্লেষণ ও টালি করে ফলাফল দিয়েছি দুই একটি ব্যতিক্রম ছাড়া পরীক্ষা হলে শিক্ষার্থীদের ফলাফল এরকমই হতো। কাজেই কেউ ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, আমরা যত দ্রুত সক্ষম হয়েছি, বিশ্বের আর কোথাও এত দ্রুত শুরু করেনি। যে কারণে বিশ্বে শিক্ষা নিয়ে কোনো সভা হলে বাংলাদেশের দ্রুততম সময়ের মধ্যে অনলাইনে এবং টেলিভিশনের মাধ্যমে পাঠদানের বিষয়টির প্রশংসা করা হয়।

শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবক সবার মধ্যে অ্যাসাইনমেন্টের বিষয়ে সন্তুষ্টি রয়েছে বলে শিক্ষামন্ত্রী মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, এই পদ্ধতি ভালো বলে সবাই গ্রহণ করেছেন। বিশেষজ্ঞরাও এটার পক্ষে মত দিয়েছেন। আমরা বিশেষজ্ঞদের সম্পৃক্ত করে বিকল্প যেকোনো পদ্ধতি গ্রহণ করছি। সিদ্ধান্ত গ্রহণ করছি।

ডা. দীপু মনি বলেন, অধিকাংশ ক্ষেত্রে আমাকে বাইরে যেতে হয়। যখনই শিক্ষার্থীদের অভিভাবকের সঙ্গে দেখা হয় তখনই আমি তাদের জিজ্ঞাসা করি, অনেকে বলছেন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার জন্য, আপনারা কী বলেন? তাঁরা আমাকে বলেন, এখন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিলেও আমাদের ছেলে-মেয়েদের পাঠিয়ে বিপদে ফেলতে পারি না। ক্লাসের মধ্যে সংক্রমণ ছাড়াবে। বিজ্ঞান বলছে, শিশুদের মধ্যে ছাড়ানোর ঝুঁকি বেশি। একজন শিক্ষার্থী সংক্রমিত হলে বয়সের কারণে তার হয়তো কোনো উপসর্গ নাও থাকতে পারে, কিন্তু তার থেকে পরিবারের মা, বাবাসহ অন্য সদস্যদের মধ্যে ছড়িয়ে যেতে পারবে।

মন্ত্রী বলেন, শিক্ষার্থীদের শিক্ষাজীবন সারা বিশ্বেই ব্যত্যয় ঘটেছে। আমাদের এখানেও কিছুটা ঘটেছে। কিন্তু তাদের যাতে দীর্ঘমেয়াদে কোনো ক্ষতি না হয়ে যায় তার জন্য সর্বোচ্চ নজর রাখছি। আমরা কভিড-১৯ সংক্রান্ত জাতীয় পরামর্শক কমিটির পরামর্শ গ্রহণ করেই আমরা সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে থাকি বলে জানান তিনি।


আরও খবর



মদ খেয়ে বেপরোয়া ড্রাইভিং, গুরুতর আহত অভিনেত্রী

প্রকাশিত:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:রবিবার ২৫ জুলাই ২০২১ | ৫০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন তামিল অভিনেত্রী যশিকা আনন্দ। তবে তার এক বন্ধু ঘটনাস্থলেই নিহত হয়েছেন। শনিবার মধ্যরাতে তামিলনাডুর চেঙ্গালপেটের ইসিআর রাজ্য সড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। খবর ইন্ডিয়া টুডের।

যশিকা তার তিন বন্ধুর সঙ্গে ঘুরতে বেরিয়েছিলেন। রাত ১টার দিকে দুর্ঘটনাটি ঘটে। স্থানীয়রা আহতদের দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যান। তবে ঘটনাস্থলে মারা যান যশিকার বন্ধু ভাল্লিচেত্তি ভবানী। গাড়িটি দুমড়ে মুচড়ে যাওয়ায় তাকে বের করতে পারেননি স্থানীয়রা। ভবানী আমেরিকায় একটি সফটওয়্যার কোম্পানিতে চাকরি করতেন।

পুলিশ জানিয়েছে, গাড়িতে মোট তিনজন আরোহী ছিলেন। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, তারা মধ্যপ অবস্থায় গাড়ি চালাচ্ছিলেন। তবে যশিকা ও তার আরেক বন্ধু সুস্থ হলে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।

প্রসঙ্গত যশিকা আনন্দ মূলত তামিল ও তেলেগু সিনেমায় কাজ করেন। ২০১৮ সালে তিনি তামিল বিগ বস প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে আলোচিত হন।


আরও খবর

সংসার ভাঙলো মিয়া খলিফার

বৃহস্পতিবার ২২ জুলাই ২০২১




দেশে এবার ভয়ঙ্কর নতুন মাদক ডিএমটি

প্রকাশিত:রবিবার ২৭ জুন ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | ১১০জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

এলএসডির পরে এবার দেশে প্রথমবারের মতো উদ্ধার হয়েছে ডায়েমেথিল ট্রাইপ্টেমিন বা ডিএমটি নামক ভয়ঙ্কর এক মাদক। দীর্ঘদিন গোয়েন্দা নজরদারি ও তদন্তের ভিত্তিতে রাজধানীর তেজগাঁও এলাকা থেকে নিষিদ্ধ মাদক এলএসডি ও ডিএমটিসহ চার মাদক কারবারিকে গ্রেফতারের পর এ তথ্য জানিয়েছে পুলিশের এলিট ফোর্স র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-২)।

গ্রেফতাররা হলেন- সৈয়দ মঈন উদ্দিন আহমেদ ওরফে শাদাব (২৯), মো. আব্রাহাম জোনায়েদ তাহের (২৫), স্বপ্নীল হোসেন (২২) ও সিমিয়ন খন্দকার (২৩)।

এ সময় তাদের কাছ থেকে ৪০ ব্লট আলোচিত মাদক এলএসডি, নতুন মাদক ডিএমটি ৬০০ মিলিগ্রাম, আমেরিকান ক্যানাবিজ ৬২ গ্রাম এবং মাদক সেবনের বিভিন্ন সরঞ্জামাদি জাব্দ করা হয়।

রোববার (২৭ জুন) দুপুরে রাজধানীর কারওয়ান বাজার র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান র‌্যাব-২ এর অধিনায়ক (সিও) লেফটেন্যান্ট কর্নেল খন্দকার সাইফুল আলম।

তিনি বলেন, বিদেশে পড়ালেখা করার জন্য অবস্থানকালেই সম্ভ্রান্ত পরিবারের সন্তানরা জড়িয়ে পড়ছে ভয়ংকর সব নতুন মাদকে। কেউ থাইল্যান্ডে গিয়ে নতুন মাদক ডিএমটিতে আসক্ত হচ্ছে, কেউ আবার লন্ডনে গিয়ে এলএসডি সেবনে আসক্ত হচ্ছে। পড়াশুনা শেষে দেশে ফিরলেও আসক্তি থেকে পোস্টাল সার্ভিসের মাধ্যমে দেশে আমদানি করছে এলএসডি ও ডিএমটি।

এ বিষয়ে গোয়েন্দা নজরদারি ও ছায়া তদন্তের ভিত্তিতে শনিবার (২৬ জুন) রাত সাড়ে ১১টার দিকে র‌্যাব সদর দফতরের গোয়েন্দা শাখা ও র‌্যাব-২ এর একটি বিশেষ আভিযানিক দল রাজধানীর তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানাধীন লাভ রোড এলাকা হতে ওই চার যুবককে করে।

তিনি বলেন, এলএসডি সম্পর্কে ইতোমধ্যে আমরা জেনেছি। এটি মূলত বিদেশ থেকে পোস্টাল সার্ভিসের মাধ্যমে বাংলাদেশে আনা হয় এবং উচ্চমূল্য হওয়ায় মূলত এর ব্যবহারকারী উচ্চবিত্তের মধ্যেই সীমাবদ্ধ।

র‌্যাব-২ এর অধিনায়ক আরও বলেন, গ্রেফতাকৃতররা নিজেরাই মাদক সেবন করে, বিক্রি করে এবং নতুন নতুন মাদক গ্রহীতা তৈরি করে, যা সমাজের জন্য খুবই আশঙ্কাজনক। এসব মাদকের উৎস এবং এর সরবরাহকারীদের চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে র‌্যাবের অভিযান অব্যাহত থাকবে।


আরও খবর



গত ২৪ ঘন্টায় ১৩ জেলায় শতাধিক মৃত্যু

প্রকাশিত:শুক্রবার ১৬ জুলাই ২০২১ | হালনাগাদ:শনিবার ২৪ জুলাই ২০২১ | ৫৪জন দেখেছেন
নিউজ পোস্ট ডেস্ক

Image

সবশেষ পাওয়া তথ্যমতে সারাদেশের ১৩ জেলায় একদিনে করোনা ও উপসর্গ নিয়ে ১২৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। গেল কয়েকদিন ধরে প্রতিদিন দুই শতাধিক করে করোনায় মৃত্যু হচ্ছে। বিষয়টি নিয়ে সরকার ও স্বাস্থ্য অধিদপ্তর মানুষকে সচেতন করে আসছে। তবুও জনগণের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার বালাই নেই।

রাজশাহী:

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনায় ও উপসর্গ নিয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ৫ জন করোনায়, ২ জন নেগেটিভ এবং বাকি ৮ জন উপসর্গ নিয়ে মরা গেছেন। হাসপাতালের করোনা ইউনিটের জন্য নির্ধারিত ৪৫৪টি শ‌য্যার বিপরীতে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন ৪৯৮ জন রোগী।

পঞ্চগড়:

পঞ্চগড়ে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। নতুন করে আরও ৬৩ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে।

কুষ্টিয়া:

গত ২৪ ঘণ্টায় কুষ্টিয়া করোনায় আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়ে ও ৩ জন উপর্সগ নিয়ে মারা গেছে। এ ছাড়া একই সময়ে ৭৩৫টি নমুনা পরীক্ষায় ২০৩ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তের হার ২৭.৬১।

খুলনা:

খুলনার চারটি করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ১৩ জন।

সাতক্ষীরা:

গত ২৪ ঘণ্টায় সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা উপসর্গ নিয়ে ৩ জনের মৃত্যু।

চুয়াডাঙ্গা:

চুয়াডাঙ্গায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে।

ঝিনাইদহ:

ঝিনাইদহে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নিয়ে ৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া একই সময়ে নতুন আরও ২৩৬ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছে।

ময়মনসিংহ:

ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ৯ জন করোনা শনাক্ত হয়ে এবং বাকি ৪ জন উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

কি‌শোরগ‌ঞ্জ:

কিশোরগঞ্জে আশঙ্কাজনক হা‌রে বাড়‌ছে ক‌রোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যু সংখ্যা। গত ২৪ ঘণ্টায় জেলায় ক‌রোনা আক্রান্ত ও উপসর্গ নি‌য়ে ৯ জ‌নের মৃত্যু হ‌য়ে‌ছে। এ নি‌য়ে কিশোরগঞ্জে করোনা ও উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়া‌ল ১১৯ জ‌নে। অপরদিকে, একই সময়ে শনাক্ত হয়েছেন ১১৯ জন।

বরিশাল:

বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার উপসর্গ নিয়ে ৭ জন মারা গেছেন। এদের সবাই হাসপাতলের করোনা ইউনিটের আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি ছিলেন। এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় বরিশাল জেলায় মোট করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১৮৬ জন। এর মধ্যে ৬৮ জনই সিটি করপোরেশন এলাকার বাসিন্দা।

চট্টগ্রাম:

চট্টগ্রাম জেলায় গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৮১৯ জনে। একই সময়ে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৮০২ জনের।

টাঙ্গাইল:

টাঙ্গাইলে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত হয়ে ৮ জন এবং উপসর্গ নিয়ে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া ৫৬৪টি নমুনা পরীক্ষা করে নতুন আক্রান্ত ১৮৭ জন আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্তের হার ৩৩.১৫ শতাংশ।

ফরিদপুর:

ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে।


আরও খবর